নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 9 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • পৃথ্বীরাজ চৌহান
    • দ্বিতীয়নাম
    • নীল কষ্ট
    • রাজর্ষি ব্যনার্জী
    • কুমার শাহিন মন্ডল
    • সাইয়িদ রফিকুল হক
    • অনন্ত দেব দত্ত
    • কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ
    • বিডিবি

    নতুন যাত্রী

    • মাষ্টার মশাই
    • লিটন
    • অনন্ত দেব দত্ত
    • ইকরামুল হক
    • আবিদা সুলতানা
    • ইবনে মুর্তাজা
    • কুমার শাহিন মন্ডল
    • ঝিলাম নদী
    • কিশোর ফয়সাল
    • উসাইন অং

    হুমায়ুন ফরিদী'কে মনে পড়ে.......


    হুমায়ুন ফরিদী

    আজ ১৩ই ফেব্রুয়ারী। গত বছর ঠিক এই দিনে আমরা হারিয়েছি আমাদের প্রিয় অভিনেতা হুমায়ুন ফরিদী'কে। শ্রদ্ধার সাথে স্মরণ করছি এই মহান অভিনয় কারিগরকে। হুমায়ুন ফরিদী'র প্রথম মৃত্যবাষির্কীতে সংক্ষিপ্ত জীবন বৃত্তান্ত আপনাদের সাথে শেয়ার করে তাকে শ্রদ্ধা জানাচ্ছি।

    জন্ম ও শিক্ষাজীবন

    প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ অধ্যাপক আনিসুজ্জামান ও মতিউর রহমানের উপর জামায়াতীদের হামলায় নির্মূল কমিটির নিন্দা


    অধ্যাপক আনিসুজ্জামান ও প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানের উপর জামায়াত শিবিরের সন্ত্রাসীদের হামলার তীব্র নিন্দা করেছে “একাত্তর ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি”। আজ সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সভাপতি বিচারপতি মোহাম্মদ গোলাম রাব্বানী, নির্বাহী সভাপতি লেখক সংবাদিক শাহরিয়ার কবির, সহ-সভাপতি অধ্যাপক মুনতাসির মামুন, শহীদজায়া শ্যামলী নাসরীন চৌধুরী, ভাস্কর ফেরদৌসী প্রিয়বাষিণী, চলচ্চিত্রনির্মাতা শামীম আখতার, ডা: সৈয়দ শাফিকুল আলম ও সাধারণ সম্পাদক কাজী মুকুল স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে বলা হয়-

    তিন মিনিটে কি হল????????


    তিন মিনিটে বাঙ্গালীরা কি এমন করে ফেলেছে?????????
    বার্লিন,ব্রাসেলস,মেলবোর্ন,নিঊ-ইয়ার্ক,লন্ডন থেকে জানান দিয়েছে তাদের অস্তিত্ত।আমাদের মধ্যে এখনো অতৃপ্ত আত্মা অবস্থান করে।আমরা বিচার চাই।আমরা তীব্র শীত উপেক্ষা করেছি কারন মুক্তিযোদ্ধারা নিজের দেশ বাঁচিয়ে জীবন উৎস্বর্গ করেছেন।আমরা মাথা নত করিনি এই বিদেশ বিভূয়েঁও।আমরা মাথা উঁচু করে বাঁচতে জানি।হাহাকার নয়,দাবী নিয়ে এসেছি।আমরা ক্ষুব্ধ।

    ছাগুদের কিছু ফেসবুক পেইজ ও প্রোফাইল- গনহারে রিপোর্ট মারেন


    ফেসবুকে একটা নোট পেলাম Nafiz Tahmid এর লেখা, যেখানে ছাগুদের কিছু জনপ্রিয় ফেসবুক পেইজ, গ্রুপ এবং কিছু ছাগুদের প্রোফাইল লিংক শেয়ার করা হইছে। গুরুত্বপূর্ণ মনে হওয়ায় হুবুহু কপি পেস্ট মারলাম। কারন ছাগুরা এইসব পেইজ আর গ্রুপ থেকেই বিভিন্ন অপপ্রচার ও প্রপাগান্ডা ছড়ায়। এইসব পেইজে এবং গ্রুপের বিরুদ্ধে গনহারে রিপোর্ট করেন, পারলে প্রোফাইলগুলার বিরুদ্ধেও রিপোর্ট করেন। ছাগুরা চলে ডালে ডালে, আমরা চলব পাতায় পাতায়। চলেন শুরু করি।

    জামাত শিবিরের চিহ্নিত কিছু ফেসবুক পেজ এবং দালালদের প্রোফাইল

    অভাগা


    অবশেষে বাংলার নারী জাতির কপালে
    দিল তারা পতিতার খেতাব,
    ওরে তোরা নাকি জড় হয়েছিস করতে বিলাপ।
    আমি বলি,যদি খেতে চাস মরন কামড়
    জামালখান-শাহবাগে গিয়ে বল,
    তোরা দেখি নব্য রাজাকার,হবি শীঘ্রই অচল।
    বাঁধ ভাঙ্গা কন্ঠে আজ শুধু ঊল্লাসে আমরা
    আর নয় হাহাকার গর্জে ওঠো বাংলা।
    ভুলে গেছ কি পালিয়েছে ওরা
    ভয় পেয়ে মুক্তিযুদ্ধের সময়
    নাকি এখনো স্বপ্ন দেখে ওরা
    আবার বেয়নটের খোঁচায় হবে তোমার
    রক্তাত্ত দেহ।
    আমৃত্যু লড়াই তোমার কি ডুব দিয়েছে জলে
    মরণ খেলায় ছাড়ো নি ময়দান,জয়ের নেশায়
    হবে মরণ তোমার নিষ্টুর নিয়তিতে।
    আবার মুক্ত হবে বাংলা
    আবার মুক্ত হবে বাতাস
    এই বাংলার জল বায়ু।

    অসাম্প্রদায়ীকতা নীতি কি বাস্তবায়িত হবে?????


    কেউ যদি বলে মিশরের হোসনী মোবারক কিংবা লিবিয়ার গাদ্দাফীর পতন তাদের মানুষের হাত ধরে।আমি বলি নাহ।আরব বসন্ত কোন শোষিত জনগণের নিজেদের উদ্যোগ ছিল নাহ।এটা পশ্চিমা বিশ্বের ডলারের ঝনঝনানি ছিল।কিন্তু আপনি এমন গন-জাগরণের গর্বিত অংশ হতে পারেন নিজেই।আপনি নিজেই ঊদ্যোগক্তা।দেখুন যারা এই আন্দোলনের বিরোধী তারা শিক্ষিত হলে তাদের বলতে হবে পড়ালেখা করে মূর্খতার পরিচয় দিয়ে যাচ্ছেন ক্রমাগত।তাদের মস্তিষ্ক কি ধরনের উর্বরতা লাভ করেছে তা আমার বোধগম্য নহে।আপনি অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র ব্যবস্থায় সাম্প্রদায়িক চিন্তা করতে পারেন নাহ।রামুর মন্দিরে হামলার পর আমরা দেখিনি অপরাধীর কি অবস্থা।বিগত চার বছরে দিনাজপুর,ব্রাহ্মণব

    খুব খৈয়াল কইর‍্যা


    ধর্ম মানে আপনি কি বুঝেন জানি নাহ।শ্লোগান দেওয়া লাকি আক্তারকে বেগানা নারী কিংবা কচি মেয়ে বলে আপনি কি বুঝাতে চান??????গণজাগরণে আপনি মানুষের ছেলে-মেয়েদের না যেতে বলছেন কারণ ওটা আড্ডা মারার জায়গা আর নেশা করার জায়গা বলে???তা আপনি পড়ালেখা শিখে কি হয়েছেন?????ধর্মান্ধ??????আপনি তো আবার তাদের নাকি পতিতাও বলেছেন,তা তারা তাদের যে রেট খানা দিয়েছে তাতে তো আপনার আত্মারাম খাঁচা ছাড়া হওয়ার যোগাড়।আপনার ধর্মের ডিকশনারিতে কি এমন শব্দ আছে যা শুনলে আপনি এমন হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন যে,স্বাধীন দেশ আপনাকে এই মুক্ত চিন্তার যে সুযোগটুকু দিয়েছে আপনি কোথায় নিজেকে তুলে ধরবেন তা নাহ,নিজের স্ব-জ্ঞান টুকু

    প্রেম-হুমায়ুন আজাদ


    হুমায়ুন আজাদের কিছু প্রবন্ধ পড়ছিলাম। পড়তে পড়তেই 'প্রেম' শীর্ষক প্রবন্ধটি পেয়ে গ্যালাম। তারপর থেকেই খুব ইচ্ছা করছিল সবার সাথে শেয়ার করার। শেয়ার করার সাহস বা উতসাহ যাই বলেন না ক্যানো মুলত পেয়েছি নাগরিকব্লগের নাগরিক বায়স এর পোষ্টগুলো থেকে। প্রবন্ধটির কিছু অংশ শেয়ার করার পেছনে যে কারনটি কাজ করেছে তা হল আমি আর কোথাও কাউকেই প্রেম ভালবাসা জিনিসটাকে এত নিরপেক্ষ,কোন রকম যুক্তিতে না যায়েই কাউকে বিশ্লেষন করতে দেখি নাই। সবাই ক্যামন যানি একটা রাখঢাক করেই এই ব্যাপারটাকে এখন পর্যন্ত বিশ্লেষন করেন। সেই দৃষ্টিকোন থেকে এই প্রবন্ধটি একদম আলাদা। নিচে কয়েকটি প্যারা শেয়ার করলাম।

    চক্রান্তের গায়ে আজ কাপড় নেই !!


    শাহবাগ তথা সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে পড়া গনজাগরন আজ নানা কুটনৈতিক চক্রান্তের সম্মুখিন।

    আচ্ছা আমরা বাঙালিরা এত রসিক কেন?? ‼‼
    সময়ে সময়ে কিছু রাজনীতি বিদেরাও সমালোচনার চরম পর্যায়ে রসিক হয়ে ওঠেন।

    "শাহবাগ তথা সারা বাংলাদেশের গনজাগরন নাকি একটা সাজানো নাটক ‼ " এইটাকে >জোক অব দ্য ইয়ার

    আমাদের দেশপ্রেমিক বি.এন.পি এর নেতাকর্মীরা সাম্প্রতিক সময়ে এরকম উৎকৃষ্ট মানের কৌতুক করে রসিক হওয়ার চেষ্টা করছেন।তাদের এ প্রচেষ্টাকে তীব্র ব্যঙ্গ এর
    সহিত সাধুবাদ জানাচ্ছি ।

    আমার বন্ধু।


    খুব খারাপ আজ মন। বার বার ভীজে উঠছে চোখ। বার মন ফিরে যাচ্ছে অতীতে, জুয়েল, সাগর আর আমার একসাথে আড্ডা দেবার সময় গুলাতে। মন ফিরে যাচ্ছে হরতালের ভোরগুলিতে, সাত সকালে ডিউটিতে আসা। সকাল সাড়ে ছটায় পল্টন মোড়ের মরণ চাঁদের মিষ্টির দোকান খুলতে না খুলতেই, সাগর, জুয়েল সোহরাব ভাই, আমি ও আরো দুই তিনজন দৌড় লাগাতাম...প্রথম কাস্টমার হবার জন্য। পাল্লা দিয়ে নাস্তা খাওয়া, যে কম খাবে তাকে বিল দিতে হবে নিয়ম চলতো। হাজার চেষ্টা করেও বিল দেয়া থেকে রেহাই পেতাম না।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর