নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • ফারজানা সুমনা
    • মিনহাজ

    নতুন যাত্রী

    • অরুণাভ দে
    • পাহাড়ের উপমানুষ
    • পুরানো ঘড়ি
    • স্বর্ণ সুমন
    • হেজিং
    • মং চিং প্রু
    • প্রলয় দস্তিদার
    • ফারিয়া রিশতা
    • চ্যাং
    • রাসেল আহমেদ

    সাভারে শ্রমিক হত্যার ঘটনায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, বিক্ষোভ সমাবেশ এবং রক্তদান কর্মসূচী


    আজ ২৫ এপ্রিল সাভারে শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে সকাল ১১ টায় অপরাজেয় বাংলায় মানববন্ধন করবে প্রতিবাদী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এর ব্যানারে শিক্ষক- শিক্ষার্থীরা।
    তাদের বক্তব্যঃ
    সাভারের রানা প্লাজার ভবন ধবসে শতাধিক মানুষ মারা গেছেন, আহত হয়েছেন হাজারখানেক মানুষ। এঁদের অধিকাংশই শ্রমজীবী মানুষ, কারণ সেই ভবনে চারটি গার্মেন্টস কারখানা ছিল। এটি কোনো দুর্ঘটনা নয়, ত্রুটিপূর্ণ ভবন নির্মাণের অনুমতি না দিলে এই ঘটনাটি ঘটতো না, এটি একটি স্ট্রাকচারাল কিলিং।

    সাভারে শ্রমিক হত্যার প্রতিবাদে আমরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা আগামীকাল সকাল এগারোটায় অপরাজেয় বাংলার সামনে মানববন্ধন করব।

    দুঃখিত সাভারের ভাই-বনেরা আমরা অপরাধী


    প্রথমত,আমি শোকাহত তাদের জন্য যারা সাভারের ভবন ধ্বসে নিহত হয়েছে।মহান সৃষ্টিকর্তা যেন তাদের কে বেহেশত দান করুন।আর আহত যারা তারা যেন সুস্থ হয়ে উঠেন তাড়াতাড়ি।

    হে ধরিত্রী, আর কত?


    হে ধরিত্রী -
    আর কত রক্ত শুষে নেওয়ার ক্ষমতা তোমার
    আর কত তাজা প্রাণ চাই তোমার
    কত অশ্রু দিয়ে তোমার আশা পূরন?
    ভারি দেয়ালের নিচে চাপা পড়া আমার
    সহোদর

    সাভারে লাশের গন্ধ


    আজ আমি সাভারে লাশের গন্ধ পাই
    আজ আমি মাটিতে মৃত্যুর নগ্ননৃত্য দেখি
    শ্রমিকের কাতর চিৎকার শুনি আজ আমি তন্দ্রার ভেতরে...
    এ দেশ কি ভুলে যাবে এই দুঃস্বপ্নের কাল, এই রক্তাক্ত সময় ?
    সাভারে লাশের গন্ধ ভাসে
    মাটিতে লেগে আছে রক্তের দাগ ।

    লাশ নেবে লাশ


    লাশ নেবে লাশ
    হরেক রকম লাশ আছে
    লাশ নেবে লাশ !
    লাল লাশ নীল লাশ কাঁচা হলুদ রঙের লাশ
    পাথর চাপা সবুজ ঘাসের সাদা লাশ,
    আলোর মাঝে কালোর লাশ
    ‘মালটি-কালার’ লাশ আছে
    লাশ নেবে লাশ ।

    সাভারে লাশভর্তি গাড়ি এবং মৃত্যুপুরীতে ১৫ ঘন্টা


    সাভারের অধর চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে লাশভর্তি গাড়ি আসছে, শত শত মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ছে, এই গাড়িতে থাকতে পার মা-বোন, বাবা-ভাই কিংবা কোনো আত্মীয়। লাশ পড়ে আছে সারি সারি। ক্রমেই লম্বা হচ্ছে সেই সারি।

    আর দেয়ালে পিঠ ঠেকাবো না, এবার মেরুদণ্ড সোজা করে দাঁড়াবো


    সময় এক অসহ্য রূপ নিয়ে এসেছে। দুর্বিষহ ভয়াবহ নিদারুণ কঠোর পরীক্ষা নিচ্ছে সময়। ২০১৩ হয়তো সময়ের সবচেয়ে কঠিন রূপ প্রদর্শন করছে। প্রতিদিনের সূর্য উঠে নতুন নতুন বিভীষিকা নিয়ে। সাধের লাল সবুজ প্রতিদিন যেন মানুষের লাল রক্তে স্নানে রক্তিম হওয়ার জন্য ব্যাকুল থাকে।

    এক একটি নতুন দিন হয়তো অনেক স্বপ্ন নিয়ে শুরু হয়, প্রতিদিন হয়তো মানুষ নতুন কিছু আশা নিয়ে জেগে উঠে, নতুন কোন পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হতে চায়, অথবা পুরাতন দুঃখকে জিইয়ে রেখে অভ্যস্ত জীবন ধারায় ভাবলেশহীন ভাবে বেঁচে থাকে। তবুও বেঁচে তো থাকে।

    আমরা এমন নির্মম নাটক দেখতে চাইনা। প্লিজ আমাদের রেহাই দিন।


    প্রথম দৃশ্যঃ (ফাটল দেখা যাওয়ার পর)
    সৎ ইঞ্জিনিয়ারঃ বিল্ডিং ব্যাপক রিস্কি হয়ে আছে রানা ভাই। কন্টিনিউ করলে ঝামেলা হয়ে যেতে পারে।
    মালিকঃ তাইলে আমি কি কাজ না করাইয়া লোকসানে পড়মু নাকি!হুদাই বিল্ডিং ভাঙ্গমু? কত্ত লোকসান জানে্ন?? মগের মুল্লুক নাকি?
    সৎ ইঞ্জিনিয়ারঃ বিল্ডিং ধ্বসে পড়লে কিন্তু আপনারও রক্ষা নাই, আমারও নাই।
    মালিকঃ হ, কইছে আপনারে! আমার হাত কতদূর আপনি জানেন না। হুদাই ভাইঙ্গা লাভ নাই, ধ্বইসা পড়লে তবু কিছু সাহায্য-মাহায্য পাওয়া যাইতে পারে।এক কাজ করেন, খামডা রাহেন আর বাড়িত যাইয়া আরাম করেন। আমি দেখতাছি।
    সৎ ইঞ্জিনিয়ারঃ(নেড়েচেড়ে খামের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে) ওকে ধন্যবাদ ভাই। তাইলে আসি এখন।

    রানা প্লাজা এবং আমার ব্যক্তিগত কথা।


    অনেকেই ভাবছেন আমি হয়তো সাভারের ঘটনায় অতটা ক্ষুব্ধ নই কারণ সেটা আওয়ামীলীগের নেতার ভবন বলে। এরকম যদি কেউ ভেবে থাকেন তাহলে সম্পূর্ণ ভূল ধারণায় আছেন।
    আমি অবশ্যই যেই ব্যক্তির ভবন এবং এর সাথে যারা জড়িত তাদের প্রত্যেকেরই কঠোর শাস্তি চাই, কেননা আমার দেশের মোট আয়ের ৭৮ ভাগ আসে ঐ গার্মেন্টস ক্ষেত্র থেকে আর সেখানে নারী কর্মীর সংখ্যা বেশি এবং যাদের আমি যথেষ্ট সম্মান করি।

    সাভার ট্র্যাজেডি। কয়েক হাজার মাদরাসা ছাত্রের রক্তদান।


    ঢাকার অদূরে সাভার বাসস্ট্যান্ডের পাশে রানা প্লাজা নামের একটি বহুতল ভবন আজ বুধবার সকালে ধসে পড়ে। নিমতলীর ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, আশুলিয়ায় তাজরিন গার্মেন্টসে আগুন, চট্টগ্রামের বহদ্দারহাটের ফ্লাইওভার ধ্বস, সর্বশেষ সাভারে বিল্ডিং ধ্বসে শতাধিক মানুষের মৃত্যু...
    দূর্ঘটনা একের পর এক ঘটেই চলেছে। পঙ্গপালের মত মানুষ মরছে। বাংলাদেশে দুর্ঘটনা ঘটলে সাধারণত খেঁটে খাওয়া গরীব মানুষেরাই মারা যায়। আজও তার ব্যতিক্রম হয়নি। ভবনটিতে কর্মরত পোশাক শ্রমিকরাই হতাহত হন। কতোজন মানুষ সেখানে ছিলেন এটা এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর