নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • কাঙালী ফকির চাষী
    • দ্বিতীয়নাম
    • বেহুলার ভেলা
    • অাব্দুল ফাত্তাহ

    নতুন যাত্রী

    • সুশান্ত কুমার
    • আলমামুন শাওন
    • সমুদ্র শাঁচি
    • অরুপ কুমার দেবনাথ
    • তাপস ভৌমিক
    • ইউসুফ শেখ
    • আনোয়ার আলী
    • সৌগত চর্বাক
    • সৌগত চার্বাক
    • মোঃ আব্দুল বারিক

    শহিদুল হক মামার সাক্ষাৎকার।


    শহিদুল হক মামা। ১৯৭১ সালের বীর মুক্তিযুদ্ধে যিনি সরাসরি যুদ্ধ করেছেন। গেরিলা বাহিনীর বিভিন্ন গুরুত্বর্পূণ কাজে তিনি সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন। মিরপুরে কাদের মোল্লা ও বিহারীদের নির্মম ধ্বংসলীলা তিনি নিজ চোখে দেখেছেন। এছাড়াও তিনি ৬৬, ৬৯ গণঅভ্যুত্থানে সরাসরি জড়িত ছিলেন। মিরপুর তিনিই বিহারীদের সামনে পাকিস্তান পতাকা নামিয়ে ছুড়ে ফেলে দিয়েছিলেন সাহসের সঙ্গে। শহিদুল হক মামা কাদের মোল্লার বিরুদ্ধে মানবতা অপরাধ ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য দিয়েছেন এছাড়াও যুদ্ধাপরাধী ফাঁসির দাবীতে শাহবাগ চত্ত্বরের আন্দোলনে তিনি যোগ দিয়েছেন। এছাড়াও এই সাক্ষাৎকারে তিনি সরকারের দূর্বলতা সসর্ম্পকেও স্পষ্টভাবে কথা বলেছেন।

    উন্মাদ লেখক -প্রকাশক : ফেব্রুয়ারি -ই কি উন্মাদ নৃত্যের একমাত্র সময়?


    আমাদের কি কাউকে ধ্রুব ভাববার প্রয়োজন আছে? বোধ করি না। বিশেষ মতবাদ কিংবা প্রতিষ্ঠান তো তালিকার বাইরে। তাইতো সুবিধাবাদীদের ভীড়েও মাঝে মধ্যে দু একটি হক কথা স্পর্ধার সাথে বলার সাহস রাখি। একে ঔদ্ধত্য ভাবলে করার কিছুই নেই। কপট বিনয় অপেক্ষা সরল ঔদ্ধত্য শ্রেয়।

    কৃষ্ণ বর্ণা নারী


    কৃষ্ণ বর্ণা নারী
    কৃষ্ণ বর্ণ হেতু ,তব নয়নে কেন বারি ?
    পার্লারের ওই স্বস্তা হস্তে ছোয়াও অধর তোমার
    মুদ্রা বিনিময়ে হইবে কি কালোর সৎকার ?
    কৃষ্ণবর্ণ হোক তোমার অহংকার
    হার মনিবে তোমার কাছে ঐ নষ্ট শ্বেতাঙ্গের নোংরা আঁধার l

    বিধাতা তোমারে করিয়াছে কালো
    সেইতো তোমাকে রাখিবে ভাল
    বর্ণ ভুলিয়া অন্তরে তাই শুভ্রতা তুমি ঢাল l

    সেই হইবে আপন তোমার
    স্বস্তা রূপ যার মনে যোগায়না আহার

    পশ্চাৎদেশ !


    আনমনে একটি ধূম্র-শলাকার মুখাগ্নি করিতে গিয়া ধরাইলাম কিনা পশ্চাৎদেশে! ওষ্ঠদেশে কিঞ্চিত হাসির রেখা অঙ্কিত হইলেও বিন্দুমাত্র ক্ষোভের উদ্রেগ ঘটিলনা। নর-সুন্দরের ন্যায় ভাব লইয়া আনাড়ি আঙ্গুলে কাগজ কাটিবার কাঁচি খানা চাপাইয়া নরম তুলোর পশ্চাৎদেশের খানিকটা কচ করিয়া কাটিয়া ফেলিয়া দিলাম। ভাবলেশহীন পুনরায় অগ্নি সংযোগের চেস্টা লইয়া ফলাফল একই রুপে হাজির হইল! আবারো সেই পশ্চাৎদেশ!!

    ট্যাক্যাল


    সদ্য বাগান থেকে তুলে আনা ক্যানাবিসের পাতাগুলোর দিকে তাকিয়ে বারাক ওবামা।বিশ্বের হর্তাকর্তা তিনি।তার জনগন এই ক্যানাবিসের লিগাইলাইজেসন চায়।তারা বোঝাতে চায় এটা তামাক ও অ্যালকোহলের চেয়েও ভালো জিনিস।ভাবতে লাগলেন,এত দিনে জনগন কি বুজলো কি জানি।আমেরিকায় কিসের অভাব।এতো জিনিস থাকতে তোরা ক্যানাবিসের পাতায় মন দিলি ক্যান???আনমনে হেসে ঊঠে ওবামা।ভেবে ঊঠেন এই ক্যানাবিস ইস্যুতে তিনি দ্বিতীয় বারের মত আমেরিকার প্রেসিডেন্ট।এই জনগন ও ত্যাঁদর মাইরী।আব্রাহাম সাহেব ও ক্যানাবিস খেতেন কিনা কে জানে???আর যদি না খেতেন কি বলে তাদের সান্তনা দিতেন?????????

    জয় মাহমুদুর!!


    জয় মাহমুদুর !! এক মাহমুদুরের কারনে আজ শাহবাগে নামাজ পড়া হয়, কোরান তিলাওয়াত হয় ,মোমবাতি জালানো বন্ধ হয় ।এক মাহমুদুরের কারনে জনসভা করে বলতে হয় আমরা আস্তিক আমরা মুসলমান।এই মাহমুদুর এর কারনে নাস্তিকরা ও বনে যায় আস্তিক!

    আর কোন পিছুটান নেই


    শিবিরের এলাকা নামে খ্যাত আমার জন্মস্থান । ছোটবেলা থেকেই "রগ কাটা " শব্দটার সাথে পরিচিত আমি ,তবে এতো ছোট বয়স থেকে শব্দটা শুনেছি যে তখন কথাটার মানে বুঝতাম না ,বুঝলে হয়ত তখন থেকেই জোরাল ভাষায় লিখে যেতাম । তবে এখন যখন বুঝি তখন নির্ভয়েই লিখে যায়। কি আর হবে ?

    চট্টগ্রামের শিক্ষাঙ্গনে জামাত শিবির


    বর্তমানে চট্টগ্রামে শিক্ষাঙ্গনে যে বিষয়টি লক্ষণীয় তা হল জামাত শিবিরের কুপ্রভাব। মাদ্রাসা তো বটেই, স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় কোনোটাই এদের আওতামুক্ত নয়। আমি চট্টগ্রামে এমন একটা বিদ্যালয়ে পড়েছি যেখানে শিবিরের প্রভাব সুস্পষ্ট। সেইসূত্রে তাদেরকে কাছ থেকে দেখার সুযোগ আমার হয়েছি। এদের প্রভাব যে কতটা শক্তিশালী তা অকল্পনীয়। এদের নির্দেশে স্কুলের টিচার বদলি হয়, স্কুল কলেজের কার্যক্রম পরিচালিত হয়, এদের বিরুদ্ধে কথা বলা মানেই নিশ্চিত সাসপেন্ড!

    আমরা কী হেরে যাচ্ছি রোজ, মুন্ডুহীন এগুচ্ছি আলো ফেলে আঁধারে!


    আমাদের তো রোজ অল্প অল্প করে হলেও এগুবার কথা ছিল। কথা ছিল কুসংস্কার ভেঙ্গে দিয়ে আলো জ্বালবার। আমরা কেবল আলো নিবিয়ে কুসংস্কারে মাথা নত করছি! বাংলাদেশ কী পিছিয়ে যাচ্ছে আমাদের হাত ধরে!! কিছু কথা যে না বললেই নয়,

    ছিটকে আশা রাজাকেরের রক্ত গায়ে মেখে তবেই ফিরবো


    নিজ ধর্মের অসম্মান কেউই চায় না । যেমনটি আমিও । আমাদের রসূল ও শেষ নবী মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সঃ) কে নিয়ে এর আগেও বাংলাদেশ সহ পৃথিবীর আরোও অনেক দেশে কুটুক্তি কিংবা অবমাননা করা হয়েছে ।
    ইসলাম শান্তির ধর্ম । সেটা নিয়ে কেউই বিপক্ষে যাবে না । সেটা মুসলমান হোক আর অন্য ধর্মেরই হোক না কেন । ইসলাম কখনই রক্তের বদলে রক্ত সমর্থন দেয়না । মাথার বদলে মাথা কখনই ইসলামে বৈধ হতে পারে না ।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর