নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 7 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • নুর নবী দুলাল
    • মিশু মিলন
    • সাহাবউদ্দিন মাহমুদ
    • দ্বিতীয়নাম
    • রাজর্ষি ব্যনার্জী
    • পৃথু স্যন্যাল
    • সাইয়িদ রফিকুল হক

    নতুন যাত্রী

    • জোসেফ হ্যারিসন
    • সাতাল
    • যাযাবর বুর্জোয়া
    • মিঠুন সিকদার শুভম
    • এম এম এইচ ভূঁইয়া
    • খাঁচা বন্দি পাখি
    • প্রসেনজিৎ কোনার
    • পৃথিবীর নাগরিক
    • এস এম এইচ রহমান
    • শুভম সরকার

    বলপেন স্কেচ


    বলপেন খুবই পরিচিতি একটি লেখার মাধ্যম। কত শত সাহিত্য কবিতা লেখা হয়েছে। কিন্তু বলপেনে আঁকাও সম্ভব। তবে খুবই রিস্কি । কারন এটি যেহেতু পারমানেন্ট স্টেইন দেয় কাগজের উপর, তাই সামান্য এদিক ওদিক হলেই পুরো ছবিই নষ্ট।হাতের প্রেশার, ধৈর্য, অনুশীলন দরকার প্রচুর ।লাইট ডিপ শেডিং একটু এদিক ওদিক হলেই পুরো কাজ নষ্ট ।তাই বলপেনে আঁকতে হলে সতর্কতা অত্যন্ত জরুরী ।
    বলপেনে আমার আঁকা কিছু স্কেচঃ
    1. human face (1)

    আত্মন‌িয়ন্ত্রণাধ‌িকার আন্দ‌োলন‌ে মানব‌েন্দ্র নারায়ণ লারমার অবদান


    সামন্ত সমাজ‌ে আবদ্ধ জুম্ম জনগণ‌ের পুর্ব‌ে ক‌োন রাজন‌ৈতিক জ্ঞান,অভ‌িজ্ঞতা ও ধারণা ছ‌িল না। য‌েকোন সমাজ ব্যবস্থার মুল উপাদান তার অর্থনীত‌ি বা উৎপাদন ব্যবস্থা। সামন্ত সমাজ‌ ব্যবস্থায় সহজ সরল হওয়ার জুম্মদ‌ের চ‌িন্তা চ‌েতনাও সহজ সরল। তখন সমাজ‌ের মধ্য ত‌েমন ক‌োন রাজন‌ৈতিক চ‌েতনা গড়‌ে উঠেনি। ঠ‌িক স‌ে অবস্থায় জুম্ম জনগণ‌ের অগ্রদুত মহান ন‌েতা মানবেন্দ্র নারায়ণ লারার আব‌ির্ভাব ঘট‌ে। ত‌িনি উপলব্দ‌ি কর‌েছিল‌েন জুম্ম জনগণ জাত‌ি হিস‌েবে ক্ষুদ্র, দুর্বল, ত‌েমন‌ি শ‌িক্ষা দীক্ষায়ও পশ্চাৎপদ। দুর্বল জাত‌ির পক্ষ‌ে পৃথ‌িবীত‌ে বেঁচ‌ে থাকা বড়ই কঠ‌িন। কারণ, দুর্বল‌ের উপর সবল‌ে অত্যাচার সবচ‌েয়ে ব‌েশি। এই দুর্বল

    শুনছেন বাবাু?


    প্রর্থম গুলিটি বুকের বাম পাশ দিয়ে প্রবেশ করে ওপাশ থেকে বেড়িয়ে গেছে,
    ইস কাঁটাতারের বেড়াটি আর একটু নিচু হলেই পেরিয়ে যেতে পারতাম,

    আমার বাবা তো দিব্বি পেরিয়ে গেল, আমি পারিনি,
    তবে কাঁটাতারের বেড়াটি আর একটু নিচু হলেই পেরিয়ে যেতে পারতাম,

    কাটাঁতারের বেড়াটি আর একটু নিচু হলেই হয়তো কারো প্রমিকা, কারো স্ত্রী, কারো মা হতে পারতাম„

    বাড়ছে অফিসবিহীন অনলাইন সংবাদপত্রের দৌরাত্ম্য!!


    গণমাধ্যমের আধুনিক সংবাদ মাধ্যম অনলাইন নিউজপোর্টাল। এর বদৌলতে গড়ে উঠেছে অফিসবিহীন অনলাইন নিউজপত্রের প্রতিষ্ঠান । চটকাদার বিজ্ঞাপনে প্রতিনিধি নিয়োগের নামে অনলাইন লেখকদের "সাংবাদিক" পাবলিসিটি বাড়লেও, তাদেরকে কোন প্রকার আর্থিক বা সম্মানি দেয় না অধিকাংশ প্রতিষ্ঠান।যার ফলে বৃদ্ধি পাচ্ছে প্রেস কার্ড নির্ভর রমরমা প্রতিষ্ঠানের । আর অনলাইন সাংবাদিক নামধারীরাও তাদের মেধা ও যোগ্যতা সম্পর্কে সচেতন নয়।
    এক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের যেমন উদাসীনতা রয়েছে,তেমনি অনলাইন সাংবাদিকেরাও তাদের স্বীয় কাজ সম্পর্কে সচেতন নয়। "সাংবাদিক" পরিচয় নিয়েও উনারা সন্তুষ্ট

    ব্যবহারকারীদের কাছে নগ্নছবি চাইছে ফেসবুক


    ফেসবুক তার ব্যবহারকারীদের কাছে চাইছে তাঁদের নগ্নছবি ও ভিডিও, যাতে ছবিটি ভবিষ্যতে ফেসবুকে আপলোড করা হলে ব্লক করা সম্ভব হয় । উদ্দেশ্য প্রতিশোধমূলক পর্ণো প্রতিরোধ করা ।

    প্রশ্নঁফাস ও নকল-কোচিং বন্ধে পরীক্ষাপদ্ধতির পরিবর্তন জরুরী..


    প্রশ্নপত্র ফাঁস ও নকল বন্ধ, কোচিং বাণিজ্য দূর করতে, পরীক্ষাপদ্ধতির আমুল পরিবর্তন দরকার।
    কেন প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়? কেন নকল হয়? কেন কোচিং বাণিজ্য বন্ধ হয় না? কারণ শিক্ষার্থীর মাথায় একটি বিষয়ই সেই সময় কাজ করে তা হচ্ছে, কোন মূল্যে তাকে কৃতকার্য হতেই হবে, ভাল করতেই হবে! সারাবছর সে স্কুল-ক্লাসে যাই করুক না কেন চুড়ান্ত পরীক্ষার মাধ্যমেই বিষয়টি নির্ধারিত হবে। এই মনোভাবই ছাত্রদের বেপরোয়া করে এবং অনৈতিক পথে পা বাড়ায়। আর একশ্রেণীর সুযোগসন্ধানী এই অবস্থার সুযোগ নেয় এবং বাণিজ্য করে।

    “আমরা সেই পীর ধরা জাতি”


    সমাজে,রাষ্ট্রে একটি জনগোষ্ঠীকে বিভাজন করা হচ্ছে বিভিন্ন শ্রেনী এবং গোত্রে।আর সেই সবের পিছনের কারন হচ্ছে রাজনৈতিক ও ধর্মীয় প্রভাব।আর এই বিভাজিত জনসংখ্যাকে আরো ক্ষুদ্র থেকে ক্ষুদ্রতর করা হচ্ছে মানুষের ব্যক্তিগত পছন্দের ভিত্তিতে,যেই ব্যক্তিগত পছন্দগুলো একান্ত মানুষের নিজের জীবনে প্রভাব বিস্তার করে অন্য কারো জীবনে প্রভাব বিস্তার করার সুযোগ নেই,কিন্তু তবুও সমাজ-জাতি বিভাজিত হয়ে যাচ্ছে।ধর্ম যখন চোখের সামনে এক সাথে ভয় আর পরকালের প্রাপ্তির লোভ দেখিয়ে মানুষ্য বিবেককে হতবুদ্ধ করে,এবং ধর্মান্ধ মানুষগুলোকে করে তুলে হিংস্র রক্ত শোষক এবং কোনো কোনো ক্ষেত্রে আত্নঘাতি।আর যারা সমাজের সাধারন অল্প চিন্তার

    অলৌকিক গোয়েন্দাগিরি


    একজন মহিলার লাশ পাওয়া গেছে। (গোয়েন্দগিরির এই গল্পটা এখানে বলার কারণ: এই গল্পে একজন গোয়েন্দা তার ধর্মবিশ্বাসকে কাজে লাগিয়েছেন অজানা সত্যকে জানার/প্রতিষ্ঠা করার জন্য আর অন্যজন ব্যবহার করেছেন স্বাভাবিক বিজ্ঞানসম্মত পন্থা।) লাশের ময়না তদন্ত শেষ। সমস্যা হল এটা আত্মহত্যাও হতে পারে, খুনও হতে পারে।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর