নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • সরকার আশেক মাহমুদ
    • নুর নবী দুলাল
    • সাইয়িদ রফিকুল হক
    • সজল-আহমেদ
    • নরসুন্দর মানুষ

    নতুন যাত্রী

    • নীল মুহাম্মদ জা...
    • ইতাম পরদেশী
    • মুহম্মদ ইকরামুল হক
    • রাজন আলী
    • প্রশান্ত ভৌমিক
    • শঙ্খচূড় ইমাম
    • ডার্ক টু লাইট
    • সৌম্যজিৎ দত্ত
    • হিমু মিয়া
    • এস এম শাওন

    প্রসঙ্গ পাল্টাই, আসেন একটু গপ্প করি


    রোজা রমজানের দিনে এমনিতেই কাহিল লাগে। তার উপর এবার রোজা পড়েছে জুলাই মাসে। সময় আর পার হতে চায় না।
    বাসায় এসে ভাবছিলাম কি করা যায়। ব্লগে ঢুকে দেখি মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে বিরাট হইচই শুরু হয়ে গেছে। গতকাল কি লিখতে কি লিখেছিলাম তাতেই চারপাশে আগুন লেগে গেছে। সবাই খুব সিরিয়াস ভাব নিয়ে নানান গাম্ভীর্য মার্কা আলাপ শুরু করেছে। কিছু বুঝে উঠতে না পেরে নিজের লেখাটাই আবার একবার পরলাম।

    আজ থেকে দশ বছর পর(রণরাজ ও তার উত্তরসুরী)২০+...


    বুঝলি মা,
    সে এক দিন ছিলো,নিজের মুক্তিযুদ্ধের চেতনা জাহির করার জন্য আমাদের ''গণজাগরণ মঞ্চ'' নামক ইস্‌কুলে যাইতে হইতো,গলা ফাটাইয়া জবাই কর্‌ খাসী কর্‌ শ্লোগান দিতে হইতো কিন্তু কোন কাম হইতোনা!

    কেন আমি কোটা পদ্ধতি বাতিলের পক্ষে নই (সংক্ষিপ্ত ব্লগ পোস্ট)


    অনেক ভেবে দেখলাম কোটা পদ্ধতি বতিলের আন্দোলন নিয়ে! না তাদের সাথে আমি এক মত পোষন করতে পারছি না .।

    আমাদের কে যে এই দেশ দিয়েছে এই লাল সবুজের পতাকা দিয়েছে তাদের সন্তান দের কি এইটুকু সুবিধা দিতে পারব না আমরা?

    আর একটু ভেবে দেখেন কারা এই আন্দোলন নিয়ে লাফাচ্ছে ? আমি দেখেছি এই আন্দোলন নিয়ে লাফাচ্ছে ঐ জামাত শিবিরের সাপোর্টার রা .। হ্যা আমি আমার আরেক আইডি দিয়ে দেখেছি যারা শাহবাগের সেই রাজাকারের বিচারের আন্দোলনের বিরোধিতা করেছে তারাই এটা নিয়ে লাফা লাফি করছে .।

    তাদের আন্দোলন এই কোটার বিরুদ্ধে নয় তাদের আন্দোলন মূলত এই মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে .।

    ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার টেকনোলজি


    ।।ইশ্টিশনের সকল যাত্রির প্রতি দৃষ্টি আকর্ষন করছি ।।
    মনোযোগ দিয়ে পড়ুন ।।

    কেউ কি বিস্তারিত বলবেন পলিটেকনিকে ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার টেকনোলজি সম্পর্কে ।এটা কোথায় কোথায় করা যায় ।খরচ কত পড়বে ।চাকরি ক্ষেত্রে কেমন ডিমান্ড আছে ।ডুয়েটে কি বিএসসি করা যায় এই টেকনোলজিতে ।।জানালে উপকৃত হতাম ।।সেই সাথে আমার মত ভুক্তভোগি যারা তারাও জান্তে পারত ।

    বাংলাদেশে বিদ্যমান কোটা ব্যাবস্থা ও আমার দৃষ্টিভঙ্গি


    বাংলাদেশে পাঁচ শতাংশ কোটা রাখা হয়েছে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর/উপজাতিদের জন্য, প্রতিবন্ধীদের জন্য এক শতাংশ, মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের জন্য ত্রিশ শতাংশ, নারী কোটা দশ শতাংশ এবং জেলা কোটা দশ শতাংশ। অর্থাৎ, কোটার জন্য বরাদ্দ আসন ৫৬ শতাংশ। বাকি থাকে ৪৪ শতাংশ, যা মেধাবীদের প্রাপ্য!

    স্মৃতিকথনঃ যেখানে আলাদা ছিলাম আমরা দু'জন।।


    সবকিছুই নাকি পূর্বনির্ধারিত। কিন্তু তারপরও প্রত্যেকটা নতুন জিনিসই চমক নিয়ে আসে। যেমনটা ছিল আমার মেডিক্যাল ভর্তি পরীক্ষায় চান্স না পাওয়া। মাত্র ২ নম্বরের জন্য চান্স পাইনি। কিন্তু এতটা দুঃক্ষ পাইনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চান্স পাবো এটা আমি অনেক আগে থেকেই জানতাম। যেদিন পরীক্ষা দিলাম সেদিনই বুঝতে পেরেছিলাম আমার ঢাবি কনফার্ম।।

    ঢাবিতে ভর্তি হয়ে গেলাম। চাইলে আরো ভালো সাবজেক্টে মাইগ্রেশন করতে পারতাম কিন্তু ২য় বার মেডিক্যালে পরীক্ষা দেয়ার ইচ্ছা এবং ভালো ভালো অনেকগুলো ফ্রেন্ড হয়ে যাওয়ায় সাবজেক্টটা চেইঞ্জ করিনি।।

    দাদা আমাকে স্বামী সন্তান নিয়ে একটু বেঁচে থাকার সুযোগ করে দিন , আমি আর পারছি না !


    দাদা আমাকে স্বামী সন্তান নিয়ে একটু বেঁচে থাকার সুযোগ করে দিন , আমি আর পারছি না !

    পাওনাদারদের চাপে স্বামী সন্তান নিয়ে আত্মহত্যা করা ছাড়া আমার আর কোন পথ নেই।

    সংযম লৈ চুদুর বুদুর চৈলত ন


    আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল ঈদ” বা "আজ চাঁদ দেখা গেলে কাল থেকে রমজান শুরু" খুব সম্ভবত এই শিরোনামটা 'খবর' হিসেবে আমি সব চেয়ে বেশি বার পড়ছি/দেখছি বা সংবাদ পাঠক মারফত শুনছি..... এ এক এভার গ্রীন "শিরোনাম", যা কখনো মরা ঘাঁসের মত সাদাটে হয়ে যায় না" ,চিরকালই চির সবুজ থাকে .....

    মুক্তিযোদ্ধা কোটা


    আমার বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা| যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা|
    মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট ও আইডি কার্ড আছে| যুদ্ধ চলাকালীন উনার বয়স হয়ে ছিল 17 বছর| উনি বিয়ে করেছেন 1987 সালে| বর্তমানে আমি ওনার বড় সন্তান অনার্সে পড়তেছি| ওনার তিন সন্তান| আমার ছোটবোন একজন এইচএসসি প্রথম বর্ষে| আরেকজন চতুর্থ শ্রেণিতে| ওনার বর্তমান বয়স 59 বছর|

    এখন কথা হচ্ছে যে বর্তমানে চতুর্থ শ্রেণিতে সে কি বিসিএস পরীক্ষা দিবেনা??? তার কি কোটা পাওয়ার অধিকার নাই??? একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এতটুকু অধিকার পেতে পারেনা???

    কোটা ও কৌটা ধেত্তেরি মেধা আআআ


    মুক্তি যোদ্ধারা জাতীর শ্রেষ্ঠ প্রাপ্তি এ বিষয়ে কোন সন্দেহ থাকলে তার অবশ্যই দেশ ত্যাগ করা উত্তম।
    আমার দেওয়া অক্সিজেন নিবি আবার আমাকেই উপড়ে দিবি এমন প্রবনতা শুধু নিজেরই অকল্যান বয়ে আনবে।
    মুক্তিযুদ্ধ সংঘটিত হয়েছিল আজ থেকে চার যুগ আগে তখনকার একজন শিশু মুক্তি যোদ্ধার বয়স যদি দশ ধরি তার বর্তমান বয়স বায়ান্ন ছাড়িয়েছে।নিশ্চয় তার সন্তানের বয়স আটাশ হয়ে গেছে।

    আর কয় দিন পর বিলুপ্ত হয়ে যাবে তাদের সকল সুযোগ সুবিধা।
    মুক্তিযোদ্ধারা অনেকেই ভবলীলা সাঙ্গ করেছেন অনেকেই যায় যাব করছেন।
    এখানেই সমাপ্তি হবে
    মুক্তিযোদ্ধাদের বিশেষ সুবিধাবলী।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর