নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • সুমিত রায়
    • পৃথু স্যন্যাল
    • আরমান অর্ক
    • সত্যর সাথে সর্বদা

    নতুন যাত্রী

    • অন্নপূর্ণা দেবী
    • অপরাজিত
    • বিকাশ দেবনাথ
    • কলা বিজ্ঞানী
    • সুবর্ণ জলের মাছ
    • সাবুল সাই
    • বিশ্বজিৎ বিশ্বাস
    • মাহফুজুর রহমান সুমন
    • নাইমুর রহমান
    • রাফি_আদনান_আকাশ

    ভাত দে হারামজাদা, নাইলে মানচিত্র খাবো।


    ভাত।

    খুব ছোট্ট একটা শব্দ। কিন্তু দু অক্ষরের এই ক্ষুদ্র শব্দটা আমাদের সব কার্যকলাপকেই বৃহৎ একটা গণ্ডিতে প্রতিবিম্বিত করে। আমরা যা কিছুই করি না কেন তাতে উদ্দেশ্য একটাই এই সাদা বর্ণের ২ মিলিমিটারের বস্তুটিকে আত্তস্থ করা।

    ভাত বলতে আমি শুধু ভাত না অন্নকে নির্দেশ করছি। ক্ষুধার জ্বালা বড় জ্বালা। ক্ষুধার্থ অবস্থাতে ন্যায্য অন্যায্য কখনোই চোখে পরে না। অন্ন্যায় যা কিছু সবই দু মুঠো ভাতের জন্যই।

    ব্যর্থ জীবনের গল্প !


    এই জীবনটার সাথে যতবার বন্ধুত্ব করতে চেয়েছি
    সে তত বার আমার সাথে শত্রুতা করেছে ,
    যতবার সাজাতে চেয়েছি,ততবার এলোমেলো করে দিয়েছি,
    কি চায় সে আজো বলেনি,
    কি অপরাধ আমার কখনও বুঝিনি,
    বারবার তার পায়ে মাথা ঠুঁকে
    বুঝাতে পারিনি তাকে আমার চাওয়াগুলোকে,
    সে কখনও বলেও নি কি করতে চায় সে ?

    অমি রহমান পিয়াল গং- একদল বেঈমানের অক্ষশক্তি


    অমি রহমান পিয়াল, আসিফ মহিউদ্দিনের মতই আরেক চরিত্র। আসিফ “আমি আমি আমি” করার জন্য বিখ্যাত হলেও তিনি আরেক কাঠি বেশী সরস। তিনি “আমি” শব্দের বদলে ব্যাবহার করেন তার নামটাই “ অমি পিয়াল”। আসিফ দাবী করতেন মানুষ শুধু তাকে নিয়েই ভাবে আর তিনি ভাবেন মানুষ মাত্রেই তার শত্রু। এ জীবনে কতবার যে তিনি নিজের প্রানহানির আশংকা করেছেন তার ইয়ত্তা নাই। নিজের গুরুত্ব বোঝাতে দুইদিন পরপরই নতুন ভং ধরেন। বন্দুকের ছবির দেয়া, ইংগিতপুর্ন স্ট্যাটাস দেয়াসহ নানান প্রকারের শো অফ। কুত্তায় চোদে না, বাদশাহীর শখ যাকে বলে।

    শেষ রাতের স্বপ্ন...


    হালিমা বেগম-কেমন আছিস বাবা?তোর কথা মনে পড়ে ভীষণ...

    রায়হান-ভালো মা।তোমার কথাও মনে পড়ে মা ভীষণ।তুমি কেমন আছো মা ভালো তো?

    হালিমা বেগম-আমার আর ভালো থাকা সেই যে তুই চলে গেলি যুদ্ধে তখন থেকেই আমার ঘুম নাই দুই চোখে তোর চিন্তায়।কেন তুই চলে গেলি বাবা।জানিস তোর চলে যাবার পর তোকে আমরা অনেক খুজেছি।তন্ন তন্ন করে কত জায়গায় কিন্তু কথাও তোকে পাই নি এমন কি তোর লাশটাও।

    সব কসম খসে পড়লো __ তোর ঘোমটার লাহান


    তোরে ভুলবার পারি নাই
    ব্রহ্মপুত্রের বাম কোনায় ডাইন পা ভিজাইয়া কসম কাটছিলাম
    তোর ঘোমটা দেয়া মুখ ভুইল্লা যামু

    মর্মান্তিক কৌতুক


    হন্যে হয়ে লেখার বিষয় খুজছিলাম। কি নিয়ে লেখা যায়? হরতাল? বিরোধীদলের বেহাল অবস্থা? হেফাজতে ইসলামের উত্থান? গণজাগরণ মঞ্চের দুর্দশা? কোনটাই মনঃপুত হছে না। কোনটাতেই যেন তরতাজা টাটকা ভাব নাই। এমন সময় সাভারে ঘটনাটা ঘটলো। খবর হিসেবে নিঃসন্দেহে ‘ব্রেকিং নিউজ’। সব টিভি চ্যানেল হামলে পড়বে। উদ্ধার কার্যের সরাসরি সম্প্রচার, ইন্টারভিউ, এনাম মেডিকেলের চিকিৎসকদের বক্তব্য। সঙ্গে আরও থাকবে, কিছু প্রত্যক্ষদর্শীর মর্মস্পর্শী বর্ণনা, কিভাবে ঘটলো, তখন তিনি কি করছিলেন, এইসব। এসব দিয়ে প্রায় সব মিডিয়ার আগামী কিছুদিনের খোরাক চলবে।

    আমাদের একতায় মহাসেনরা নিপাত যাক


    আলহামদুলিল্লাহ্‌ সবকিছু মোটামুটি ভালোভাবেই শেষ হল। যদিও ঘূর্ণিঝড় মহাসেন সিডর, নার্গিস, আইলার চেয়ে দুর্বল ছিল তারপরেও প্রশাসনের ব্যাপক প্রস্তুতির কারনে ক্ষয়ক্ষতি অনেক কম হয়েছে। এজন্য দেশের গণমাধ্যম, সরকার, স্থানীয় জনপ্রশাসন, এবং স্বেচ্ছাসেবকগন প্রশংসার দাবী রাখেন। মহাসেনের মোকাবেলায় সরকারের পূর্বপ্রস্তুতি সত্যিকার অর্থেই প্রশংসনীয়। উপকূলের মানুষদের পাশে দাঁড়াতে সরকারের বিভিন্ন দপ্তর যে কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহন করেছেন তা অন্য যেকোন সময়ের চেয়েই তাৎক্ষণিক ও বিচক্ষণ। আমরা আশা করবো আগামীতে যে সরকারই ক্ষমতায় আসুক না কেন সবাই যাতে এভাবেই অথবা এর চেয়েও ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহনের মাধ্যমে উপকূল

    'গল্পকবিতা'র ‘পরিবার’ সংখ্যার ফলাফল প্রকাশ


    নতুন প্রজন্মের প্রতিভা ও সৃষ্টিশীলতা বিকাশে সাহিত্য বিষয়ক ওয়েব পোর্টাল গল্পকবিতা ডট কম আয়োজিত ‘ পরিবার ’ সংখ্যার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। বিচারক ও পাঠকের ভোটে গল্প বিভাগে প্রথম বিজয়ী হয়েছেন এশরার লতিফ তাঁর ‘ তৃতীয় দিন ’ গল্প নিয়ে। দ্বিতীয় বিজয়ী অদিতি ভট্টাচার্য , তাঁর গল্প ‘

    মহাসেন কথন


    ঘূর্ণিঝড় 'মহাসেন' আতঙ্কে উপকূলীয় এলাকার মানুষজন আশ্রয়ের সন্ধানে দিশেহারা। ভাগ্যবানেরা হয়তো নিরাপদ আশ্রয়ে, দুর্ভাগাদের কথা জানে শুধু সৃষ্টিকর্তা।

    আগামি কয়দিন কী খাইবো কিংবা খাইবো না, কই থাকবো নাকি বানের জলের মতো ভাইসা বেরাইবো চিন্তার বিষয়। আর আমরা দালানবাসী এখন গুড়ি গুড়ি বৃষ্টিতে খিচুরি খাওয়ার চেতনায় কষ্টে আছি।

    ফেইসবুকে ঝড় তুলি "আহারে কত কষ্ট,মরবে বুঝি আরও হাজার চরেক ধুত্তুরি। এতো লাশ,এতো লাশ -মোরা সবাই প্রকৃতির দাস। বউরে মারে জামাইয়ে, জামাইরে মারে গুন্ডায়ে, আর গরিবেরে মারে খোদায়ে।"

    ফিরে যায় অতীতের ছায়া


    মিথ থেকে উঠে আসা জোনাকি পোকা
    আরও কিছু বিচ্ছিন্ন ছেড়া ছেড়া পাতা
    ভাসিয়ে নিয়ে যায় অতীতে, অবিকল পূর্বজন্মে
    যত বিলাপ আর সময়ের নির্দয় আঘাতে বিদীর্ণ আয়ুষ্কাল
    মায়ার জগতে ঠাই নিতে দ্বিধাসকল আজ অপরাগ।
    ক্রোধের ছুরি দিয়ে কেটে ফেলি সময়ের জাল
    প্রতি মুহূর্তে সময় ছিন্ন করি আর ফেটে পড়ি অট্টহাসিতে
    যত পূন্য সব জমা এই জন্মের ঝুলিতে।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর