নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নাগিব মাহফুজ খান
  • মোঃ যীশুকৃষ্ণ

নতুন যাত্রী

  • রৌদ্র
  • তানভীর জনি
  • জাফর মিয়া
  • প্রোফেসর পিনাক
  • কৃষ্ণেন্দু দেবনাথ
  • রাশেদুজ্জামান কবির
  • পিনাক হালদার
  • ফ্রিডম
  • অ্যানার্কিস্ট
  • আশোক বোস

আপনি এখানে

নিরব এর ব্লগ

হালদা নদীর ভাঙ্গন ঠেকাতে উদ্যোগ


মাছের অভায়ারন্য হচ্ছে হালদা নদী। হালদা নদী খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার বাদনাতলী হতে উৎপত্তি হয়ে চট্টগ্রাম জেলার ফটিকছড়ি উপজেলায় প্রবেশ করে হাটহাজারী ও রাউজান উপজেলার মধ্যবর্তী স্থান দিয়ে প্রবাহিত হয়ে কর্ণফুলী নদীতে পড়েছে। সাম্প্রতিক বছরগুলোয় চট্টগ্রাম ও পার্বত্য জেলায় অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের ফলে সৃষ্ট পাহাড়ী ঢলের প্রভাবে হাটহাজারী ও রাউজান উপজেলা অংশে হালদা নদীর উভয় তীরবর্তী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা, রাস্তাঘাট, বসতভিটা এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন এলাকা মারাত্মক ভাঙ্গন কবলিত হয়ে পড়েছে। প্রকল্পের প্রধান কার্যক্রমগুলো হচ্ছে- ১২ দশমিক ১২০ কিলোমিটার নদীর তীর সংরক্ষণ, ৬ কিলোমিটার মাটির বাঁধ নির্

‘সোনার বাংলা’র মৌল আকাঙ্ক্ষা পূরণের পথে বাংলাদেশ


১ মার্চ ২০১৭ ‘মায়ের হাসি’ নামের প্রাথমিক শিক্ষা উপবৃত্তি বিতরণ কর্মসূচি উদ্বোধন করা হয়। টেলিটকের হিসাবে এ উপবৃত্তি নিয়মিত পাঠানো হবে রূপালী ব্যাংকের অংশীদার শিউরক্যাশ মোবাইল ব্যাংকিং প্ল্যাটফরম থেকে। ঐদিন ১ কোটি ৩০ লাখ মায়েদের প্রত্যেককে ৬০০ করে টাকা পাঠানো হয়েছে। এই কর্মসূচির আওতায় প্রতি তিন মাস পরপর প্রতি মা প্রাথমিক শিক্ষার্থীর জন্য ৩০০ টাকা করে পাবেন। দুটো সন্তান পড়লে পাবেন ৬০০ টাকা। সরকার নিজেই এই লেনদেনের সার্ভিস চার্জ বহন করবে। মায়েদের কিছুই দিতে হবে না। যেসব মায়ের (প্রায় ২০ লক্ষ) মোবাইল ফোন নেই, তাদের বিনামূল্যে সিম সরবরাহ করেছে টেলিটক। তাছাড়া প্রত্যেক মাসে তারা ২০ টাকা বিনামূল্যে ক

টেকনাফ সোলার পার্ক থেকে জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে ২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ


টেকনাফের আলীখালীতে ২০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন সোলার বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধিদল টেকনাফ উপজেলার এই সোলার বিদ্যুৎকেন্দ্র পরিদর্শন করেন। ১১৬ একর জমির উপর পাওয়ার জুলস লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান টেকনাফ সোলার টেক এনার্জি লিমিটেড ২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্রের কাজ করছে। প্রতিষ্ঠানটি চলতি বছরের ৯ ফেব্রুয়ারি পিডিবির সাথে ২০ বছরের জন্য পাওয়ার সাপ্লাই চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছে। প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন হলে ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে এই সোলার পার্ক থেকে ২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে। প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের কাছে বিদ্যুৎ সুবিধা পৌঁছাতে

বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা এবং বঙ্গবন্ধু এক ও অবিচ্ছেদ্য অংশ


‘এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম’ -এই ঐতিহাসিক ঘোষণার মধ্যে যেমন দেশের ভৌগলিক স্বাধীনতার কথা অন্তর্ভুক্ত ছিল তেমনি মানুষের সার্বিক মুক্তি ও কল্যাণের আকাঙ্ক্ষাও ধারণ করেছে ৭ই মার্চের বঙ্গবন্ধুর ভাষণ। বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা এক ও অবিচ্ছেদ্য বিষয়। স্বাধীনতার ঘোষণা বঙ্গবন্ধুর কাছে কোনো আকস্মিক বিষয় ছিল না বরং ধারাবাহিক সংগ্রামের মধ্য দিয়ে অনিবার্য জাতীয় স্বাধীনতার দিকে তিনি বাংলার জনগণকে প্রস্তুত করেছিলেন। বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষণার ইতিহাস শুধু বাংলাদেশের জন্য নয়, বিশ্ব- ইতিহাসের জন্যও গুরুত্বপূর্ণ। ১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ প্রদত্ত বঙ্গবন্ধুর

নবযাত্রায় বন্ধ থাকা ৬০টি রেল স্টেশন


অন্যান্য ক্ষেত্রের মতো রেল যোগাযোগের উন্নয়নে বিশেষ গুরুত্ব দিয়েছে বর্তমান সরকার। এ উদ্দেশে ইতোমধ্যে ভারত ও ইন্দোনেশিয়া থেকে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক রেল কোচ আমদানি করা হয়েছে। এছাড়া সংগ্রহ করা হচ্ছে ব্রড ও মিটার গেজ রেল ইঞ্জিন (লোকোমোটিভ)। রেলখাতের উন্নয়নের অংশ হিসেবে এবার জনবল সংকটে বন্ধ হয়ে যাওয়া রেল স্টেশনগুলো আবারও চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। প্রথম দফায় ঢাকা বিভাগে ২১টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ১২টি, পাকশীতে ২৩টি ও লালমনিরহাটের ৪টি স্টেশন মোট ৬০টি বন্ধ থাকা স্টেশন একসঙ্গে চালু হচ্ছে। বলা বাহুল্য যে, বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে ট্রেনের সঙ্গে রেল স্টেশনও বন্ধের হিড়িক পড়ে। জোট সরকারের আমলে পূর্বাঞ্চলের

বর্জ্য থেকে জ্বালানি তেল


বিশ্বব্যাপী মানব সভ্যতাকে বর্তমানে যে সকল ইস্যু শঙ্কিত করে রেখেছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে পরিবেশদূষণ। এদেশে পরিবেশদূষণের যেসব উপাদান চারপাশে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে বড় মাথাব্যাথার নাম পলিথিন বর্জ্য। তবে এই পলিথিন বর্জ্য থেকে খুবই সস্তায় জ্বালানি তেল উৎপাদন করা সম্ভব। আশাজাগানিয়া এই প্রযুক্তি উদ্ভাবন করেছেন জামালপুর সদর উপজেলার কুচঝগড় এলাকার তরুণ তৌহিদুল ইসলাম (২৫)। তার উদ্ভাবিত প্রযুক্তিতে পলিথিন বর্জ্য থেকে জ্বালানি তেল উৎপাদনে লিটারপ্রতি খরচ মাত্র ৭০ পয়সা থেকে দুই টাকা। আর তেল তৈরির সময় যে কালি বের হয় তা ব্যবহার করা যায় ফটোকপিয়ার মেশিনের কালি হিসেবে। ১১ মার্চ থেকে তিন দিনব্যাপী

ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের যৌথ উদ্যোগে ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটের যাত্রা শুরু


ঢাকা-সিঙ্গাপুর রুটে যাত্রা শুরু করল দেশের শীর্ষস্থানীয় এয়ারলাইন্স ইউএস-বাংলা। আজ রাত ১১টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে উড়াল দেবে ইউএস-বাংলার প্রথম ফ্লাইট। প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে চারদিন এ রুটে ফ্লাইট পরিচালিত হবে। এ ক্ষেত্রে ওয়ানওয়ের জন্য সর্বনিম্ন ভাড়া ১৯ হাজার ৯৯৯ টাকা এবং রিটার্ন ভাড়া ২৪ হাজার ৪৯৯ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ঢাকা থেকে রবি, মঙ্গল, বৃহস্পতি ও শুক্রবার রাত ১১টায় সিঙ্গাপুরের উদ্দেশে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট ছেড়ে গিয়ে দেশটিতে পৌঁছাবে স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ১৫ মিনিটে। এ ছাড়া সিঙ্গাপুর থেকে সোম, বুধ, শুক্র ও শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ৬টা ১৫ ম

সক্ষমতা অর্জিত হয়েছে বিদ্যুৎ উৎপাদনে


শুধু উৎপাদন বাড়ানোই নয়, নিরবচ্ছিন্নভাবে সারা দেশে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিতে সঞ্চালন ব্যবস্থার ওপরও জোর দিয়েছে সরকার। ২০০৯ সালের জানুয়ারি মাসে দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদনের ক্ষমতা ছিল তিন হাজার থেকে তিন হাজার ৪০০ মেগাওয়াট। রাজধানী ঢাকাসহ বড় শহরগুলোতে প্রায়ই দিনের বেলায় বিদ্যুৎ থাকত না, রাতের অবস্থা ছিল আরো খারাপ। সাড়ে সাত বছরে উৎপাদনক্ষমতা প্রায় চার গুণ বেড়ে ১৫ হাজার মেগাওয়াট ছাড়িয়েছে। এর সুফল শুধু ঢাকা বা বড় শহরগুলোই পায়নি, দেশের ৭৫ শতাংশ মানুষ এখন বিদ্যুৎ পাচ্ছে। সরকারের লক্ষ্য ২০২১ সালের মধ্যে শতভাগ মানুষকে বিদ্যুৎ সুবিধা দেওয়া। ১৫ হাজার মেগাওয়াট উৎপাদনক্ষমতা অর্জনকে সরকার ঘটা করে উদযাপন করতে চায়। বছর

স্বাবলম্বীতে পরিণত হচ্ছে দেশে


সব বাঁধা পেরিয়ে বাংলাদেশ এখন স্বাবলম্বী দেশে পরিণত হচ্ছে। দেশটি এখন বিশ্ব উন্নয়নের রোল মডেল। বিতাড়িত করেছে ক্ষুধা, দারিদ্র্য। শিক্ষার হার বেড়েছে ঈর্ষণীয়ভাবে। রাস্তা-ঘাট, রেমিটেন্সসহ সব ক্ষেত্রে অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করেছে। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের শতভাগ বেতন বাড়ানোসহ একের পর এক উন্নয়ন কর্মসূচীর কার্যক্রম এগিয়ে চলেছে। এমনকি বিশ্বব্যাংকের সহায়তা ছাড়াই পদ্মা সেতু মতো প্রকল্পের কার্যক্রমও দ্রুত গতিতে এগিতে চলেছে। সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক সিদ্ধান্তে বদলে গেছে গ্রামীণ জনপদের ভাবধারা। বেড়েছে জীবনযাত্রার মান। ব্যক্তিগত পর্যায়ে মানুষ হয়ে উঠেছে স্বাবলম্বী। এক যুগ আগেও বাংলাদেশের গ্রাম অঞ্চলগুলোতে অ

জনপ্রিয় হচ্ছে সবুজ অর্থনীতি ও প্রবৃদ্ধি


বর্তমান সরকার সব সময় পরিবেশবান্ধব ও জ্বালানি সাশ্রয়ী শিল্পায়নে পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে যাচ্ছে। শিল্প মন্ত্রণালয় শতভাগ দূষণ ও দুর্ঘটনামুক্ত শিল্প স্থাপনে সর্বোচ্চে অগ্রাধিকার দিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। তাই জ্ঞানভিত্তিক ও শিল্পসমৃদ্ধ সমাজ বিনির্মাণে দেশি-বিদেশি বিশ্ববিদ্যালয়, গবেষণা প্রতিষ্ঠান এবং শিল্প-কারখানার মধ্যে কার্যকর সংযোগ স্থাপন করা হচ্ছে সারা বাংলাদেশে। সরকার সবুজ শিল্পায়নের লক্ষ্যে পরিবেশ সুরক্ষায় কঠোর আইন প্রণয়ন করেছে। পাশাপাশি সবুজ অর্থনীতি ও সবুজ প্রবৃদ্ধির ধারণা জনপ্রিয় করতে প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। দেশের শিল্প উদ্যোক্তারা যাতে সবুজ শিল্পায়নের প্রকৃত সুবিধা কাজে লাগাতে পারে, সে লক্ষ্যে সর

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

নিরব
নিরব এর ছবি
Offline
Last seen: 15 ঘন্টা 31 min ago
Joined: রবিবার, অক্টোবর 23, 2016 - 6:13অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর