নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • মিশু মিলন
    • নুর নবী দুলাল

    নতুন যাত্রী

    • চয়ন অর্কিড
    • ফজলে রাব্বী খান
    • হূমায়ুন কবির
    • রকিব খান
    • সজল আল সানভী
    • শহীদ আহমেদ
    • মো ইকরামুজ্জামান
    • মিজান
    • সঞ্জয় চক্রবর্তী
    • ডাঃ নেইল আকাশ

    অ্যাঞ্জেলিনা জোলির স্তন অপসারন ও জরুরি কিছু কথা


    হলিউড অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলিনা জোলির ক্যান্সারের ঝুঁকি কমানোর জন্য তাঁর উভয় স্তন অপসারণ ও কৃত্রিম ভাবে পুনরায় স্থাপনের খবরটি এখন আমরা কমবেশি সবাই জানি। বিগত মাসেই এই জটিল ও সময়সাপেক্ষ সার্জারির ধকল সামলে সুস্থ হয়ে ওঠা জোলি নিজেই নিউ ইয়র্ক টাইম্‌স পত্রিকায় খবরটি প্রকাশ করেন। তিনি তার ভক্তদের পাশাপাশি পুরো বিশ্বকে আরও জানান যে এরপর তাঁর দ্বিতীয় পদক্ষেপ হবে জরায়ু অপসারণ করে তার স্তন এবং জরায়ুর কান্সারের ঝুঁকি যথাক্রমে ৮৭% ও ৫০% কমিয়ে আনা।

    পাতানো খেলা


    ক্রিকেটে পাতানো খেলা নিয়ে কিছুদিন আগে ভারতে একজন গ্রেফতার হয়েছেন। আমাদের দেশেও হচ্ছে, এমন একটা রটনার মৃদু চেষ্টাও হল। ওদিকে পাকিস্তানের তিনজন তো সাজা ভোগ করছে। ফুটবলেও মাঝে মাঝে শোনা যায়। রেফারী, খেলোয়াড় অভিযুক্তও হচ্ছে হরহামেশা। এতো গেল এক ধরনের খেলা যেখানে প্রতিযোগিতা মূল কথা। তাই পাতানো খেলা এখানে অন্যায়। আবার পৃথিবীর অনেক খেলাই আছে যেখানে পাতানো খেলায় শাস্তি হয় না। কখনও দর্শকরা জানে যে খেলাটা পাতানো, তারপরও হা করে সেসব খেলা দেখে। আমাদের দেশেও একটা খেলায় পাতানো খেলার প্রচলন আছে। প্রচুর দর্শক উৎকণ্ঠা নিয়ে সে খেলা দেখে। যদিও জানে খেলাটা পাতানো, তারপরও দেখে। আর যেহেতু খেলা পাতানোর অভিযোগে ক

    ক্রিটিসিজম ১


    এই ব্লগ সাইটটিতে একটি লেখা পড়লাম। বিবাহ বহির্ভুত শারীরিক সম্পর্ক কেন জরুরি?
    এই সম্পর্কে আমি কিছু নাপাক কথা বলতে চাই।

    আসলে লেখকরা কি চাচ্ছেন?
    আমি আমাদের কিছু সাধারণ কথা বলি।
    সকালবেলায় মায়ের ডাকে ঘুম ভাঙ্গে আমাদের। মা, সেই মহান স্বত্বা যাকে দেখে আমাদের মন ও মনন মুহূর্তেই পবিত্র হয়ে যায়। সামনে এগুনোর শক্তি , সাহস ও ভরসা উনার কাছ থেকেই আমরা পাই। তারপর বাবার কিছু বকুনি শুনি। এই বাবা হচ্ছেন সবসময়ের শিক্ষক, সমালোচক এবং ছায়া দানকারী বট বৃক্ষের ন্যায় একজন আশ্রয়দাতা।

    স্বপ্নবিলাস


    জনমানব শূণ্য পথ , যানবাহনের আনাগোনাও তেমন একটা নেই । আকাশ পানে চেয়ে , সে পথিমধ্যে শুয়ে আছে । বৃষ্টির প্রতিটি ফোটা তার মনকে ছুয়ে যাচ্ছে । সে হঠাত্‍ উপলব্ধি করল , তার পাশে এক নারীমূর্তি বসে আছে । তার চিনতে ভূল হলো না । তার প্রিয়তমাই তার পাশে বসে আছে । আজ তার রূপ যেন ঠিকড়ে পরছে । প্রিয়তমা আজ কালো শাড়ি পরেছে , চোখে কাজল দিয়েছে , চুলে কালো গোলাপ । তাকে দেখতে ঐ কালো গোলাপের মতই পবিত্র মনে হচ্ছে । মেয়েদের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির জন্যে কাজলই যথেষ্ট ।

    এখন তারা পরস্পরের হাত ধরাধরি করে বসে আছে , পথিমধ্যেই বসে আছে । আশেপাশে কারও কোন অস্তিত্ব নেই । তারা একদম একা । বিন্দু বিন্দু জল এবং তার প্রিয়তমা ।

    সিদ্ধান্ত আপনার!আপনি কি করবেন?


    #জামাআত শিবির নিষিদ্ধ হয়ে কি লাভ বা হলেই কি আমদের কাজ শেষ??
    #তারা কি অন্য নাম এ সংগঠন করে কার্যক্রম চালালে কি করবেন ইত্যাদি??
    .
    একটু ধৈর্য নিয়ে পড়েন,প্রশ্নের উত্তর আজ আপনারাই দিবেন।
    .
    ৯২ এ জাহানারা ইমাম এর নেতৃত্বে যে আন্দোলন হয়ছিল,
    এতে জামাত শিবির রাজনৈতিকভাবে খুব ভালো একটা হোঁচট খেয়েছিল,
    কিন্তু সেই সময় জামাত শিবির নিষিদ্ধ না হওয়ার ফলে আজ তাদের ২০ বছর পরের যে কার্যক্রম দেখছি তা দেখে আপনি সিদ্ধান্ত নেন তাদের ৯২ সালে নিষিদ্ধ করা উচিত ছিল কি না?
    .
    আজ ২০১৩তে জামাত তরুণ প্রজন্মের আন্দোলন এর জন্য আবার হোঁচট খেল।

    টি- শার্ট কিংবা বর্ণার না বলা কথা


    অনিকেত ভার্সিটি থেকে বাসায় ফিরছে। বৈশাখ মাসের কাঠ ফাটা রোদ। ঘামে সারা শরীর ভিজে একাকার। খুব তৃষ্ণাও পেয়েছে। পকেটে আছে মাত্র ৫০ টাকার একটা চকচকে নোট। মনে মনে ভাবছে কোল্ড ড্রিঙ্কস কিনবে কিনা। সাত পাচ ভেবে রাস্তার পাশের একটা চায়ের দোকানে ঢুকে পানি খেয়ে নিলো।
    সারা মাস খেটে সাকুল্যে কিছু টাকা পায় সে। সেই টাকা দিয়ে কোনোরকমে নিজের পড়াশুনা আর ভাইয়ের পড়াশুনা চালায়। বাবা মারা গিয়েছে বেশ কয়েকবছর হল। মা থাকেন মামার বাড়িতে। সে আর তার ভাই জিন্দাবাজার একটা মেসে থাকে। ছোট ভাই পাভেল ক্লাস এইটে পড়ে। আর অনিকেত ইংলিশ এ অনার্স পড়ছে।

    দোকান থেকে বের হলেই একটা বাচ্চা ছেলে এসে ধরে তাকে।

    ল্যাঞ্জা ইজ ভেরী মাচ ডিফিকাল্ট টু হাইড ২


    মে মাসের শুরু থেকেই বাতাসে লাশের গন্ধের পাশাপাশি আরও একটা আওয়াজ পাওয়া যাচ্ছিল আর তা হল ৫তারিখের পর দেশ চালাবে শফি হুজুর। আর এই কথা শুনে বিরোধী দল ৪তারিখে দিল ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম। পরদিন মানে ৫মে ২০১৩ সকালে ঘুমথেকে জেগেই শুনি রাজধানী শহরে ঢুকার প্রত্যেকটা পয়েন্ট দখল নিয়েছে হেফাজন। একটা বিশেষ কিছু হতে যাচ্ছে। টিভি আর অনলাইনের মাধ্যমে চোখ সারা দেশে আর বন্ধুদের ফোন কল তো আছেই। মতিঝিলের অফিস পাড়ায় সভা সমাবেশের অনুমতি দেবার পর চেয়ে রইলাম কিভাবে একটা অরাজনৈতিক সংগঠন একটা গনতান্ত্রিক সরকারের পতন ঘটায়? আর মজা করছিলাম কোন মন্ত্রনালয়ে কে যাবে?

    সানি লিয়ন এরশাদ ও অনন্ত জলিল


    চানি লিয়নের সাথে দেখা করতে চান হুমু এরচাঁদ। চানি বাংলাদেশে আসছেন যেনে তিনি ব্যাফুক খুশী হয়েছেন। এ জন্য তিনি সংশ্লিষ্ট ইভেন্টের সাথে যোগাযোগ করছেন বলে জানা গেছে। তিনি বলেন এই ভদ্র মহিলা আমার নাম্বার ওয়ান পছন্দের অভিনেত্রী।তার অভিনয় আমার বেসম্ভব ভাল্লাগে। যে কোন মূল্যে আমি তার সাথে একটিবার(!) মাত্র একটিবার দেখা করতে চাই। এ সময় তাকে প্রশ্ন করা হয় বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট হওয়া অথবা চানি লিয়নের সাথে দেখা করা এই দুই অফারের মধ্যে একটি বেছে নিতে হলে কোনটি নিবেন?

    মৃত্যু কামনা


    কখনো রাস্তা দিয়ে চলার সময় আশেপাশের কোন কিছু খুব মনোযোগ দিয়ে খেয়াল করি নি। আজ খুব মনোযোগ দিয়ে সব কিছু দেখছি। প্রতিটি দোকান, সাইনবোর্ড, লাইটিং, ল্যাম্পপোস্ট, কুকুর, এবং অবশ্যই মানুষ। আমার রিকশাটি অত্যন্ত দ্রুত বেগে চলছে। কেন এতোটা দ্রুত চলছে বুঝতে পারছি না। কিসের এতো তাড়া। একটু ধীরে চলুক না। আশেপাশের সবকিছু একটু ভালো করে দেখি।অন্য সময় হলে আমি রিকশা-আলাকে খুব ধমক দিতাম। কিন্তু আজ বলতে ইচ্ছে করছে না। এই রিকশা-আলাকে আমার চেয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ মনে হচ্ছে। তার বেঁচে থাকাটা অনেক জরুরি। সে না থাকলে তার সংসার হয়তো পথে বসবে। তার স্ত্রীটি হয়তো রাস্তায় রাস্তায় ভিক্ষা করবে, তার সন্তানগুলো হয়তো অনাহারে মর

    রিপোর্টারের ডায়েরী : গণতন্ত্র মুক্তিযুদ্ধ চেতনার পরিপন্থি


    সাধারণত বলা হয় প্রফেশনাল জীবনটা হলো কাঠখোট্টা, রস-কসহীন। তবে সাংবাদিকতায় ঢোকার পর থেকে আমার অবস্থান- এই, একেবারেই 'জেনারালাইজড' অবস্থার পুরোপুরি বিপরীতে। বরং বাংলাদেশের সবচে' রসালো জায়গা হচ্ছে বোধ হয়, রাজনীতির মঞ্চ (নাটক)।

    কিন্তু দুঃখের বিষয় সব কিছু না আমরা নিউজ করতে পারি না। সব কিছু নিয়ে নিউজ হয় না। তবু ভরসা ব্লগ তো আছে। একটা সিরিজ করার ইচ্ছে আছে, সেরকম অপ্রকাশিত (অন-এয়ার হয়নি) নিউজ নিয়ে। লেখাগুলিতে প্রাণ থাকবে না। যেভাবে স্ক্রিপ্ট জমা দিয়েছিলাম। সেভাবেই তুলে দিচ্ছি।

    ১৩ এপ্রিল, ২০১৩
    প্রেস ব্রিফিং, ইসলামী সমাজ
    জাতীয় প্রেস ক্লাব

    ইন্ট্রো:

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর