নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 8 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • সাইয়িদ রফিকুল হক
    • সাহাবউদ্দিন মাহমুদ
    • কিন্তু
    • পৃথু স্যন্যাল
    • তানভীর আহমেদ মিরাজ
    • নুর নবী দুলাল
    • সাজ্জাদুল হক
    • বেহুলার ভেলা

    নতুন যাত্রী

    • কথা নীল
    • নীল পত্র
    • দুর্জয় দাশ গুপ্ত
    • ফিরোজ মাহমুদ
    • মানিরুজ্জামান
    • সুবর্না ব্যানার্জী
    • রুম্মান তার্শফিক
    • মুফতি বিশ্বাস মন্ডল
    • হাসান নাজমুল
    • নরমপন্থী

    ইলিশের ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্যের স্বীকৃতি পেল বাংলাদেশ


    জামদানির পর ইলিশের ভৌগোলিক নির্দেশক বা জিআই পণ্যের স্বীকৃতি পেল বাংলাদেশ। আগামি এক সপ্তাহের মধ্যেই আনুষ্ঠানিকভাবে মৎস্য অধিদপ্তরের হাতে ইলিশের জিআই পণ্য হিসেবে নিবন্ধনের সনদ তুলে দেওয়া হবে। এর ফলে স্বাদে অতুলনীয় ঝকঝকে রুপালি ইলিশ বাংলাদেশের নিজস্ব পণ্য হিসেবে সারাবিশ্বে স্বীকৃতি পাবে। সেই সাথে দেশীয় ঐতিহ্য সুরক্ষার পথে বাংলাদেশ আরো এক ধাপ এগিয়ে গেল। কোনো একটি দেশের মাটি, পানি, আবহাওয়া এবং ওই জনগোষ্ঠীর সংস্কৃতি যদি কোনো একটি পণ্য উৎপাদনের ক্ষেত্রে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, তাহলে সেটিকে ওই দেশের ভৌগোলিক নির্দেশক পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। গত বছরের নভেম্বরে দেশের প্রথম ভৌগোলিক ন

    রহম করো


    রহম করো খোদা

    শুক্রবার। জুম্মার নামাজ পড়াটা সপ্তাহের অন্যান্য দিনের নামাজ না পড়া লোকজনের জন্যেও অনেক গুরুত্বপূর্ণ। সেটা এই দূর কক্সবাজারের প্রান্তবর্তী অর্বাচীন, সভ্য জগতের চেয়ে শতবছর পিছিয়ে থাকা লোনামাটির জনপদের জন্যও ধ্রুব সত্য। জীবিকা বলতে এখানে সাগরের বুকে জীবন খুঁজে বেড়ানো, নাফ নদীর ভাটাময় বুক থেকে কাঁকড়া খুঁজে বেড়ানো। সাগরের সাথে সাগরপারের লোকজনের মিতালি অনেক দিনের। সাগর কখনোও কাউকে নিরাশ করে না, অথচ সাগর এক দুঃস্বপ্নের মরুভূমি, বারবার জীবনকে চ্যালেঞ্জ দিয়ে বেড়ায়। কিন্তু সাগর হয়তো মানুষের মতো কৃপণ না?

    গুগুলে গোলমাল - ছেলেরা কি মেয়েদের থেকে অঙ্ক এবং কোডিং এ বেশী পারদর্শী?


    (১)
    গুগুল ইঞ্জিনিয়ার জেমস ডিমোরো (২৮) এখন আমেরিকার সংবাদ শিরোনামে। ছেলেটি হার্ভাডের মাস্টার্স। ২০১৩ সাল থেকে গুগলে সফটোয়ার ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে কর্মরত। সপ্তাহ খানেক আগে সে দশ পাতার মেমো লেখে-যার মূল বক্তব্য কর্মস্থলে বৈচিত্রের ( ডাইভার্সিটি) আছিলায়, গুগলে মহিলা কর্মীদের বেশী সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হচ্ছে। এতে যোগ্য পুরুষকর্মীরা বঞ্চিত এবং ডিমটিভেটেড।

    নুরপাড়ার দেলোয়ার এবঙ জাল ভোট


    বাকঁখালী নদীর উপর দেয়া ভেড়ী বাঁেধর দক্ষিণপ্রান্তের নুরপাড়ায় ভোটের ক্যাম্প পড়েছে। কোন পার্টির সেটা বড় কথা নয়। বড় কথা একটা চমক। না খেয়ে থাকা মানুষগুলো একটু নুতনত্বের স্বাধ পাচ্ছে- ভোটের গান গুনছে। পোষ্টার লাইটিং, মাইকিং, হৈ-হুল্লোড়। বিশেষ করে ছেলে পিলেদের আনন্দের সীমা নেই। সারাদিন ঘরঘুর ঘুরঘুর করে ক্যাম্পটির আশেপাশে।এই পিচ্চী সিগ্রেট আন! ঐ পিচ্চী পানি আন! ঐ ছেমড়া চা লইয়া আয়!

    অস্থির সময়ের গল্প: নকশালবাড়ি ৩:


    ১৯৬২ সালে চিন-ভারত সীমান্ত সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে ‘ডিফেন্স অব ইন্ডিয়া রুল’করা হয় । ’৬৪-র প্রথম দিকে দীর্ঘ মতাদর্শগত সংগ্রামের পরিণতিতে সি পি আই পার্টি ভাগ হয়ে যায় এবং অপেক্ষাকৃত বিপ্লবী অংশ সিপিআই (এম)-এ যোগ দেয়। কিন্তু এই সংগ্রামের ফল আত্মসাৎ করে ঘাপটি মেরে লুকিয়ে থাকে মধ্যপন্থী নেতারা। অচিরেই বোঝা যায় যে, সিপিএম নেতৃত্ব মুখে বিপ্লবের কথা বললেও আসলে দক্ষিণপন্থী সিপিআই নেতৃত্বের সাথে তাদের কোনও তফাৎ নেই। ডাঙ্গেপন্থীরা যেমন খোলাখুলিভাবে শাসক শ্রেণীর লেজুড়বৃত্তি করে, সিপিএম নেতৃত্ব তেমনটা না করলেও, আড়ালে আবডালে একই রাজনীতির উপাসক। তফাৎ এইটুকুই যে, সংশোধনবাদের এই নবতম অবতার সংগ্রামে একটু আদার ঝাঁঝ আনার চেষ্টা করে যাতে কর্মীবাহিনীকে ভুলিয়ে রাখা যায়!!

    যাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছি তারা আমাদের চেয়ে ভালো থাকতে দেখে অপমানবোধ করি


    জহর লাল পাল চৌধুরী একাত্তরের সাহসী সৈনিক। বাবা রাজারকুলের বিখ্যাত জমিদার পবিরারের সন্তান যোগেন্দ্র পাল চৌধুরী ও মা প্রেম বালা পাল চৌধুরী। জন্ম রামু উপজেলার রাজারকুল ইউনিয়নের রাজারকুল এলাকায়। ছাত্র জীবনে ছাত্র ইউনিয়নের একজন সক্রিয় কর্মী ছিলেন। একাত্তরের যুদ্ধের সময় জহর লাল পাল চৌধুরী ছিলেন একজন যুবক। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন। কক্সবাজার পতনের পর নিরাপত্তার স্বার্থে পার্শ্ববর্তী দেশ বার্মার (মিয়ানমার) চার মাইল নামক স্থানে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নেন। ওখানে কক্সবাজার থেকে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নেয়া মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও বেঙ্গল রেজিমেন্টে এবং ইপিআর থেকে আগত মুক্তিবাহিনীর সদস্যদের সাথে পরামর্শ করে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ার উদ্দেশ্যে সেপ্টেম্বরের দিকে ক্যাপ্টেন হারুনের পরামর্শ মতে ইপিআর হাবিলদার ইদ্রিস মোল্লার নেতৃত্বে ঘুমধুম সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। অংশ নেন লামা থানা, আলীকদম থানা, সাতকানিয়া থানা, রাজঘাট ব্রীজ, চুনতি অপারেশনসহ বিভিন্ন অপারেশনে। পাকিস্তানি জল্লাদ সেনাবাহিনীর গাড়ীকে গতিরোধ করে পাকিস্তান হানাদার বাহিনীর ২২ সদস্যকে আত্মসমর্পন করতে বাধ্যকারী মুক্তিযুদ্ধের সাহসী সৈনিক জহর লাল পাল চৌধুরী একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ করেছেন কক্সবাজার বাণীকে। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে সময় তার বাড়ি ঘর জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছিল। তিনি কক্সবাজার শহরের ঝাউতলা গাড়ীর মাঠস্থ ভাড়া বাসায় স্বপরিবারে বসবাস কালে ওই সাহসী সৈনিকের সাথে মুখোমুখী হয়েছেন কক্সবাজার বাণীর সহকারী সম্পাদক কালাম আজাদ। সম্প্রতি তিনি প্রয়াত হয়েছেন। তাঁর স্মৃতির উদ্দেশ্যে বর্তমানে মুক্তিযোদ্ধোর চেতনা নিয়ে সে সব চেতনা বাজি চলছে তাদের স্বরুপ উম্নোচন করতেই এ সাক্ষাৎকারটি পুণঃমুদ্রণ করা হয়।

    একজন সংস্কৃতি- কথক!


    "সাহিত্য,শিল্প, সঙ্গীত কালচারের উদ্দেশ্য নয়- উপায়। উদ্দেশ্য, নিজের ভেতরে একটা ঈশ্বর বা আল্লা সৃষ্টি করা। যে তা করতে পেরেছে সে-ই কালচার্ড অভিধা পেতে পারে,অপরে নয়। বাইরের ধর্মকে যারা গ্রহণ করে তারা আল্লাকে জীবনপ্রেরণা রূপে পায় না, ঠোঁটের বুলি রূপে পায়।তাই শ'র উক্তিঃ Beware of the man whose God is in the skies.- আল্লা যার আকাশে তার সম্বন্ধে সাবধান।"

    পর্যটনের বিকাশে লাদাক, ভেনিস ও সাজেক!



    ১। ‘থ্রি ইডিয়টস’ ভারতের সর্বকালের ব্যবসা সফল ফিল্মের একটি, এর বিশেষ কিছু দৃশ্যে চিত্রায়িত হয়েছে ‘লাদাক’-এ। এই মুভি মুক্তি পাওয়ার পর সেখানে পর্যটকের সংখ্যা ৪ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে! বেড়েছে রেস্টুরেন্ট ব্যবসা, বেড়েছে দূষণ।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর