নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 8 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • সাইয়িদ রফিকুল হক
    • সাহাবউদ্দিন মাহমুদ
    • কিন্তু
    • পৃথু স্যন্যাল
    • তানভীর আহমেদ মিরাজ
    • নুর নবী দুলাল
    • সাজ্জাদুল হক
    • বেহুলার ভেলা

    নতুন যাত্রী

    • কথা নীল
    • নীল পত্র
    • দুর্জয় দাশ গুপ্ত
    • ফিরোজ মাহমুদ
    • মানিরুজ্জামান
    • সুবর্না ব্যানার্জী
    • রুম্মান তার্শফিক
    • মুফতি বিশ্বাস মন্ডল
    • হাসান নাজমুল
    • নরমপন্থী

    গল্প - গাঁজাখোর মিরাজ ভাই


    জীবনে একদিনের জন্য আকাশে উড়তে পারলাম না । আমার পাশে যে ছেলে হা করে বাতাস খাচ্ছে সে বেশ কয়েকবার আকাশে উড়েছে । কাহিনী এইখানেই দ্যা এন্ড নয় একদিন নাকি সে আকাশ থেকে আমার মাথায় পিচিক করে পানের পিক ছুড়ে দিয়েছে । । আমি অবশ্য কিছু টের পাই নি । এই ধরনের উড়াউড়ি একজন টের পায় । যে উড়ে সে একা । অন্য কেউ না ।
    -অনু , দিবা নাকি একটা টান

    নারীশিক্ষা ষড়যন্ত্র


    সাম্প্রতিককালে নারীজাগরণ ও নারীশিক্ষায় বাংলাদেশ বেশ এগিয়ে গেছে বলে দাবি করা হয়। অন্যান্য দেশও এই ক্ষেত্রে বাংলাদেশকে নির্দ্বিধায় সম্মতি জানায়। বলা হয় এই শতকে দক্ষিণ এশিয় দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশে নারী উন্নয়নে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে। হ্যাঁ, কথা সত্য। বাংলাদেশ ‘নারীশিক্ষা’-য় প্রকৃত অর্থেই এগিয়ে গেছে। কিন্তু বাংলাদেশের নারীরা কি শিক্ষায় এগিয়েছে?

    দ্যা গডফাদার -৩ (একজন প্রতাপশালী মাফিয়া সম্রাটের আড়ালে একজন অসহায় মানুষের গল্প)


    প্রথমেই বলে নেই এটা গডফাদার trilogy নিয়া লেখা কোন পোস্ট না...শুধুমাত্র মাইকেল করলিওনির সাম্রাজ্যের উপর করা গডফাদার ৩ নিয়ে আমার একান্ত কিছু ভাবনা ।

    অনু কাব্য


    (১)
    আমার চোখে দারুণ প্লাবন,
    বুকে বহে যমুনা,
    আমি বন্ধু হেরে গেলেও
    তুমি কিন্তু হেরো না ।
    (২)
    তবুও আমাদের যাপিত জীবনে প্রলম্বিত দীর্ঘশ্বাস,
    বাড়ছে বেদনার্ত জল,
    কষ্টের ঘুড়িরা অকারনেই মাতাল
    বুকে কেন তবু বাজে মাদল?

    আওয়ামিলীগ এর পরবর্তি নিরবাচনের প্রতিশ্রুতি।


    আগেই বলি ভাই আমি ছোট খাট মানুষ । স্কুল পড়ুয়া এক ছাত্র। চার পাশে যা হচ্ছে তার ভিত্তিতেই আমার এ ধারনা । ভুল হলে অবশ্যই ধরিয়ে দিবেন।

    আওয়ামিলীগের গত নির্বাচনের যে প্রতিশ্রতি ছিল তার মধ্য অন্যতম হল -
    •পদ্মা সেতু নির্মান
    •যুদ্ধাপরাধিদের বিচার্।

    কিন্তু সরকারের মেয়াদের শেষ বছর এটা আর ১০-১১ মাস আছে এখন ও পদ্মা সেতুর একটা পিলার ও বসানো হয়নি সেতু আসবে কোথা থেকে? আর যুদ্ধাপরাধিদের বিচার সেটা নিয়ে তো চলছে নানান রাজনীতি আমাদের আবেগ কে ব্যবহার করছে তারা।

    নারী শয়তানের মনুষ্য রূপ (ধর্মানুসারে)


    মহাভারতের পাশাখেলার আসরে দ্রৌপদীর অপমান নিয়ে গালভরা তাত্ত্বিক
    আলোচনা করি।
    কিন্তু রাস্তায় উলঙ্গ পাগলি দেখে তাঁর শরীরে কোনও কাপড়ের আবরণ দেওয়ার
    চেষ্টা করি ?

    আমরা ,এই জনগন একসময় ভরা বাজারে ক্রীতদাসীকে প্রায় উলঙ্গ
    করে,নিলামে ডেকে বিক্রয় দেখেছি।বালবিধবার ঝুঁটি ধরে চুল কাটা দেখেছি।
    যুগান্ত পেরিয়ে সেই আমরাই ডাইনি সন্দেহে বাঁশ

    চে, জন্মদিন


    জি ভাই আমি ছাগল আমি ছাগু,আ মি চে গুয়েভারাকে নিয়ে ফ্যান্টাসি করি, আমার রোমান্টিসিজম হয়, আমি মুক্তির জন্য ঘরাঘুরি করি, তত্ত্ব খুজি, না আমি বাম কিংবা কম্যুনিস্ট না,

    জি ভাই আমি জাতির পিতার মৃত্যুতে চিৎকার করি, হটাত করে ভিলেন হয়ে যাওয়া জিয়াকে সমলাচনা করি, আমি ভাসানীর জীবনী দেখে উজ্জীবিত হই, আমি আপনাদের মতো একদিকে থাকতে পারি না, কারন আমি ভাসানিকে ছোট কিংবা বড় করি না করিনা বঙ্গবন্ধুকে

    জি ভাই আমাকে চিনাবাম কিংবা চিনাবাদাম ট্যাগ দিয়েছেন অনেক আগেই, আমি জানি, আমি সামুতে লিখেছি, কিন্তু ফেসবুকে ফাল পারি নাই, সাধারনের মতো মিশে থাকতে লাইক করি, কারন আমি সাধারনের ছেলে

    (নির্বাচনের সিজোনাল ডাইলগ, আংশিক সিলেটি আংশিক শুদ্ধ ভাষায়)


    ১.
    মুখে দিয়াই নানা বশ
    চৌখ মুইজা পাস আনারস।

    ২.
    মেয়র! মেয়র! মেয়র!
    ঔ সিজন ও কে অর?
    মমিসিঙ্গা দেওর
    কামরান আমরার মেয়র!

    মেয়েটির নাম বেশ্যা



    মেয়েটির আসল নাম কেউ জানেনা-
    কিংবা কেউ জানতেও চায়না।
    কেউ ডাকে সখিনা, কেউ বা রানী-প্রীতি;
    কেউ তো এসবেরও ধার ধারেনা।
    তাচ্ছিল্য মিশিয়ে ডাকে-"বেশ্যা"।
    হে সুধীজন!একটি গল্প বলতে এসেছি, কবিতা নয়।
    একটি মেয়ের গল্প। না না ভুল হয়ে গেল-এক বেশ্যার গল্প।

    ব্লগিং মানে বুঝি এই !


    বৌদিকে নিয়ে বৌদিদের বাড়িতে গেলাম ।
    বাসায় ঢুকা মাত্র-ই বৌদির মা এমন ভাবে তাকাইলো যেনো আমাকে কোনদিন দেখেনি ,
    নাহয় আমি মঙ্গল গ্রহ থেকে এসেছি ।
    তারপর কাছে আইসা জিগাইলো তুমি ব্লগিং করো ?
    আমি বলিলাম জ্বি , কেনো ?
    আর কিছু বললোনা ।
    তখন অন্য রুমে গিয়া বৌদিরে কইলাম ব্যাপারখানা খুলে বলোতো , উনি জানলো কেমনে এইসব?
    বৌদি বলিলো , না আমি-ই বলছিলাম । তবে উনি তার আগেই টিভি দেখে পত্রিকা পড়ে বুঝেছেন যে ব্লগিং মানে নাস্তিক আর ঈশ্বরের বিরূদ্বে লিখা ।
    আমিতো পুরাই টাশকি খাইলাম , ব্লগিং মানে বুঝি এই !

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর