নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • ড. লজিক্যাল বাঙালি
    • দীব্বেন্দু দীপ
    • নুর নবী দুলাল

    নতুন যাত্রী

    • রিপন চাক
    • বোরহান মিয়া
    • গোলাম মোর্শেদ হিমু
    • নবীন পাঠক
    • রকিব রাজন
    • রুবেল হোসাইন
    • অলি জালেম
    • চিন্ময় ইবনে খালিদ
    • সুস্মিত আবদুল্লাহ
    • দীপ্ত অধিকারী

    মহাত্মা গান্ধী সম্পর্কিত মিথ


    ১ম মিথ:
    মহাত্মা গান্ধী ইন্দিরা গান্ধীর স্বামীকে দত্তক নিয়েছিলেন।

    কথা ছিল পরমত সহিষ্ণুতা শিখবো


    ধর্ষকদের শিশ্ন কেটে দেবার দাবীতে অনেককেই বলতে দেখি। মনে রাখা দরকার, কারও শিশ্ন কেটে দেয়াটাও অঙ্গহানি, এটা বর্বরতা, অসভ্যতা। কারও হাত কেটে ফেলা যেমন মানবাধিকারের লংঘন, তেমনি কারও শিশ্ন কেটে দেয়াটাও মানবাধিকারের লংঘন। হ্যাঁ, ধর্ষককে অবশ্যই শাস্তি দিতে হবে, সেটা তাঁর আমরণ বন্দি থাকা হতে পারে। মানবধিকার বলে, তাকে মেরে ফেলা যাবে না, তার অঙ্গহানি করা যাবে না।

    শাহজাহান ও তাজমহল এক অন্য নাটক


    মানুষ তার ভালোবাসার প্রকাশ করে তাজমহল দিয়ে।তাজমহলকে ‘ভালোবাসার’ প্রতীক হিসেবে ধরা হয়। মুঘল সম্রাট শাহাজাহন তাঁর প্রিয় স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসার নির্দশন হিসেবে তাজমহল তৈরি করেছিলেন। এই তাজমহল, সম্রাট শাহজাহানকে নিয়ে রয়েছে নানান তথ্য। তাজমহল তৈরির কাজ শুরু করা হয় ১৬৩২ সালে এবং তা শেষ হয় ১৬৫৩ সালে। প্রায় ২২ বছর সময় লেগেছিল তাজমহল তৈরি করতে।তাজমহলটি তৈরিতে খরচ হয়েছিল প্রায় এক মিলিয়ন ডলার।শুধু তাজমহল নয় সম্রাট শাহাজানের রয়েছে নানান অজানা তথ্য।যে গুলো হল।

    অসীম ক্ষমতাধর মানবপ্রজাতি, বন্যাপীড়িত দরিদ্র বাংলাদেশ ও দূর্ভাগা রোহিংগা জাতি



    নরমাল সময়ে মায়ানমার এতবার দেশের আকাশসীমা লংঘন করলে হয়ত উত্তেজনা ব্যাপক বাড়ত বা প্রতিক্রিয়া ভিন্ন দিকে যেতে পারত। এইসময়ে আরও করলেও যাবে না। কারণ, মায়ানমার বিশ্বের নজর অন্যদিকেও নিতে চায়, এসব হয়ত তারই উস্কানী। সরকার তাই আমার মতে সতর্ক প্রতিক্রিয়াই দেখাচ্ছে। কূটনীতি কী বয়ে আনবে কে জানে, ভালকিছুর সম্ভাবনা কম। আমি যেখান থেকে দেখি একজন সাধারণ আগ্রহী মানুষ হিসেবে, সেখান থেকে তাদের উজ্জ্বল ভবিষ্যত দেখি না, মানবিক ভবিষ্যত না তাদের অধিকাংশের জন্য। মানুষ হিসেবে আমাদের ক্ষমতা অসীম যদি পৃথিবীর সকল মানুষ মানবিক, যৌক্তিক, আদর্শ আচরণ করত। কিন্তু মানুষ উন্নত বুদ্ধিমত্তার হলেও নিজের প্রজাতির উপর জেনেবুঝে ইচ্ছাকৃত ক্ষতি একমাত্র মানুষই করতে পারে। কিছু মানুষ যদিও নিজের ভাগ্য নিজেই গড়ে নেয়। এই রোহিংগারা আমাদের দেশের জন্য ছোটখাট দূর্যোগ বয়ে নিয়ে আসবে, সম্ভবত তাদের জীবনেও অপেক্ষা করছে দীর্ঘকালীন দূর্যোগ, দূর্ভোগ।

    অনুগল্প ১


    একলা থাকতে থাকতে রাতুলের হাঁপ ধরে যায়। না মানুষ না কাকপক্ষী। কথা বলার মত কেউ নেই। রাতুল এখন নিজে নিজের সাথে গল্প করে। একমনে কথা বলে যায়। পাছে না আবার কথা বলতে ভুলে যায়, সে ভয়।
    ...

    মিয়ানমারের সামরিক শক্তি


    ভৌগোলিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ মিয়ানমার অস্থিতিশীল একটি দেশ। বার বার সেনা অভ্যুত্থান ঘটেছে, গণতন্ত্র বাধাপ্রাপ্ত হয়েছে।

    হাসিনাকে নোবেল দিন, সাথে জুতার বাড়িও দিন..!


    কাকে শান্তিতে নোবেল দেয়ার দাবি করছেন,হাসিনাকে...???
    ওহ মাই ফাকিং গড..!!!

    প্রথম দিকে রোহিঙ্গাদের জায়গা দিতে অস্বীকার করা, পরবর্তীতে ধর্মীয় জাতীয়তাবাদী বিষাক্ত জাতি গোষ্ঠীর টোপের মুখে পড়ে রোহিঙ্গাদের জায়গা দেয়া, পরবর্তীতে মহান মানবতাবাদী হয়ে ওঠা এই মেরুদণ্ডহীন নারীটিকে নোবেলই দিন, উনিই একমাত্র শান্তিতে নোবেল পাওয়ার যোগ্য, সাথে জুতা দিয়ে দুই গালে দুইটা বাড়িও দিন এই মহান বদমাশ, মেরুদণ্ডহীন নারীটিকে।

    দিন দিন, তাকেই নোবেল দিন..! নিজের দলের লোকদের লাগিয়ে দিয়ে নাসিরনগরে হিন্দু নিধনের আর হিন্দুদের বাড়ি ঘর দখলের জন্য তাকে শান্তিতে নোবেল দিন...!

    মাতৃগর্ভের নির্বাণ : তৃতীয় পর্ব


    অনগ্রসর আদিম ধরনের সমাজের সংস্কৃতিতে আধ্যাত্মিকতার ধারক, বাহক, অভিভাবক থাকতো শামানরা। এদের কখনও ওঝা, মেডিসিন ম্যান বা শামান বলে অভিহিত করা হয়। কেননা এইসব সমাজে বিশ্বাস করা হয় এদের অলৌকিক যাদু শক্তি রয়েছে এবং এই শক্তি দিয়েই এরা যেমন মানুষের রোগ-বালাই দূর করতে পারে তেমনি গুন-যাদু বা বাণ ছুড়ে যে কারো অনিষ্ট এমনকি মৃত্যুও ঘটানোর ক্ষমতা রাখে। এদের ঠিক পুরোহিত গোত্রে ফেলা যাবেনা, এদের সাথে বরং অনেকটা সাদৃশ্য রয়েছে আমাদের সন্ন্যাসী, কামেল ফকির, সাধন সিদ্ধ কাপালিক বা তান্ত্রিকদের। আদিম সমাজে এদেরই ভাবা হতো আধ্যাত্মিক ও অলৌকিক শক্তি সম্পন্ন মানুষ এবং সমাজের ভয় মিশ্রিত শ্রদ্ধায় এরাই হয়ে উঠতো অনেকখানি

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর