নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • গোলাম সারওয়ার
  • নুর নবী দুলাল

নতুন যাত্রী

  • অনিক চক্রবর্তী
  • অনুভব রিজওয়ান
  • মোমিন মাহদী
  • নাঈম উদ্দীন
  • সাইফ উদ্দীন
  • সংগ্রামী আমি
  • মোঃ নাহিদ হোসোইন
  • পাপেন ত্রিপুরা
  • মোঃ রেফায়েত উল্ল্যাহ
  • রজন্ত মিত্র

আপনি এখানে

অপ্রিয় কথা এর ব্লগ

নারীকে কেন আলাদাভাবে সম্মান করতে হবে? নারী কি রুগ্ন?


নারীকে অপদস্থ করা, নারীর কাপড় চোপড় টেনে হিঁছড়ে লাঞ্চিত করা, অপমান করা, পণ্য করা, দুর্বল ভেবে তাকে নির্যাতন করা এটা নারীর প্রতি সহস্র সহস্র বছর ধরে চলা পুরুষতান্ত্রিকতার ইতিহাস। এখনো এই সমাজে নারীকে পুরুষের সমকক্ষ ভাবা হয় না। ভাবা হয় এক দুর্বল, অক্ষম, রুগ্ন প্রজাতি। গত কয়েকদিন আগে শায়লা শ্রাবনী নামক যে মেয়েটি আরেকটি মেয়ের বস্ত্র হরণ করার যে প্রয়াস চালিয়ে ছিলেন। তা দেখে মনে হয়েছিল, শায়লা শ্রাবনী নিজেই একজন পুরুষতন্ত্রের একনিষ্ঠ সেবাদাসী! যেন আরেক জন মেয়ের কাপড়-চোপড় টেনে খোলায় মধ্যে তিনি পুরুষতন্ত্র চর্চার অমৃত স্বাদ পেয়েছিলেন! পুরুষতান্ত্রিকতা কি শুধু পুরুষরা চর্চা করেন?

আসাদ নুরের গ্রেপ্তারে যেইসব নারীবাদী ও অন্যান্য প্রগতিশীল ব্লগাররা চুপ, তাদের উদ্দেশে বলছি--


আসাদ নুরের গ্রেপ্তারে যেইসব নারীবাদী ব্লগার ও অন্যান্য প্রগতিশীল ব্লগাররা অদ্ভুত রকম চুপ, তাদের উদ্দেশে বলছি---

সকল মুক্তমনা নাস্তিক অবিশ্বাসীদের প্রতি আমার প্রস্তাব


সকল মুক্তমনা নাস্তিক অবিশ্বাসীদের প্রতি আমার প্রস্তাব

==========================

এদেশে নাস্তিক অবিশ্বাসীদের সংখ্যা নেহাত কম নয়। তাঁরা কোনো না কোনো ভাবে পরিবার সমাজ কিংবা রাষ্ট দ্বারা প্রতিনিয়ত নিগৃহীত হচ্ছেন বা লাঞ্চিত হচ্ছেন। কখনো কখনো নির্যাতিত বা মৃত্যু বরন করে নিচ্ছেন। যার প্রমান হুমায়ুন আজাদ, রাজীব হায়দার, অভিজিৎ রায়। শুধুমাত্র ধর্মের সমালোচনা আর ভীন্নমত পোষন করায় ইসলামি মৌলবাদীরা তাঁদেরকে নিশংসভাবে হত্যা করেছে। যা একবিংশ শতাব্দীতে কোনো ভাবেই মেনে নেয়া যায়না। এভাবে আর কতো সহ্য করা যায়?

কারাবন্দী ভিডিও-ব্লগার আসাদ নুরের প্রতি 'অপ্রিয় কথা'র খোলা চিঠি


প্রিয় আসাদ,
আজ ১লা জানুয়ারি। ২০১৮ সাল। নতুন বছরের ১ম দিন। তুমি জেলে ঢুকেছো আজ ৬ দিন হয়ে গেল। না জানি কেমন আছো? কি করে কাটছে তোমার কারাবন্দী প্রতিটি মুহুর্তগুলো। কয়দিন ধরে খুব ইচ্ছে করছিল তোমায় একটা খোলা চিঠি লিখি। জানি না এই চিঠির কথাগুলো চার দেওয়ালে ঘেরা আবদ্ধ কারাগারারের শিকের ফাঁক দিয়ে তোমায় কাছে পৌঁছায় কিনা। তবুও লিখছি তাগিতের দায় থেকে।

আসাদ নূরকে মুক্তি দিন রাষ্ট্র- এটা সভ্যতার দাবি!


আসাদ নুর কি ধর্ষণ করেছিল? না। কাউকে খুন করেছিল? না। ধর্মের নামে সহিংসতা চালিয়েছিল? না। অমুলিম নাগরিকদের বাড়ি-ঘর জ্বালিয়ে দিয়েছিল? না। কাউকে কুপিয়ে মারার হুমকি দিয়েছিল? না। কারো কাছ থেকে ঘুষ নিয়ে দুর্নীতি করেছিল? না। রাষ্ট্রের সম্পদ লুন্ঠন করেছিল? না। ব্যাংক ডাকাতি করেছিল? না। এসব তো কিছুই করেনি আসাদ নুর। সেই ছেলেটা ধর্মান্ধতা, কুসংস্কার, অন্যায়, অবিচার ও ধর্মের সহিংসতার বিরুদ্ধে বলতো। বাংলাদেশে সংখ্যালঘু নির্যাতন হলে সেই প্রাণবন্ত তরুনটি ইউটিউবের নিজের চ্যানেলে অভিরাম চিৎকার করতো। লিখতো। তবে তাকে কেন গ্রেপ্তার করা হলো? শুধু কথা বলার অপরাধে?

আমাদের স্কুলে একজন দেবদুতের পদার্পণ: আমি কেন বিজয় দিবস উদযাপন করবো?


মুখে শব্দ ফুটতেই আদি বাল্যশিক্ষা পড়েছিলাম মায়ের কাছে। মা এই আদি বাল্যশিক্ষাটা আমাকে আর দিদিকে দারুনভাবে দিয়েছিলেন। কথা বলতে পারার এই বাল্যশিক্ষাটা সম্ভবত ৫ বছর বয়সে মা একদিন আমাকে প্রাইমারি স্কুলে নিয়ে গিয়ে ১ম শ্রেনীতে ভর্তি করিয়ে দেন মা। আমাদের প্রাথমিক বিদ্যালয় আর উচ্চ বিদ্যালয় পাশাপাশি ছিল। স্কুলের মাঠও ছিল একটা। মনে পড়ছে ১৯৯৩-৯৪ সালের দিকের কথা। সেদিন বোধহয় কোন একটা দিবস ছিল। ঠিক মনে নেই। তখন আমি হয়তো ক্লাশ থ্রি-ফোরে পড়তাম। বয়স ৭-৮ বছর হবে। তখন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি ক্ষমতায়। বেগম খালেদা জিয়া আমাদের দেশের প্রধানমন্ত্রী। সেই সময় একবার আমাদের স্কুলে বিএনপির এক মন্ত্রীর পদার্পণ হয়ে

ক্ষমতার লোভে সরকারের বর্বর ও ভয়াবহ রাজনীতি: ব্লগারদের কে বাঁচাবে?


গত দুই বছর আগে ১৫ সালটা ছিল ব্লগার হত্যার সাল। এদেশের ইসলামি জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিম একে একে সেই বছর স্লিপার সেল দ্বারা মুক্তচিন্তক ব্লগারদের নির্মমভাবে হত্যা করেছিল। তখন ব্লগার হত্যা নিয়ে এদেশের সরকারও ছিল নিরব। শুধু নিরবই ছিলনা, যখন ১৫ সালে ইসলামিস্ট কিলাররা একটার পর একটা ব্লগারর হত্যা করে যাচ্ছে, তখন শেখ হাসিনা সরকার নাস্তিক হত্যার এই দায় নেবে না বলে ইসলামি জঙ্গীদের পরোক্ষভাবে আরো উস্কে দিয়েছিল ব্লগার হত্যা করার জন্য। এতে সরকারের লাভ আছে। সরকার দেশের সংখ্যাগরিষ্ঠ ৯০% মুসলমানকে বোঝাতে সক্ষম হচ্ছে, "-দেখো আমরা নাস্তিক ব্লগারদের পাশে নেই, আমাদের সরকার ইসলামের পাশেই আছে। দেখো আমরা

ইসলাম অবমাননার নামে টিটু রায়কে গ্রেপ্তারঃ এটা সরকার-প্রশাসনের নির্লজ্জতাই ফুটে উঠে!


আওয়ামিলীগ সরকার (ও তার প্রশাসন) মুসলমানের সমর্থনের জন্য এতোটা নগ্ন ও নির্লজ্জ হয়েছে যে, তাদের এই নির্লজ্জতা ঠিক কোন ভাষায়, কোন শব্দ দিয়ে ব্যাখ্যা করবো, সেইটুকু ভাষা ও শব্দ আমার জ্ঞাণ ভাণ্ডারে নেই। রংপুরের ঠাকুর পাড়ার টিটু রায়কে ঠিক কোন অপরাধে গ্রেপ্তার করলো আওয়ামিলীগ সরকারের প্রশাসন? আমি বুঝে উঠতে পারছি না টিটু রায়ের অপরাধটা কি? যে ছেলেটা ফেইসবুকের 'ফ' ও বুঝেনা, সেই ছেলে কি করে ইসলাম ও নবী অবমাননা করবে?

স্বাধীন হয়ে এদেশ ৪৬ বছর ধরে পাকিস্তান থেকে পাকিস্তানতর হয়েছে!


সময় জিনিসটা আমার কাছে খুব অল্পই। নিজেকে দেবার মতো সময় বের করতে পারিনা। নিজেকে সময় দেয়া বলতে নিজের লেখালেখিতে অন্তর্মুখী হয়ে ডুব দেয়া। অনেক অনেক দিন হয়ে যাচ্ছে কোন একটা বিষয়ের উপর ভালো করে বিশ্লেষণ করে বড় আকারে লেখা লিখছি না। যে দুচার লাইন লিখি, এই যেন লেখালেখির অভ্যাসটা ধরে রাখা। যাদের লেখার অভ্যাস আছে, তারাই জানেন লিখতে না পারার কষ্ট ঠিক কতখানি। আর সময়ের লেখা সময়ে না লিখলে, পরে লিখলে তাতে প্রতিবাদের ভাষায় ভাটা পড়ে, বারুদের ভাষা ফুরিয়ে যায়। কিছু কিছু রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্ত দেখে শরীরের রক্তে আগুন জ্বলে! প্রতিবাদ যে করবো, লিখতেই তো পারিনা। সময় কোথায়?

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

অপ্রিয় কথা
অপ্রিয় কথা এর ছবি
Offline
Last seen: 2 weeks 1 দিন ago
Joined: শনিবার, ডিসেম্বর 24, 2016 - 2:15পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর