নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 7 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • রাজিব আহমেদ
    • নাগিব মাহফুজ খান
    • পৃথু স্যন্যাল
    • নুর নবী দুলাল
    • সাইয়িদ রফিকুল হক
    • আমি অথবা অন্য কেউ
    • মূর্খ চাষা

    নতুন যাত্রী

    • গোলাম মাহিন দীপ
    • দ্য কানাবাবু
    • মাসুদ রুমেল
    • জুবায়ের-আল-মাহমুদ
    • আনফরম লরেন্স
    • একটা মানুষ
    • সবুজ শেখ
    • রাজদীপ চক্রবর্তী
    • নাজমুল-শ্রাবণ
    • চিন্ময় ভট্টাচার্য

    মালাউন


    বেশ কয়েকবছর আগের কথা। তখন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ি। কোন এক কারণে এক বন্ধুর মেসে যাচ্ছিলাম অন্য এক পাড়ায়। রাস্তার পাশে দুটো ছেলে ঝগড়া করছিলো, বোধহয় খেলতে খেলতে ঝগড়া লেগে গেছে, আট/দশ বছর বয়স হবে তাদের। একটা ছেলে আরেকজনকে হঠাৎ বলে উঠলো এই মালাউনের বাচ্চা।অন্য ছেলেটা নিশ্চুপ, কোন জবাব দিতে পারলো না। ব্যাপারটা শোনা মাত্র বুকে একটা ধাক্কা খেলাম। কিন্তু হায় ছেলেটাকে গিয়ে কিছু বলার বা একটু উপদেশ দেবার সাহস আমার হলো না।

    ব্রজেন কাকা - নষ্টালজিয়া


    কূয়াসায় ঢাকা ভোরের প্রকৃতি। সারা রাতে ঝরে পড়া শিশিরে ভেজা গ্রামের মেটো পথ। ঘড়িতে তখন সকাল ৭:০০ বাজলেও আকাশে সূর্য দেবতার কোন খরব নেই। নিজের প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হয়ে বাইসাইকেল নিয়ে বের হয়ে পড়লাম শিশিরে ভেজা গ্রামের মেটো পথ ধরে।ন করেছে। ক্ষমাও চেয়েছে।” হঠাৎই ব্রজেন কাকার চেহারায় কঠিন হয়ে উঠল এবং বলে বসল “জানিস ভাতিজা, এলোকটা রাতের আধারে মুখে কাল কাপড় বেঁধে ভয় দেখানোর জন্য আমাদের খেরের চিনে (খড়ের গাদাঁ)য় ও থাকার ঘরে আগুন লাগিয়েছে, আবার কিছুক্ষন পর কাপড় পাল্টিয়ে হাতে বালতি নিয়ে সে আগুন নেবাতে এসেছে, ব্যাপারটা বুঝতে পেরেও কিছুই করার ছিল না”।

    প্রবাসের অখ্যাত গল্প-৭


    সুইডেনের শীতের প্রকোপটা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে, বাইরে যাবার আগে গায়ে কাপড় জামা চড়াতে যে সময় নেয় তা বিবেচনা করতে গেলে দুপুরের খাবারের জোগাড় যন্ত্র হয়ে যায়, ঠিক আবার খুলতেও সেই একি সময় ।

    নারীর উপর নির্যাতন-নিপীড়ন ও খুন-ধর্ষণ আর কত?


    প্রতিনিয়ত ২ বছরের শিশু থেকে শুরু করে ৬০ বছরের বৃদ্ধা মহিলাও এদেশে যে হারে ধর্ষণ-নির্যাতন ও হত্যার স্বীকার হচ্ছে ফলে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক ভাবে নিম্নমধ্য আয়ের দেশ হলেও সামাজিক দিক থেকে আজ উচ্চ যৌন নিপীড়নের দেশে পরিণত হয়েছে।

    চাঁদের আশ্রয়ে


    স্কুল পড়ুয়া ছেলেটি বেশ কিছুদিন পর বাড়ী যাচ্ছে। মনে নানা শঙ্কা, বাল্য বন্ধুকে দেখতে পাবে কিনা। সে শুনেছে ওর বাল্যবন্ধু মেয়েটির বিয়ে হয়ে গেছে। তখনকার দিনে বাল্য বিবাহকে অনৈতিক বা আইন বিরুদ্ধ বলে কেউ জানত না বা এমন একটা আইন ছিল কিনা তোও ছেলেটির জানা ছিলনা। আইন থকলেও অমন অজপাড়াগয়ের অশিক্ষিত, অর্ধশিক্ষিতদের মাঝে অমন আইনের কথা শুনাবে, এমন কেউ ছিল বলে মনে হয় না। এখনকার অনেক মেয়েকে দেখি স্ব-উদ্যোগে নিজের বাল্য বিয়ে ভেঙ্গে দিয়ে আলোড়ন ফেলে দেয়। এতে নারীর দারুণভাবে জেগে ওঠার আভাস পাওয়া যাচ্ছে। কিন্তু তখনকার মেয়েদের মনে এমন সাহস বা মানের জোড় ছিল না। অথবা তারা বড্ড বেশী পড়িবারের কথা, মুরুব্বীদের কথা

    শিশুরা কি শ্রমিক?


    এ বিশ্বকে এ-শিশুর বাসযোগ্য ক'রে যাব আমি-
    নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
    অকাল প্রায়াত কবি সুকান্ত বেঁচে থাকলে হয়ত এই লাইন কয়েটা ব্যান্ড করে দিত।পাথর চাপা কষ্ট নিয়ে বলতো, এ পৃথিবীকে আমি একদিন শূন্য স্থান দেখব। ভাগ্যিস সুকান্তের অকাল পক্কে লাই দুটো বেঁচে গেছে।

    সাঈদী হুজুরের কারামুক্তি পরবর্তী ওয়াজ-নসিহত


    অকারণ হুংকার ছাড়তে ছাড়তে হুজুর আরো বলেন, সারাবিশ্ব বিস্ময়ভরা চোখে দেখেছে ‘মহাকাশ বিজ্ঞান’ শুধু নাসা জানে না, বরং আমার দেশের সোনার ছেলে-মেয়েরা বহুগুণ বেশি জানে!!!

    অভিমান ও তুমি


    আর নয় লোবানগন্ধা ঘৃণা
    নয় বুদ্ধিরিক্ত অভিমান

    বস্ত্রবালিকার কাঁধে হাত রেখে
    বলা নয়-- দুঃখ আমার দ্বিতীয় বন্ধু
    প্রথম কে জানি না

    তবু বিশ্বাস রেখো
    বিশ্বাস করলে সুখে থাকা যায়--
    নয়তোবা ঠকার ভয় থাকে না--
    থাকে অবিশ্বাস।

    থাকে ক্রোধমত্ত আত্মঘাত
    কিন্তু আমার
    এখনই শেষ নয়
    কুসুম এখন কস্তুরী হতে চায়
    গন্ধবকুল কোথা পাই।

    আর তুমি
    আদিম ক্ষুধায় ঊর্ণনাভ হয়ে আছো
    প্রেমের কোনো স্থান নেই যেখানে
    মিলন, অতঃপর মৃত্যুই সত্য সেখানে।

    এলিট বিপ্লবীর কবলে. . . . .


    এলিট শিক্ষিত সমাজের হাতে এদেশের ইতিহাস চিরদিনই বিকৃত ভাবে লেখা হবে। শুধূ এলিট শিক্ষিত শ্রেণী যত দিন বিভিন্ন বিপ্লবে, প্রতিবাদে লিড নিবে ততদিন বিপ্লব বেচাকেনা হবে। বর্তমানের কথাই ধরি। বনানী শব্দটাই এলিট। এলইডি টিভিতে, দামী ক্যামেরায় বনানী বিপ্লব কেবল। টকশোয়াররা মনিটর ভেঙ্গে ফেলছে। ধর্ষকের বিচার হচ্ছে আমাদের ঘরে ঘরে উৎসব। কিন্তু গত তিনদিন অজপাড়াগায়ের অন্তত তিনটি শিশু ধর্ষিত হয়েছে। ৮ বছরের আয়েশা আর তার বাপতো আত্নহত্যাই করলো। আসামী কয়জন গ্রেফতার হলো??

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর