নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 7 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • রুদ্র মাহমুদ
    • পৃথু স্যন্যাল
    • সুষুপ্ত পাঠক
    • বেহুলার ভেলা
    • নিটোল আরন্যক
    • মো.ইমানুর রহমান
    • সুজন আরাফাত

    নতুন যাত্রী

    • রমাকান্ত রায়
    • আবুল খায়ের
    • একজন সত্যিকার হিমু
    • চক্রবাক অভ্র
    • মিস্টার ইনকমপ্লেইট
    • নওসাদ
    • ফুয়াদ হাসান
    • নাসিম হোসেন
    • নেকো
    • সোহম কর

    ইস্টিশনে এলাম...


    প্রথমেই ধন্যবাদ জানাই ইস্টিশন কর্তৃপক্ষকে যারা আমার আইডিটা গ্রহণ করে আমাকে ইস্টিশনে আমন্ত্রণ জানালো ।
    ধন্যবাদ জানাই লেখালেখির এমন পরিচ্ছন্ন একটা প্ল্যাটফর্ম তৈরি করার জন্য ।

    আজ থেকে ইস্টিশনে আমার পথচলা শুরু হলো ।
    আমাকে স্বাগত জানানোর কি
    কেউ আছেন ?

    আমি নিজেই নিজেকে স্বাগত জানাই-
    হে হিমু,জোছনা বন ছেড়ে এবার এসেছো ইস্টিশনে,তোমাকে স্বাগত জানাই ইস্টিশনের প্ল্যাটফর্মে ।।

    সত্যবাদী স্বাগতম


    সত্য বলতে গিয়ে যদি আমাকে নাস্তিক ইহুদি-নাসাদের এজেন্ট হিসেবে কেউ ভূষিত করে তবে আমি তাই।কারো কথায় যায় আসে না।আমার আদর্শের জন্য প্রিয় এক বন্ধুর সাথে সম্পর্ক হারিয়েছে।যাকে ভালোবেসেছি তার সাথে বিচ্ছেদ হয়েছে।চক্রবাক তার আদর্শের জন্য সর্বহারা হতে রাজি শুধু আদর্শ বিসর্জন দিতে রাজি না।আমি চক্রবাক শুভ বুদ্ধির ফুল ফোটাতে এসেছি,যারা সত্য বলে তাদের স্বাগতম জানাতে এসেছি।

    মুরতাদ ড. আহমেদ শরীফ


    বাংলাদেশে সাহিত্য-সংস্কৃতি জগতে আহমদ শরীফ এমন একজন ব্যক্তিত্ব, যিনি সবার কাছে প্রিয় হওয়ার দুর্বলতাকে ঘৃণাভরে প্রত্যাখান করেছিলেন। আহমদ শরীফ চট্টগ্রামের পটিয়ার সুচক্রদণ্ডী গ্রামে ১৩ ফেব্রুয়ারী ১৯২১ সালে জন্মেছিলেন এবং ২৪ ফেব্রুয়ারী ১৯৯৯ সালে ঢাকায় মারা যান। কলেজে অধ্যাপনার মধ্য দিয়ে পেশাগত জীবন শুরু। এরপরে এক বছরের কিছু বেশি সময় রেডিও পাকিস্তানের ঢাকা কেন্দ্রে অনুষ্ঠান সহকারী হিসেবে থাকার পর ১৯৫০-এর শেষের দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে যোগ দিয়ে একটানা ৩৪ বছর অধ্যাপনা করে ১৯৮৩ সালে অধ্যাপক হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন।

    কবি রবীন্দ্র নাথের সাথে নবী মুহাম্মাদের তুলনা কতটা যৌক্তিক


    রবীন্দ্র নাথ মৃনালী দেবীকে ৭ বছর বয়সে ধর্ষণ করেছিল তাই একজন ধর্ষকের গান কবিতা বা জাতীয় সংগীত বাদ দেয়া কেন অযৌতিক হবে ? আমার আগের পোস্ট এর "পড়তে এখানে কিলিক করুন "শেষ দুটি মন্তব্যের বিষয় বস্তু এই পোস্ট টি দিতে অনুপ্রাণিত করলো।

    গনধর্ষনের শাস্তি কী এখন বিয়া করা ?


    নীলফামারীর ডোমারে পুলিশ কনষ্টেবল প্রেমিক ও তার বন্ধুদের হাতে গনধর্ষনের শিকার কিশোরী প্রেমিকার ঠাই হল প্রেমিক বন্ধুর বাড়ীতে বধু হিসাবে। বিয়ের মাধ্যমেই অবশেষে গনধর্ষনের সমাপ্তি টানলেন ধর্ষক প্রেমিক। ধর্ষিতাকে বধু হিসাবে বাড়ীতে নেযার পর এলাকার হাজার হাজার মানুষ নুতন বউকে দেখতে ধর্ষক বরের বাড়ীতে ভিড় করছেন। বিষয়টি এখন টক অব দ্যা ডিস্ট্রিক এ পরিনত হয়েছে। এ ঘটনাটি ঘটেছে জেলার ডোমার উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নে। সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সরকার দলীয় কতিপয় নেতার উদ্দ্যোগে বিষয়টি বিয়ের মাধ্যেমে এভাবে নিস্পত্তি হয়।

    যোনী তোমার, তাই দায়ভারটাও তোমারই!!


    জন্মবিরতিকরন শব্দটার সাথে আমরা
    পরিচিত সেই ১৮৩০ অব্দ থেকে ৷
    মিশরে সর্বপ্রথম কুমিড়ের মল,মধু ও
    সোডিয়াম কার্বনেট দিয়ে তৈরী ওষুধ
    ভ্যাজিনায় লাগানো হতো স্পার্ম
    ঠেকানোর জন্য ৷
    আনুমানিক ৩০০০ অব্দে আমেরিকাতে মাছের মুত্রথলী,পশুর নাড়ি দিয়ে একপ্রকার কনডম তৈরী করা হতো ৷

    জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি গুলোকে
    প্রধানত: দুইভাগে ভাগ করা যায়।
    যথা:
    ক) সনাতন পদ্ধতি খ) আধুনিক পদ্ধতি।

    ক) সনাতন পদ্ধতিঃ

    যে পদ্ধতি পরিবারের সদস্য সংখ্যা নিয়ন্ত্রণে ঐতিহ্যগতভাবে সমাজে প্রচলিত আছে সেগুলোকে সনাতন পদ্ধতি বলে। যেমন

    বাঙলার মুক্তচিন্তক আহমদ শরীফের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি


    আহমদ শরীফ বাঙলা সাহিত্য ও সংস্কৃতি, দর্শন, ইতিহাসের অসামান্য পণ্ডিত, বিদ্রোহী, অসাম্প্রদায়িক, যুক্তিবাদী, দার্শনিক, বিতর্কিত ব্যক্তিত্ব-যাকে সকল সরকার ও দলীয় চাটুকাররা ভয়ের চোখে দেখতো, প্রগতিশীল, মানবতাবাদী, আধুনিকতাবাদী আন্দোলন-মুক্তবুদ্ধির ও নির্মোহ চিন্তার ধারক।

    পাবর্ত্য চট্টগ্রামঃ সরকারি কর্মকর্তাদের পানিশমেন্ট জোন


    গাইবান্ধায় সাঁওতালদের বাড়িতে আগুন দেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত পুলিশ সুপার মো আশরাফুল ইসলামকে খাগড়াছড়িতে পুলিশের একটি ব্যাটেলিয়নের প্রধান হিসেবে বদলি করা হয়েছে। কিছুদিন আগে হাইর্কোটের এক আদেশে গাইবান্ধা জেলার পুলিশ সুপার, ওসি ও সংশ্লিষ্ট সকল কর্মকর্তাকে গাইবান্ধা থেকে প্রত্যাহার করা হয়েছিল। গতকাল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক প্রজ্ঞাপণ জারি করে আশরাফুল ইসলামকে খাগড়াছড়ি বদলির কথা ঘোষণা করে।

    #অযাচিত_বাক্যব্যয়...! পার্ট- #অনুভূতি_জঙ্গল(১)


    ২১শে ফেব্রুয়ারি, ১৯৫২সালের এইদিনেই রোপিত হয়েছিল স্বাধীন বাংলাদেশে'র বীজ, যে বীজ ১৯৭১এর ১৬ডিসেম্বর-এ এক ফলবান বৃক্ষে পরিণত হয়েছে, প্রত্যাশার সীমা অসীম ছিলনা, হয়তো আরো বেশি হওয়ার প্রয়োজন ছিল, তা কিন্তু হয়নি, কারণ আমরা বাঙালিরা অল্পতে সন্তুষ্ট থাকতে জানি, কিন্তু বেশি প্রাপ্তির আকাঙ্ক্ষা মুক্ত নিজেকে রাখতে পারিনা সচরাচর; সত্যি বলতে এ আমাদের স্বভাবজাত, আর এ স্বভাবই হয়তো আজ এই নতুন বাংলাদেশ (অনেকের চোখে ডিজিটাল বাংলাদেশ, আমার চোখে কারিগর দিকেই) দেখতে পাচ্ছি; লা ব্যাকরণাদি, বাংলা সাহিত্যের ইতিহাস, সাংস্কৃতিক আন্দোলন- এ সবই আজ কোন না কোনভাবে বিতর্কের মাঝে পড়ে গেছে, প্রশ্ন হচ্ছে কেন?

    ফেসবুকে এখনও ‘রোহিঙ্গানির্যাতন’-এর ছবি এবং বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক-অপশক্তির অপরাজনীতি


    বর্তমানে অং সান সুচী নামক যে নেত্রী আছে—সে বার্মার সামরিকজান্তাদের তল্পিবাহক। আর সুচীদের অনুমোদনেই বার্মার সেনাবাহিনী রাখাইন-রাজত্বপ্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে একটি নৃগোষ্ঠীকে নির্যাতন করছে। আবার অনেকে বলেছে, এদের চিরতরে বার্মা থেকে বিদায় করতে চাচ্ছে। এই ঘটনার কিছুটা সত্যতা রয়েছে। আর মিয়ানমারে কিছুটা রোহিঙ্গানির্যাতন হচ্ছে। তবে বাংলাদেশের কিছুসংখ্যক দালাল ও একাত্তরের যুদ্ধাপরাধীবংশজাত-কুচক্রীমহল যা-বলছে তা আদৌ সত্য নয়। এরা রোহিঙ্গানির্যাতনকে সারাবিশ্বের ইস্যু হিসাবে দাঁড় করানোর জন্য নিজেরা ঘরে বসে যে যেখানে যে-সব আজেবাজে ছবি বা মানুষহত্যার ছবি পাচ্ছে তা-ই নিয়ে অপপ্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। আর তারা সম্পূর্ণ অসৎউদ্দেশ্যে এগুলোকে বার্মার রোহিঙ্গানির্যাতনের ছবি বলে অপপ্রচার করছে। এদের উদ্দেশ্য ভালো নয়। এরা সাম্প্রদায়িকপশুশক্তি।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    Facebook comments

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর