নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • ক্যাম পাশা
    • সলিম সাহা
    • নুর নবী দুলাল
    • মারুফুর রহমান খান
    • লুসিফেরাস কাফের

    নতুন যাত্রী

    • ফজলে রাব্বী খান
    • হূমায়ুন কবির
    • রকিব খান
    • সজল আল সানভী
    • শহীদ আহমেদ
    • মো ইকরামুজ্জামান
    • মিজান
    • সঞ্জয় চক্রবর্তী
    • ডাঃ নেইল আকাশ
    • শহিদুল নাঈম

    আপনাদের নিকট খোলা চিঠি


    সম্মানিত ব্লগার ভাই ও বোনেরা,আমি মফস্বলের একটি খুব সাধারণ ছেলে।কিছুদিন হল কবিতা লিখছি।সস্তা কবিতা।আসলে এসব একটিও কবিতা হয়নি।মাঝেমাঝে এসবই ফেসবুকে স্ট্যাটাস মারতাম আর বন্ধু বান্ধবেরা প্রচন্ড রকম পাম্প মারতো।তো গতকাল হঠাত্‍ ফেসবুকে শামীমা মিতু আপুর একটা স্ট্যাটাসে ইস্টিশনের খোঁজ পেলাম।এখানে এসে দেখি যে এটি একটি ব্লগিং প্লাটফরম।তো আমি যাত্রী হওয়ার জন্য আবেদন করলাম ইস্টিশন মাস্টারের কাছে।এবং যাত্রীও হয়ে গেলাম।শামীমা আপুকে বিশেষ ধন্যবাদ,তার নিকট আমি পরোক্ষভাবে সাহায্য পেয়েছি।এরপর তো উত্‍সাহে আমি কাঁপতেছিলাম!সেই আমেজেই ইস্টিশন বিধি না পড়েই একটানা দিয়ে দিলাম পাঁচ ছয়টা লিখা(বুঝেন কত বড় আহাম্মক আমি!

    মিশন ইম্পসিবল-ছাগু প্রটোকল: ছাগুবাদ এবং ছাগুর প্রকারভেদ


    আজকাল আমাদেরকে ঘিরে আছে অসংখ্য মানবরূপী দ্বিপদী সম্প্রদায়। এদেরকে অনেকে জামায়াত শিবির বলে আবার অনেকে ছাগু বলে। তবে ছাগু নামটি অনেক সহায়ক। এই নামটির আবিষ্কর্তা কে এত্তগুলা ধন্যবাদ।

    সংশয়ে পিতা-মাতা, সহযোগিতার আবেদন


    মায়ের কাছে পরীদের গল্প শুনেছি।শুভ্র পরী, লাল পরী, নীল পরী আর সবুজ পরীদের গল্প। গল্পে ওরা উড়ে বেড়াতো, একসাথে হাসত, খেলত, আনন্দ করত। গল্পের এই পরীগুলো বাস্তবে আছে কিনা জানিনা তবে যাদের মাঝে আমি এই পরীদের খুজে পাই তারা আর কেউ নয় আমার গর্বের বিদ্যাপিঠ কিশোরেগঞ্জ জেলার কুলিয়ার চর থানার ' লক্ষ্মীপুর দ্বি-মূখী উচ্চ বিদ্যালয়ের' ছাত্রীদের মাঝে। কিছু নিষ্পাপ স্কুল বালিকারা যখন রাস্তায় হেটে যাবার সময় একে অন্যের সাথে দুষ্টামী করে, আনন্দ করে স্কুলে যায় কিঙ্গবা স্কুল হতে বাড়ি ফিরে তখন তাদের আমার কাছে পরী বলেই মনে হয়। কিন্তু আজ কিছু হায়েনাদের কারনে বন্ধ হওয়ার পথে এই পরীদের স্কুলে যাওয়া। গত ম

    উপহাস


    হাত বাড়িয়ে তুমি দাঁড়িয়ে কিছু পাবার আশায়
    তপ্ত দুপুরে ঘাম ঝরানো শরীরে আমি ক্লান্ত ,
    ধ্বংস করেছ তুমি আমার জীবনের আনন্দকে
    আজ আবার আমার কাছেই কিছু চাইছ ।
    তুমি যদি একটি গোলাপ সমান ভালোবাসা দিতে
    তবে আমি তোমায় আজ ফিরিয়ে দিতাম না ,
    কিন্তু আমার বুকের বামপাশের ছোট নিলয়টাতে
    তুমি লাখো আজলা ধুতুরার বিষ ঢেলেছ ।

    সবাইকে বাঘদিবসের শুভেচ্ছা।


    আজ বিশ্ব বাঘ দিবস। সবাইকে বাঘ দিবসের শুভেচ্ছা।বন্ধু দিবসের মত বাঘ দিবসের কোনো শুভেচ্ছা বেল্ট বাজারে কিনতে পাওয়া যায়না।নয়তো আজ সবাইকে বাঘাশিপ বেল্ট পড়িয়ে শুভেচ্ছা বিনিময় করা যেত।দুর্ভাগ্য বাঘ মামার।দিবসটি বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সরকারী ভাবে পালন হয় ঠিকই তবে কোনো স্পিড থাকেনা তরুন সমাজের কাছে।তবে কিছু ক্ষোভও আছে বাঘ মামার প্রতি।কারন এই বাঘ মামার আক্রমনে প্রতি বছর প্রায় ৩০থেকে ৫০ জন মানুষ মারা যাচ্ছে আমাদের সুন্দরবন ও তার আশেপাশের এলাকাগুলোতে।আবার মানুষও কি কম যায়?তারা ২থেকে৩টা বাঘও মেরে ফেলছে প্রতি বছর। কমতে কমতে বাঘমামাদের সংখ্যা এখন সুন্দরবনে মাত্র ৪৪০টা।শুধু সুন্দরবনের বাংলাদেশ অংশেই বাঘমামার

    কবিতার ছন্দ ( আনিসুল হক এর লেখা )


    আনিসুল হক এর একটি লেখা কিছুদিন আগে পড়লাম। কবিতা নিয়ে কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য। যারা পড়েননি শুধুমাত্র তাদের জন্য। পরে মন্তব্য অবশ্যই করবেন। আসলে আমার কাছে কবিতা হচ্ছে নিজের অনুভূতি গুলো কে সঠিক শব্দচয়ন ও উপমা দিয়ে প্রকাশ করা। এতো নিয়মনীতি আমার মাথায় ঢোকেনা। তারপরও আপনাদের সাথে শেয়ার করলাম। আপনাদের মতামত আশা করবো।

    ~কবিতার ছন্দ~
    -আনিসুল হক।

    পণ্ডিতদের জন্য নয়।

    আওরা আম্বাঃ পাহাড় চূড়ার এক স্বপ্ন রাজ্য (AWRA AMBA: Utopia in Ethiopia)


    এ যেন এক রুপকথার গল্প, এ যেন এই স্বার্থপর পুরুষতান্ত্রিক পৃথিবীর মধ্যে আরেক লিঙ্গ বৈষম্যহীন বহুমাত্রিক এক স্বপ্নিল জগত। ইথোপিয়ার এক পাহাড়ের চুড়ায় আঁকা স্বপ্নের কথা বলতে যাচ্ছি যা হয়তো গোটা মানব জাতিকে নতুন করে জীবনকে বুঝতে আর শিখতে প্রেরণা দিবে। পাহাড় চূড়ার এই স্বপ্ন রাজ্যটির নাম 'আওরা আম্বা' (AWRA AMBA.)


    প্রতিষ্ঠাতা জুমরা নুরু (ZUMRA NURU The Founder)

    ফরমালিন নিয়ে বলা কতগুলো অপ্রয়োজনীয় ও অবৈজ্ঞানিক কিন্তু আবেগঘন হাস্যকর কথা


    ফরমালিন আর ফ্রিজের কাজ প্রায় একই রকম। দুইটাই পচনশীল খাবার সংরক্ষন করতে পারে। বিভিন্ন ব্রান্ডের ফ্রিজের বিজ্ঞাপন আমরা প্রতিদিন দেখি, কিন্তু ফরমালিনের বিজ্ঞাপন এখনও সেভাবে শুরু হয় নাই। কিছু দিনের মাঝেই হয়তো শুরু হবে। আমার বাসা কাওরান বাজারের খুব কাছে। আশপাশে রাখা ফলের মজুদগুলোতে যেভাবে ফরমালিনের প্রয়োগ দেখছি তাতে করে কিছুদিন পরে এটি আর কোন বিষ বলে বিবেচিত হবে বলে মনে হয়না। খুব শিঘ্রই হয়তোবা বাজারে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ফরমালিন বিভিন্ন নাম নিয়ে আসবে। সেই দিনের কথা ভেবে রোমাঞ্চিত হচ্ছি।

    বেকারের ফরিয়াদ......


    পেশায় আমি বেকার। সমাজে কোন আকার নেই, তার মানে এই নয় যে আমার কোন স্ট্যাটাস নেই। আমার একটা স্ট্যাটাস আছে, ইজ্জত আছে। আফটার অল আমি এদেশের প্রথম শ্রেণীর একজন নাগরিক।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর