নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • সাজ্জাদুল হক
  • শঙ্খচিলের ডানা
  • তাকি অলিক
  • ইকরামুল শামীম

নতুন যাত্রী

  • মোমিত হাসান
  • সাম্যবাদ
  • জোসেফ স্ট্যালিন
  • স্ট্যালিন সৌরভ
  • রঘু নাথ
  • জহিরুল ইসলাম
  • কেপি ইমন
  • ধ্রুব নয়ন
  • সংগ্রাম
  • তানুজ পাল

আপনি এখানে

হিউম্যানিস্ট বাই নেচার এর ব্লগ

সমকামী অধিকার কি মানবধিকার না?


সমকামীরা যেহেতু মানুষ, তাই তাদের অধিকারও মানবধিকারের একটি অংশ।আর তাদের অধিকারের জন্য সমর্থন করা অন্য আট দশটি মানবধিকারের সমর্থনের মতো।এখানে তাদের সমর্থন করতে হলে সবাইকে তাদের মতো হতে হবে তা ভাবা খুবই অযুক্তিক।
আর আমি দেখেছি সমকামীদের সমর্থনে সব সময় এগিয়ে আসেন যারা, তাদের বেশির ভাগ বিপরীত লিঙ্গের সাথে সম্পর্কে জড়িত।
কিন্তু শুধু মানবতাবোধ থেকে তারা সমকামীদের পাশে দাঁড়াতে এগিয়ে আসছেন।

এখন বিশ্ব পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে দাঁড়িয়েছে যেখানে সকল প্রকার ধর্ম মানব হত্যার হুলি খেলছে।


সংগীত শিল্পী হয়দার হোসেনের একটা বিখ্যাত বাংলা গানের কথার সাথে মিলিয়ে বলছি; কি দেখার কথা, আমি কি দেখছি? কি শুনার কথা, আমি কি শুনছি? মানব জাতির এতো অগ্রগতির পরও আমি মানবতা কে আজও খোঁজছি!!মানবতার চরম আহাজারিতে আমাদের চারপাশ ধূসর, মানব জাতির রক্ত স্রোতে প্রবাহমান মানবতার বর্বরতা। বিবেকের দরজা বন্ধ হয়ে আছে শব্দহীনভাবে। বাকরুদ্ধ করে আমাদের প্রগতিশীল মানুষগুলোকে কোনঠেসা করে রেখেছে শতাব্দীকাল।সত্যালয়ে কি আমরা বাস্তবতা উপলদ্ধি করতে পারছি না?

অ্যামনেষ্টি ইন্টারন্যাশনালের সাথে আছি,ভবিষ্যতেও থাকবো।


গতকাল অ্যামনেষ্টি ইন্টারন্যাশনালের একটা গবেষনায় অংশগ্রহন করেছি।আগামি বছরের মে মাসে সারা ইউরোপে তথ্য প্রযুক্তির একটি নতুন আইন আসতেছে।মূলত সেই আইনটিকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন বানিজ্যিক কোম্পানি থেকে শুরু করে এমনকি মানবধিকার সংগঠনগুলো কিভাবে তাদের সাংগঠনিক সদ্যসদের এবং সমর্থকদের ব্যক্তিগত তথ্য সংরক্ষন করবে এবং কিভাবে তথ্য নিরাপত্তা প্রদান করবে এই ধরনের বিষয় নিয়ে গবেষণামূলক কর্মসূচী ছিল। গবেষনা কর্মসূচিটি সর্বোমোট ১৪ সদ্যসের সমন্বয়ে গঠন করা হয়েছিল আর আমি সেইখানে ১৪ সদ্যসের একজন ছিলাম। আমি ছাড়া বাকী সবাই ইংলিশ পুরুষ-মহিলা ছিল। আমি শুরুতে একটু নার্ভাস ছিলাম, প্রথমত, এইটি একটি গবেষণামূলক কর্মসূ

ইসলাম ধর্ম বা ধর্মহীন জীবনে আমার প্রাকৃতিক স্বাধীনতার খোঁজ।


হারাম রোগের উপদ্রব মানুষের জীবনকে একটি বন্ধি কারাগার বানিয়ে রাখছে। ইসলাম ধর্ম হারাম বলে বলে মানুষের সাধারন স্বাধীনতাকে পর্যান্ত কেড়ে নিয়েছে।বিয়ে করা ছাড়া কোনো মেয়ের প্রতি ভালোবাসা দেখানো বা প্রকাশ করা গনাহ্। পরকালে অনন্তকাল জান্নামের আগুনে পুড়ে ছাঁই হতে হবে শুধু কাউকে বিয়ে না করে ভালোবাসার কারনে।ইসলাম যদি এইভাবে সাধারন প্রাকৃতিক মানবীয় দিকগুলোকে ইসলামের বর্বর শিকলে বেঁধে মানুষকে ভীত করে রাখে তাহলে মানুষ ধর্মকে ভালোবাসবে না বরং ভয়ে পালন করবে।আর ভয় হচ্ছে জোর খাঁটানো ইসলাম ঠিক তাই করছে।জোর খাঁটিয়ে মানুষকে মেরে তোলোয়ারের মাধ্যমেই ইসলামের জন্ম পৃথিবীতে।ইসলাম একটি উগ্র বর্বর অমানবিক

হালাল জবাই ও কোরবানীর বর্বরতা প্রসঙ্গে


আমি বিদেশে বসবাসরত মুসলিমকে উদ্দেশ্য করে এই লেখাটি লিখছি, কিন্তু আমার স্বদেশবাসীদের কথাও বাদ যাচ্ছে না। দুনিয়ার সকল বিশ্বাসী বা অতি বিশ্বাসী মুসলিমের কাছে হালাল খাবার খুব গুরুত্বপূর্ণ। আর তা গুরুত্বপূর্ণ হয়েছে ধর্মের স্বার্থে, এখন মুসলিমেরা খেতে গেলে একটা বিশাল ঝমেলায় পড়ে যায় যে কি তারা হারাম খেয়ে ফেলছে নাতো?

আধুনিক যুগের ধর্ম ব্যবসায়ী আহসান হাবিব পেয়ার ওরুপে মাজিদ


আমরা লাল সালু উপন্যাসটি পড়েছি, সৈয়দ ওয়ালিউল্লাহ রচিত উপন্যাসটি বাংলাদেশে ও বিভিন্ন জায়গায় ব্যাপকভাবে আলোড়ন সৃষ্টি করে ছিলো সেই সময়।সমাজের সাধারন মানুষের সহজ সরলতাকে পুঁজি করে কিভাবে ধর্মীয় হঠকারীরা ব্যবসা করতো সেই যুগে তার একটি বাস্তব চিত্র উপন্যাসের মাধ্যমে লেখক তুলে ধরে ছিল।

নিজে যাকে বড় বলে বড় সেই নয়, কর্ম যাকে বড় করে ধর্ম তাকে ঠেকাই কি করে।


আজ কিছু বাস্তবতার পরিপেক্ষিতে আলোচনা করবো, আর সেই বাস্তব তথ্যের দ্বারা চেষ্টা করবো সমাজের মুখোশধারীদের চেহারা উন্মোচন করতে। আমার নিজের ব্যক্তিগত চিন্তা যে আপনাদের সকলের পছন্দ হবে তা আমি আশা করছিনা। আমরা প্রত্যেকেই নিজেস্ব বিবেক-বিবেচনায় আলাদা আলাদা। তাই পারস্পরিক সম্মান দেখানোর মাধ্যমে আমরা সমাজের সত্যিকার পরিবর্তন ও পরিবর্ধন করে একটি সৃজনশীল সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে পারবো।

মনের দরজা সর্বদা খুঁলে রাখুন এবং ধর্ম্মান্ধদের প্রতিহত করুন।


এই মাসের জুলাই মাসের ২২-২৪ তারিখ লন্ডনে বিশ্বের সর্ব বৃহৎ বাক স্বাধীনতা ,মুক্ত চিন্তার এবং ধর্ম ও ধর্মহীন সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তুলা নিয়ে সম্মেলন হয়। যেখানে এসেছেন পৃথিবীর সকল প্রান্তের মানুষ এবং বক্তব্য প্রদানকারীদের মধ্য অনেক বিশ্ব পরিচিত মুক্ত চিন্তাবিদও ছিলেন। রিচার্ড ডাউকিন্স,পিটার টাটশেল,মরিয়াম নামাজিদের মতো লোকদের উপস্হিতি সম্মেলনকে অন্যরকম তাৎপর্যপূর্ন করে তুলে। আর আমার সুভাগ্য হয়েছিল ঔ সম্মেলনে অংশ গ্রহনের।

'আমি দূরবোধ্য কিন্তু কঠিন নয়,


আমি বৃষ্টি হয়ে ঝরে মাটিতে মিশে যাই প্রতিনিয়ত।
হয়তো কেউ জানবে না আমার হৃদয়ের রক্ত ক্ষরন,
সবাই শুধু দেখবে আমার বাহিরের দিক গুলো।
কিন্তু আমার মন-মন্দিরের রক্ত ক্ষরন রয়েই যাবে-
সকলের দৃষ্টির অগোচর।
সপ্নের পিঁছু ছুটে ছুটে, বস্তুত বাস্তব জীবন থেকে নিজেকে তিলে তিলে অচেনা করে দিচ্ছি।
ভালোবাসার মুকুট খুলে ব্যর্থতার গ্লানি বয়ে যাচ্ছি, কিন্তু তা করেছি ভালোবাসার টানে, ভালোবাসার মানুষকে ভালো রাখতে।
বিশ্ব পরিমন্ডলে আমি নিরাকার, অতি তুৎচ্ছ মানুষ।

জীবন ও মন, ধর্ম এবং তার কর্ম


আমি রাতের নির্জনে আমার রুমে অন্ধকারে একাকী বড় ভাবনায় ঢুকে পরেছি তাই ঘুমাতে পারছি না, তার উপর বাহিরে ঝম ঝম করে বৃষ্টি পরছে। আমার এখানে রাত ২টা বাজে,কিন্তু ঘুমানোর চেষ্টা করছিলাম সেই রাত ১২টা থেকে। তাই ভাবলাম মনের ভাবনা গুলোকে বন্ধি না রেখে আপনাদের মাঝে ছেড়ে দিই।

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

হিউম্যানিস্ট বা...
হিউম্যানিস্ট বাই নেচার এর ছবি
Offline
Last seen: 7 ঘন্টা 56 min ago
Joined: বুধবার, এপ্রিল 5, 2017 - 4:57পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর