নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নাগিব মাহফুজ খান
  • মোঃ যীশুকৃষ্ণ

নতুন যাত্রী

  • রৌদ্র
  • তানভীর জনি
  • জাফর মিয়া
  • প্রোফেসর পিনাক
  • কৃষ্ণেন্দু দেবনাথ
  • রাশেদুজ্জামান কবির
  • পিনাক হালদার
  • ফ্রিডম
  • অ্যানার্কিস্ট
  • আশোক বোস

আপনি এখানে

নিরব এর ব্লগ

সম্পর্কের নতুন উচ্চতায় দুই দেশ


প্রচলিত প্রথা ভেঙে নয়াদিল্লির পালাম বিমান ঘাঁটিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উষ্ণ অভ্যর্থনা গ্রহণের মধ্য দিয়ে অন্যরকম এক সফর শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্ধারিত কর্মসূচি মোতাবেক, শুক্রবার শেখ হাসিনাকে ভারতের প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র স্বাগত জানানোর কথা ছিল। শেষ অবধি মোদি নিজেই বিমান ঘাঁটিতে হাজির হয়ে সবাইকে চমকে দেন। বিরল সম্মানে শেখ হাসিনাকে বরণ করেন। ভারতের স্বাভাবিক রাষ্ট্রাচারকে ছাপিয়ে গিয়ে আন্তরিকতার নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেন।দিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লালগালিচা সংবর্ধনা জানানোর পর শেখ হাসিনার হাতে ফুল দেয়ার ছবি টুইট করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদ

সোনারগাঁয়ের একাল-সেকাল


পানাম নগর পৃথিবীর ১০০টি ধ্বংসপ্রায় ঐতিহাসিক শহরের একটি যা নারায়ণঞ্জ জেলার সোনারগাঁও এ অবস্থিত। পানাম বাংলার প্রাচীনতম শহর। এক সময় ধনী হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের বসবাস ছিল এখানে। ছিল মসলিনের জমজমাট ব্যবসা। প্রাচীন সেই নগরীর তেমন কিছু আর অবশিষ্ট নেই। এখন আছে শুধু ঘুরে দেখার মতো ঐতিহাসিক পুরনো বাড়িগুলো। ২০০৬ সালে পানাম নগরকে বিশ্বের ধ্বংসপ্রায় ১০০টি ঐতিহাসিক স্থাপনার তালিকায় প্রকাশ করে। ঈসা খাঁ এর আমলের বাংলার রাজধানী পানাম নগর। বড় নগর, খাস নগর, পানাম নগর প্রাচীন সোনারগাঁর এই তিন নগরের মধ্যে পানাম ছিলো সবচেয়ে আকর্ষণীয়। এখানে কয়েক শতাব্দীর পুরনো অনেক ভবন রয়েছে, যা বাংলার বার ভূঁইয়াদের ইতিহাসের স

শেয়ার বাজার আস্থার প্রতিফলন


দেশে বর্তমানে সময়ে একটি চলমান বাস্তবতা হচ্ছে কোন দেশের সার্বিক ব্যবসা-বাণিজ্য আর বিনিয়োগ পরিস্থিতির স্থিতিশীলতা আর সমৃদ্ধির সূচক সে দেশের শেয়ারবাজারের প্রবৃদ্ধির সাথে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত। বাংলাদেশের বিকাশমান শেয়ারবাজার অমিত সম্ভাবনাময় হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ার পরপরই অতীতের রাষ্ট্রীয় দুর্নীতি আর কুশাসনের কারণে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে উপনীত হয়েছিল–পুঁজি হারানোর আশঙ্কায় বিনিয়োগের অনাগ্রহে ধুঁকতে শুরু করেছিল দেশের শেয়ারবাজার। কিন্তু রাষ্ট্র পরিচালনায় বর্তমান গণতান্ত্রিক সরকারের অধিষ্ঠানে গৃহিত নানা সংষ্কারে আবারও ঘুরে দাঁড়িয়েছে দেশের এই অন্যতম সম্ভাবনাময় বাণিজ্যিক খাত। এই সাফল্যে দেশীয় বিনিয়োগকারীদের

তৃতীয় দফায় আরও ৪০০ কোটি ডলার ঋণ পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশ


মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ৭ এপ্রিল চার দিনের সরকারি সফরে ভারত যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রীর আসন্ন ভারত সফর নিয়ে চলছে শেষ মুহূর্তের হিসাব-নিকাশ। পরদিন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠক হবে। এই সফরে ভারতের পক্ষ থেকে অবকাঠামো উন্নয়নে বাংলাদেশকে তৃতীয় দফায় ৪০০ কোটি ডলার (৩২ হাজার কোটি টাকা) ঋণ দেওয়ার ঘোষণা আসতে পারে। এই ঋণের অর্থে কোন কোন প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে তা নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক চলছে। অবশ্য আগামীকাল রবিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আন্ত মন্ত্রণালয় বৈঠকে এসব প্রকল্প চূড়ান্ত হবে। একই দিন দুই পক্ষের মধ্যে বেশ কিছু চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হওয়ার কথা রয়েছে। এ সফরে দুই দেশের ম

ঘুরে আসুন লাল গোলাপের রাজ্যে!!


জোটে যদি মোটে একটি পয়সা
খাদ্য কিনিয়ো ক্ষুধার লাগি’
দুটি যদি জোটে অর্ধেকে তার
ফুল কিনে নিয়ো, হে অনুরাগী!

বাজারে বিকায় ফল তণ্ডুল
সে শুধু মিটায় দেহের ক্ষুধা,
হৃদয়-প্রাণের ক্ষুধা নাশে ফুল
দুনিয়ার মাঝে সেই তো সুধা!

মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস হতে পারে নতুন প্রজন্মের অনুপ্রেরণার উৎস


মুক্তিযুদ্ধ বাঙালি জাতির কাছে সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল ঘটনা। কারণ বাঙালি জন্ম থেকেই কোনো না কোনো শাসক দ্বারা শোষিত হয়েছে। কখনো মোঘল-পাঠান, কখনো ব্রিটিশ কখনো পাকিস্তানিদের দ্বারা। বাঙালির ইতিহাস মানেই শোষণ আর অধিকার থেকে বঞ্চনার ইতিহাস।

ট্রেনে মাত্র পাঁচ ঘণ্টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম


বিগত দিনে রেলের সেবার মান নিয়ে অনেকেই অনেক প্রশ্ন তুলতেন। কিন্তু ইদানিং সে কথা শোনা যাচ্ছে না। এমন এক সময় ছিল যখন ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পৌঁছতে একদিনের প্রস্তুতি নিতে হতো। সড়কের পথে পথে দুর্ঘটনা যানজটে নাকাল হতে হতো যাত্রীদের। এমন দিনও গেছে, রওয়ানা হওয়ার ২৪ ঘণ্টা পরও চট্টগ্রাম পৌঁছানো যায়নি। আবার রেলপথ সিঙ্গেল লাইন হওয়ায় এক ট্রেনকে লাইন ছাড়তে গিয়ে পথে পথে অন্য ট্রেনের যাত্রাবিরতি ছিল নিত্যঘটনা। তবে এখন সে চিত্র অনেকটাই পাল্টে গেছে। ডাবল রেললাইন ঢাকা-চট্টগ্রাম যাতায়াতের সময় কমিয়েছে। পাঁচ থেকে সোয়া পাঁচ ঘণ্টাতেই এখন চট্টগ্রাম পৌঁছানো যাচ্ছে। শিগগিরই এই সময় চার ঘণ্টায় নেমে আসবে বলে জানিয়েছে রেলও

অভাবনীয় উদ্ভাবনে বাংলাদেশী চিকিৎসকরা


লিভার সিরোসিস অথবা অন্য কোনো কারণে লিভার অকার্যকর (ফেইলিউর) হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির মৃত্যু প্রায় নিশ্চিত, এমন ধারণা বদলে যেতে আর বেশি দিন বাকি নেই। বাংলাদেশের একদল চিকিৎসক সম্পূর্ণ নতুন পদ্ধতিতে মৃত্যু অবশ্যম্ভাবী এসব রোগের চিকিৎসা শুরু করেছেন। এরই মধ্যে তিনজন রোগীর ওপর এ পদ্ধতি প্রয়োগ করে প্রাথমিক সাফল্যও পেয়েছেন তারা। লিভার (যকৃৎ) ফেউলিউর রোগীদের নতুন পদ্ধতির এ চিকিৎসা শুরু করেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের লিভার বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. মামুন আল মাহতাব (স্বপ্নীল) ও তার দল। তাকে সব ধরনের পরামর্শ ও কারিগরি সহায়তা প্রদান করছেন জাপানপ্রবাসী বাংলাদেশী লিভার বিশেষজ্ঞ ডা.

প্রয়োজন বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান


দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে সরকারের মহাপরিকল্পনায় ২০৪০ সালে দেশে মোট বিদ্যুতের চাহিদা দেখানো হয়েছে ৫০ হাজার মেগাওয়াট, যা বর্তমানের তুলনায় প্রায় তিনগুণ। এ জন্য আগামী ২৩ বছরে আরও ৩৫ হাজার মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে স্থাপন করতে হবে প্রয়োজনীয় উৎপাদনকেন্দ্র। তবে বিপুল এই উৎপাদনের জন্য কোনো একক জ্বালানির প্রতি নির্ভর করা সমীচীন হবে না। জ্বালানির ধরন এবং দেশের অর্থনীতির সঙ্গে সংগতিপূর্ণ হিসেবে এ জন্য কয়লাকেই এগিয়ে রাখা হচ্ছে। দেশে বড় বড় কয়লাচালিত বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ শুরু হলেও জ্বালানি সংগ্রহে নানা প্রতিবন্ধকতার মুখে পড়ছে কোম্পানিগুলো। কারণ আপাতত দেশীয় কয়লা উত্তোলন না করে আমদানি

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

নিরব
নিরব এর ছবি
Offline
Last seen: 15 ঘন্টা 30 min ago
Joined: রবিবার, অক্টোবর 23, 2016 - 6:13অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর