নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • কাঠমোল্লা
    • মিঠুন বিশ্বাস
    • মারুফুর রহমান খান
    • দ্বিতীয়নাম

    নতুন যাত্রী

    • চয়ন অর্কিড
    • ফজলে রাব্বী খান
    • হূমায়ুন কবির
    • রকিব খান
    • সজল আল সানভী
    • শহীদ আহমেদ
    • মো ইকরামুজ্জামান
    • মিজান
    • সঞ্জয় চক্রবর্তী
    • ডাঃ নেইল আকাশ

    ঘোড়ার খোলসে খচ্চরের নৃত্য এবং রাষ্ট্রের দায়...


    মোটা দাগের কিছু খবরঃ
    ,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,,

    ২০১০এর ৪ মে ইহুদীবাদী ইসরাইলের একজন কারারক্ষী পবিত্র কোরানের পৃষ্ঠা ছিড়ে ফেলার পর ফিলিস্তিনে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছিল এবং যেই ঝড়ের তান্ডব এই হেফাজতি জামাতিরাও দেখিয়েছিল ঢাকার রাজপথে।

    ২১-২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১২, কোরান পোড়ানোর প্রতিবাদে আফগানিস্তানে সহিংস প্রতিবাদ হয়েছিল। সারা মুসলিম বিশ্বে এই সহিংসতা ছড়িয়ে পড়েছিল। কোরান অবমাননার দায় স্বীকার করে মার্কিন এক কমান্ডার ক্ষমা প্রার্থনা করেছিল।

    এ খেলা খেলতে হবে মাথা দিয়ে...


    এদেরকে খেলতে হবে মাথা দিয়ে... মস্তিষ্কের প্রতিটি নিউরন দিয়ে... জনগনকে সাথে নিয়ে... পেছন থেকে সবাইকে হটিয়ে দিয়ে সামনের মাথা গুলাকে টেনে উপড়ে দিতে হবে ঠিক গেরিলাদের মত... খেলতে হবে সাবধানে...গেইমের আগের পার্টে যা গেছে গেছে... এখন সবচে ক্রিটিক্যাল মুহূর্ত গেইমের... ওদের দরকার ছিল সামান্য কিছু লাশ যা পেলে ওরা তাকে বড় করে দেখিয়ে বিদেশের কিছু জনসমর্থন আদায় করতে পারবে বা ওআইসি জাতীয় সংগঠনগুলোর নজরে আনতে পারবে... তারা তা পেয়েছে... ১৫-২০ কে বানাচ্ছে ১৫০০-২৫০০ আর সেই ১৫-২৫০০ কে বাস্তব করতে শুরু করেছে এডিটিং আর মাঠে নেমেছে তাদের অনলাইন বাহিনী... যেখানে ছাগু সেখানেই হবে লড়াই...

    আমি ইসলামের হেফাজতকারী।


    আমরা রাস্তায় নামি বেহেস্তের টিকেট হাতে নিয়া। তারপর আগুন দেই মসজিদে বেহেশত নিশ্চিত করার জন্য। এইবার আর চিন্তা নাই। বেহেশত আমাদের পকেটে। কিন্তু ওরাতো আমাদের দাবী মানে নাই। দাবী না মানলে বেহেস্তে গিয়া শান্তি পামু কেম্মে? বেহেশত পকেটে জানার পরও আমাদের দাবী মানে নাই? ওরা নাস্তিক। সবগুলার কল্লা ফালানো দরকার। আহ! কি শান্তি এইগুলারে মাইরা। ফটিকছড়ির ভাইরা হবেন ফেরদাউসের সর্দার। এইবার সত্যিই আর কুনু চিন্তা নাই।

    গনজাগরণ মঞ্চ উচ্ছেদঃ সরকার নিরপেক্ষতার প্রমাণ!


    ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টি করে যুদ্ধাপরাধের বিচার প্রক্রিয়ায় বাধা সৃষ্টি করাই ছিল 'হেফাজতে জামাতে ইসলামি'র মূল লক্ষ্য এটা এখন দিবালোকের মত পরিষ্কার।
    এদের উচ্ছেদ করে সরকার একটা দৃষ্ঠান্ত স্থাপন করতে পেরেছে যে জনগণের অবোধ ধর্মানুভূতি কে কাজে লাগিয়ে কোন 'চেটের বাল'ই একটা বাল ও ছিড়তে পারবেনা। এর জন্য সরকার অবশ্যই বাহবা পাওয়ার যোগ্য।

    এই বাহবা দেয়ার মঞ্চই যখন উচ্ছেদ করা হয় তখন কিংকর্তব্যবিমূঢ় হতে হয়!
    আজ ভোরে গনজাগরণ মঞ্চ ভেঙ্গে দিয়ে সরকার দেশের সকল প্রগতিশীল মানুষকে হতাশ করেছে।

    জননী ও জন্মভূমি একই সুতায় বাঁধা।


    ছোট বেলায় পড়া একটি লাইন খুব মনে পড়ে। জননী ও জন্মভূমি স্বর্গের থেকেও মুল্যবান। একজন মা যেমন পুত পবিত্র ও জীবনের শ্রেষ্ঠ ধন তথাপি জন্মভূমি তার থেকেও অধিক মূল্যবান। একটি শিশু মাটিতে ভূমিষ্ঠ হয়েই যে আলো বাতাসে তার বেড়ে অথা সেটা আমাদের মাতৃভূমি।মা তার সন্তানের জন্য জীবনের যে কোন প্রতিকূল পরিবেশের সম্মুখীন হতে পারে। শুধু তাই নয় মা জীবনের অনেক চরম খারাপ মুহূর্তকে হাসি মুখে বরণ করে নিতে পারে শুধুমাত্র তার নাড়ি ছেড়া ধন তার নয়নের মনি তার প্রিয় সন্তানের জন্য। তাই মায়ের তুলনা তুলনা হয় না। মা যেমন তার জীবনের সব কিছু দিয়ে তিলেতিলে গড়ে তলেন তার সন্তানকে , এখানে যেমন মায়ের সার্থকতা আছে ঠিক

    গণহত্যার দেশ


    জেনোসাইড! ওয়াট ইস জেনোসাইড? ফুল ন্যাশন, আশরাফ অলরেডি হেস ডিক্লার্ড এবাউট দ্যা ইভেন্ট। স্বৈরতন্ত্র আসলে তোমাগো পুটকি মারা যায়, তার লাইগা গণতন্ত্রের মোড়কে ঠেলা খাইতে বহুত মজা লাগে, না?

    হয়তো এটাই শেষ...


    সপ্তাহখানেক আগেও মনটা দুখঃভরাক্রান্ত ছিল...
    কারণটা ছিল সাভার ট্রেজেডি।
    মানুষ সৃষ্ট একটা দূর্যোগে একই সাথে মনের ভেতর কাজ করেছে- ঘৃণা, ক্ষোভ, ভালবাসা, মমতা!
    এগিয়ে গিয়েছি কখনও রক্ত কখনও টর্চ-অক্সিজেন-ঔষধ-খাবার-পানি নিয়ে...
    সকল অনুভূতিকে ছাপিয়ে কাজ করেছে মানবতা। বিশ্ব মিডিয়ার শত নেতিবাচক আলোচনার মাঝেও আমরা নিজেদের মনবতা বোধে মুগ্ধ হয়েছি, অবাক করেছি বিশ্ববাসীকে...

    আজ মাত্র সপ্তাহখানেকের ব্যবধানে আমরা দেখছি এক নতুন আমাদের... নির্বিচারে মানুষ মরছে। আমরাই আমাদের গুলি করছি, মাথা ফাটাচ্ছি, আগুন দিচ্ছি জনগনের সম্পদে...

    ১৯৭১ থেকে ১৯৪৭: সহিংসতার জন্য দায়ী ধর্ম


    ১৯৭১:পাকিস্হানকে ইসলামের সেবক বলে, নিজেদের(যুদ্ধপরাধী) ধর্মের ধারক ও বাহক বলে, জড়িত হল যুদ্ধপরাধ ও মানবতা বিরোধী অপরাধে। ৭১ থেকে ১৩ পর্যন্ত যুদ্ধপরাধীকে ইসলামের সেবক বলে, নিজেদের(জামায়াত-শিবির) ধর্মের ধারক ও বাহক বলে, যুদ্ধপরাধ ও মানবতা বিরোধীদের রক্ষায় শুরু করে সহিংসতা। যুদ্ধপরাধ ও মানবতা বিরোধী অপরাধে আন্দোলন কারীদের ধর্ম বিরোধী আখ্যায়িত করে নিজেদের(হেফাজত ইসলাম) ধর্মের ধারক ও বাহক বলে শুরু করে তাদের শাস্তির দাবি। আর তার পরিনতি এই সহিংসতা। ১৯৪৭: ধর্মকে কেন্দ্র করে ভারত পাকিস্হান সৃষ্টি, ধর্মকে কেন্দ্র করে পশ্চিম পাকিস্হান দ্বারা পূর্ব পাকিস্হান শোষণ, ধর্মকে কেন্দ্র করে মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্

    পিংকি ভাবীর আদরের তরমুজ-বিপ্লবীদের একদিনের রাজধানী ভ্রমন-কাহিনী


    পিংকি'রে কইতাছি, আপ্নের বহুত শখের তরমুজ-বিপ্লবীরা তো র‍্যাব-পুলিশ-বিজিবি ভাইয়াদের যৌথ অভিযানের মাত্র ১০ মিনিটের মাথায় তরমুজ-বিপ্লব মতিঝিলের শাপলা চত্বরে থুইয়া ম্যঁ-ম্যঁ-ম্যঁ-ম্যঁ কৈর্তে কৈর্তে পুটু বাঁচাইতে ল্যাঞ্জা গুটায়া পলাইয়া গেছে :বিস্ময়: :বিস্ময়: :বিস্ময়:
    :হাসি: :হাসি: :হাসি: :হাসি: :হাসি: :হাসি: :হাসি: :হাসি:
    :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:

    এখন আপ্নের বহুত দিনের শখের ক্ষেমতার কি হইপে গো :বিস্ময়: Biggrin Biggrin Biggrin

    To Dear Gulapi...


    গত রাতের হেফাজত তাড়ানোর পর আজকে বিনপি কি বলবে জানেন?এইটা ঠিক হয় নাই শান্তি পূর্ণ সম্মেলন হেন তেন...গুলাপি তুই বলার আগে আমি বলি শাহবাগ এর তরুন যাদের তুই নাস্তিক হিসেবে জানোস তারা ৩ মাস আন্দোলন করলো আগুন তো দূরের কথা একটা ইট ও কারো দিকে ছুরে নাই আর তোর হেফাজতি রা ৩ ঘণ্টাতেই জ্বালাও-পুরাও করলো।আমাদের পবিত্র গ্রন্থ আল-কোরানে আগুন দিল।তোর কাছে কোনটা শান্তি পূর্ণ মনে হয়?নাকি আপনি আবার সচ্ছ,নিরপেক্ষ প্রমাণ চান???

    গুলাপি পিছনে চায়া দেখ তোর পিছে তোর গুন্ডা বাহিনী ছাড়া কেউ নাই।আর সাধারণ জনগণ তো দূরের কথা।অবশ্য তোর পঞ্চ পাণ্ডব আছে তোর সাথে।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর