নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • নিঃশ্বাসে বিশ্বাসে
  • মৃত কালপুরুষ

নতুন যাত্রী

  • আদি মানব
  • নগরবালক
  • মানিকুজ্জামান
  • একরামুল হক
  • আব্দুর রহমান ইমন
  • ইমরান হোসেন মনা
  • আবু উষা
  • জনৈক জুম্ম
  • ফরিদ আলম
  • নিহত নক্ষত্র

আপনি এখানে

আরিফুজ্জামান তুহিন এর ব্লগ

ওরা কারা, শিক্ষক নাকি নির্যাতক?


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মর্যাদা অনেক আগেই ক্ষয় শুরু হয়েছে। গত আট বছরে এই ক্ষয় আরো বেড়ে এখন বিশাল বিশাল গর্তে পরিণত হয়েছে। পরিস্থিতি এতোটাই অবনতি হয়েছে যে এখানে এখন মানুষ গড়ার কারিগররাই শিক্ষার্থীদেরকে নিজেদের লোভ লালসার জন্য পেটাচ্ছে। এই পরিস্থিতি থেকে ওঠে আসতে হলে সবার আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের গর্জে ওঠতে হবে, মেরুদন্ড সোজা করে এইসব দলদাস শিক্ষকদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। যে শিক্ষক নারী শিক্ষার্থীদের গায়ে হাত তুলছে তার কাছে আমাদের উচ্চ শিক্ষা কোনভাবেই নিরাপদ নয়। একজন নিপীড়ক শিক্ষক হতে পারেন না। আর শিক্ষার্থীরাতো নিরাপদই নয়।

ফরহাদ মজহারের অপহরণ ও দিল্লী ওয়াশিংটনের ছায়া যুদ্ধ


ফরহাদ মজহার অপহৃত হওয়ার পর সুস্থ্য শরিরে ফিরে এসেছেন এতে গোস্যা হইছেন পশ্চিমা ‘সেক্যুলারগন’। একইসঙ্গে শাহবাগের একটি অংশ ব্যাপক নাখোশ হইছেন।

ধন্যি বাংলাদশের অভাগা ধন্যরাম!


(কত কিছুইতো ভাইরাল করেন আপনারা, ধন্যরামের খুনিদের শাস্তির জন্য এ পোস্টটা না হয় ভাইরাল করেন)
ধন্যচন্দ্র রায়, ডাক নাম ধন্যরাম দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার বিরলি গ্রামের মৃত নন্দি চন্দ্র রায়ের ১৬ বছরের একমাত্র সন্তান।

হতদরিদ্র ধন্যরামের ক্ষেতে প্রভাশালী শাহাজানের গরু ঢুকে ক্ষেত নস্ট করে। ধন্যরামের মা পারনি বালা গরুটাকে আটকে রাখে। খবর শুনে শাহজানের দলবল এসে হামলা চালায় পারনি বালার ওপর।

আমরা বুশের পক্ষে নই, ফরহাদ মজহারের পক্ষেও নই


যুক্তরাষ্ট্র সারা দুনিয়াতে যে ‘ইসলামপন্থি’ ‘সন্ত্রাসী’দের সঙ্গে যুদ্ধ করার নামে দেশ দখল করছে তা হলো দেশটির ভেঙ্গে পড়া অর্থনীতিতে গতি আনার জন্য। পুঁজিবাদী অর্থনীতির গোলকধাঁধা হলো এটাই সে-অনিবার্য মন্দায় পড়বেই। সে মন্দা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য বিশ্বযুদ্ধও বেধেছে, আজকের যুগে বিশ্বযুদ্ধ সীমিত যুদ্ধে পরিণত হয়েছে। কারণ বিশ্বযুদ্ধে অনেক বেশি বিপদ। ফলে আজকের যুগে যারা ‘ইসলাম’ আক্রান্ত বলছেন, তারা মূলত বুশ ব্লেয়ারের ছানাপোনা, তারা মূলত ট্রাম্পের লোক, তারা মূলত পেন্টাগনের যুদ্ধ অর্থনীতির সাফাই গাওয়ার পক্ষে প্রোপাগান্ডা মেশিন মাত্র। বাংলাদেশে ‘ইসলামপন্থি’ রাজনীতি যারা করতেন, তারা এলিট বুদ্ধিবৃত্তিক জগতে

জাতীয় নিরাপত্তা ঝুঁকিতে ফেলে ভারতের সঙ্গে কেন প্রতিরক্ষা চুক্তি?


চুক্তি এমন একটি দেশের সঙ্গে করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ যার কাছ থেকে আক্রমনের সম্ভাবনা রয়েছে। যে দেশের কাছ থেকে আক্রমন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে তার কাছ থেকে সমরবিদ্যা শিখে তাকেই প্রতিহত করবে এটি অবাস্তব ধারণা। তবে তার চেয়ে বিপদ হলো যে সাবমেরিন নিয়ে এতো পানি ঘোলা হলো যদি সেই সাবমেরিনে ভারতের নৌবাহিনীর লোকেরা প্রশিক্ষণের নামে, নৌ বাহিনীকে সহায়তার নামে একবার প্রবেশ করতে পারে তাহলে এই সাবমেরিন কিনে কোন লাভটা কী হলো?

গিটারের গেরিলা কবির সুমন : ‘ছেলেবেলার সেই লোকটা চলে গেছে গান শুনিয়ে’


(প্রচণ্ড জ্বর। জ্বরের মধ্যে আমি শুধু দেখি আজরাইল ফেরেশতার বেশ ধরে কে যেনো আমার শিয়রে বসে। তারপরও কবির সুমনকে নিয়ে লিখলাম, কারণ আমি তার ভক্ত ছিলাম।)

জঙ্গিবাদের পিঠস্থান এনএসইউ ও আমাদের বন্ধু সাইমুম পারভেজ


সারা দুনিয়াতে জন্মের পর থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আলাদা স্বাধীন একটি ভূমিকা লক্ষ্য করা যায়। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে যে ধরনের শিক্ষা দেওয়া হয় তাতে একজন শিক্ষার্থী তার আগের ধারণাগুলো থেকে বেরিয়ে নতুন মানুষরুপে হাজির হওয়ার সুযোগ তৈরী হয়। জ্ঞান অর্জনের এই সুযোগ নিয়ে সবাই যে নতুন মানুষ হন তা নয়-তবে যারা নতুন মানুষ হন তারা সমাজে বড় ধরনের ভূমিকা রাখেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিস্তারিত ইতিহাস লিখতে বসিনি। এই লেখার মূল উদ্দেশ্য ইতিহাসের বয়ান নয় বরং বিশ্ববিদ্যালয় মতাদর্শ নির্মাণের কারখানা হিসেবে দেখি থাকি।

উচ্চ শিক্ষায় বিশ্বব্যাংকের আগ্রাসন এবং আজকের ভ্যাট বিরোধী আন্দোলন


ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা এক অনন্য নজির স্থাপন করেছেন। তারা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় যে একটি গোটা পরিবার, একটি বর্গ, একটি শক্তি-এটা প্রথমে বড় ধরনের পরিচয় করিয়ে দিলেন।

সেই শক্তি যখন সারা দেশে গর্জে উঠলো তখন রাষ্ট্রের সব শক্তি, যন্ত্র তাদেরকে নিষ্ক্রিয় করার জন্য উঠে পড়ে লাগলো। শেষ পর্যন্ত যে খবর আসছে তা হোল রাতে পুলিশ ও ছাত্রলীগের গুণ্ডা বাহিনী দিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের রাজপথ থেকে তুলে দেয়া।

আ.লীগ খারাপ, আপনার বিপ্লবী কর্মসূচী কোথায়


বাংলাদেশের বিপ্লবী রাজনীতির অনুপস্থিতির সুযোগে শাসক আ.লীগ জনগনের ওপর ভয়ঙ্কর এক হীরকরাজার শাসন চাপিয়ে দিয়েছে। এই অপশাসন নিয়ে যদি আপনি দীর্ঘ আলাপ করতে চান, তাহলে তা করাই যায় কিন্তু এতে লাভ কী? যাদের উদ্দেশ্যে করবেন সেই সাধারণ মানুষ কি জানেন না আ.লীগের ঘুষ দুনীতি আর মানুষ হত্যার কথা?

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

আরিফুজ্জামান তুহিন
আরিফুজ্জামান তুহিন এর ছবি
Offline
Last seen: 1 week 18 ঘন্টা ago
Joined: বুধবার, মে 8, 2013 - 3:09অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর