নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 10 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • আহমেদ শামীম
    • মূর্খ চাষা
    • বিজ্ঞানী ইস্বাদ
    • মোমিনুর রহমান মিন্টু
    • সৈকত চৌধুরী
    • রুদ্র মাহমুদ
    • মিশু মিলন
    • কিন্তু
    • সুব্রত শুভ
    • রেবেল ওয়ারিয়র ব...

    নতুন যাত্রী

    • রাজদীপ চক্রবর্তী
    • নাজমুল-শ্রাবণ
    • চিন্ময় ভট্টাচার্য
    • নেইমানুষ
    • পরাজিত শুভ
    • এম আরিফুল ইসলাম
    • উর্বি
    • আবু সাঈদ সাব্বির
    • তাইয়েব হোসেন জনি
    • আনিকেত সবুছ

    আগামীকাল রাজাকার কামরুজ্জামানের রায়, ট্রাইব্যুনালের চতুর্থ এই রায় কি হবে?


    একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িত যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের লক্ষ্যে ২০১০ সালের ২৫ মার্চ গঠিত হয় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। গত বছরের ২২ মার্চ গঠিত হয় দ্বিতীয় ট্রাইব্যুনাল। গঠনের ৩ বছর পর এসে ৪র্থ কোনো অভিযুক্তের বিরুদ্ধে রায় দিতে যাচ্ছেন ট্রাইব্যুনাল। এর আগে ৩ জনের মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে।

    নিজের মত করে অপ্রিয় বাস্তব নিয়ে বেঁচে থাকার শান্তনা নিয়ে বয়ে চলেছে জীবন তরী,আর হয়ত এভাবেই বইবে !!


    কাল রাত প্রকৃতি ভেজেনি জলে,,অবুঝ বর্ষনে তৃপ্ত হয়নি ধরা ,,ভিতরের সব রাগ অভিমান কষ্ট উপড়ে দিয়ে শান্ত হয়নি উত্থাল সমুদ্র,, শুধু ওই মুক্ত আকাশের নিচে কোন এক কোনে বসে কাক ভেজা পাখির মত করে ভিজেছে আমার মন,,হাজারো না পাওয়ার মিছিলে পাওয়াটুকুকে হাতড়ে ফিরেছে কিছু স্বপ্ন !

    মাথা খালি আনোয়ার


    প্রায় বছর তিনেক আগের কথা, দৈনিক জনকন্ঠ পত্রিকার লেখক কলামে একটি লেখা প্রকাশিত হয়েছিল যদিও লেখকের নাম মনে নেই । লেখাটি ছিল বিএনপির এম কে আনোয়ার সম্পর্কে । মূলবিষয় ছিল, এম কে আনোয়ারকে খোদ বিএনপির রাজনীতিবিদেরাই মাথা খালি আনোয়ার বলে ডাকত । M = মাথা, K = খালি; সুতরাং এম কে আনোয়ার = মাথা খালি আনোয়ার । এ নিয়ে অনেক হাসি তামাশাও চলত তাদের মধ্যে । আমি ভেবেছিলাম, আনোয়ারকে নিয়ে এত ঠাট্টা করার কি আছে, সে কী সক্রিয় রাজনৈতিক কর্মী নয় ?

    একটি জয়ের গল্প !


    বাংলাদেশ বনাম ভারত।।এশিয়া কাপ ।প্রতিটা খাটি বাঙালী হয়ত বাংলাদেশকেই সাপোর্ট করবে,কিন্তু ১০০০ টাকা বাজি লাগার সাহস কেউ করবেনা ।আমি সেই সাহস করছিলাম ।
    ব্যাস শুরু হইল খেলা ।বন্ধুবান্ধব খুশি একহাজার টাকা ।আমি গম্ভীর মুখে খেলা দেখছি ।এই গম্ভীর মুখে হাসি ফুটাইলই গম্ভীর।দলের ২৫ রানের মধ্যেই শেষগম্ভীর ।আমার আনন্দ দেখে কে ।আবার শুরু খেলা ,শচীন ,বিরাটের মারত্মক ব্যাটিং ।শচীনের শততম সেন্চুরি (এইটা একটা আশার কারন,সাধারনত শচীন সেন্চুরি করলেটিম হারে )।মারাত্মক বোলিং বিপর্যয়ের পর ইন্ডিয়ার ২৮৯ । শেষ!!সব শেষ !!এত রান কেমনে নিবো ।

    মুমিনের পাঠশালা


    বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থার মাঝে সুস্পষ্ট যে বিভেদ বর্তমান তার রাজনৈতিক কারণ থাকলেও সামাজিক স্তর বিন্যাস এবং এর সাথে ধর্মবিশ্বাস সরাসরি জড়িত। নানা তাত্ত্বিক এবং শিক্ষাবিদেরা নানা আলোচনায় এই স্তর বিন্যাসের সবচেয়ে নিচে স্থান দেন মাদ্রাসা শিক্ষাকে। এই অংশের শিক্ষার্থীদের চিহ্নিত করেন সবচেয়ে অনগ্রসর অংশ হিসেবে। সত্যিকারের শিক্ষা এরা পায়না, কেবল ধর্মকেন্দ্রিক শিক্ষাকে ঘিরে এদের জানাশোনা এসব নানা অভিযোগ স্বীকার করেই বলা যায় আগামী বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শ্রেণী হতে যাচ্ছেন এইসকল চেনা-অচেনা কওমী বা আলিয়া মাদ্রাসার লক্ষ লক্ষ ছাত্রছাত্রীরা। যেখানে বাংলা বা ইংরেজী মাধ্যমের শিক্ষার গুরুত্ব কেবল

    ‘আমি ভগবান বলছি’


    তিথি দিন দিন কেমন যেন হয় যাচ্ছে। সুন্দর মিষ্টি স্বভাবের মেয়েটা হঠাৎ করেই সুমনের সঙ্গে প্রতিদিন ঝগড়া শুরু করলো। ‘তরকারীতে একটু ঝাল বেশী হয়েছে’ বলার সঙ্গে সঙ্গেই ঝামটে উঠলো তিথি, ‘আমি তোমার বাঁধা দাসী না। যা রেঁধেছি পারলে খাও নইলে আর কাউকে নিয়ে আসো। কোন বাঁধা দিবো না।‘
    তিথি এমন ছিল না। যেমন সুন্দরী তেমনই মিষ্টি স্বভাবের ছিল। সুমনের সঙ্গে প্রায় পাঁচ বছরের প্রেম শেষে বিয়ে। সংসারও বেশ ভালোই করছিল। দুবছরের মাথায় মনে পড়লো, একজন অতিথি চাই। চেষ্টাও শুরু হল। একবছর গড়াল। একদিন মাথা নিচু করে তিথি বলল, ডাক্তার দেখালে হয় না? সুমনের ও মায়া লাগলো। মা হওয়ার জন্য রীতিমত অস্থির হয়ে গেছে মেয়েটা। রাজী হল সুমন।

    ধর্মের কোন মা বাপ নাই, আছে কেবলই হিংস্রতা


    মতিঝিল শাপলা চত্বরে হেফাজতে ইসলাম যেই নারকীয় ধ্বংসযজ্ঞের নিদর্শন রেখে গিয়েছে, তাদেখে আমি বাকরুদ্ধ। চোখের পানি ঠেকিয়ে রাখতে হয়েছিলো নিদারুণ কষ্টে। এরা ইসলামের হেফাজত করবে!! হেফাজতের বদলে এরা ইসলামের বুকে আর একটি কালিমা লেপন করে গেল। শুধু কালিমা নয়, এদের হিংস্রতা দেখে মনে হল, এরাই বুঝি ইসলামের ধারক ও বাহক!! সারা বছর কোরআন, হাদিস পাঠ করে, ইমামের ওয়াজ শুনে, পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পরে এই ইসলাম শিখল? ইসলামে কি এই লেখা ছিল?

    ৭১ এর রাজাকার আর ২০১৩ এর হেফাজত


    যুদ্ধাপরাধীর বিচার সম্ভবত ব্যর্থ হতে যাচ্ছে। যেখানে হত্যাকারী,ধর্ষকের বিচারের প্রশ্নেও জাতি দ্বিধাবিভক্ত হয়ে যাচ্ছে, ধর্ষকের শাস্তির প্রতিবাদে হরতাল হচ্ছে, ধর্মকে ব্যবহার করা হচ্ছে কিছু অমানুষকে রক্ষা করার জন্য সেখানে এই বিচারের কোন সমাপ্তি দেখিনা আমি। শুধু জামায়াতে ইসলামি যদি এই কর্মকাণ্ডগুলো করত তাহলে আমি এতটা হতাশ হতামনা। ৭১ এ স্বাধীনতার বিরধিতাকারী দলটা হত্যাকারীদের পক্ষে থাকবে এটাই স্বাভাবিক। কিন্তু বিএনপিও ওদের সাথে যোগ দিয়েছে। যে দলটির প্রতিষ্ঠাতা বীরউত্তম জিয়াউর রহমান, যিনি প্রথম স্বাধীনতার ঘোষণা পাঠ করেন।

    থলেতে এই বেড়ালের জায়গা হবেনা!


    ৫ মে এর সমাবেশে পবিত্র কুরআন পোড়ানো হয়েছে এটা আমরা সবাই জানি। কারা পুড়িয়েছে এটাও জানি। তবুও তর্কের খাতিরে ধরে নেই যে কুরআন পুড়িয়েছে ছাত্রলীগের লোক (এম. কে. আনোয়ার তার নামও বলে দিয়েছেন- দেবাশীষ বিশ্বাস!)।
    কিন্তু গোলাপি বেগমের বিএনপি এবং ১৮ দলীয় জোট হরতাল দিয়েছে হেফাজতের উপর সরকার-কর্তৃক চালানো তথাকথিত "গনহত্যা" এর প্রতিবাদে।
    তারা হরতাল দেয়নি "ছাত্রলীগ" এর কোরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে।
    এর থেকে ১৮ দলীয় জোটের যে আস্তিকতা প্রমাণ পাওয়া গেলো তার ব্যাপারে হেফাজতের বাংলালিঙ্ক দামে পাওয়া আল্লামা-মাওলানা-মুহতামীমরা কি বলবেন?
    থাক, আপনাদের কিছু বলার দরকার নেই।

    দ্যা রিয়াল ছাগু


    ১।ফরেন মিনিস্টার দিপু মনি ২০০৯ সালে মন্ত্রী হবার পর থেকে শতাধিক বার বিদেশে গেছেন। এর আগে বাংলাদেশের কোনো মন্ত্রী এত বার বিদেশ সফর করেনি। এতবার বিদেশ সফরে গিয়ে তিনি কি করেছেন তা তিনি নিজে ছাড়া কেউ বলতে পারার কথা না।
    মন্তব্যঃ হ্যা, উনি পরাস্ট্র মন্ত্রী তাই যেতেই পারেন।
    ২।মখা আলমঙ্গীর একটা থানা উদ্বোধন করতেও যান হ্যালিকাপ্টার নিয়ে। অন্য কিছুর কথা বাদদেন।
    মন্তব্যঃ স্বরাস্ট্র মন্ত্রী যেহেতু উনার সময়ের মুল্য অনেক তাই হ্যালিকাপ্টার কেন উনার তো রকেট নিয়ে যাওয়া দরকার, আফ্টার অল হি ইস মখা। অন্য কেউ হলে আলাদা কথা।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর