নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 9 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • রাফী শামস
  • দিন মজুর
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • গোলাম মোর্শেদ হিমু
  • আব্দুল্লাহ আল ফাহাদ
  • রুদ্রমঙ্গল
  • নুর নবী দুলাল
  • এফ ইউ শিমুল
  • জহিরুল ইসলাম

নতুন যাত্রী

  • অন্ধকারের শেষ প...
  • রিপন চাক
  • বোরহান মিয়া
  • গোলাম মোর্শেদ হিমু
  • নবীন পাঠক
  • রকিব রাজন
  • রুবেল হোসাইন
  • অলি জালেম
  • চিন্ময় ইবনে খালিদ
  • সুস্মিত আবদুল্লাহ

আপনি এখানে

বিপ্লব পাল এর ব্লগ

প্রযুক্তি ও ইতিহাস - দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সোভিয়েত বিজয় - পর্ব দুই



বাংলায় এখনো অনেক কমিনিউস্ট - যাদের কাছে স্টালিনের মতন কুখ্যাত খুনী পরম পূজনীয়। এদের স্টালিনের বিরুদ্ধে যতই বলুন, দেখবেন, ফাইনাল দাবী- হু হু বাবা, যাই বলনা কেন, স্টালিন না থাকলে হিটলারকে কে ঠেকাত ?

প্রযুক্তি এবং ইতিহাস- পলাশীর যুদ্ধ , প্রথম পর্ব


স্কুল লেভেল থেকেই ইতিহাস ভাষ্যের ( ন্যারেটিভ) দখল নেওয়ার কাজটা সব পার্টিই করে। কারন ভবিষ্যতের ক্যাডার তৈরীর জন্য, ওটা প্রথমে দরকার। রাজনৈতিক পার্টির অন্ধ সাপোর্টার বেস তৈরী করার ওটাই প্রথম ধাপ। আর সেই কারনে পৃথিবীর সব দেশেই ইতিহাসের ভাষ্য ভীষন ভাবে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত। অর্থাৎ ইতিহাসের গল্পে হিরো-ভিলেন থাকে-এবং তাদের নির্মান করা হয় গল্পের মাধ্যমে । প্রয়োজন মাফিক। যদিও আমি যেটুকু ইতিহাস ঘাঁটি, তাতে এটাই আমার কাছে পরিস্কার হয়, ইতিহাসের আসল গল্পের হিরো কিন্ত কারিগড়রা। প্রযুক্তিবিদরা।

শুভ জন্মদিন বন্ধু অভিজিত


অভিজিতের সাথে সাক্ষাত দেখা হয়েছে মোটে একবার, কিন্ত ফোনে বা ভিডিও চ্যাটে কথা বলেছি ঘন্টার পর ঘন্টা সেই ২০০৪ সাল থেকেই। যখন ও সিঙ্গাপুরে পি এই চ ডি শেষ করছে। তখন থেকেই ওর চার্বাক @ ইয়াহুডটকমের ইমেলের সাথে পরিচয়। অসংখ্য তর্ক বিতর্ক হয়েছে ওর সাথে মুক্তমনার পাতায়, ইহাগুগ্রুপে-আবার দুজনে একসাথে যৌথভাবেও অনেক রিবিউটাল তৈরী করেছি।

সুকি বিশ্বমানবতার লজ্জা


নোবেল শান্তি পুরষ্কার মহা খোরাকি বস্তু। মহত্মাগান্ধী নোবেল পিস প্রাইজের যোগ্য বলে বিবেচিত হন নি ( বৃটিশ বিরোধিতায়) । কিন্ত নোবেল পিস প্রাইজ পেয়েছেন পৃথিবীর সব থেকে যুদ্ধবাজ সেক্রেটারী অব স্টেটস হেনরী কিসিংঞ্জার। যার লম্বা হাত- ভিয়েতনাম থেকে বাংলাদেশের গণনিধনের সাথে যুক্ত।

এই তালিকায় নতুন নাম- বার্মিজ প্রধানমন্ত্রী সুকি। আন সাং সুকি। যিনি বার্মার মিলিটারি জুন্টার হাতে গৃহবন্দী ছিলেন পনেরো বছর। বার্মায় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় তার অহিংস সংগ্রামের জন্য নোবেল পান ১৯৯০ সালে।

ধংসযজ্ঞের ঘৃতাহুতি


এই সপ্তাহটা প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ঘনঘটা। রবিবার ফ্লোরিডাকে দুরমুশ করবে ক্যাটেগরী-৫ হারিকেন ইরমা। এখন সে কিউবার উত্তরে। ফ্লোরিডার প্রায় সব বাসিন্দারাই থাকে এর নয়নাভিরাম সৈকত শহরগুলিতে। সেখান থেকে সবাইকে আপাতত সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। প্রায় এক কোটি লোক, নিজের বাড়িঘর ছেরে অন্যত্র-দেখছেন রবিবার দুপুরে ইরমা তাদের বাড়ির আস্ত রাখবে কি না।

শুধু ইরমা না। ইরমার উত্তর দিকে আরেকটা ক্যাটেগরী-৪ হারিকেন এগোচ্ছে- হারিকেন হোসে। সেটাও ক্যাটেগরী ফাইভ হয়ে পূর্ব উপকূলে ঝাঁপাতে পারে আগামী সপ্তাহের বুধ বৃহস্পতি নাগাদ।

গৌরী লঙ্কেশ, অভিজিত রায়দের হত্যায় যখন উল্লাস!


(১)
গৌরী লঙ্কেশের নাম আগে শুনিনি। কন্নডভাষি কোন পত্রিকার সম্পাদকের নাম কেউ না জানতেই পারে। ব্যাঙ্গালোরে উনাকে কালকে গুলি করে মারা হয়। উনি একজন বাম লিব্যারাল ঘরানার সম্পাদক। হিন্দুত্ববাদিদের বিরুদ্ধে লিখতেন। আবার কংগ্রেসকেও গালাগাল দিতেন। উনার পত্রিকা লঙ্কেশ পত্রিকে। তবে ইদানিং কালে উনার সাথে সাপে নেউলে সম্পর্ক ছিল ব্যাঙ্গালোর বিজেপির। কে খুন করেছে এখনো পুলিস জানে না-কিন্ত অনুমান করা শক্ত না।

কানা বোবাদের ধর্ম


ফেসবুক খুললেই হয় বাবা রাম রহিম, নইলে তিন তালাক, নাহলে দশমীতে কেন দূর্গা বিসর্জন নয়! যা বুঝছি, ধর্মের হাত থেকে ভারতীয়দের নিস্তার নেই!

গুগুলে গোলমাল - ছেলেরা কি মেয়েদের থেকে অঙ্ক এবং কোডিং এ বেশী পারদর্শী?


(১)
গুগুল ইঞ্জিনিয়ার জেমস ডিমোরো (২৮) এখন আমেরিকার সংবাদ শিরোনামে। ছেলেটি হার্ভাডের মাস্টার্স। ২০১৩ সাল থেকে গুগলে সফটোয়ার ইঞ্জিনিয়ার হিসাবে কর্মরত। সপ্তাহ খানেক আগে সে দশ পাতার মেমো লেখে-যার মূল বক্তব্য কর্মস্থলে বৈচিত্রের ( ডাইভার্সিটি) আছিলায়, গুগলে মহিলা কর্মীদের বেশী সুবিধা পাইয়ে দেওয়া হচ্ছে। এতে যোগ্য পুরুষকর্মীরা বঞ্চিত এবং ডিমটিভেটেড।

ভেনেজুয়েলাঃ বামপন্থা বা দান্তের নরক


ভাবুন এমন এক দেশের কথা যাদের তেলের রিসার্ভ পৃথিবীর বৃহত্তম। অধিকাংশ লোকের বাড়িতে গাড়ি আছে, মাথা গোঁজার জায়গা, টিভি ফ্রিজ, আধুনিক কিচেন সবই আছে। কিন্ত বাড়িতে খাবার নেই!

দোকানেও খাবার নেই। প্রাইস কন্ট্রোল এবং দাঙ্গার কারনে দোকানিরা দোকান ছেড়ে পালিয়েছে। কৃষকদের পেটেও দানাপানি নেই। কারন বীজ আমদানি করতে হয়-আমদানি করার ডলার নেই। সব থেকে বড় কথা হুগো শাভেজের জমানায় সমাজতান্ত্রিক বিপ্লব সম্পন্ন করতে বড় খামার ভেঙে দেওয়া হয়। তাতে অসুবিধা হওয়ার কথা না-কিন্ত চাষীরা চাষ করা বন্ধ করে দেয়। কারন উৎপাদিত দ্রব্যের দাম সরকার নিয়ন্ত্রন করে-এবং সেই দামে ফসল বিক্রি করে লাভ নেই।

ভেনেজুয়েলার বাম গনতান্ত্রিক বিপ্লব এতটাই জ্যাকশিট, নির্ধারিত দামের অত্যাচারে চাষীরা পশুখাদ্য তৈরী করে খাচ্ছে। কারন পশুখাদ্যের দাম নির্ধারিত না!

ইঞ্জিনিয়ারিং চাকরির ভূত ভবিষ্যত!


(১)
ভারতের আই টি শিল্পে কর্মী ছাঁটাই অব্যহত। এখন যা হচ্ছে, তা হিমশৈলের ভাসমান অংশমাত্র। আমেরিকাতে আমার যেসব বন্ধু সার্ভিস সেলসে আছেন-তাদের অনেকের কাছ থেকেই শুনছি ট্রাম্প জমানা আসাতে অনেক ডিল হয় বাতিল, না হলে পেছোচ্ছে-নইলে কাজ পাচ্ছে স্থানীয় আমেরিকান কোম্পানী। সেলস পাইপলাইন শুকানোর দিকে। এখনো বড়সর কিছু লে-অফ হবে না। কিন্ত আস্তে আস্তে আই টি ইঞ্জিনিয়ারদের ওপরে অটোমেশন এবং ট্রাম্পের গিলোটিন ঝপাৎ করে নামার অপেক্ষায়।

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

বিপ্লব পাল
বিপ্লব পাল এর ছবি
Offline
Last seen: 13 ঘন্টা 30 min ago
Joined: শুক্রবার, জুন 30, 2017 - 6:01অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর