নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • মৃত কালপুরুষ
    • দ্বিতীয়নাম
    • রাজর্ষি ব্যনার্জী
    • অনিমেষ অধিকারী

    নতুন যাত্রী

    • এম এম এইচ ভূঁইয়া
    • খাঁচা বন্দি পাখি
    • প্রসেনজিৎ কোনার
    • পৃথিবীর নাগরিক
    • এস এম এইচ রহমান
    • শুভম সরকার
    • আব্রাহাম তামিম
    • মোঃ মনজুরুল ইসলাম
    • এলিজা আকবর
    • বাপ্পার কাব্য

    আজ মশাল মিছিলে ৫৬ হাজার বর্গমাইলের ১৮ কোটি মানুষের গান


    শাহবাগ থেকে আমাদের আলটিমেটাম- ২৬ মার্চের মধ্যে বাংলার নাৎসি যুদ্ধাপরাধী সংগঠন জামাত-শিবির নিষিদ্ধের প্রক্রিয়া শুরু করার। অথচ আজ ২৪ তারিখে পৌঁছে গেছি আমরা। আজ দিবাগত হয়ে যে রাত আসবে সেই রাত আমার আমাদের আত্মাকে গ্রাস কর। কালো আর কালো, আরও ঘন কালো অন্ধকারে নিমজ্জিত হোক জনপদ। আরও গাঢ় অন্ধাকারে পতিত হোক এই বাংলা। তাও আবার ঘুঁরে দাঁড়াক সেই ভয়াল ২৫ মার্চের কথা মনে তুলে আমার ৫৬ হাজার বর্গমাইলের ১৮ কোটি মানুষ।

    অবিলম্বে জামাত-শিবির নিষিদ্ধের প্রক্রিয়া শুরুর দাবীতে মশাল মিছিল


    ধর্ম ধর্ম করিস না, ধর্ম তোদের বাপের না।
    আমার সোনার বাংলাদেশ, জামাত শিবির করলো শেষ।
    জামাত শিবির রাজাকার, এই মুহুর্তে বাংলা ছাড়।

    গত ৪২ বছর ধরেই বিষাক্ত এই কীটকে পুষে-পেলে একটি ভাইরাস তৈরী করেছি আমরা। শান্তির পতাকার নিচে ওদের জায়গা করে দিলেও ওরা আমাদের দুর্বল ভেবে বারবার আঘাত করে রক্তাক্ত করেছে। অনেক হয়েছে আর না। ৭১ এ যারা যুদ্ধ করেছেন, প্রাণ দিয়েছেন, সম্মান হারিয়েছেন তাদেরই রক্ত আমাদের শরীরে। এখন সময় সেই রক্তকে আবার শাণিত করার, আবার জাগিয়ে তোলার।
    আলটিমেটাম ২৬শে মার্চ। শুরু করতে হবে জামাত শিবির নিষিদ্ধের প্রক্রিয়া।

    আসুন মূল্য দিতে শিখি.........


    দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় সাধারণ স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি আমি কওমি-মাদ্রাসা,উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়,প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা,বয়স্কদের শিক্ষা ব্যবস্থার প্রয়োজনীয়তা অনুভব করি।

    ওরা আমার মুখের ভাষা কাইড়া নিতে চায়...


    ২০ মার্চ ২০১৩। ইরাকে মার্কিন সামাজ্যবাদী আগ্রাসনের দশম বার্ষিকী। ২১ মার্চ ২০১৩। বিটিআরসির সহকারী পরিচালক স্বাক্ষরিত একটি ইমেইল বার্তায় আমার ব্লগ কর্তৃপক্ষকে বেশ কয়েকজন ব্লগারের ব্লগ একাউন্ট বাতিল এবং উল্লেখিত ব্লগারদের ব্যক্তিগত তথ্যাদি ২৪ ঘন্টার মধ্যে ইমেইল করে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

    মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও মৌলবাদ


    ‘৭১ এর মুক্তিযুদ্ধে অবিস্মরনীয় বিজয়ের এক বছরেরও কম সময়ে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশের স্থপতিরা সদ্যজাত রাষ্ট্রের জন্য যে সংবিধান প্রণয়ন করেছিলেন তা ছিল অনন্যসাধারণ এক রাষ্ট্রীয় দলিল। এই সংবিধানে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের চার মূলনীতি হিসেবে গৃহীত হয়েছিল-

    • গণতন্ত্র
    • সমাজতন্ত্র
    • জাতীয়তাবাদ ও
    • ধর্মনিরপেক্ষতা

    গ্রেফতার হলে করণীয় কী? ব্লগারদের জন্য


    ধর্মান্ধরা বিরোধিতা করেছিল পিথাগোরাসের, এনাকু সিমন্ডের মতো খ্যাতিনাম কৌতূহল প্রবণ দার্শনিকদের। তারা খ্রিস্টের জন্মের চারশ থেকে পাঁচশ বছর আগে বলেছিল “পৃথিবী সূর্যের একটি গ্রহ, সূর্যকে ঘিরে আরো কিছু গ্রহ থাকতে পারে, যারাও সূর্যকে পৃথিবীর মত ঘুরে ঘুরে প্রদক্ষিণ করচ্ছে।” অবশ্যই তখনকার সময়ের জন্য ধর্ম বিরোধী মন্তব্য, তাই সইতে হয়েছে নির্যাতন। কিন্তু সময়ের দাবীতে ঠিক প্রমাণিত হল সূর্য এবং পৃথিবীর মাঝে প্রকৃত সম্পর্ক।

    জন্মদিনের সেকাল-একাল


    বাঙালী মুসলমান পরিবারে জন্ম হওয়ার সুবাদে- ঈদ, বিবাহ, খৎনা, আকিকা, কুলখানি, চল্লিশা, শবে মেরাজ, শবে বরাত, শবে কদর-সহ বিশেষ বিশেষ কিছু অনুষ্ঠান ছাড়া আমাদের আর কোন উৎসব পালনের রেওয়াজ ছিল না। আমাদের পরিবার প্রথাগত ধার্মিক হওয়ার কারণে- পহেলা বৈশাখ, নিউ ইয়ার, কেক কেটে জন্মদিন পালনকে বিধর্মীর অনুকরণ বলে, এইসব পালন করা থেকে আমাদের নিরুৎসাহিত করার চেষ্টা করা হত।

    রাজাকারের পোলা


    রাজাকার শব্দের সাথে নিজামের পরিচয় যখন সে ক্লাশ থ্রীতে উঠেছে। তখন গ্রামে থাকত নিজামরা। গ্রামেরর স্কুলে এক সদ্য নিয়োগ পাওয়া শিক্ষিকা বাবার খুব ভক্ত ছিল। কি যে ভাল লাগত সেই শিক্ষিকাকে !! তাদের বাড়িতে টিফিনের সময় ম্যাডামটি আসতেন দুপুরেরে খাবার খাবার খাওয়ার জন্য। তাকেও আদর করে খাওয়াতেন। একদিন শুনে ম্যাডামের নাকি কি হয়েছে, নিজাম দৌড়ে গেল স্কুলে, কিন্তু সে তেমন কিছুই বুঝেনি কি হয়েছে, শুধু "রাজাকারের বাড়িতে আপনার কি" কথা তার মনে গেথেছে। বাড়িতে মাকে গিয়ে বলল মা রাজাকার কি? বাবা কি রাজাকার?

    মত প্রকাশের স্বাধীনতা সাংবিধানিক অধিকার


    হঠাত করে ব্লগ এবং ব্লগার শব্দটি আলোচনায় ওঠে এসেছিল শাহবাগ আন্দোলন শুরুর দিকে। সাধারণ মানুষের কাছে রীতিমত নায়করূপে প্রতিপন্ন হচ্ছিলেন ব্লগারেরা। কারণ দীর্ঘ ৪২ বছরের জঞ্জাল সাফ করতে তারা মাঠে নামে চেতনায় শান দিতে ব্লগার এবং অনলাইন এক্টিভিস্টদের আহ্বানে। সফল এক গণজাগরণ গড়ে ওঠে সারাদেশে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা লালন করা মানুষেরা ঐক্যবদ্ধ হয় অভিন্ন দাবিতে সব যুদ্ধাপরাধী-রাজাকারের সর্বোচ্চ শাস্তি আর জামায়াত-শিবির নামক বিষবৃক্ষ রাজনৈতিক দলের নিষিদ্ধকরণ। জনগণের এই দাবিতে কোণঠাসা হয়ে পড়ে জামায়াত-শিবির চক্র। ফলে তারা ষড়যন্ত্রের জাল বুনে এবং পরবর্তীতে মোক্ষম আঘাত হানে সাধারণ মানুষের ধর্মানুভূতিকে আশ্রয় কর

    ইহা একটি.........


    প্রিয় জনগণ,
    সকালে যে নাস্তাটি করেছেন তা স্বচ্ছ, নিরপেক্ষ এবং আন্তর্জাতিক মানের কিনা তা কি যাচাই করেছেন? এখনই যাচাই করুন।

    দুপুরে যে ভাত খাবেন তা কোন কৃষকের ধানের তারখোঁজ নিন। কৃষক বেটা যদি নাস্তিক হয়!
    অনেক গরীব কৃষক উপরওয়ালাকে বিশ্রী ভাবে গালি দেয়। বলে, এ আল্লাহর কি অবিচার! এত পরিশ্রম করি তবুও অভাব দূর হয় না!
    কি সাহস! আল্লাহকে অবিচারক বলে!! আশা করি এই ভাত আপনি খাবেন না একজন প্রকৃত ধার্মিক হলে।

    ভাল কথা, আপনার স্কুল /কলেজে কোন নাস্তিক আছে কিনা খোঁজ করেন। একজনও যদি থেকে থাকে তবে সেইস্কুল / কলেজ ত্যাগ করুন। কোন নাস্তিকের স্কুলে খাটি ধার্মিক পড়তে পারে না।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর