নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

There is currently 1 user online.

  • বেহুলার ভেলা

নতুন যাত্রী

  • চয়ন অর্কিড
  • ফজলে রাব্বী খান
  • হূমায়ুন কবির
  • রকিব খান
  • সজল আল সানভী
  • শহীদ আহমেদ
  • মো ইকরামুজ্জামান
  • মিজান
  • সঞ্জয় চক্রবর্তী
  • ডাঃ নেইল আকাশ

আপনি এখানে

সূর্যসন্তান এর ব্লগ

কোটা সংস্কার ও আমার ভাবনা


কোটা সংস্কার আন্দোলন বাঙালির প্যান্ট টানাটানি অভ্যাসের বহিঃপ্রকাশ।
ব্যাখ্যা প্রয়োজন?
পরিবারে তিনজন সন্তান থাকলেও কিন্তু সবাই ফেভারিট ওয়ান হয় না। হ্যা, আপনার পিতামাতা, দে অ্যাক্ট লাইক দে আর ট্রিটিং ইউ ইক্যুয়ালি, বাট ইউ ন্যো ভেরি ওয়েল দ্যাট দে আর নট।
পাঁচ মিনিটের শারীরিক আনন্দের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ব্যতীত হিউম্যান লাইফ কিছুই না। যখন আপনি সাইড ইফেক্ট হিসেবে শরীরে চলে আসচেন, আপনাকে ভালোবাসতে শেখা ছাড়া আসলে কিছুই করার থাকে না মা'র।

অদিতি বৈরাগী, আমরা দুঃখিত


প্রতিনিয়ত এই পশুর ধ্বজাধারী "দণ্ডের" অধিকারী, আর এই দণ্ডের ব্রেইনের উপর প্রভাব বিস্তারকারী অবস্থার লজ্জা, সাথে মেইল ডোমিন্যান্সের প্রতিভূ, "প্রগতি"র আড়ালে কূপের অন্ধকারে নিমজ্জিত সংগঠনের "একজন", এই লজ্জায় দিনাতিপাত।
মাফ করে দিস বোন, এখন তুই আর তোর ভাইয়ের কাছেও নিরাপদ না।

জাফর ইকবাল স্যারের সমালোচনা নাকী লুক্কায়িত প্রোপাগান্ডার বহিঃপ্রকাশ?


শিক্ষকের সংগা নাকি "যার নিকট থেকে নতুন কিছু একটা শিখছো সেই তোমার শিক্ষক"। তো এই সংগায় আমাদের জমানায় জাফর ইকবাল স্যারের চাইতে বেশি কেউ কিছু শিখাইছে বলে মনে হয় না, মুক্তিযুদ্ধ বা বিজ্ঞান, যেদিকেই তাকাই না কেন, অনেক অজানা কিছু, ও, আচ্ছা, সায়েন্স ফিকশন ও তো এই লোকটাই শিখাইছে এই মুরুক্ষ জাতটারে।

নারী; সম্মান ও প্রাপ্তি।


তো, সেদিন বাসা থেকে বের হইছি, বাসা আমার উপজেলা শহরে। ঢাকা যাবো। আম্মু আছে সাথে, আম্মু যাবে মতিঝিল, ছোটভাইয়ের ওখানে, আমি যাবো মোহাম্মদপুর।
বের হতেই সামান্য দেরী হয়ে গেছে, বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে দেখি ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া শেষ বাস ও চলে গেছে।
জেলা শহর থেকে একদম মতিঝিল পর্যন্ত নাস আছে, তো সেই উদ্দেশ্যে টুকায়েচটুকায়ে জেলা শহর আসলাম।
সেই বাস ও চলে গেছে।
এখন গাবতলী পর্যন্ত যায়ে তারপর আলাদা বাসে যাওয়া যায়।
কিন্তু আম্মু একা যাওয়ার পক্ষপাতী না। গাবতলী নাইমে সেখান থেকে সিএনজি/বাস/উবার কোনটাতেই সে একা যাওয়ার সাহস পায় না।

শান্তির ধর্মের নামে অশান্তি


যারা এই সমস্যা সৃষ্টি করলেন, জানি না কোন কারণে, তারা কী মন থেকে ক্ষমাটুকু চাইতে পারবেন জনগনের কাছে?

শান্তির ধর্মের ধোয়া তুলে এমন অশান্তি সৃষ্টি, আখের গোছানোর ফলে, আর কতদিন?

যুক্তি খণ্ডন; বঙ্গবন্ধু।


Mufassil Islam সাহেবের এক ভিডিওতে দেখলাম, আসাদ নূর ভাই সংক্রান্ত নিউজের সাথে জুড়ে দিয়েছে বলে দেখা হলো, নইলে হয়ত হতই না।
যাই হোক, দেখলাম তিনি বলছেন, কোট করি
"আমি বলছি, শেখ মুজিবুর ওয়াজ আ বাস্টার্ড চাইল্ড অফ হার ফাদার, অওফ হিজ ফাদার।
শেখ মুজিবুর রহমান ওয়াজ আ বাস্টার্ড চাইল্ড অফ হিজ ফাদার।....
...আমি তোমার চাইতে অনেক শিক্ষিত, আমি বলছি এটা।"
আচ্ছা, এই পুরো ভিডিও আমি দেখিনি, দেখার প্রয়োজন ও বোধ করছি না, কিন্তু কিছু না বলেও থাকতে পারছি না।
১। তার এই বক্তব্য উপরের গ্রামাটিকাল মিস্টেক, অনিচ্ছাবশত, নিয়ে কপচাতে যাবো না। ভারচুয়াল ওয়ারল্ড এ একটা কথা আছে,

Let Go Off Hypocrisy


গাইলাইবেন মোহাম্মদরে আবার মোহাম্মদের মতই ক্ষমতা, সম্মান চাইবেন, কেমনে হবে?
গাইলাইবেন যীশুরে কিন্তু আবার যীশুর মতই বিখ্যাত হইবার চাইবেন, ঠিক হবে কাজটা?
গাইলাইবেন মোজেসরে কিন্তু অনুসারী চাইবেন মোজেসের মত, যেন আপনার পিছে পিছে নীলনদে নাইমা পড়ে, হবে?
গাইলাইবেন কৃষ্ণরে আর নিজে ওর মত রঙ্গলীলা কইরা বেড়ানোর লাইসেন্স চাবেন, রঙ্গলীলা করার ক্রীড়নক হিসেবে ব্যবহার করতে গিয়ে যদি সমমনা কাউরে বলি দিতে হয়, তাও দিবেন, আর আমরা কী বইসে বইসে দেখবো?

সেক্যুলারিজম; শুধুই ইসলাম/পাকিস্তান বিদ্বেষ? বাংলাদেশ প্রেক্ষিত।


মসজিদে মাইক ব্যবহার, ওয়াজ মাহফিলে মাইকের ব্যবহার শব্দ দূষণ বলবেন, আর হিন্দু ধর্মের পূজার সময় দ্রিম দ্রিম শব্দে সারারাত হিন্দী গান শোনা সংস্কৃতি মনে করবেন, সেটাও হবে না।

মুক্তিযুদ্ধকে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ হিসেবে দেখাতে পারলে উভয়পক্ষেরই লাভ, পাকিস্তানের লাভ যে অশিক্ষিত বাঙালির হাতে কড়া মার খেয়ে পিছু হটেছে সে লজ্জা "হেদুদের" ষড়যন্ত্র বলে ঢাকা, আর ভারতের লাভ মৌলবাদী হিন্দুদের "মুসলিম পাকিস্তানিদের হারিয়েছি" বুঝিয়ে ভোটের রাজনীতিতে ভোট বাড়ানো।

কট্টর নারীবাদীতা, ডাইসেক্টিং উইথ সেল্ফ পারস্পেক্টিভ


ওকে, লেটস ডাইসেক্ট সামথিং উইথ সেল্ফ পারস্পেক্টিভ

ধরেন,
আপনি চাকরী করেন, ২০কে এর মত বা বেশি স্যালারি পান। তো, আপনের জীবন চালানোর জন্য আপনের স্যালারি এনাফ। আপনে মুভি দেখতে পারেন, বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে ঘুরতে পারেন, দুই তিন মাস টাকা জমায়ে নতুন জেলা ঘুরে আসতে পারেন ইত্যাদি। যেহেতু আপনে একা, তাই মুভির টিকিট প্রিমিয়াম ক্যাটাগরির না হইলেও কোন সমস্যা নাই, রেস্টুরেন্টে মোটামুটি মানের খাবার নিলেও সমস্যা নাই, ঘুরতে যায়ে বোর্ডিং এ ১০০ টাকা পার নাইট খরচ দিয়ে থাকলেও সমস্যা নাই বা ১৫ টাকার পরোটা খায়ে লোকাল বাসে ঘুরলেও সমস্যা নাই।

ঈসলাম; আধুনিকতা না অবসোলিট অতীত, বোরকা/হিজাব সাপেক্ষ?


সাইক্রিয়াটিস্টরা, যদিও সামান্য বিতর্কিত, একটা সিস্টেম প্রয়োগ করে খুব দ্রুত পারসোনালিটি চেঞ্জ করানোর ইচ্ছায়। শক থেরাপি।
ব্যাপারটা এমন যে, ধরেন আপনার সাইকোলজিকাল একটা খারাপ দিক আছে যে সবাইকে হেয় করা, তো সাইক্রিয়াটিস্ট করবেন কী আপনার সোশ্যাল গ্যাদারিং এ উপস্থিত হয়ে আপনার সাথে, আপনার শরীরে আগে থেকেই একটা শক দেয়ার মেকানিজম থাকবে, যার সুইচ থাকবে সাইক্রিয়াটিস্টের হাতে, আপনি কোন হেয়কর মন্তব্য আপনার বন্ধুদের দিকে ছুড়লেই খাবেন "শক"।

তো আপনারা এক কাজ করেন, এই থেরাপি কাজে লাগান। পুংদণ্ডে শক দেয়ার একটা মেকানিজম লাগিয়ে ঘুরুন না সাতদিন, যখনই দেখবেন যে কাউকে দেখে পুংদণ্ড নড়াচড়া শুরু করছে, সাথে সাথে দিন একটা শক লাগিয়ে। অবশ্য নিজের কাছে নিজে সত্য থাকতে হবে এক্ষেত্রে। দেখবেন সাত দিন পর আর আপনার পুংদণ্ড হুদাই খাড়ানো বন্ধ করে দিছে!

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

সূর্যসন্তান
সূর্যসন্তান এর ছবি
Offline
Last seen: 1 month 3 weeks ago
Joined: রবিবার, নভেম্বর 5, 2017 - 2:09পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর