নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • মৃত কালপুরুষ
    • দ্বিতীয়নাম
    • রাজর্ষি ব্যনার্জী
    • অনিমেষ অধিকারী

    নতুন যাত্রী

    • এম এম এইচ ভূঁইয়া
    • খাঁচা বন্দি পাখি
    • প্রসেনজিৎ কোনার
    • পৃথিবীর নাগরিক
    • এস এম এইচ রহমান
    • শুভম সরকার
    • আব্রাহাম তামিম
    • মোঃ মনজুরুল ইসলাম
    • এলিজা আকবর
    • বাপ্পার কাব্য

    নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতুঃ একটি নতুন ভাবনা ও জাতীয় ঐক্যের শ্রেষ্ঠ সুযোগ


    পদ্মা সেতু নিয়ে অনেক কথা হয়েছে আজ আমি এমন একটি বিষয় উপস্থাপন করব যা বাঙ্গালী জাতিকে বোধকরি এমন চরম রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক সংকটের দিনে অনেক আশাবাদী করবে। প্রথমেই বাংলাদেশ অর্থনৈতিক সমিতির সভাপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডঃ আবুল বারাকাত স্যার-এর লিখটা সবাইকে একবার পড়তে অনুরোধ করব। লিখাটি পাবেন এইখানে যা দৈনিক প্রথম আলোতে একটি বিশেষ ক্রোড়পত্র হিসেবে প্রকাশিত হয়েছিল ২০১২ সালের ২৯ জুলাই। বিশ্বব্যাংক যখন ৩০ জুন এ ঋণ প্রস্তাব বাতিল করে তার কিছু দিন পর আবুল বারাকাত স্যার বলেছিলেন,

    ‘দুর্নীতি’ – ও ‘পাবলিকের খাদ্য’


    দুর্নীতি নিয়ে পত্র পত্রিকায় লেখালেখির অন্ত নাই। সাধারণত পত্র পত্রিকা সেই সব খবরই ছাপার যোগ্য মনে করে—যে লেখাগুলো জনগন গোগ্রাসে গিলে। খুব স্বাভাবিকভাবেই তাই সারাংশ দাঁড়ায়—‘আমরা পাঠকরা দুর্নীতি সম্পর্কে পড়তে বা জানতে পছন্দ করি।‘

    কথাটার সঙ্গে আমি অনেকাংশে একমত, তবে এর মাঝে কিছু শ্রেণীবিভাগ আছে। সবচে পছন্দ বোধহয় চিকিৎসক, মন্ত্রী বা কোন ধনকুবেরের দুর্নীতি। পুলিশ, আমলা কিংবা কোন সাংবাদিকের দুর্নীতি নিয়ে কদাচিৎ রিপোর্ট দেখতে পাওয়া যায়। পত্রিকাকে সমাজের আয়না মেনে নিলে—ধরে নিতে হয়—এই সম্প্রদায় দুর্নীতি করে না।
    কথাটা আংশিক সত্য। আঁতকে উঠবেন না প্লিজ—আমাকে একটু ব্যাখ্যা করতে দিন।

    Antikörper(Antibodies) - এক ভয়াবহ সাইকো শিল্পীর শিল্পকর্ম


    """দ্য ওয়ার্ল্ড ইজ আন-ফেয়ার। ইভেন পিপল লাইক আস। পেদ্রো আলঞ্জো লোপেজ, "দ্য মনস্টার অফ দ্য আন্দিজ" কমিটেড থ্রি হানড্রেড সেক্স মার্ডারস। নাও, টুয়েন্টি ইয়ার্স লেটার, হু রিমেম্বার্স হিম? নট এ সোল। জ্যাক দ্য রিপার ইজ ওয়ার্ল্ড ফ্যামাউস, অ্যান্ড ফর হোয়াট? ফাইভ বিচেস। ফাইভ! অ্যান্ড চার্লি ম্যানশন, দ্য হিপ্পি দে কলড "আওয়ার এম্পেরর" ডিডন'ট ইভেন কমিট ওয়ান মার্ডার হিমসেলফ"""

    **নাম কি দেব কবিতার জানি না আমি**


    আকাশ পানে চাহিয়াছি আমি
    পাখি ঊড়ে বেড়ায় মক্ত ডানা মেলে।

    মাঠ পানে চাহিয়াছি আমি
    বালক খেলিছে আপন প্রানের উচ্ছাসে।

    শিশু পানে চাহিয়াছি আমি
    কাদিয়া কাদিয়া ডাকিতেছে মায়েরে।

    হুমায়ুন স্যারের সাথে কিঞ্চিত কথোপকথন


    - আগামীকাল আমার মৃত্যুবার্ষিকী, মনে আছে তোমার?
    জ্বী স্যার, তাই তো লিখতে বসলাম।
    - হুম, দেশের অবস্থা কি?
    তেমন ভালো না স্যার, শুধু হরতাল আর হরতাল।
    - ভাগ্য ভালো আগামীকাল শুক্রবার। নাহয় আমার মৃত্যুবার্ষিকীতেও...
    স্যার, শুক্রবারেও হরতাল ছিল।
    - বলো কি? দেশ তো উল্টে গেছে!
    দেশটা উল্টানোই ছিল স্যার।

    - হুম, আচ্ছা কোন একটা ছেলের লেখা আমার নামে চালিয়ে দেওয়া হয়েছিল, সে কেমন আছে?
    জ্বী স্যার ভালো আছে।
    - তাকে বলবে, তার জন্যে বুকভরা হতাশা জানিয়েছি। আমার নিজের লেখাই আরেকজনের নামে চলে যায়!
    স্যার, এটা খুবই খারাপ কাজ।
    - ঠিক বলেছো। তা, হিমু আর মিসির আলীর খবর কি?

    সময় থাকতে সজাগ হও.......


    ক্ষমতায় বিএনপি,জামাত আর হেফাজতির জোট আসা খুব দরকার।বাংলাদেশের মানুষের জন্য এটা খুব বেশি জরুরি।যে হারে ধর্মপ্রেমি দেখা যাচ্ছে আর দেশের মেয়েগুলার কি অবস্থা,অস্থির...রাস্তা-ঘাটে বের হলে আশেপাশে তাকানো যায় না,নাইযুবিল্লাহ...... মেয়ে মানুষ এমন অর্ধনগ্ন হয়ে!!বলতেও শারমিন্দেগি হচ্ছে!!
    আওয়ামীলীগ ছাড়া অন্য যে দল ক্ষমতায় আসতে পারে সে হচ্ছে বিম্পি।বিম্পি মানে জামাতি ইচলাম।জামাতিরা গত সব বারের চেয়ে ক্ষমতাশীল,ওরা নিজেদের অবস্থান পাকাপোক্ত করেই এবার মাঠে নেমেছে।এটা খুব পরিষ্কার-বিম্পি ক্ষমতায় গেলে জামাতি তাদের পারা দিয়ে দাঁড়াবে,দেশের হেডম হবে।এরপর দেশের যে রূপ হবে সে-ই দেখার অপেক্ষা......।।

    অন্তর্দাহ-০৩


    বহুকাল হইতেই আমার শ্রেনীকক্ষের অপরাপর সখাদিগের নিকট হইতে শুনিয়া আসিতেছি, পঞ্চম শ্রেনীতে নাকি একটা নতুন জিনিস আসিয়াছে, যাহা আমাদিগের বিদ্যাসদনের পঞ্চম বর্ষ হইতে দশম বর্ষীয় নন্দনদিগের মস্তিস্ক বিকৃত করিয়া তাহাদিগের ইক্ষণদ্বয় হইতে নিদ্রাহনন করিয়া লইয়াছে। কিন্তু জিনিসটা দর্শন করিবার মত সৌভাগ্য আমার ন্যায় দুর্ভাগার ভাগ্যে ঘটে নাই।

    জিনিসটা সম্পর্কে শ্রেনীর এক বান্ধবের নিকটে জিজ্ঞাসা করিলে সে কহিল, তুই কি ভেবেছিস এটা কোন বস্তু?

    আমি কহিলাম, জিনিস তো বস্তুই হয়।

    অতঃপর ভালবাসা


    জানি ঘুম ভাঙ্গাবে তোমার
    মনে পরবে আমার স্পর্ষে কেটে যাওয়া কিছুটা সময়
    কেন ঘুমিয়ে পরলে তুমি
    ঘুম আসেনা আমার এই চোখে।

    হয়ত আমিও ঘুমের ঘুরে চলে যেতাম নিষ্চিন্তপুরে
    আমি চেয়েছিলাম তুমার দুই আখিতে
    ছলছল নিরবতায় জল প্রপাতে
    বিষন্ন মনে প্রতিটা ক্ষণে ক্ষণে।

    শৈশবের কর্ত্রী আমার


    শৈশবে আমার একটা স্বপ্নের গেরস্ত বাড়ি ছিল।
    সেই বাড়ির কর্তা ছিলাম আমি, সে ছিলো কর্ত্রী।
    আমাদের সন্তান ছিল মাটির প্রতিমা,
    তার চোখে স্বর্গের অপ্সরী।
    প্রতিমা বিয়ের ছলে কেটে যেত বেলা।
    এইছিল মোদের নিয়মিত খেলা।

    বাংলার অতিথি: গুআজম


    বাংলাদেশের ০৯ কোটি মানুষ দারিদ্র সীমার নিচে বসবাস করে।
    অর্থাৎ, এই ০৯ কোটি মানুষ নিদারুণ অর্থকষ্ট, আথির্ক-অনিরাপত্তা ও আন্তরিক-উন্নত চিকিৎসা সেবাহীনভাবে প্রাত্যহিক জীবন যাপন করেন।

    অন্যদিকে, একাত্তরের যুদ্ধাপরাধী-ঘাতক গোলাম আজম, যে বাংলাদেশের জন্মই চায়নি, বাংলাদেশের জন্ম রুখে দেবার জন্য এমন কোন অমানবিক কাজ নেই যার নেতৃত্ব দেয়নি, স্বাধীন বাংলাদেশের ক্ষতি করার জন্য দেশ-বিদেশ ঘুরে বেরিয়েছে.....এরকম একজন বিশ্বাসঘাতক-ঘাতক-বাঙালী ও বাংলাদেশের শত্রুকে "ট্রাইবুনাল ও বাংলাদেশ সরকার" ব্যাপক মেহমানদারী করছে।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর