নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • রাজিব আহমেদ
    • সাইয়িদ রফিকুল হক
    • হৃদয় মজুমদার

    নতুন যাত্রী

    • মানিক হোসেন
    • রাজিব আহমেদ
    • রাজু তালুকদার
    • ড. এফ জাহান
    • মোঃ যীশুকৃষ্ণ
    • পাহাড়ী_রেডওয়াইন
    • প্রবাসী ছেলে সোহেল
    • নাগিব মাহফুজ খান
    • বুক্কু চাকমা
    • মাষ্টার মশাই

    আরেকটি "রানা প্লাজা" র অভিজ্ঞতা থেকে বেঁচে গেল রাজশাহীবাসি


    রাজশাহী মহানগরীর আরডিএ মার্কেটের তৃতীয় তলায় ফাটল দেখা দিয়েছে। ঘটনার পর মার্কেটটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।মার্কেটটি রাজশাহীর সবচেয়ে বড় শপিং সেন্টার হিসেবে পরিচিত।
    শুক্রবার দুপুরে জুমার নামাজের আগে মার্কেটে ফাটল দেখে ব্যবসায়ীরা আতঙ্কিত হয়ে রাস্তায় বেরিয়ে আসেন। এসময় তারা বিক্ষোভ করে। মার্কেটটিতে প্রায় আড়াই হাজার দোকান রয়েছে।
    পরে সিটি মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন ও স্থানীয় সাংসদ ফজলে হোসেনবাদশা ভবনটি পরিদর্শন করে মার্কেট রোববার পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।

    শহরের অন্যপ্রান্তে


    আজকে শহরের অন্য প্রান্তে ঝলমলে তারার মেলা বসবে,রাতে হয়তো আজ কর্পোরেট বেনিয়ারা চুপসে বসে গিলবে যৌবনের নগ্ন নৃত্য।তাদের কেউ সাজাবে পরবর্তী কোন উৎসুক শিকার,যে নিজের স্বপ্ন ফেরী করে এসেছিল কল্পনার কোন এক ধাঁ ধাঁ মাখানো জগৎ এ।

    পুরস্কার হাতে নিয়ে চোখের পানি ফেলবে টিভির পর্দার কাঁপানো কোন এক ব্যক্তিত্ব।কী অসম ভাবে সভ্রমটা বিকিয়ে আজ তার জুটেছে বরমাল্য।হটাৎ করে জুটে যাওয়া তারকা খ্যাতি সইতে না পারা ঘরের বড় কিংবা ছোট ছেলেটা পুরস্কার হাতে নিয়ে কোন এক ললনার কাছে হাত ছাড়া হয়ে যাবে।ভুলে যাবে নিজের অতীত বন্ধু ও পরিবার।

    ভালো থেকো প্রিয় বাংলাদেশ


    জানি না কি হতে যাচ্ছে ! পুরো দেশে এমনিতেই রাজনৈতিক অস্তিরতা চরম পর্যায়ে। যুদ্ধপরাধীদের বিচার নিয়ে একটি রাজনৈতিক দল হয়ে উঠেছে অত্যন্ত সহিংস। প্রধান বিরোধী দল ক্ষমতার চিন্তায় আর কিছু নিয়ে ভাবার সময় পাচ্ছে না। সরকারী দল একঘুয়ে হয়ে আছে। তারা কারো কথা শুনতেই নারাজ। শাহবাগ আর হেফাজত নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে কাজ করছে দ্বিধাদ্বন্দ্ব।

    ...slap on u ...


    দেশোদ্ধারের দায়িত্ব যাদের তারা তা পালন না কইরা অন্যে পালন করলে দেশ আগায় না পিছায় ।

    যদি নিজেদের অক্সিজেন আর ওষুধ যোগাড় কইরা উদ্ধারকাজ চালিয়ে চালাইতে হয়, যদি কেরিয়ার থুইয়া শাহবাগে যাইয়া দেশোদ্ধার করতে হয়, যদি আইন থাকা সত্ত্বেও সেই আইন চেরাগের ভিত্রে থুইয়া রাখার কারনে লাঠি হাতে নিতে হয়,যদি পিরিতির আলাপ থুইয়া দিন-দুনিয়ার দায়িত্ব ঘাড়ে চাপায়া কীবোর্ড চালাইতে হয়,যদি ঘরের খাইয়া বনের হারামি তাড়াইয়া নেট বিল দিতে হয়, যদি এইসব করার পরেও চেরাগের আইন বাইরোইয়া তাদেরই হাজতে রাখে;তাইলে আর ট্যাক্স, ভ্যাট এর টাকা দিয়া সরকার পোষার দরকার কি?

    নিষ্ঠুর প্রিয়তমা প্রসংগ সাভার


    প্রিয়তমা, তুমি কেমন আছ?
    সকালে ঘুম থেকে উঠে টিভি দেখেছিলে ?
    দেখেছিলে ধ্বসে যাওয়া ভবনটি ?
    দেখেছিলে অগণিত লাশের মিছিল ?
    দেখেছিলে স্বজন হারানো মায়ের বেদনা ? অনুভব করেছিলে ?

    বিফল আস্ফালন..


    উপাদান ভেদে কম বেশি প্রতিটি ককটেল বানাতে খরচ হয় ১৫টাকা। প্রতিটি জেলায় মিছিল-পিকেটিংয়ে ব্যবহৃত নূন্যতম ৫০০টি ককটেলের মূল্য- ৭,৫০০টাকা। সেই হিসেবে একদিনের হরতালে ৬৪ জেলায় প্রয়োজন- ৪,৮০,০০০টাকার ককটেল। মাঠাম আর তার বেগানা ভাই বেরাদরদের ডাকা প্রতিটি একদিনের হরতালে ব্যবহার্য জিনিসপাতি যেমন- গজারীর লাঠি, ইট-পাটকেল-খোয়া, ককটেল, ব্যানার-ফেস্টুন, পিকেটার ভাড়া, পেট্রোল বোমা, কর্মীদের চা-বিড়ির অনুদান......ইত্যাদি সব মিলে কয়েক কোটি টাকা !!!

    বাংলাদেশ-দ্য গ্রেটেস্ট প্লে স্টেজ অন আর্থ


    বাংলাদেশ নামক একটা দেশে তিন বছর আগে বানানো একটা নয়তলা ভবন ভেঙে পড়েছে।এবং এতে এ পর্যন্ত শ'তিনেক লোক মারা গেছে।
    ইতিমধ্যে অত্যন্ত দ্রুত গতিতে লাশের দর এখানে বিশ হাজার টাকা হাঁকানো হয়েছে।যদিও ত্রানমন্ত্রী খুব গুরুত্বপূর্ণ কাজে নির্বাচনী এলাকায় আটকা পড়েছেন,দু'দিন পরেই তিনি ঢাকায় আসবেন।অন্যদিকে বাকি মন্ত্রীরা এসির নিচে বসে বহু কষ্টে নানা রকম তত্ত্ব দিচ্ছেন। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ঝাঁকাঝাঁকি তত্ত্ব অন্যদের চেয়ে এগিয়ে আছে বলে জানা গেছে।

    চেতনায় গণজাগরণ


    কবিতা লিখিবো,
    কোন ভাষায় লিখিতে হয় গো?
    নিজের ভাষায়,
    নিজের ভাষা কাহারে কয় গো?
    যে ভাষায় কথা বলো,
    সেটাই তুমার নিজের ভাষা।
    আমি কোন ভাষায় কথা বলি গো?
    বাংলা ভাষায়।

    লাথ্থি মেরে এমন যায়গায় পাঠাইতে ইচ্ছা করে যেখানে নেটওয়ার্ক পাওয়া যায় না


    এইমাত্র খবর পেলাম।
    শুনে রাগে বমি চলে আসছে।
    অনেকে সাহায্য এর জন্য যেসব মেডিসিন ঢাকা থেকে নিয়ে ভীড় এর মাঝে কিভাবে দিবেন বুঝতে না পেরে স্থানীয় কিছু টিনএজারদের কাছে দিয়েছিলেন পৌছে দেবার জন্য। ছেলেদের এই দলটি অন্য দিক দিয়ে লুকিয়ে সামগ্রীগুলো তাদের বাসায় নিয়ে গেছে।
    তাই যারা সাহায্য করছেন, পরিচিত স্থানীয়দের ছাড়া অন্য কারো হাতে সাহায্যসামগ্রী দেবেন না। সেলফিশ মানুষ সব যায়গায় থাকে।
    দুর্ঘটনার স্থানে অনেকে ভীড় করে আছেন চুরি, পকেটমারি এর জন্য।
    কেই সাহায্য করতে যাচ্ছেন কেউ খ্যাপ মারতে।
    কেই ইস্যু বানাতে কেউ ক্যামেরায় চেহারা দেখাতে।
    ঘিন্না হ​য়।

    একটা মহিলা... নাম তার রোজিনা... :"(


    একটা মহিলা... নাম তার রোজিনা...

    এত বড় বিল্ডিং ধসে পড়লো... অথচ, তার হাত
    ভাঙ্গে নি, পা ভাঙ্গে নি... সামান্য আহতও হয়
    নি....

    তবে সে এমনভাবে আটকা পড়েছে যে, সে বিপরীত
    দিকে কাত হতে পারছে না.. চিত্ হতে পারছে না...
    সামান্য শরীর চুলকাতে পারছে না.. চিন্তা করুন তো, আপনি নিজে একদিকে কাত্ হয়ে কতক্ষণ
    শুয়ে থাকতে পারবেন ??

    কাল থেকে সেই মহিলা কারো সাথে কথা বলতে পারে নি...

    হয়তো মৃত্যুর প্রহর গুনছিলো.. চোখ দিয়ে অর্নগল পানি পড়ছিলো.. সেই পানি কানের ভিতর

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর