নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • নগরবালক
  • কাঙালী ফকির চাষী
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ এর ব্লগ

ছাত্রলীগের ২৯ তম জাতীয় সম্মেলন সফল হোক


এবারের ছাত্রলীগের সম্মেলনে নেতৃত্ব বাছাই প্রক্রিয়াকে একটা আপদকালীন ব্যবস্থা বলা যেতে পারে। কিন্তু এই প্রক্রিয়া চলমান রাখা মোটেই সুখকর বা কল্যাণকর কোন বিষয় নয়। এই আপদকালীন ব্যবস্থা থেকে মুক্তি পেয়ে আগের মতো ব্যালটে নেতৃত্ব নির্বাচন করতে হলে ছাত্রলীগে ফিল্টারিং জরুরি। যেই আসবে সেই ছাত্রলীগ হয়ে যাবে, এই ধারনা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। গাছে বা পিলারে ঝুলে থাকা নেতা আর চামচাদের থেকে সাবধান থাকতে হবে। বিতর্কিত নেতাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। কোন নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলে সেটা সংগঠনের গায়ে না জড়িয়ে সেই ঘটনা এড়িয়ে না গিয়ে অভিযুক্তকে সাময়িক অব্যাহতি দিয়ে তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত করতে হবে। যদি তদন্তে তাঁর দোষ পাওয়া যায় তাঁর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে। শিক্ষার্থীদের বিপক্ষে গিয়ে নয়, তাদের যৌক্তিক দাবির পক্ষে থাকতে হবে। সরকার বা আওয়ামীলীগকে রক্ষা নয়, নিজ সংগঠন রক্ষায় মনোনিবেশ করতে হবে। তা না হলে ছাত্রলীগ আরও খারাপ পরিণতি বরণ করবে। এক সময়ের পরাক্রমশালী ছাত্রদল – শিবিরের বর্তমান অবস্থা দেখেও যদি ছাত্রলীগ কোন শিক্ষা না নেয়, সেটা হবে তাদের রাজনৈতিক মৃত্যু।
ছাত্রলীগের হারানো গৌরব আবার ফিরে আসুক, ছাত্রলীগ আতংক নয় আস্থার নাম হয়ে উঠুক।

আওয়ামীলীগের উন্নয়নের ফিরিস্তি


বিএনপি’র ভারপাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক জিয়াকে বলা হয় ‘বাংলার দূর্নীতির বরপুত্র’। অনেকেই তাকে ‘মিস্টার ১০%’ বলেও সম্ভোধন করেন। এই সরকারের আমলে ১০%-এর ও উন্নয়ন হয়েছে। আগে ছিলো এক তারেক, এক হাওয়া ভবন। উন্নয়নের জোয়ারে এখন হাজারো তারেক আর পুরো দেশই যেন হাওয়া ভবনে পরিণত হয়েছে। তারেককে নিন্দুকেরা খাম্বা জিয়া বলে। কারেন্টের খাম্বার ৪০০ কোটি তারেক আর তাঁর ব্যবসায়ীক বন্ধু মামুন পকেটে ভরেছিল। এই সরকারের উন্নয়ন শুধু ৪০০ কোটিতে নয়, লাখ কোটিতে গিয়ে ঠেকেছে। বহুল আলোচিত মেগা প্রকল্প, ‘ঢাকা – চট্টগ্রাম মহাসড়ক’ কিংবা ‘মগবাজার – মালিবাগ ফ্লাইওভার’ থেকে কত কোটি কার কার পকেটে গেছে সেটা ‘ওপেন সিক্রেট’!

খালেদা জিয়ার রায় জনমনে কতটা গ্রহণযোগ্যতা পাবে?


ব্যাংকলুটের হোতাদের বহাল তবিয়তে রেখে, শেয়ারবাজারের কেলেঙ্কারির হোতা দরবেশ বাবাকে খুশি রেখে, দুই কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক প্রধানমন্ত্রী তথা বিরোধী রাজনৈতিক নেতাকে কারাগারের অন্ধকারে নিক্ষেপ করা প্রশ্নবিদ্ধ হবে, সেটা বলার অপেক্ষা রাখে না।

আসাম রাজ্যে নাগরিকদের নতুন তালিকাঃ বাংলাদেশের জন্য নতুন সংকট তৈরি করবে কি?


প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের আসাম রাজ্যে অস্থিতিশীল অবস্থা বিরাজ করছে। এই অস্থিরতার সৃষ্টি আসাম রাজ্য সরকার কতৃক নাগরিকদের নতুন তালিকা প্রকাশের কারণে। এই তালিকা থেকে লাখ লাখ বাঙালি মুসলিম বাদ পড়েছেন। রাজ্য সরকার বলেছে নাগরিকত্ব পাওয়ার শর্ত পূরণকারীদের আরও দুটি তালিকা প্রকাশিত হবে। তাই নাররিক তালিকা থেকে বাদ পড়াদের উদ্বিগ্ন না হতে বলেছে আসাম সরকার। যদিও সাধারণের ধারনা সবকটি তালিকা প্রকাশের পরও ১৫-২০ লাখ মুসলিম ভারতের নাগরিকত্ব থেকে বঞ্চিত হবেন। কেননা, ভারতের কেন্দ্রীয় আর রাজ্য সরকার মনে করে এই বিপুল মুসলিম জনগোষ্ঠী ভারতীয় নয়, তারা বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারী!

নিম্ন আদালতের বিচারকদের শৃঙ্খলা বিধির গেজেট প্রসঙ্গে


গতকাল সরকার বহুল প্রতীক্ষিত নিম্ন আদালতের বিচারকদের শৃঙ্খলা বিধির গেজেট প্রকাশ করেছে। এই গেজেট প্রকাশ নিয়ে গত দুই বছর ধরে কালক্ষেপণ করেছে সরকার। সেই কালক্ষেপণের কারণ একজন সুরেন্দ্র কুমার সিনহা প্রধান বিচারপতির আসনে ছিলেন। এই কথাটা আইনমন্ত্রীর কথাতেও স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে। সরকারের ইচ্ছামতো গেজেট প্রকাশের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন একজন সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। সেই সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে সরিয়ে দেয়ার একমাস সময়ের মধ্যেই, দুই বছর গলায় আটকে থাকা কাঁটা সরকার বের করে আনলো!

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে খোলাচিঠি


মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
আমার শুভেচ্ছা গ্রহণ করুন। আশা করি ভালো আছেন। আপনাকে কিছু কথা বলবো বলে অনেকদিন ধরে কথাগুলো বুকের মাঝে জমিয়ে রেখেছি। আজ সেই জমে থাকা কথাগুলো প্রকাশ করছি। এই কথাগুলো আপনার কাছে পৌঁছাবে কিনা জানি না, তবুও লিখছি।

মুসলিমের হিন্দুয়ানী নাম ব্যবহারঃ নাসিরনগরের ধারাবাহিকতায় ঠাকুরপাড়ায় সাম্প্রদায়িক হামলা


রংপুরের টিটু রায় যে ফেসবুকে ইসলাম ধর্ম অবমাননা করে কোন পোস্ট দেয়নি, সেটা আপাতত নিশ্চিত হওয়া গেছে। ১২ নভেম্বর ২০১৭, দৈনিক কালের কন্ঠ পত্রিকার তথ্য অনুযায়ী মাওলানা হামিদী নামক একজন মুসলিম ঐ পোস্ট করেছিলেন!
আমার প্রশ্ন হচ্ছে, একজন মুসলমানকে কোন নও মুসলিমের নাম ব্যবহার করার অনুমতি ইসলাম দেয় কিনা? সেটা যদি হয় অপরাধমূলক কাজ, ইসলাম অবমাননার কাজ? মানে মাওলানা হামিদী কিংবা নাসিরনগরের জাহাঙ্গীর আলম, টিটু রায় কিংবা রসরাজ দাসের নাম ব্যবহার করে যে আকাম করেছে, ইসলাম কি সেটাকে অনুমোদন দেয়? আমার জানা মতে দেয় না!

মগবাজার - মৌচাক ফ্লাইওভারঃ রাষ্ট্রের ১২শ কোটি টাকার অপচয়


গত ২৬ অক্টোবর মগবাজার – মৌচাক ফ্লাইওভারের আনুষ্ঠানিক উদ্ধোধন করা হয়েছে। সেই সাথে ফ্লাইওভার সংশ্লিষ্ট এলাকার মানুষদের গত কয়েক বছরের দূর্ভোগ কিছুটা লাঘব হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। এর আগে দুই দফায় সাতরাস্তা, হলি ফ্যামিলি ও বাংলা মোটর অংশের ফ্লাইওভার যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়েছিলো। ২৬ অক্টোবর সম্পূর্ণ ফ্লাইওভার যান চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয়। কিন্তু মূল প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, এই ফ্লাইওভার যে সমস্যা সমাধানের জন্য নির্মিত হয়েছে, সেই যানজট সমস্যা কতটা নিরসন হবে?

রাষ্ট্রের মৌলবাদীনীতিঃ মুক্তিযুদ্ধের চেতনার উল্টো পথে বাংলাদেশ


জঙ্গিবাদ আর মৌলবাদী রাজনীতি মোকাবেলায় সাংস্কৃতিক বিকাশের বিকল্প নেই। অথচ আমরা দেখছি তার উল্টো!

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ
কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ এর ছবি
Offline
Last seen: 1 week 4 দিন ago
Joined: রবিবার, মে 8, 2016 - 11:31পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর