নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • সৌম্যজিৎ দত্ত
    • নগরবালক
    • কাঙালী ফকির চাষী
    • রাজর্ষি ব্যনার্জী

    নতুন যাত্রী

    • নীল মুহাম্মদ জা...
    • ইতাম পরদেশী
    • মুহম্মদ ইকরামুল হক
    • রাজন আলী
    • প্রশান্ত ভৌমিক
    • শঙ্খচূড় ইমাম
    • ডার্ক টু লাইট
    • সৌম্যজিৎ দত্ত
    • হিমু মিয়া
    • এস এম শাওন

    ধার্মিক


    যদুর বাপের গাছটা ভালোই বড় হইছে। এ এক অদ্ভুত গাছ। পাড়ার বৃহৎ একটা অংশ জুড়ে গাছটির অবস্থান। বিস্তৃত ডালপালায় বিভিন্ন ধরনের ফলন ফলায় গাছটি। বিভিন্ন ধরনের ফলমূল থেকে শুরু করে নানান ধরনের শাকসবজি, কিছুই বাদ যায়না। পাড়ার সকলে খুব আয়েস করেই গাছটির সুবিধা সকল ভোগ করে।

    ফিরে দেখা: দ্বিজাতিতত্ত্ব, দাঙ্গা আর দেশভাগ ৪:


    দীর্ঘদিন চেষ্টা করেও জাতীয় পরিষদের হিন্দু সদস্যরা ও নেতারা পাকিস্তানে ইসলামী শাসনতন্ত্রের প্রবর্তন আটকাতে পারেন নি কিন্তু একটা ব্যাপারে সফল হয়েছিলেন আর সেটা হলো পাকিস্তানের শাসনতন্ত্রে হিন্দু-মুসলিম যৌথ ভোটের ব্যবস্থা করতে তারা মোটামুটি সক্ষম হয়েছিলেন | এর ফলে সাম্প্রদায়িক আওয়ামী মুসলিম লীগকে নাম বদলে অসাম্প্রদায়িক আওয়ামী লীগ করতে হয়েছিল | এতদিনের ঘোষিত ইসলামী নীতিকে উপেক্ষা করে দলকে অসম্প্রদায়িক ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত অনেক মৌলবাদী মুসলিম নেতা যারা দলের ভিতরে ছিল তারা মেনে নিতে পারেনি এবং তারা যথেষ্ট বিরোধিতাও করেছিল | এইসব সদস্যদের বাগে আনতে সুরাবর্দী মাঠে নামলেন | তিনি তাদের বোঝাতে

    রোজা সমগ্র - ২য় পর্বঃ রোজা নিয়ে ভণ্ড জাকির নায়েকের মিথ্যাচারগুলোর যুক্তিখণ্ডন


    এক্সক্লুসিভ মেগা পোস্টঃ রোজা সমগ্র - ২য় পর্ব

    ২য় পর্বঃ রোজা নিয়ে ভণ্ড জাকির নায়েকের মিথ্যাচারগুলোর যুক্তিখণ্ডন

    লেখকঃ মুশফিক ইমতিয়াজ চৌধুরী

    ভূমিকাঃ

    ৪ পর্বে সমাপ্য রোজা সমগ্রের ২য় পর্বে আজকে রোজা নিয়ে জাকির নায়েকের মেডিকেল ব্যাখ্যাহীন মিথ্যাচার পরিপূর্ণ দাবীগুলোর অসারতাকে মেডিকেল তথ্য ও যুক্তি দিতে প্রমাণ করা হবে। যারা এখনো ১ম পর্ব পড়েননি, তারা এখান থেকে পড়ে নিন।

    বই: ম্যাক্সিম গোর্কির ‘পৃথিবীর পথে’



    রুশ সাহিত্যিক ম্যাক্সিম গোর্কি (১৮৬৮-১৯৩৬), যার সাহিত্য সৃষ্টি আজো পৃথিবীর অগণিত মানুষকে আলোড়িত করে। মহান এই সাহিত্যিকের নিজের ছোটবেলাকার আত্মজীবনীমূলক ‘পৃথিবীর পথে’ বইটা নিয়ে কিছু বলতে চাই ক্ষুদ্র পাঠক হিসেবে। অনুবাদক সত্য গুপ্ত।

    "দ" আর "ধ" এর পার্থক্য


    দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্যে তৎকালীন প্রতিকূল পরিবেশে হুমায়ুন আজাদ স্যার জীবনের মায়া না করে লিখেছিলেন সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে "জলপাই রঙের অন্ধকার'রের মত বই।এইসব প্রতিক্রিয়াশীল ও প্রগতিশীলদের জন্যে আজ যে সরকার গদিতে পা তুলে বসে আছেন,ক্ষমতায় এসে ও কি তারা আজাদ স্যারের হত্যার তদন্ত করেছে?বিচার তো দূরে থাক।বরঞ্চ হয়েছে অভিজৎ দা,রাজীব হায়দার,অনন্ত বিজয় দাস,ওয়াশিকুরের মতো অসংখ্য ব্লগার খুন, নিরাপত্তার জন্যে দেশ ছাড়তে হয়েছে অসংখ্য ব্লগারকে।সামান্য যে কয়েকটা ভোটের লোভে সরকার যে ধর্মীয় উগ্রবাদীদের পুরষ্কার দিয়ে জয়মাল্য দিয়ে বরণ করছে একদিন এই মালাই ফাঁস হয়ে সরকারের গলায় পড়বে।যে ক্ষমতার লোভে সমর্থন পে

    বিষাক্ত রাজনীতি:- সপ্তম পর্ব-


    1992 সালের 6 ই ডিসেম্বর বাবরি মসজিদ ধ্বংস হয়! এটি শুধু মাত্র কোন একটি মসজিদ ধ্বংসের ঘটনা ছিল না; এর সঙ্গে আরও অনেক কিছু জড়িত ছিল। ভারতের ধর্মনিরপেক্ষতার আদর্শ বর্হিবিশ্বের কাছে তীব্র আঘাত প্রাপ্ত হয় ও ভারতের মর্যাদা ভূলুন্ঠিত হয়। বাবরি মসজিদ ধ্বংসের পর দেশ ও বিদেশে এর তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখা যায়। সারা দেশে বিভিন্ন জায়গায় ছোট বড় দাঙ্গা শুরু হয়, গোটা দেশে কার্ফিউ জারি করা হয়। এই ঘটনার পর গোটা দেশ প্রায় দু মাস সাম্প্রদায়িক দাঙ্গাতে জ্বলতে থাকে; দাঙ্গার প্রভাবে গুজরাটে 246, মধ্যপ্রদেশে 120, আসামে 100, উওরপ্রদেশে 201, এবং শুধুমাত্র মহারাষ্ট্রের মুম্বইয়ে 900 জনের অধিক মানুষ এই হিংসার বলি হয়। গোটা দেশে প্রায় দু হাজারের ও অধিক মানুষ এই হিংসায় প্রাণ হারান (বেসরকারি সূত্রে মৃতের সংখ্যা ছিল আরও অধিক); তবে এর মধ্যে মুম্বাই হিংসা ছিল সর্বাধিক ভয়ংকর যা বিশেষ আলোচনার দাবি রাখে, পরবর্তী সময়ে এটি বিস্তারিত আলোচিত হবে।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর