নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • নুর নবী দুলাল
    • মারুফুর রহমান খান

    নতুন যাত্রী

    • চয়ন অর্কিড
    • ফজলে রাব্বী খান
    • হূমায়ুন কবির
    • রকিব খান
    • সজল আল সানভী
    • শহীদ আহমেদ
    • মো ইকরামুজ্জামান
    • মিজান
    • সঞ্জয় চক্রবর্তী
    • ডাঃ নেইল আকাশ

    প্রসঙ্গ: অর্থনীতিতে বাংলাদেশের নারীদের অবদান ও হেফাজত এ জামাত।


    লেখটা লেখার ইচ্ছে ছিল হেফাজতের ১৩ দফা ঘোষণার পরপর, কিন্তু সময়ের অভাবে লিখতে পারিনি। এর মধ্যেই তৈরী পোষাকশিল্প তথা বাংলাদেশের ইতিহাসে ভয়াবহতম বিপর্যয় ঘটে গেল। কয়েকজনের লোভ আর ঔদাসীন্যের কারণেই বলী হল পাঁচ শতাধিক তাজা প্রান, আহত প্রায় আড়াই হাজার এবং এখনো নিখোজ প্রায় চারশতাধিক (১)! হতাহত এবং ক্ষতিগ্রস্ত সকল শ্রমিকের প্রতি সম্মান ও সহমর্মিতা, এবং নিহতদের স্বজনদের প্রতি শোক জানিয়ে লেখা শুরু করছি। এই লেখাকে বাংলাদেশের তৈরী পোষাক শিল্পের মালিকদের অনুকূলে ভাবার কোন কারণ নেই, বরঞ্চ সেই লোভীদের প্রতি আমার ঘৃণা সবসময়ই ছিল, আছে এবং ভবিষ্যতেও অক্ষুন্ন থাকবে।

    ছুটির দিন


    আযানের লগে লগে ঘুম ভাইঙ্গা গেলো। ফযর, না মাগরিব বুজতে পারতেসি না। তাড়াহুড়া কইরা উঠতে গিয়া মনে পড়লো, উঠতে তো পারুম না। কারখানা তো ছুটি। অনেক কাহিল লাগতাছে আমার। হাত-পা নাড়াইতেও অনেক কষ্ট হইতাসে। এই হলো আইলসামির ফল, বেশি বেশি বিশ্রাম করলে এমনই হয়। যাউক গা, হাতে কোন কাজ নেই, কহন আইবো তারও কোন ঠিক নেই, শুইয়া শুইয়া বরং একটু চিন্তা করি। কোলের বাচ্চাটার লগে কয়দিন পরেই আইবো পেটের বাচ্চাটাও। ওগো লাইগাই তো এতো কষ্ট কইরাও কাজ করতাসি। ওগো ভবিষ্যত নিয়া টেনশনটাও সবচাইতে বেশী।

    ফাইলেরিয়া ভয়াবহতা এবং বাংলাদেশ পরিস্থিতি


    ফাইলেরিয়াসিস বা গোদ রোগ বিশ্বের ভয়ংকর রোগগুলির মধ্যে একটি এবং বাংলাদেশের অন্যতম জনস্বাস্থ্য সমস্যা। বর্তমানে বাংলাদেশের সব কয়টি জেলায় ফাইলেরিয়াসিস বিদ্যমান। তবে দেশের উত্তরাঞ্ছলে বিশেষ করে পঞ্ছগড়, ঠাকুরগাও, দিনাজপুর, চাপাইনবাবগঞ্জ, নীলফামারী, রংপুর, রাজশাহী, লালমনিরহাট, এলাকায় এই রোগের প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে বেশি। তবে বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, চীন, শ্রীলঙ্কা, ব্রাজিল, আফ্রিকা, মধ্য ও দক্ষিন আমেরিকাতে এই রোগের প্রাদুর্ভাব রয়েছে।


    ফাইলেরিয়া/গোদ রোগ কি?

    গণতান্ত্রিক রাজা এবং অসহায় প্রজা


    আজ ক্লাশে যেতে এমনিতেই অনেক দেরি হয়ে গিয়েছে, ৩টা থেকে শুরু হলেও আমার বাসা থেকে বের হইতেই প্রায় ২:৫০ বেজেছে। তুবুও কিছুটা আশা ছিল যে শুক্রবার হওয়ায় জ্যামে পরতে হবেনা। কিন্তু আসাদ গেটের সামনে এসে দেখি বিশাল জ্যাম! ২০মিনিট... ২৫মিনিট... তবুও জ্যাম ছোটেনা, লেগুনার পিচ্চির থেকে শুনলাম যে প্রধানমন্ত্রী বা রাষ্ট্রপতি কেউ একজন সে পথে যাবেন, তাই রাস্তা ফাঁকা করা হয়েছে!! অবশ্য এ অভিজ্ঞতা আমার আজই প্রথম নয়, তবে কেনজানি খুবই মেজাজ খারাপ হচ্ছিলো আজ! একজন মানুষ রাস্তা দিয়ে যাবেন, সেজন্য বাস, সিএনজি, রিকসা, লেগুনা সব মিলিয়ে শ’খানেক গাড়ি আর হাজার এর ও বেশি মানুষ কে আটকিয়ে রাখা হয়েছে!

    আইজুদ্দিন-ফেসবুকে সবাই আদর করে ডাকে আইজু।


    ডাক্তার আইজু। তার পরিচয় নাকি ফাঁস হয়েছে। ৬ বছর পর তাকে পাওয়া গেছে আর তা যে সত্যি এর প্রমান হিসাবে আইজু তার আইডি ডিএক্টিভ করেছে।

    প্রথমে আইজুর সাথে সম্পর্কটা বলি। আইজুকে আমি মনে প্রানে "বিরো(যার কথায়, কাজে মারাত্মক বিরক্ত হই)" করি। তার পচানিমুলক পোস্ট, তার জ্বালাময়ী স্ট্যাটাস আর ফেসবুককে পর্ণ সাইট বানানোর আপ্রান চেষ্টা। আমি যে আসলে কতটা কতটা অপছন্দ করি এগুলো আসলেই প্রকাশ করতে পারব না। এই আইজুর কাজ এ হল মানুষের পিছে লাগা। ভুল ভ্রান্তি,গুজব, সন্দেহ দিয়ে ফেসবুক ভরায় দেওয়া।

    ষোল আনা, বাঙালিয়ানা


    “এক ঘণ্টার মধ্যে বেশিরভাগ জাপানী সৈন্য নিশ্চিহ্ন হয়ে যায়। তারা হয় নিজেদের গুলিতে আত্মহত্যা করে অথবা আমাদের গুলিতে মারা যায়। তারা কখনও আত্মসমর্পণ করে নি। দলের কমান্ডার তখনও জীবিত। তিনি ছিলেন গর্বিত ও দুঃসাহসী। তিনি অবজ্ঞার সাথে তার তলোয়ার উঁচু করে ধরলেন এবং আমাকে আহ্বান করলেন তার সাথে দ্বন্দ্বযুদ্ধ করতে।”
    -লেফটেন্যান্ট জেনারেল নিয়াজী (দ্য বিট্রেয়াল অব ইস্ট পাকিস্তান: পৃষ্ঠা ২৬)

    হেফাজত আর আওয়ামী লীগ মিলে মিশে একাকার। হুদা চিল্লায়া লাভ নাই


    প্রধানমন্ত্রি বলিয়াছেন ‌'হেফাজতের দাবি মানা হয়েছে, হচ্ছে' এর ফিরিস্তি তুলে ধরতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন,"হেফাজতে ইসলামের নেতারা বেশ কিছু দাবি-দাওয়া পেশ করেছেন। এ ব্যাপারে আমি কিছু কথা বলতে চাই। যে দাবিগুলো তারা করেছেন তার অনেকগুলোই কিন্তু ইতোমধ্যে বাস্তবায়ন করা হয়েছে। আমরা কিছু কিছু করেছি। কিছু দাবি বাস্তবায়নের পথে যেগুলোর যৌক্তিকতা রয়েছে। যদি কিছু থাকে, তা আলোচনার মাধ্যমেই সমাধান করা যেতে পারে।"

    ঠেকাই মাথা


    একদিন আমি সত্যি সত্যি তোর বুকে আঁচর কেটে জীবন ফেরত চাইবো।
    একদিন আমি সত্যই তোর গাছের আম চুরি করে খাবো।
    তোর নদীতে যে নৌকাটা মাঝরাতে জোছনা দেখাতে নিতে পারবে,
    তাঁর দেহে হ্যালান দিয়ে বাঁশি বাজাবো।
    তোর গ্রামের যে মেয়েটা রাতের বেলা চুপিসারে বাশবাগানে ভালোবাসার কথা বলতে আসবে,
    আমি তাঁর হাতে গঞ্জের সবচেয়ে সুন্দর বালাটা পড়িয়ে দেবো।
    তোর বৈশাখী মেলার রাতে বাউলের সাথে সিদ্ধি খাবো,
    হারিয়ে যাবো সুরের আলোয়, রাতের আধারের খেলায় সেই মাঠেই ঘুমিয়ে পরবো।
    রাতে দিনে সঁপে যাবো, তোর পরে থেকাই মাথা।
    তোর আগে আমার বুকেই আসবে আঘাতের ব্যাথা।

    'সাভারের দূর্ঘটনা ভয়াবহ কিছু নয়'-অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত


    অবশেষে সাভারের মর্মান্তিক ভবনধ্বসের ব্যাপারে মুখ খুললেন মাননীয় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।এবং এ ব্যাপারে বক্তব্য প্রদান করে তিনি গতানুগতিকভাবে ষোলকোটি বাঙ্গালীকে সন্তুষ্ট করেছেন বলে ধরে নেয়া যায়।বিদেশে থাকা অবস্থায় বার্তাসংস্থা এপিকে দেয়া এক সংক্ষিপ্ত সাক্ষাৎকারে তিনি সাভারের ঘটনাকে 'তেমন ভয়াবহ নয়' বলে উদাহরণ দেন।একই সাথে তিনি জানান এটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা কারণ কিছুদিন আগেই এক অগ্নিকান্ডে বাংলাদেশে ১১৫ জন শ্রমিক মারা গেছেন।তাই বাংলাদেশে এ ঘটনা বড় ঘটনা নয় বরং স্বাভাবিক।

    ড্রিমার কিংবা স্বপ্নচারি


    আমি প্রতিদিনই ভাবি, শালার একটা দেশ কিছুতেই কিছু হচ্ছেনা। রাতদিন একাকার করে কোন একটা দিকে যখন দেশের জনগন এগিয়ে নিয়ে যায় তখনই হয় রাজনৈতিক শুয়ারগুলা নয় ধর্মের ব্যবসায়ীগুলা টাইনা পিছে ফালাইয়া রাখে। আর যদি কোনভাবে ফাকফুকরি দিয়া বাইর হইয়া যায় তাইলে প্রকৃতি গাইলটা মেরেই দিবে। আমরা একটা অদ্ভুত সহনশীল জাতি। নিজেদের পায়ে কুড়াল আসলে আমরা নিজেরাই মারি।
    সংসদ সদস্যরা চান্দের দেশ থাইকা আহে নাই। আমরাই তাদের বানাইছি।
    হেফাজতে ইসলাম আফগান থাইকা আহে নাই, আমরাই তাদের হাতে পতাকা তুইলা দিছি যেইটা দিয়া তারা অহন সমাবেশে ট্যাকা তুলে।
    জামায়াতে ইসলামরে আমরাই দেশে জায়গা দিছি।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর