নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • মোমিনুর রহমান মিন্টু
    • কিন্তু
    • জলাভূমি
    • দীপ্ত সুন্দ অসুর

    নতুন যাত্রী

    • আরিফ হাসান
    • সত্যন্মোচক
    • আহসান হাবীব তছলিম
    • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
    • অনিরুদ্ধ আলম
    • মন্জুরুল
    • ইমরানkhan
    • মোঃ মনিরুজ্জামান
    • আশরাফ আল মিনার
    • সাইয়েদ৯৫১

    হেফাজতিরা এখন সরকারমুখী কিন্তু আমাদের ক্ষমা তারা পাবেনা।


    হেফাজতিরা এখন নরম সুরে কথা বলছেন।
    সরকারের সাথে আলোচনায় বসতে চাচ্ছেন।
    কেন?
    সরকার কি হেফাজতিদের ১৩ দফা মেনে নিয়েছেন?
    ব্লগারদের ফাসি দিয়েছেন?
    নারী নীতি বাতিল করেছেন?
    সংবিধানে আল্লাহর উপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস পুনস্থাপন করেছেন?
    যত টুকু জানি উপরের কোন দাবিই পূরণ করেননি ।
    তবে কেন তাদের এইরকম বিড়ালের মত আচরণ?
    প্রথম দিকে সরকার সরকার বিভিন্ন সময় তাদের সাথে আলোচনায় বসতে চেয়েছিলেন ।
    কিন্তু তাতে হেফাজতিরা কর্ণপাত করেনি বরং উল্টা সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার হুমকি দিয়েছিলেন। তবে এখন এখন বিড়ালের মত আচরণ?
    কোথায় গেলো হেফাজতিদের ঈমানি শক্তি?

    আমাদের কথা-

    ধর্ম বিদ্বেষী


    ধর্মের অপব্যবহার করে ধর্মেরপ্রতি বিদ্বেষী করে তুলছে যারা তারাই মুলত ধর্মের ক্ষতি করছে। যেমন করেছে বাংলা ভাই, শায়েক আবদুর রহমান, ওসামা বিন লাদেন এমই হাজারো নাম লিখতে পারবেন। তাই ধর্মের নামে অপধর্ম থেকে সরে না আসলে মানুষ ধর্ম বিদ্বেষী হবেই। ধর্ম মানুষকে রক্ষা করে মানুষ ধর্মকের রক্ষা করতে গেলেই বিপদ।

    রেশমা: এক মৃত্যুঞ্জয়িনীর গল্প...


    সুকান্ত কবিতাটা একটু আগেই লিখে ফেলেছে, আই থিংক...
    ______________________________________________________________

    টানা সতের দিন মৃত্যুপুরীর মাঝে বাস করে, যখন তীব্র আলোয় চোখ ঝলসে যাবার কথা, তখন সে ফিক করে হেসে দেয়।

    আর সবাইকে যেখানে বাধ্য হয়ে বীভৎসভাবে যমকূপ থেকে তুলে আনতে হয়, সেখানে সে ফিরে আসে সম্পূর্ণ অক্ষত দেহে।

    কোন অলৌকিকতায় বিশ্বাস করি না বলে আফসোস হচ্ছে। অলৌকিকতায় বিশ্বাস করলে এখন হয়তো আমাকে এর ব্যাখ্যা খুঁজতে মাথার চুল ছিড়তে হত না। তবু, অলৌকিকতায় বিশ্বাস করি না। পৃথিবীতে সবকিছুই লৌকিক। কিন্তু, বিশ্বাস হতে চায় না। এও কী সম্ভব???

    মুরগীর মাংস


    একটি মধ্যবিত্ত পরিবারে সবচেয়ে উপাদেয় যে খাবারটি পরিবেশিত হয় তা বোধহয় মুরগীর মাংস। যেদিন মুরগীর মাংস রান্না হয় সেদিনটা নিঃসন্দেহে আনন্দের দিন। বিশেষ করে পরিবারটার আণ্ডা বাচ্চাদের জন্য। বিশেষ করে যাদেরকে এখনও ‘খুব বড়’ গ্রুপে ধরা হয় না। মোটামুটি মাঝারি সাইজের হয়ে গেছে এমন সব বাচ্চাদের বায়না ধরার অধিকার অনেকটাই কম। ‘মুরগীর মাংস’ ছাড়া ভাত খাব না বললে একটা কড়া উত্তর অপেক্ষা করে থাকে, ‘এখন বড় হয়েছ। সব খেতে শিখতে হবে।’

    কালপুরুষ তুমার ডিটেকটিভিটি দিয়া ব্লেড বানায়া বাল ফালানুতে লাইগ্যা যাও...


    অনলাইনে আ:লীগ এর সংখ্যা নিয়া দুদিন আগে এরাই বাঁকা হাসি হাসছে। আ:লীগ প্রযুক্তিতে পিছাইয়া আছে, ছাত্রলীগে ডিজিটালাইজেশন হয় নাই এসব কথা বলেছে। কথাগুলো সত্য ছিল। কিন্তু আজকে যখন আ:লীগ ছাত্রলীগ মুভ করতে চাইতাছে, অনলাইনে এদের একটা প্রভাব আইসা যাইতাছে তখন এদের ল্যান্জায় খাউজ্যানি উইঠ্যা গেছে। এতদিন অনলাইনে এই প্রভাব আধিপত্য পুরাটাই ঐ অতিবামেদের হাতে ছিল, এখন তাই ল্যান্জাতে বিকাউজ এক্জিমা দেখা যাইতেছে। অভিযোগ উঠায়া দিসে যে অনলাইন আওয়ামীকরনের পরিকল্পনা হয়েছে, আ:লীগ অনলাইনে প্রভাব বিস্তার করতে চায়! অনলাইনে প্রভাব কেমনে হয় ?

    CP গ্যাং । চুলকানী কার ?


    CP গ্যাং নিয়ে চারপাশে চিত্‍কার ম্যাত্‍কার বলত্‍কার শুরু হইছে ।
    ইস্টিশন ব্লগে আমি কালপুরুষ নামের একজন এই সিক্রেট গ্রুপের সব তথ্য ফাস করে দিছে । বাংলা ব্লগের ঐতিহাসিক এ টিমের মতো ফেসবুকেও একটা ঐতিহাসিক টিম তৈরী হতে হতে থেমে যাচ্ছে । আসলেই কি ?

    জীবন গল্পের এক পৃষ্ঠা


    অমাবস্যার রাত। এই রাতে পৃথিবী এক ভয়ংকর রুপের মধ্য বেঁধে ফেলে জগতে সমস্ত কিছু। পূর্ণিমার রাতে যেমন পৃথিবী ভাসতে থাকে অদম্য জোছনার মায়ার টানে।তেমনি অমাবস্যার ঘুটঘুটে অন্ধকারে মানুষের মনের ভেতরে জমে থাকা অসংখ্য ধুলায় মোড়ানো পথটাকে ভীষণভাবে নারিয়ে দেয়। সমস্ত জগতকে মনে হয় যেন এক ঘাতিনী দৈত্য। সেই দৈত্য তার ইয়া বড় দাঁত বের করে হাসছে। আর তার মুখের কোনে জমা হয়ে আছে অনেক বছরের পুরনো দৈত্যের বিভীষিকার জ্বলন্ত লাভা।তাই এই নিকস কালো অন্ধকার রাতে অনেকে বাইরে বের হওয়াটা নির্ঘাত বকামি ছাড়া কিছুই ভাবে না। কিন্তু কিছু মানুষ এই অন্ধকারের মধ্য জীবনের আলো খুজতে থাকে।

    চিকিত্‍সা বিজ্ঞান এর শপথ


    চিকিত্‍সা বিজ্ঞান এক মহত্‍ কর্মযজ্ঞ । ডাক্তার রা প্রায় ই মজা করে বলেন , আল্লাহ রাগ করলে আল্লাহ রোগ দেয় ,আর ডাক্তার রাগ করলে পরপারের টিকিট ।তাই ডাক্তারদের সাথে ভাল ব্যবহার কর । অনেকেই বলে , তোমরা না শপথ করে এসেছ ? তো এই শপথ টা কী ? মেডিকেল এ ভর্তি হবার আগে আমরাও এ শপথ টা পড়েছি । দুটো শপথঃ হিপোক্রেটিক শপথ আর জেনেভা শপথ ।
    ১৯৪৮ সালে জেনেভা শপথ তৈরি হয় ।নিচে এটি হুবহু তুলে দেয়া হলঃ

    The Physician's Oath
    At the time of being admitted as amember of the medical profession:
    *. I solemnly pledge myself to consecrate my life to the service of humanity; আমি সজ্ঞানে আমার জীবন মানব সেবায় উত্‍সর্গ করছি

    সিপি গ্যাং ও আমি বালপুরুষ


    সকালে ঘুম থেকে উঠেই ব্লগে ঢুঁ না মারলে ভালো লাগে না। সেই রীতি মোতাবেক সকালে ঢুকেই দেখি ব্লগের জংশনে টপ লিস্টে উঠে আছে "সিপি গ্যাং। আওয়ামী গ্যাং। চটি গ্যাং" নামক পোস্টটি। পোস্টটি প্রসব করেছে আমি কালপুরুষ (পড়ুন আমি বালপুরুষ) আর পোস্টদাতার প্রোফাইলে ঢুকতেই রীতিমতো তাব্দা খাইয়্যা ব্যাকা না হইয়া পারলাম না। মাত্র ১ দিন যার বয়স সে কি করে এরকম পোস্ট দেয়?

    মুশফিকের অধিনায়কত্ব ছাড়ার বিষয়ে আমার কথা...


    আরে ভাই!!! জিম্বাবুয়ের সাথে হারলে আপসেট হওয়ার কি আছে?
    মুশফিক তো ইন্ডিয়া,পাকিস্তান,স্রিলাঙ্কা ওয়েস্ট ইনডিস এর মতন শক্তিশালী দলরে বাংলার বাঁশ খাওাইসে আর আমরা এইটাই চাই।জিম্বাবুয়ের মতন দলরে কেয়ার কে করে খালী ওদের আম্পায়ার আর কমেন্টটেটর ছাড়া।আর চিন্তা কইরো না মুশফিক জিম্বাবুয়েরে আজকে না হয় কালকে আবার বাঁশ দিমু।তুমি অধিনায়কত্ব ছাইরনা আমরা ১৬ কোটি বাঙ্গালী আছি তোমার সাথে আর বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাথে আজীবন...

    Image and video hosting by TinyPic

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর