নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 10 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • আহমেদ শামীম
    • মূর্খ চাষা
    • বিজ্ঞানী ইস্বাদ
    • মোমিনুর রহমান মিন্টু
    • সৈকত চৌধুরী
    • রুদ্র মাহমুদ
    • মিশু মিলন
    • কিন্তু
    • সুব্রত শুভ
    • রেবেল ওয়ারিয়র ব...

    নতুন যাত্রী

    • রাজদীপ চক্রবর্তী
    • নাজমুল-শ্রাবণ
    • চিন্ময় ভট্টাচার্য
    • নেইমানুষ
    • পরাজিত শুভ
    • এম আরিফুল ইসলাম
    • উর্বি
    • আবু সাঈদ সাব্বির
    • তাইয়েব হোসেন জনি
    • আনিকেত সবুছ

    লোভে পাপ, পাপে মৃত্যু


    এক.
    রাত দশটা পনের। রানার মোবাইলে মুরাদের নাম্বার ভেসে উঠল। সাথে সাথে বাজখাই গলায় চিৎকার করে উঠল মোবাইলটা। "পেয়ার কিয়া তো ডারনা ক্যায়া, যাব পেয়ার কিয়া তো ডারনা ক্যায়া" । গানটা রানার খুব পছন্দের। বাট বর্তমানে খুবই বিরক্তিকর লাগছে। কারণ তার বিশাল রানা প্লাজার তিন তলায় ফাটল দেখা দিয়েছে। ম্যানেজারকে জিজ্ঞাসা করলে বলেছে - "সমস্যা নাই, বেশি কিসু হয় নাই। খালি প্লাস্টার খসছে! " আর রানাও তা খুব বড় গলায় সাংবাদিকদের একই কথা বলেছে। কিন্তু তার কেন জানি খুব ভয় হচ্ছে। কয়েকবার রিং পরার পর রানা কল রিসিভ করল।

    --হ্যালো, মুরাদ ভাই। আসসালামু আলাইকুম।

    ব্যর্থ বিপ্লব


    ক্লান্তিতে তন্দ্রাচ্ছন্ন আমি
    শুধু আচ্ছন্ন হয়েই থাকি।
    আমার রাত্রি কাটে দিন চলে যায়
    বাসি গন্ধে ভরা ধুম্রময় এই ঘরটাতে।

    জগত কাঁপিয়ে চিৎকার করি,
    দেয়ালে মাথা ঠুকে বিস্বাদ বিষাদ ভরা
    জীবনটা নিংড়ে বের করে আনি।
    আকাশ চুম্বন করে শব্দ বেগে আছড়ে পড়ি ইস্পাত রাজপথে।

    আক্রোশের থাবা দিয়ে
    ছিঁড়েখুঁড়ে ফেলি সভ্যতার পেলব ত্বক।
    বের করে আনি আভিজাত্যের
    পুতিগন্ধময় নোংরা প্রত্যঙ্গের ভাগাড়।

    বিষাক্ত ফুঁৎকারে বাস্প করে ফেলি
    ব্যভিচারের পিচ্ছিল কদর্য চেতনা।
    ফানুশ বানিয়ে উড়িয়ে দেই
    নরনারীর কৃত্রিম কামনাচ্ছন্নতা।

    আমার শরীর শীতল হয়ে আসে
    পা থেকে ক্রমান্বয়ে হাঁটু কোমর পাঁজর মস্তিষ্ক।

    বীরাঙ্গনা আমরা তোমাকে প্রণতি করি। তুমি বীর মুক্তিযোদ্ধা, ঐ পতাকায় তোমার অংশ আছে। জাতীয় সংগীতে তোমার কন্ঠ আছে।


    আমার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস জানার হাতেখড়ি আমার বাবার কাছ থেকে। সেই ছোট বেলা থেকে আমার সব সমবয়সীরা যখন জিন-ভুত অথবা, রুপকথার দৈত্য-দানবের গল্প শুনত তখন আমি বাবা আর মা এর মাঝখানে শুয়ে শুয়ে শুনতাম বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন ঘটনা, যে ঘটনা গুলো ঘটেছে আমার বাবা অথবা মা এর সামনে। আমার মা শুধু দুইটি কাহিনী-ই বলতে পারতেন এবং এখনো বলেন।

    সেমি-বখাটে '১


    পথে একা একাই হাঁটছিলাম। হঠাৎ একটা মেয়ে আমার শকুনি চোখে বাঁধা পড়ল।
    পুরা মাথাই নষ্ট!!!
    কি তাহার চলন আর কি তাহার বলন!!!
    হাঁটার গতি স্থির হয়ে গেল। সাথে সাথে প্রেম করার জন্য মেয়েটিকেই ঠিক করলাম। " এই যুগের মেয়েতো, পটাতে ঝামেলা তেমন নাই। আর আধুনিক মেয়ে হলেতো কথাই নাই।" মতলব আঁটতে আঁটতে মেয়েটির পিছু নিলাম। মেয়েটি সন্দেহভাজন চোখে তাকাতেই আমি পাশ গিয়ে অত্যন্ত বিনয়ী হয়ে তার পরিচয় জানতে চাইলাম। জানতাম দিবে না। প্রথম দেখাতে পরিচয় দিলে চারিত্রিক অবনতি প্রকার্হ পায়, তাই দেয় নি। এই দেশের কোন মেয়েই এই ভাবনার ব্যতিক্রম না। যাই হোক, মেয়টিকে সাথে পথ চলতে চলতে মেয়েটি বলল

    ছাগুদের কর্মকাণ্ড দেখে হাসিতে হাসিতে আমি কাঁদিতে বাধ্য :: !!


    ছাগুদের কর্মকাণ্ড দেখে হাসিতে হাসিতে আমি কাঁদিতে বাধ্য :: !!

    শালার ছাগুরা যখন অনেক কষ্ট করে একটি মিথ্যে গুজব রটাতে থাকে তখন আমজনতা শেরাম চুদন দেয়।শালারা মে মে করে আর কাঁঠাল পাতা চাবায় আর বাশেরকেল্লায় ল্যাদায় lশালা ছাগু,একটি কথা জেনে রাখ,আর হাজারো চেষ্টা করে ও গুজব রটিয়ে তোদের বাপ রাজাকারদের ফাঁসি ঠেকাতে পারবিনা lবাশেরকেল্লায় না লেদিয়ে তোদের বাপ আরেক ছাগু রাজাকারে রায় হবে আজ ওই ছাগুর জন্যে দোয়া কর।আর কত কাঁঠাল পাতা ছাবাবি আর বাশেরকেল্লায় লেদাবি !!

    বিএনপির রাজনৈতিক দেউলিয়াত্ব


    রাজনৈতিক দলহিসাবে বিএনপির দেউলিয়াত্ব বারবার প্রকাশ পাইতেছে। হেফাজতের কর্মসূচিতে তাদের অবস্থান সেটারে আরও প্রকটভাবে ফুটাই তুলছে। অন্য এলাকার কথা বাদ দিয়া নিজের এলাকার দিকে তাকাইয়া ঘটনার বিশ্লেষণ করার চেষ্টা করতেছি। আমার হাটহাজারী হইল হেফাজতের শক্ত ঘাঁটি, মূলত হেফাজতের উৎপত্তি হইছে এখান থেইকা। দেখা যায়, হেফাজতের আহবানকৃত হরতালগুলা হাটহাজারীতে কঠোরভাবে পালিত হইয়া থাকে, এ হরতাল চলাকালীন সময় ভোর থিকা হেফাজত কর্মীরা হরতালের সমর্থনে মিছিল-মিটিং, অবরোধ কইরা মোটামুটি সফলতা অর্জন কইরা থাকে। দুঃখের বিষয় হইল হেফাজতের হরতালে বিএনপির নেতা-কর্মীরা পরবর্তীতে আইসা নানানভাবে ফুটানী দেখায়, রাস্তায় বই

    চাইল্ডহুড মেমোরি- এটিএন বাংলা


    আমাদের দেশের প্রথম স্যাটেলাইট চ্যানেল “এটিএন বাংলা”। যদিও সেই সময়টাতে আমি কার্টুন-নেটওয়ার্ক এবং জি টিভির ডিজনি আওয়ার এর ব্যাপক ভক্ত ছিলাম, কিন্তু বাসার সবার কারণে এটিএন বাংলা দেখতে হতো। তবে এই চ্যানেল কেন জানি আমার কাছে অসম্পূর্ণ লাগে এখনো। আমার এক ফ্রেন্ড এর মতে ঠিক মাহফুজুর রহমানের মতই স্মার্ট ( :বিস্ময়: ) চ্যানেল :ঘুমাইতেছে: :ঘুমাইতেছে:

    তো এই এটিএন বাংলা শুরুর দিকে সারা দিন বিড়ি-সিগারেট এর অ্যাড দিতো। আর সারাদিন নেচে-কুঁদে করা সিগারেট এর গুণগান শুনতে শুনতে একেবারে মুখস্ত হয়ে গিয়েছিল জিঙ্গেল গুলো! এখনো কিছু কিছু মনে আছে!! যেমনঃ

    নাসির গোল্ডঃ

    জয় বাংলা


    আজ অনেকদিন পর শাহবাগ গেলাম। স্লোগান আর জাগরণের গানে উজ্জীবিত তারুণ্য প্রস্তুত আগামীকাল কামরুজ্জামানের পুটু মারার দিনটি উদযাপনের জন্য... যদি পুটু মারতে না দেয়, তাহলে আমরা অবস্থান কর্মসূচীর মাধ্যমে তাকে রেপ করতে বাধ্য হব... দুঃখের বিষয় এই যে সাকা চৌধুরী আমাদের সাথে যোগ দিতে পারবেন না... তবে ফাঁসির আগে অবশ্যই তার সাথে দেখা করতে দেওয়ার জন্য সরকারের নিকট আকুল আবেদন জানাচ্ছি।

    ছাত্র রাজনীতি নাকি ভর্তি বানিজ্য????????


    চট্রগ্রামের একটি প্রাচীন এবং নামকরা কলেজের প্রাক্তন ষ্টুডেন্ট ছিলাম। যেহেতু কলেজ অনেক পুরাতন এবং কলেজের রেজাল্ট ভালো তাই বেশীরভাগ ষ্টুডেন্টরা ভর্তি হওয়ার চেষ্টা করে। আজকে বি.বি.এস এর রেজাল্ট দিলো। ফেন্ডের রেজাল্ট দেখতে কলেজে যাওয়া। স্বাভাবিকভাবেই এপ্লাই করা ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা অনেক বেশী। প্রাক্তন ষ্টুডেন্ট হওয়াতে লীগের ভাইয়াদের সাথে মোটামুটি ভালো সম্পর্ক ছিলো। তাই কলেজ সংসদে উনাদের সাথে দেখা করতে যাওয়া। কিন্তু ঐখানে গিয়ে দেখি জুনিওর ব্যাচ এর ছেলেদেরকে নিয়ে মিটিং করছে ছাত্রলীগের সিনিয়র ভাইয়েরা। কিছুক্ষন বসার পর মিটিং এর সারমর্ম বুঝতে পারি। সারমর্ম ছিলো এবার কলেজে বি.বি.এস এর সিট ৭০০ থেকে কম

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর