নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • নীল কষ্ট

নতুন যাত্রী

  • ষঢ়ঋতু
  • এনেক্স
  • আরিফ ইউডি
  • গলা বাজ
  • হুসাইন
  • তারুবীর
  • অন্তরা ফেরদৌস
  • শেখ সাকিব ফেরদৌস
  • প্রাণ
  • ফেরদৌস সজীব

আপনি এখানে

ক্ষয়িষ্ণু বাঙালি. এর ব্লগ

মহিলা জিহাদির মদিনা সনদ !!


১. মালুরা নৌকায় ভোট দেয় তাই যুবলীগের মুসলমান যুবকরা মা মেয়েকে "নৌকায় ধর্ষন করে" বুঝিয়ে দিয়েছে যে বেজন্মা মুসলমান যুবকদের মেশিনের ক্ষমতা কত !! আর হ্যা , এই নৌকায় তুলে নৌকার কমন ভোটারদের ধর্ষন একটা সাম্প্রদায়িক সম্প্রিতীর উদাহরন যা বিশ্বে বিরল ।

মুসলিম মুসলিম ভাই ভাই এবং ট্রাম্প !!


১. একাত্তর এর মুক্তিযুদ্ধ হচ্ছে একটা হ্যালুসিনেশন । হিন্দুর মা বোন কে ধর্ষন করার জন্য মুসলমানের মেশিন পরীক্ষা করার মহা আয়োজন মাত্র । সাথে বোনাস হিসেবে লুটপাট, মন্দির প্রতিমা ভাঙচুড় এর নামে সাম্প্রদায়িক সম্প্রিতির উদাহরন যা এই এত বছর পর ২০১৭ তেও চলছে নয়তো জয়দেবপুরের কালীগঞ্জে দূর্গা মন্দিরে রাতের অন্ধকারে মুসলমান কেন বিনা কারনে এবং ধর্মিয় অনুভূতিতে আঘাতের কোন ভুয়া ঘটনা ছাড়াই হামলা করে প্রতিমা ভাঙার পর প্রতিমার গায়ের শাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিবে ???কেন ??? কোন সাহসে এসব করে ??? সংখ্যার জোরে ???

মন্ত্রির ছাওয়াল, মুক্তিযুদ্ধ এবং মদিনা সনদ !!


১. নাস্তিক বিধর্মির আবিষ্কার ফেসবুক ব্যবহার করে "নাস্তিক এর ফাঁসি" চেয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রি মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান খান কামালের সুযোগ্য ছাওয়াল জনাব সাফি মোদ্দাসের খান !! যিনি একজন সাচ্চা মুসলমান , পবিত্র ধর্ম ইসলামের সৈনিক, গুপ্ত চাপাতি বিশারদ , অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের ভবিষ্যত আল্লমা !! আল্লাহ মন্ত্রির ছাওয়ালরে বেহেশত নসিব করুন । আমিন !!

এরাই তারা !


১. মুক্তিযুদ্ধের সময় একতরফাভাবে বাঙালি খুনের নেশায় উন্মাদ হয়ে যায় দুই পাকিস্তানের মুসলমান নাগরিকেরা । ১৯৪৭ এর ধর্মের ভিত্তিতে যে ভারত বিভক্ত হয়ে মুসলমানের পাকিস্তান আর হিন্দুর ভারত হয় তার পূর্ন ধর্মিয় প্রতিফলন দেখা গেছে একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে ।

মুরুব্বির সালিশে বিচার !!


১. ২০০৫ এ ইসলামি জঙ্গিদের বোমা হামলার টার্গেট ছিল বিচারক, আইনজীবি ও আদালত । জঙ্গিরা বলল, আল্লাহর আইন ছাড়া মানুষের তৈরি আইন মানি না তাই বোমায় উড়িয়ে দেয়া হল বিচারক আইনজীবিদের । আদালতে বোমার বিষ্ফোরন হল । বোমা রেখে ভীতি ছড়ানো হল । যেন সবাই আল্লাহর আইন ই মেনে নেয় , মানতে বাধ্য হয় ।

লজ্জা এবং শান্তির প্যাকেটে বোমা !


পারী নগরীতে হামলাকারি বিশিষ্ট ইসলামি চিন্তাবিদ এবং উলামায়ে কেরাম বোর্ড জনাব সালেহ আব্দেস সালাম এর বয়ান-- " আমি যা করেছি তার জন্য অনুতপ্ত নই, আমি যা করেছি তার জন্য লজ্জিত নই , কারন আমি যা ভাল মনে করেছি তা ই করেছি , (পরিনতি)যা ইচ্ছা হবে এইসব নিয়ে আমি ভাবি না " এই ভাবেই নিজের ধর্মিয় অনুভুতি প্রকাশ করেছেন এই ইসলামি চিন্তাবিদ । যিনি নভেম্বর ২০১৫ এর ১৩ তারিখে পারী তে ১৩০ জন কাফের বিধর্মী হত্যা করে পরকালের বিশেষ " ইসলামি বিকৃত সুখ " লাভের আশায় দিন গুনছেন । নিশ্চয় আল্লাহ এইসব সাহসী বান্দাদের ইসলাম এর পক্ষে জিহাদ করার পুরষ্কার হিসেবে জান্নাতবাসি করে ৭২*২=১৪৪ হুর এর সহিত সহিহ যৌনলীলা করার অধিকার দিবেন । সব মুসলমানগন বলুন , আমিন !!

চাপাতি পরম ধর্ম !!


ক. মালয়শিয়াতে পাঁচ মায়ানমার নাগরিক যারা কিনা শ্রমিক হিসেবে গেছে তাদেরকে কতক শান্তির ধর্মের লোক ইসলামি তলোয়ারের খোঁচায় দুনিয়া থেকে সরিয়ে দিয়ে ধর্মের ভাই রোহিঙ্গাদের হয়ে প্রতিশোধ নিয়েছে ! নাহ্ এই খবর মুসলিম মিডিয়া প্রকাশ করেনি । পাছে , শান্তির মা রাগ করে শান্তির বাপেরে তিন তালাক দেয় !!!

খ. নয়া ঘাস লতাপাতা গজাইছে ! বাঁশের চাইতে কঞ্চি বড় হইছে । তাই একটু বেশিই লাফালাফির খবর আসে আর আসছে ।

মদিনা সনদ এবং ইসলামি জঙ্গি আস্ফালন !!


১. ভিনদেশী মুসলমান রোহিঙ্গাদের হয়ে "ধর্মীয় প্রতিশোধ" নিতেই ২০১২ সনে রামুতে অল পার্টি ইসলামিক কোয়ালিশন ইসলামি তান্ডব চালায় । রোহিঙ্গারা আত্মঘাতী বোমা হামলা চালিয়ে বার্মার পুলিশ মারবে কিন্তু রোহিঙ্গাদের কিছুই করা যাবে না, জামাই আদর ছাড়া ।

২. ২০১৩ এর ৫ মে মতিঝিল শাপলা চত্বরে ইসলামি জঙ্গি গ্রুপ "হেফাজত এ ইসলাম" এবং "জামায়াত এ ইসলাম" রাষ্ট্রবিরোধী যৌথ সন্ত্রাসবাদি তান্ডব চালায় । এই সন্ত্রাসী গ্রুপের কারো যেন তান্ডব চালাতে কষ্ট না হয় সেজন্য শরবত, রুটি কলার সহ আরো বহু কিছুর আয়োজন করা হয় । নারায়ন গঞ্জের শামিম উসমান থেকে এরশাদ সবাই এই দায়িত্বে ছিল ।

মালাউন মিডিয়া !


অবশেষে, স্কুলের পাঠ্যবই ইসলাম ধর্মে দীক্ষিত হইয়া মো:কিতাব হইল ! রাষ্ট্রধর্ম ইশলাম হইছে বহু আগে । এতদিন পর পাঠ্যবইকে ইশলামের পথে আনতে পেরে যারপরনাই খুশি দেশের কোমলমতি মুসলিম সমাজ !

মো: কিতাবের আকিকাতে প্রধান অতিথি ছিলেন মাওলানা মোহাম্মদ শফি হুজুর । আরো ছিলেন সৌদি ও পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতগণ। তাহারা সকলেই ভারতীয় মালাউন গরুর ভুনা দিয়ে দুপুরের খাওয়া দাওয়া শেষ করেন ।

ক্ষনিক বাদে , মাওলানা শফি হুঙ্কার ছাড়িয়া বলেন "বাংলাদেশ নামটাতে হিন্দুয়ানির গন্ধ পাওয়া যায় আগের নামেই ভালো ছিল, আগের নাম ফেরত চাই । মুসলমানের দেশে কিসের আবার জাতিয় সঙ্গিত ?? এইসব ইসলামে হারাম ।"

বোর্ডিং কার্ড

ক্ষয়িষ্ণু বাঙালি.
ক্ষয়িষ্ণু বাঙালি. এর ছবি
Offline
Last seen: 10 ঘন্টা 16 min ago
Joined: শনিবার, জানুয়ারী 7, 2017 - 3:35অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর