নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • কুমার শাহিন মন্ডল
  • নুর নবী দুলাল

নতুন যাত্রী

  • অন্নপূর্ণা দেবী
  • অপরাজিত
  • বিকাশ দেবনাথ
  • কলা বিজ্ঞানী
  • সুবর্ণ জলের মাছ
  • সাবুল সাই
  • বিশ্বজিৎ বিশ্বাস
  • মাহফুজুর রহমান সুমন
  • নাইমুর রহমান
  • রাফি_আদনান_আকাশ

আপনি এখানে

নিরব এর ব্লগ

চাঙ্গা অর্থনীতি নতুন কলকারখানায়


শিল্প খাতে আবারও ঘুরে দাঁড়িয়েছে উত্তরের জেলা বগুড়া। গেল শতাব্দীর ষাটের দশকে ‘শিল্পনগরী’ হিসেবে খ্যাত বগুড়ায় মাঝে অনেক প্রতিষ্ঠান বন্ধ হয়ে গেলেও বর্তমানে নতুন নতুন কলকারখানা গড়ে উঠছে। অঞ্চলভিত্তিক ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের প্রসারের পাশাপাশি জেলার প্রতিটি সড়ক-মহাসড়কের পাশে গড়ে উঠছে বড় বড় কলকারখানা। প্রতি বছর অনেক নারী-পুরুষ যুক্ত হচ্ছে এসব শিল্প প্রতিষ্ঠানে। শুধু শহরেই নয়, শিল্পায়ন হচ্ছে গ্রামাঞ্চলেও। বিপুল অঙ্কের পুঁজি বিনিয়োগের কারণে জেলার অর্থনীতিও এখন বেশ চাঙ্গা। ২০০০ সালের পর থেকে গত প্রায় দেড় দশকে বগুড়ায় শিল্প খাতে অন্তত তিন হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ হয়েছে, যার সিংহভাগের জোগান এসেছে সরকারি-

মানসম্পন্ন শিক্ষার জন্য মূল্যায়ন ব্যবস্থায় পরিবর্তন


এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল বেরিয়েছে গতকাল। ১০ বোর্ডে এবার পাসের হার ৮০.৩৫ শতাংশ। আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮১.২১ শতাংশ। গত বছরের তুলনায় এবার পাসের হার কমেছে। শুধু পাসের হার নয়, শতভাগ পরীক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছে এমন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যাও এবার বেড়েছে। কমেছে জিপিএ ৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যাও। এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় এবার দেশের ৯৩টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কোনো শিক্ষার্থী পাসই করতে পারেনি। গত বছর ৫৩টি প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থী ফেল করেছিল। আবার শতভাগ শিক্ষার্থী উত্তীর্ণ হয়েছে এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যাও কমেছে। এবার এসএসসি পরীক্ষায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ২৫২টি বাড়লেও শতভাগ পাস করা শিক্ষাপ্র

অব্যাহত সকল সাহায্য ও সহযোগিতা


দেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। হাওড়ের ফসলের ক্ষতি হয়েছে, কিন্তু তাতে দেশের খাদ্যের ওপর প্রভাব পড়বে না। সরকার বিনামূল্যে যে খাদ্য বিতরণ চালু করেছে সেটা অব্যাহত থাকবে ততদিন পর্যন্ত, যতদিন না এখানে আকাল দূর হচ্ছে। প্রয়োজনে ভিজিএফের সংখ্যা বাড়িয়ে দিবে সরকার। ভিজিএফ, ভিজিডি, ওএমএস, ১০ টাকা কেজির খাদ্যবান্ধব কর্মসূচী উপজেলা থেকে ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত বাড়ানোর ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। বন্যাদুর্গত হাওড়বাসীর চরম এই দুঃসময়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে আছে সরকার। অকাল বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওড় এলাকা পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের জন্য যা যা করা লাগে সবই করছে সরকার। বন্যায় ফসলহানির সুযোগ নিয়ে কেউ যদি দেশের বা

বাড়ছে বিদেশি বিনিয়োগ


২০১৬ সালে দেশে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ বেড়েছে। গত বছর নিট বিনিয়োগ এসেছে ২৩৩ কোটি ২৭ লাখ ডলার, যা বাংলাদেশী মুদ্রায় ১৮ হাজার ৬৬২ কোটি টাকা। ২০১৫ সালে নিট বিনিয়োগ এসেছিল ২২৩ কোটি ৫৩ লাখ ডলার। ফলে গত বছরে নিট বিনিয়োগ বেড়েছে প্রায় ৯ কোটি ৭৩ লাখ ডলার বা ৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ। এ সময় সর্বোচ্চ বিনিয়োগ এসেছে টেলিকমিউনিকেশন খাতে। আর সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগ করেছে সিঙ্গাপুর। বাংলাদেশ ব্যাংকের সার্ভে প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। বাংলাদেশে বিনিয়োগ করার ক্ষেত্রে বর্তমানে অন্তত ১৭টি খাতে কর অবকাশ সুবিধা পাচ্ছেন বিদেশিরা। তাদের মুনাফা প্রত্যাবাসনের ক্ষেত্রেও বিধি-বিধান শিথিল করা হয়েছে। মুনাফাসহ শতভাগ মূলধন ফেরত নেয়

অনলাইনে এখন জাতীয় যাদুঘর


আমাদের জাতীয় জাদুঘর একটি জ্ঞানকোষ। সেই গুহাবাসী মানুষের যুগ থেকে শুরু করে সভ্যতার বিকাশের নানান তথ্য-উপাত্ত তো বটেই সংগ্রহে আছে প্রচুর ঐতিহাসিক নিদর্শন। যাদুঘরে গেলে মনে হয় যেন অন্য ভুবনে চলে এসেছি। চোখের সামনে মাটির নিচ থেকে পাওয়া হাজার বছরের পুরোনো মূর্তি। কত কত আগের সময়ের জীবন ধারা, তাদের গল্প, গহনা, হাতিয়ার সবই যেন চলমান ছবি। কাচের ছোট ঘরে কোথাও দেখা যায় ধান ভানছে কৃষাণী, কোথাও হচ্ছে রান্না, কোথাও গ্রামের বাচ্চা মেয়েটা মাকে কাজে সাহায্য করছে, কোথাও চলছে তাত, হচ্ছে কাপড়ের বুনন। আবার কোথাও শিলা, নানান রকম ফসিলের খন্ড, গাছের গুঁড়ি, এগুলোর বিন্যস্ত বর্ননা। একটা ঘরে সাজানো আছে নানান রকমের নৌ

ক্ষতিগ্রস্ত হাওড়াঞ্চলের জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে সরকার


বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওড়াঞ্চলের জনগণের পাশে দাঁড়িয়েছে সরকার। হাওড়াঞ্চলের ছয় জেলায় তিন লাখ ৩০ হাজার পরিবারকে বিনামূল্যে মাসে ৩০ কেজি করে চাল ও নগদ ৫০০ টাকা অর্থ সহায়তা দিচ্ছে সরকার। ১০০ দিন পর্যন্ত এ সহায়তা দেয়া হবে। এছাড়া পরবর্তী ফসল না ওঠা পর্যন্ত বিভিন্ন প্রকার সহযোগিতা দেয়া হবে। গত মাসের ২৯ তারিখে পাহাড়ী ঢল ও অতিবৃষ্টির কারণে হাওড়াঞ্চল প্লাবিত হয়। হাওড়াঞ্চলের ছয় জেলার মধ্যে চারটি (সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনা, কিশোরগঞ্জ ও সিলেট) জেলা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অধিকাংশ কৃষকের বেশিরভাগ ফসল নষ্ট হয়েছে। সেখানকার মানুষ একটি ফসলের ওপর নির্ভরশীল। আর ১০-১২ দিনের মধ্যে তারা ফসল ঘরে তুলতে পারতেন। আগাম বন্যা ও

হাওড়াঞ্চলের তিন লাখ ৩০ হাজার পরিবারকে বিনামূল্যে চাল ও অর্থ সহায়তা দিচ্ছে সরকার


বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হাওড়াঞ্চলের ছয় জেলায় তিন লাখ ৩০ হাজার পরিবারকে মাসে ৩০ কেজি করে বিনামূল্যে চাল ও ৫০০ টাকা করে সহায়তা দিচ্ছে সরকার। ১০০ দিন পর্যন্ত এ সহায়তা দেয়া হবে। এছাড়া পরবর্তী ফসল না ওঠা পর্যন্ত বিভিন্ন প্রকার সহযোগিতা দেয়া হবে। ১০ থেকে ২০ হাজার পরিবার বাড়তেও পারে। এখানে ৩৩ থেকে ৩৫ হাজার মেট্রিক টন চাল বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে। এছাড়াও মাসে আরও ৫০০ করে টাকা করে সহায়তা করবে সরকার। এতে প্রায় ৫০ কোটি টাকা প্রয়োজন হবে। যে সমস্ত পরিবারের আর্থিক অবস্থা ভাল, সেখানে ছয় জেলায় এক লাখ ৭১ হাজার ৭১৫ পরিবারকে ওএমএসের মাধ্যমে ১৫ টাকা কেজি দরে চাল দেয়া হবে। এছাড়া সুলভমূল্যের ১০ টাকা কেজি দরের চাল দেয়

কেন্দ্রীয় বর্জ্য শোধনাগার নির্মাণের প্রক্রিয়ায় যুক্ত হচ্ছে জার্মানি


বিশ্ব ব্যাংকের সহযোগী সংস্থা আইএফসির ২০৩০ ওয়াটার রিসোর্স গ্রুপের সহায়তায় গত এক বছর ধরে সিইটিপি স্থাপনের বিষয়ে কাজ করে যাচ্ছিল বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ, বেজা। বুধবার ঢাকার একটি হোটেলে ‘সেন্ট্রাল ইফ্লুয়েন্ট ট্রিটমেন্ট প্লান্ট ফর ইকোনোমিক জোন ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক কর্মশালা শুরুর আগে সিইটিপি বিষয়ে ত্রিপক্ষীয় সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর করেন বেজা, বিশ্বব্যাংক ও জিআইজেড প্রতিনিধিরা। চুক্তির ফলে অর্থনৈতিক অঞ্চলে সিইটিপি স্থাপনের সার্বিক কাজে তিনটি প্রতিষ্ঠান পরস্পরের মধ্যে সমন্বয় করবে। চুক্তির অংশ হিসাবে উন্নয়ন সহযোগী প্রতিষ্ঠানগুলো বেশ কিছু বিষয়ে অর্থনৈতিক অঞ্চলগুলোতে বেজাকে সহায়তা করবে। অর

ঘাসফুলের কিশোরীরা


দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশে বাল্যবিয়ের হার তুলনামূলক বেশি হলেও বাংলাদেশে গত দুই দশকে বাল্যবিয়ের হার উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে। সাম্প্রতিক সময়ে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধি পেয়েছে। সেইসঙ্গে বাল্যবিবাহ প্রতিরোধের বেশকিছু ঘটনায় উৎসাহিত হয়ে অনেক কিশোরী নিজের বাল্যবিয়ে নিজে বন্ধ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করছে। সাম্প্রতিক সময়ে এমন বেশ কিছু ঘটনা আমাদের চোখ ধাঁধিয়ে দিচ্ছে। বাল্যবিয়ের কুফল আজকে দেশের আনাচে-কানাচের লোকজন জানছে। সেইসঙ্গে দেশের কিশোরীরা সাহস দেখাচ্ছে বলেই বাল্যবিয়ের সংখ্যা কিছুটা হলেও কমছে। বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত সংবাদের ভিত্তিতে চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে এপ্রিলের ২০

স্ট্যান্ডার্ড গেজ রেললাইনে চলবে দ্রুতগতির এক্সপ্রেস ট্রেন


রাজধানী ঢাকার সাথে বন্দরনগরী চট্টগ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে আধুনিক প্রযুক্তির দ্রুতগামী ট্রেন চালানোর পরিকল্পনা করেছে সরকার। ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে ট্রেন যাবে দেড় ঘণ্টায়। এজন্য চীন থেকে আনা হবে দ্রুতগতির এক্সপ্রেস ট্রেন। নতুন করে তৈরি করা হবে স্ট্যান্ডার্ড গেজের ডাবল রেল লাইন। তখন অনায়াসে দেড় থেকে দুই ঘণ্টায় ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম যাওয়া যাবে। সে লক্ষ্যে ইতোমধ্যে চীনের সাথে একটি চুক্তিও স্বাক্ষরিত হয়েছে। চলছে ফিজিবিলিটি স্টাডি। এটি শেষ হলে রুট নির্ধারণ করে জমি অধিগ্রহণ শুরু হবে। ঢাকা থেকে চট্টগ্রামের দূরত্ব যাতে কমানো যায় সে লক্ষ্যে নতুন করে স্ট্যান্ডার্ড গেজ রেললাইন স্থাপন করা হবে। ঢাকা থ

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

নিরব
নিরব এর ছবি
Offline
Last seen: 2 দিন 14 ঘন্টা ago
Joined: রবিবার, অক্টোবর 23, 2016 - 6:13অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর