নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • রাজর্ষি ব্যনার্জী
    • ড. লজিক্যাল বাঙালি
    • সুবর্ণ জলের মাছ
    • দীব্বেন্দু দীপ
    • মো.ইমানুর রহমান
    • সাইয়িদ রফিকুল হক

    নতুন যাত্রী

    • বিদ্রোহী মুসাফির
    • টি রহমান বর্ণিল
    • আজহরুল ইসলাম
    • রইসউদ্দিন গায়েন
    • উৎসব
    • সাদমান ফেরদৌস
    • বিপ্লব দাস
    • আফিজের রহমান
    • হুসাইন মাহমুদ
    • অচিন-পাখী

    মরে যাওয়া কত সহজ?


    (পোস্টটিতে ইচ্ছাকৃতভাবে কয়েকটি শব্দ বার বার ব্যবহার করা হয়েছে। অসহ্য বিষয়কে অসহ্য লাগানোর জন্য।)

    মরে যাওয়া কত সহজ?
    সব মরে যায়।
    আমি মরে যাই।
    তুমি মরে যাও।
    ঘাসের শিশির, কাটা পাহাড়ের চাদ, প্রানবন্ত সবুজ, প্রেমিকার মিষ্টি হাসিও মরে যায়।
    শুভ নামের ছেলেটি অবহেলায় অবলীলায় চোখের সামনে মরে যায়।
    আন্দোলনও ফিকে হয়ে আসে;
    মরে যায়।

    তাই বলে কি সবকিছুই মরে যায়?
    মায়ের ভালবাসা?
    বাবার শাসন?
    বোনের আবদার?
    ভাইয়ের বকুনি?
    বন্ধুদের আড্ডা?
    প্রিয় কারো হাসি?

    যদি তাই হবে!
    তাহলে বেচে থাকার মানে কি?
    খুটে খুটে মরে যাওয়াই ভালো।
    যারা আমাদের বেচে থাকাকে অনধিকার চর্চা মনে করেন,

    একাল সেকাল


    ১। সভ্যতার আধুনিকতা মননে না পৌছালেও ইট কাঠ সুড়কির অবকাঠামোয় বাংলাদেশে পরশ বুলিয়েছে নব্বই দশকের শুরুতে। পাশ্চাত্যের অহংকারের বেশির ভাগই এদেশের মানুষ উপভোগ করছে গ্লোবালাইজেশনের বরাতে। কিন্তু সমস্যা হলো সভ্যতার আর্শীবাদের তুলনায় অভিশাপগুলোই এদেশ আয়ত্ত করেছে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে। বিঞ্জানের আবিষ্কারগুলো বিভিন্ন জাতি উত্‍কর্ষের জন্য ব্যবহার করলেও অপব্যবহারের মাত্রা দুর্ভাগ্যবশতঃ এদেশেই বেশি। পুঁজিবাদ, সাম্রাজ্যবাদ ও সুবিধাবাদ এদেশের সমাজ ব্যবস্হায় একধরনের ভোগবাদিতা তৈরি করেছে। ফলতঃ নিজেকে নিয়ে বাঁচার তত্ত্ব দিয়ে মানুষকে অন্তমূখী করা হয়েছে, একমুখী পরিবারের কথা বলে সমাজ ছিন্ন ভিন্ন করা হয়ে

    উচ্চ মাধ্যমিকে "ইসলাম শিক্ষা" বিভাগ


    খবরে দেখলাম বাংলাদেশে শিক্ষা ব্যবস্থায় উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে " ইসলাম শিক্ষা" নামে একটা নতুন বিভাগ চালু হয়েছে। জ্ঞান-বিজ্ঞানের তিনটা বিভাগ থাকার পর এমন একটা বিভাগ চালু করা কতটুকু যুক্তিযুক্ত?

    টিকফা চুক্তি : ক্ষতি বাংলাদেশের


    যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের ‘বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সহযোগিতা চুক্তি’ (টিকফা) নিয়ে এখন বিভিন্ন মহলে চলছে সরগরম আলোচনা। সম্প্রতি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর যুক্তরাষ্ট্র সফরে সে দেশের সহকারী বাণিজ্য প্রতিনিধি মাইকেল ডিলানির আগ্রহ প্রকাশের মধ্য দিয়ে নতুন করে আলোচনায় উঠে এসেছে টিকফা। দীর্ঘদিন থেকে টিকফা নিয়ে দুদেশের মধ্যে আলোচনা চললেও বেশ কয়েকটি বিষয়ে দুদেশ একমত পোষণ না করায় চুক্তিটি এখন পর্যন্ত স্বাক্ষরিত হয়নি। তবে এবার বাংলাদেশ সরকারের মনোভাব আগের যে কোনো সময়ের চেয়ে বেশি ইতিবাচক।

    যাচ্ছেতাই


    ছোটবেলায় অনেক ছড়া/অনুকাব্য পড়েছি, যেমন 'আয় আয় চাঁদ মামা','ঐ দেখা যায় তাল গাছ'। এইরকম হাবিযাবি অনেক কিছু।
    বড়বেলায় যদি 'আমার বই-পঞ্চদশ ভাগ' নামে কোন বাংলা বই থাকত তবে সেই ছড়া/অনুকাব্য গুলো কেমন হত? স্বমস্তিষ্ক ঘষে ঘষে কয়েকটা বের করার ট্রাই করলাম...
    ১/রঙ দেখে তোর প্রেমে পড়িনি
    শুনে রাখ কন্যে,
    মনটা শুধু চেয়েছি তোর,
    ভালবাসার জন্যে।।

    ২/আগডুম বাকডুম, যত ডুমই আসুক
    লেরিঙে ফেরিঙে, তোরে যতই ভালবাসুক,
    হইবে না তা আমার সমান
    একদিন তুই পাইবি প্রমান।।
    ৩/তোর জন্য সাত আসমান পাড়ি দেব
    ভুয়া কথা,
    একশ আটটা নীল পদ্ম এনে দেব
    ভুয়া কথা,
    তোরে আমি ভালবাসি, এইডা শুধু
    হাচা কথা।।

    মঞ্চ


    একটি মঞ্চের ওপর দৃশ্যায়িত নাটক
    নাটকের মূল চরিত্র একটি সত্তা ,
    তার বিষয়ে নেই কোনও তথ্য জানা
    আছে শুধু একটি সাংকেতিক বাক্য ,
    আমি রক্তমাংসের মানুষ হবার যোগ্য
    বহু পাপ-পুণ্যের আমি গর্বিত জনক |

    নাটকের মহড়ায় হচ্ছে শুধু ভুল
    ক্লান্ত হল সত্তা, দিতে ভুলের মাশুল ,
    ভালোবাসা কিংবা পরোপকারের অঙ্কের মাঝে
    সস্তা সংলাপের আর চরিত্রের বাহুল্যতা ,
    রূপকারের নির্দেশে নকল সাজ সেজে
    নাটকের পরিচালকের পরিচয়ই আজ অজানা |

    স্বার্থপরতা আর লোভের মাঝে পড়ে
    মূল চরিত্র যেন আজ নাটকের খলনায়ক ,
    সত্যমিথ্যার হিসেব কষতে গিয়ে
    হারিয়ে গেল ভালমানুষের অবয়ব ,
    শেষ অঙ্কের শেষ সংলাপে এসেও
    শেষ হয় না প্রহসন

    "চেতনা" খুবই রহস্যময় কিংবা রহস্যময়ী!!!


    ফেইসবুকে এক বন্ধুর শেয়ার করা একটা ভিডিওতে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ইসলামী ব্যাংকের এমডির কাছ থেকে সাভার ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য চেক গ্রহনের দৃশ্য দেখার পর,আই ওয়াজ জাস্ট ওয়ান্ডারিং,শাহবাগের 'চেতনা'-র দোকান বন্ধ হওয়ার পর আমাদের চেতনাধারীদের অনুভুতিও কি ভোঁতা হয়ে গিয়েছে নাকি? যাতে আঘাত লাগার ভয় নেই ! আব্দুর নূর তুষার সাহেবকে কি পেইনটাই না দিছিলাম আমরা ইসলামী ব্যাংকের একটা অনুষ্ঠানে উপস্থাপনা করায়। এখনও বেচারা নিজের ফেইসবুক স্ট্যাটাস দিতে দশবার চিন্তা করে!!! স্ট্যাটাসখানা আবার চেতনার গায়ে ডিজেল দিয়ে দেবে কিনা!!!

    বদলে দাও, বদলে যাও।


    ধড়ফড় করে উঠে বসলাম, বালিশের পাশে মোবাইল ফোনটা বেজে যাচ্ছে, ঘড়িতে সময় ভোর সাড়ে চারটা।

    (মাঝরাতে আর ভোর রাতে ফোন বাজলে কোন অজানা কারনে গলা শুকিয়ে যায়। হৃদপিণ্ডের গতি বেড়ে যায়)।
    অচেনা একটা নাম্বার ডিসপ্লে হচ্ছে স্কীনে।ফ্যাসফেসে গলায় বললাম, হা হ্যা লো।

    মতি ভাইয়ের সাথে দেখা করবো, ব্যবস্থা করে দাও, অপর পাশ থেকে একজন মহিলা বলে উঠলেন।

    কি বলছেন আর কে বলছেন? ফ্যাসফেসের বদলে রাগ বের হল গলা দিয়ে। ভোর রাতে...
    ইয়ার্কি মারতে ফোন করছে কেউ।

    ইয়ে আমি খালা, শাম্মীর আম্মু, ঢাকা থেকে।

    ওহ খালা কী হয়েছে? আপনারা সবাই ভাল আছেন? খালু ভালো আছেন?

    বাতাসী


    https://fbcdn-sphotos-f-a.akamaihd.net/hphotos-ak-ash3/s720x720/942256_1...

    গ্রীষ্মের খা খা দুপুর। আব্দুল বাসেত মিয়া রাস্তা দিয়ে হাটঁছে। মাথায় এক ঝুড়ি চুড়ি। পাড়ার লোকেরা তাকে এক ডাকে চুড়িওয়ালা নামে চিনে। কারন বহুবছর ধরে এ ব্যবসা করছে সে।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর