নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • এলিজা আকবর
    • পৃথ্বীরাজ চৌহান
    • নুর নবী দুলাল

    নতুন যাত্রী

    • সুমন মুরমু
    • জোসেফ হ্যারিসন
    • সাতাল
    • যাযাবর বুর্জোয়া
    • মিঠুন সিকদার শুভম
    • এম এম এইচ ভূঁইয়া
    • খাঁচা বন্দি পাখি
    • প্রসেনজিৎ কোনার
    • পৃথিবীর নাগরিক
    • এস এম এইচ রহমান

    ৫৪ ধারায় গ্রেফতার ও বাংলাদেশ – সৈয়দ তৌফিক উল্লাহ


    বাংলাদেশের সংবিধান অনুযায়ী স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসেবে মুক্ত স্বাধীন জীবন যাপনের অধিকার প্রত্যেক নাগরিকেরই আছে। এটি একটি মৌলিক অধিকারও বটে্।রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে আমরা একটি স্বাধীন দেশ পেয়েছি। কিন্তু এখনো এটি চলছে। আইনের শাসন ও মৌলিক গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষায় এ জাতি বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দিয়ে দেশ স্বাধীন করেছিল। কিন্তু আমরা আজও আইনের মাধ্যমে নির্যাতন বন্ধ করতে পারিনি। এটি খুবই হতাশ ও দুঃখজনক বটে।

    বৃক্ষ


    আমি বেশ্যা, আমি জারজ, আমি হিজড়া,
    ভালোবাসতে জানি, ভালোবাসা বুক ভরা,

    এ নাম, আমায় দিয়েছে কারা?
    সভ্যতার মুখোশ পরা অসভ্যরা।

    আমি পথশিশু, আমি ধর্ষিতা,
    আমি দেখেছি নোংরা সভ্যতা।

    আজকাল আর কোনকিছুতেই,
    কিছু যায়-আসেনা,
    শিখে গেছি, হুমড়ি খেয়ে পরে গেলে,
    কিভাবে উঠে দাড়াতে হয়,
    এ পৃথিবী দুর্বলদের জন্য নয়।
    কঠিন বাস্তবতার মুখোমুখি হয়ে,
    জীবন যুদ্ধে যে হার মানে না,
    বিজয়ী বলি আমি তাঁকেই।

    ইসলাম অবমাননার নামে টিটু রায়কে গ্রেপ্তারঃ এটা সরকার-প্রশাসনের নির্লজ্জতাই ফুটে উঠে!


    আওয়ামিলীগ সরকার (ও তার প্রশাসন) মুসলমানের সমর্থনের জন্য এতোটা নগ্ন ও নির্লজ্জ হয়েছে যে, তাদের এই নির্লজ্জতা ঠিক কোন ভাষায়, কোন শব্দ দিয়ে ব্যাখ্যা করবো, সেইটুকু ভাষা ও শব্দ আমার জ্ঞাণ ভাণ্ডারে নেই। রংপুরের ঠাকুর পাড়ার টিটু রায়কে ঠিক কোন অপরাধে গ্রেপ্তার করলো আওয়ামিলীগ সরকারের প্রশাসন? আমি বুঝে উঠতে পারছি না টিটু রায়ের অপরাধটা কি? যে ছেলেটা ফেইসবুকের 'ফ' ও বুঝেনা, সেই ছেলে কি করে ইসলাম ও নবী অবমাননা করবে?

    পশ্চিম দিকে পা দিয়ে ঘুমানো বা বসা জায়েজ/ইসলাম সম্মত কিনা..?


    পশ্চিম দিকে পা দিয়ে ঘুমানো বা বসা জায়েজ কিনা-এ নিয়ে আমাদের সমাজে মধ্যে বিতর্ক রয়েছে। আসলে কোরআন, হাদিস ও সালফে-সালিহীনের বক্তব্যে এ বিষয়ে কোনো বিতর্ক পাওয়া যায় না। তবে বর্তমান বিশ্বে এ নিয়ে কিছুটা বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

    কোন তন্ত্র, কোন নীতি মানুষের জন্য আদর্শ?



    স্বাধীনতার পর দেশ এগিয়েছে, বছরে আমাদের মাথাপিছু আয় ১৬১০ ডলার হয়েছে পড়লাম। ভেনেজুয়েলার মানুষের মাথাপিছু আয় এখনো সম্ভবত ৮-১০ হাজার ডলার। ভেনেজুয়েলাকে বিশ্ব বাতিল অর্থনীতির দেশ, ব্যর্থ রাষ্ট্র বলা শুরু করেছে। অর্থনীতি ও গণতন্ত্রের স্বচ্ছতার দিক থেকে আমাদের তো তাদের ধারেকাছে যেতেও অনেকটা পথ বাকি, সেটুকু পথের দূরত্ব এখনও দশক দশকের পথ যদি প্রবৃদ্ধির হার দুই অংকেও পৌঁছায়। গণতন্ত্র, সমাজতন্ত্র, রাজতন্ত্র এসব বাজে কথা, দেশের মানুষ আগে নিজেদের কিভাবে চালাবে সেই ব্যক্তিস্বাতন্ত্র স্বচ্ছতার সাথে ঠিক করুক।

    অদ্ভুত নিয়মে চলছে স্বদেশ


    গতবাঁধা নিয়মে চলছে স্বদেশ
    হাজার কোটি টাকা পলকেই শেষ।
    শেয়ার বাজার আজ ধু ধু মরুভূমি
    দখলে নিয়েছে সব নেতা কর্মী।
    ব্যাংকের আমানত নেতাদের পেটে
    যেখানে যা পায়, খায় লুটে পুটে।
    ব্যাংক গুলো শূণ্য ঋণী সরকার
    মেরামত হয়না কো কোনো রাস্তার।
    হাইওয়ে গুলো যেন ফসলের মাঠ
    চাষ করা যেতে পারে উন্নত পাট।
    খুনি আর ধর্ষক যেন ভাই ভাই
    বুক ফুলিয়ে হাটতে কোনো বাধা নাই।
    পুলিশও সাথে আছে সমান তালে
    উল্টো চড় কষে ধর্ষিতার গালে।
    খুনিরা পায় টাকা নেতাদের থেকে
    ছিনা টান করে চলে ভয় পাবে কাকে?
    তাদের ছায়া আছে আকাশ সমান

    সেদিন মানুষের জন্য আমাদের প্রাণ কাঁদেনি, কেঁদেছিলো ধর্মের জন্য।


    মিয়ানমারে উগ্র বার্মিবাদীদের হাতে যখন রাখাইনরা নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছিলো, তখন আমাদের দেশের মানুষের মানবতা অন্তত প্রথম বারের জন্য হলেও উঁকি দিয়েছিলো। আমরা যারা মানুষের জন্য মানুষের মন সিক্ত হওয়ার মতো জগৎশ্রেষ্ঠ সুন্দর দৃশ্যটি দেখার অপেক্ষায় ছিলাম, তারা খুশি হলাম এই ভেবে যে, যাক আমরা শেষ পর্যন্ত মানুষ হতে পারলাম! মানুষের জন্য কাঁদার মানসিকতার মতো মনোহরবৃত্তি জগতে আর কিছু নেই। আমরা সেটা রপ্ত করে ফেলেছি!

    মোহাম্মদ কি কখনো বিদ্যমান ছিল?


    সুন্নি মুসলমানরা বিশ্বাস করে যে মুহাম্মদের মৃত্যুর পর, মুসলমানদের নেতৃত্বের জন্য চারজন তথাকথিত খলিফা (উত্তরাধিকারী) প্রেরণ করেন সঠিক ভাবে পরিচালনার জন্য। যারা ব্যক্তিগতভাবে মোহাম্মদকে চেনেন। আবু বকর, উমর, উসমান ও আলী।

    একলা নারী


    শোনো, একলা নারী,
    ভিক্ষুক বলবে, একলা নাকি?
    রেট কত তোর? আমার সাথে যাবি?

    চেনা নেই, জানা নেই,
    হুট করে গা ঘেঁষে কেউ, ফিসফিস করে বলবে,
    একা নাকি? রেট কত? যাবে নাকি?

    চেনা মানুষগুলো, হঠাৎ বলে বসবে,
    তুই তো একলা, কতদিনের অভুুক্ত তুই,
    আয় তোর ক্ষুধা মেটাই,
    পুষিয়ে দেব ক্ষন,
    ওসব নিয়ে ভাবিস না,
    তুই যা চাইবি, তাই সই।

    বন্ধু বলবে, দূরে থাকিস কেন রে একা?
    আয় আদিম উল্লাসে, মাতাল হই দু'জন
    সাড়া কেন দিস না তুই? সত্যি'ই তুই বড্ড বোকা!

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর