নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    There is currently 1 user online.

    • নুর নবী দুলাল

    নতুন যাত্রী

    • আরিফ হাসান
    • সত্যন্মোচক
    • আহসান হাবীব তছলিম
    • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
    • অনিরুদ্ধ আলম
    • মন্জুরুল
    • ইমরানkhan
    • মোঃ মনিরুজ্জামান
    • আশরাফ আল মিনার
    • সাইয়েদ৯৫১

    ১৪ই ফেব্রুয়ারী কি বিশ্ব বেহায়াপনা দিবস?


    বিংশশতাব্দীতেও ভালোবাসা শব্দটা বাধানিষেধের জঞ্জাল থেকে বেরিয়ে আসতে পারেনি। আটকে আছে নানা অসুস্থ চেতনার বেড়াজালে। ছেলেরা সহজেই বলতে পারে যে সে কটা রিলেশন করেছে আবার এমনও অনেক আছে যারা সেটা প্রকাশ করে নাহ। তবে আমাদের দেশের সমাজব্যবস্থার মতো যেসব সমাজব্যবস্থায় নারীকে পুরুষের ব্যক্তিগত প্রোপার্টি মনে করা হয় সেখানে এমন মেয়েমানুষ খুব কমই দেখা যায় যারা বলতে পারে সে জীবনে এতোটা রিলেশন করেছে। কারন 'প্রেম করা' পুরুষের জন্য নাহ হলেও নারীর ক্যারেকটারের সাথে সম্পর্কিত ভাবা হয়ে থাকে। বিয়ের আগে প্রেমের সম্পর্ক থাকলেও বেশিরভাগ পুরুষ বউ হিসেবে এমন নারী আশা করে যার বিয়ের আগে কোনো সম্পর্ক ছিলো নাহ,

    হিউম্যান ডাক্তার


    কোনো ব্যক্তি বা ব্যক্তিবর্গের বিরুদ্ধে এ কবিতা লিখিনি, এটা হৃদয়ের তাড়না থেকে লিখেছি। নারী নির্যাতনের উগ্র সমর্থকদের বিরুদ্ধে লিখেছি এটি।
    সুতরাং নারী নির্যাতকদের অনুভূতি অাহত হলে অামার কিছু করার নেই।
    ~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~~
    হিউম্যান ডাক্তার গাল ভরা রাগ তার
    সন্দেহে বউ মারে পিটিয়ে,
    মার চলে রাতদিন নারীজাতি পরাধীন
    মানবতা যান তিনি বিলিয়ে।

    ইয়া বড় ঝাড়িদার, চুল টানে ফরিদার
    বলে কথা মানবতা সকাশে,
    থিওরিতে পড়ে টান, এই বুঝি যায় মান
    উস্কাতে অতি বড় পাকা সে।

    তবুও ভালোবাসি


    আমি জানি না যে আমি কি শুধুই অণু পরমাণুর সমষ্টি?

    আমি কি শুধুই প্রকৃতির নিয়মে বাধা একটি যন্ত্র মাত্র?

    রোমান্টিক অাল্লাহ চাই, ভালোবাসার বিকল্প নাই!


    শ্রদ্ধেয় অাপনি!
    ঋতুরাজ বসন্তের দ্বিতীয় দিন অাজ। ঋতুরাজ এলে অামি অামার ভাড়া বাসার ছাদের ফুলগাছগুলির পাশে বসে সময় কাটাতাম মাঝেমধ্যে। কিছুক্ষণ পরই অাবার উঠে যেতে হত।
    মুসলিমদের মহান ধর্মে সারাদিনে পাঁচবার নামাজ পড়া ফরজ, অর্থাৎ কোন সৃজনশীল চিন্তা বেশি সময় ধরে করার সুযোগ নেই।
    অাজান হলেই নামাজ পড়ানোর জন্য ছুটতে হতো মসজিদে।
    অবোধ্য, অপ্রয়োজনীয় কিছু উঠবোস করে মুসুল্লিরা চলে যেত যার যার বাড়ি কিংবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে।
    মুসুল্লিরা জানেনা, তাদের ইমাম সাহেব নামাজে কি পাঠ করলেন। ইমাম সাহেব জানলেও সঠিক কথা না বলে বরং ঘুরিয়ে বলেন।

    “আল্লাহর দ্বি- চারিতা”


    -কি ব্যাপার কেমন আছো?
    -আলহামদুরিল্লাহ!
    -জিজ্ঞেস করলাম কেমন আছো, আর তুমি জবাব দিলে ‘সকল প্রশংসা কেবলি আল্লাহর’- মানে আলহামদুরিল্লাহ? এটা কেমন ভদ্রতা!
    -আমাদের মুসলমানদের শিক্ষা হচ্ছে আমাদের সমস্ত মঙ্গল ঘটে আল্লাহ’র ইচ্ছাতে…।
    -খারাপ বা মন্দ কাজ আল্লাহ ঘটায় না?
    -কখনই নয়। মানুষের সব মন্দ আর খারাপ কাজের দায় মানুষের নিজের।
    -তাহলে যে বলা হয় আল্লাহ’র হুকুম ছাড়া একটা গাছের পাতাও নড়ে না!
    -অবশ্যই এটা সত্য। তবে মানুষকে একটা স্বাধীন ইচ্ছা শক্তি দিয়ে আল্লাহ পাঠিয়েছেন, মানুষ নিজের বিবেক খাটিয়ে ভাল মন্দকে বেছে নিতে পারে।

    দেবী


    মেয়েটির বস্তুত কোন সমস্যা ছিল না।
    আর পাঁচটা বাঙালি মেয়ের মতই লাল শাড়ীতে তাকে বেশ মানাত।
    সিঁথি করত ডানদিকে বেশিরভাগ সময়।
    নির্লিপ্ত ঠোঁটে যেন মধু লেগে থাকত
    উপরে-নীচে দিবায়-প্রত্যুষে প্রত্যহ।

    মেয়েটির আহামরি কোন সমস্যা ছিল না।
    তার কণ্ঠ সংবাদ উপস্থাপিকার মত বলিষ্ঠ না হলেও
    আমার হৃদয় কাঁপিয়ে দেয়ার জন্য যথেষ্ট ছিল।
    তার গালে ছিল সাদা মেঘের প্রলেপ আর হাতে ছিল
    ঘন মাখনের মতন পিচ্ছিল আস্তরণ।
    বিভিন্ন উৎসবে প্রয়োজনে-অপ্রয়োজনে ছাল-ছুতোয়
    হাত ধরলেই কেমন নরম নরম লাগত!

    গডমাদার শেখ হাসিনা


    পৃথিবীর সবচেয়ে ব্যর্থ, অসৎ, নির্লজ্জ, কাণ্ডজ্ঞানহীন, মেরুদণ্ডহীন পুলিশ বাহিনীর তালিকা করলে বাঙলাদেশের পুলিশ বাহিনীর নাম আসতে বাধ্য। এই বাহিনীর কাজ হচ্ছে জনগণের ট্যাক্সের টাকায় চলে চোর, বাটপার, ডাকাত, খুনি, সন্ত্রাসী, দুর্নীতিবাজ, ধর্ষক, জঙ্গিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। একটি প্রশাসন কতোটা ব্যর্থ ও দুর্বল এবং মেধাহীন হলে সমস্যার সমাধানের পরিবর্তে উলটো আরও সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে!

    অালহাজ্ব মোকলেছ


    অালহাজ্ব মোকলেছ
    চুরি করে নেকলেছ
    খোদাপাকের পেয়েছে অাশীষ,
    সবকিছু খোদা পারে
    মান দেয় বান্দারে
    বুঝিস কি নাই-বা বুঝিস।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর