নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • পৃথু স্যন্যাল
  • সুব্রত শুভ

নতুন যাত্রী

  • আরিফ হাসান
  • সত্যন্মোচক
  • আহসান হাবীব তছলিম
  • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
  • অনিরুদ্ধ আলম
  • মন্জুরুল
  • ইমরানkhan
  • মোঃ মনিরুজ্জামান
  • আশরাফ আল মিনার
  • সাইয়েদ৯৫১

আপনি এখানে

কাকন মজুমদার এর ব্লগ

ঈশ্বর অনুমোদিত শান্তি প্রিয় দেশ পাকিস্তান


পাকিস্তান পৃথীবির সবচেয়ে শান্তিপুর্ণ দেশ
তারা পৃথীবিতে শান্তি সাপ্লাই দিচ্ছে ঈশ্বর নিচ্ছয় তাদের সাথে আছে,
তা না হলে ৭১ সালের বীজে এখনো ফলন হওয়ার কথা ছিলনা
৭১ দু,লক্ষ সম্ভ্রম তারা স্বীকার করেনা করবে কেন তারা সেটাকে ধর্ষণ নয় পিতৃ পরিচয় দিয়ে রেখেছে,
মানুষ কে মানুষ বা একই ধর্মীয় কারণে ভাই বলে সম্বোধন করলেও তারা পিতা বলে বিশ্বাস করে, এটা ও ঐশ্বরিক বৈকি,,
আমি জানিনা
এখন বেলুচিস্তানের নারীদের ক্যাম্পে নিয়ে ধর্ষন করেছে হত্যা করছে স্বাধীনচেতা যুবাদের,
এবিষয়ে ফলন গুলো হাসে কারণ তারা তো ধর্ষণ মনে করেনা মনে করতেছে তাদের জাত ভাই উৎপাদন হচ্ছে,,
আযব!

ভারত-পাকিস্তান : সামরিক শক্তিতে কোন দেশ বেশি এগিয়ে


দক্ষিণ এশিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রধারী দেশ ভারত ও পাকিস্তান। এছাড়াও দুই দেশের সামরিক বাহিনীই জনবল ও অত্যাধুনিক অস্ত্রসম্ভারে সমৃদ্ধ।
সম্প্রতি উরি আর্মি ক্যাম্পে ভারতীয় বাহিনীর ওপর বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হামলায় ১৮ সেনা নিহত হওয়ার পর এই অঞ্চলে ভারত পাকিস্তানের মধ্যে সামরিক উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিগত কয়েক বছরের মধ্যে দুই দেশের মনোভাব এখন সবচেয়ে হিংসাত্মক অবস্থায় রয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। তারা ধারণা করছেন এই পরিস্থিতিতে যে কোন সময় দুই দেশের মধ্যে যুদ্ধ বেঁধে যেতে পারে।

লাশের স্তুপে প্রতিষ্ঠিত : ধর্ম সম্রাজ্যবাদ


প্রতিটি জাতিই তার ইতিহাস ও ঐতিহ্যের প্রতি দূর্বল। সুযোগ পেলে সে ইতিহাস ও ঐতিহ্য সংরক্ষনে ব্রতী হয়। অন্যের সাথে সে ইতিহাস ও ঐতিহ্য শেয়ার করতে কুন্ঠিত হয়না  অন্তত সক্রিয়ভাবে লুকাতে চায় না।হোক সেটা কোন ধর্মীয় বা রাষ্ট্রীয় জাতি।
অনেক ইতিহাসের পাতার নায়ক খলনায়ক নির্যাতিত জনগোষ্ঠীর কাছে।

তোরা বেহেস্তে যাবি যা, দেশটা নরক বানানোর কি দরকার


জঙ্গীবাদ বর্তমান পৃথীবির প্রধান সমস্যা এতে কোন সন্দেহ নেই
এ যাবত কালের সবচেয়ে ভয়াবহ শক্তিশালী জঙ্গি সংঘটন isis
তারা পৃথীবি জুড়ে ইসলামী খেলাফত প্রতিষ্ঠার জন্যে সন্ত্রাসবাদ ছড়িয়ে দিচ্ছেন হত্যা করছেন নিরপরাধ সাধারণ মানুষকে

গুলশান থেকে শোলাকিয়া জঙ্গীবাদের চাষাবাদ


গতকাল শোলাকিয়া ঈদগাহ্ এর পশে জঙ্গী হামলা হয় দুই পুলিশ এক জঙ্গি এক গৃহবধু সহ চার জন নিহত, দশ পুলিশ আহত।তাদের ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে,নামাজ পাড়াতে পারেনি মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদ,
এখানে বাংলাদেশের সবচেয় বড় ঈদের জামায়েত অনুষ্ঠিত হয় মাওলানা ফরিদ উদ্দিন মাসউদের নেতৃত্বে। এখানে হামলার লক্ষ ছিলেন তিনি, জঙ্গী বিরোধী বক্তব্যের কারনে তিনি জঙ্গিদের টার্গেট হয়েছেন।জঙ্গীরা যদি মাঠে প্রবেশ করতে পারতেন তবে আরো বয়াবহ কিছু হতে পারতো,যথেষ্ঠ পেশাদারিত্ব দেখিয়েছে পুলিশ।
এর আগে গত ১ জুলাই রাতে একদল মৌলবাদী জঙ্গী অস্ত্র-গোলাবরুদসহ গুলশানের একটি অভিজাত

ইমরান এইচ সরকার : এবং বাস্তবতা


ডঃ ইমরান এইচ সরকার গনজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র,,,
তিনি নিন্দিত নন্দিত জামায়াতের কাছে তিনি নাস্তিক রাজাকারের নাতি তাকে নির্মম ভাবে হত্যা করা এমনটাই তারা আশা করেন,আওয়ামীলীগের কাছে ছিল দেশ প্রেমিক, হেফাজতের কাছেও নাস্তিক মুরতাদ জনসাধারনের কারো কাছে নাস্তিক কারো কাছে দেশপ্রেমিক যাদিও নাস্তিকতার কোন কিছু তার মধ্যে নেই কিন্তু আমার প্রিয় একজন ব্যাক্তিত্ব্,

মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশে ২২ লাক্ষ হিন্দু নিধন :জে বাস


আমেরিকায় প্রকাশিত একটি বই
বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে বড়সড়
বিতর্কের ঝড় তোলে। প্রিন্সটন
বিশ্ববিদ্যলয়ের রাজনীতি এবং
আন্তর্জাতিক বিষয়ের অধ্যাপক গ্যারি জে
বাস তার প্রকাশিত “ দি ব্ল্যাড
টেলিগ্রাম : নিক্সন কিসিঞ্জার অ্যান্ড এ
ফরগটন জেনোসাইড ” বইতে লিখেছেন , ১৯৭১
সালে মুক্তিযুদ্ধের শুরুতেই পাকিস্তানী
সেনাবাহিনী বাংলাদেশের প্রায় এক
লাখ হিন্দুকে নির্বিচারে খুন করেছিল।
তৎকলীন পূর্ব পাকিস্তানে আক্ষরিক অর্থে
চালানো হয়েছিল গণহত্যা। অসহায় ভাবে
তখন খুন হয় বিপুল সংখ্যক হিন্দু। নিজেদের

বিডিআর বিদ্রোহ বহুদিনের জমেথাকা ক্ষোভ


২৫/২/২০০৯ বাংলাদেশের বুকে বয়ে গেল রক্ত
গঙ্গা,হরিয়ে ফেলেছি ৫৭ জন চৌকস সেনা
কর্মকর্তা। হয়ে রইলো ইতিহাস পিছিয়ে গেলাম
আমরা সাক্ষী হিসেবে আছি আমরা বর্তমান
প্রজন্ম।
বি ডি আর বিদ্রোহ
২৫শে ফেব্রুয়ারী
বিনম্র শ্রদ্ধাজানাই ঐ ঘটনায় নিহত সকল সৈনিক
কর্মকর্তা পথচারী সকলকে,সমবেদনা জানাই
নিহতের পরিবার শুভানুধ্যায়ীদের,অপুরনীয় ক্ষতি
হয়ে গিয়েছে বাংলাদেশের বাংলাদেশ
সেনাবাহীনির, ধিক্কার জানাই জানাই বিদ্রোহের
নামে নৃশংস হত্যাযজ্ঞ পরিচালিত করেছেন,
বিদ্রোহ,,,,,,
বিদ্রোহ অধিকার আদায়ের একটি প্লাটফরম যা সব
সময় শোষিত ও সুবিধা বঞ্চিত গুষ্টিরা করে থাকেন
শাষিতদের বিরুদ্ধে,সেটা হতে পারে সসস্ত্র/

পাকিস্তান ১৯৭১ বর্তমান


দিনে দিনে সন্ত্রাসবাদের আখড়া হিসেবে
পরিণত হচ্ছে পাকিস্তান। সন্ত্রাসী কার্যক্রমে
মদদ দেয়াসহ জঙ্গি ব্যবস্থাপনায়ও সহায়তার হাত
রয়েছে দেশটির। এমনকি বর্তমানে দুর্ধর্ষ
জঙ্গি দলখ্যাত ইসলামিক স্টেটের (আইএস)
উদ্ভবও পাকিস্তানের নেতৃত্বেই হয়েছে।
আফগানিস্তানের শাখা
হিসেবে তালেবান গোষ্ঠীর পাকিস্তানেও
আবির্ভাব হয়েছে। এর পেছনে কাজ
করেছেন দেশটির চৌকস কিছু গোয়েন্দা
কৌঁসুলি। এমনকি আইএস দৌরাত্ম্য বৃদ্ধিতেও তারাই
কাজ করেছে। এসব কার্যক্রমের বহু প্রমাণ
সংগ্রহ করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের মতে,
বিশ্ব সংঘাত সৃষ্টির পেছনে রয়েছে পাকিস্তান।
আইএস ও তালেবান জঙ্গি তৎপরতা বাড়ার পেছনে

মানবতার কবি পাবলো নেরুদা


পাবলো নেরুদা মানবতার কবি,
বিশ্বশান্তির কবি, যুদ্ধবিরোধী
চেতনার কবি, সমাজতান্ত্রিক কবি
এবং বিপ্লব ও প্রেমের কবি। এ সব
অভিধা ছাড়াও আরো বহু অভিধায়
অভিব্যঞ্জিত করা যায় তাঁকে। আমার
ধারণা দেশ ও মানব প্রগতির এবং
কল্যাণ ও মঙ্গলের জন্য, বিশ্বশান্তি ও
সুন্দর পৃথিবীর জন্য যতোগুলো শুভ
অভিধা আছে সবই তার জন্য শোভনীয় ও
সার্থক।
নেরুদার জন্ম ১২ জুলাই, ১৯০৪ সালে।
দক্ষিণ চিলির ‘পাররাঙ্গল’ নামে এক
অখ্যাত ও প্রান্তিক গ্রামে। তার পুরো
নাম নেফতালি রিকার্দো রেইয়েস
বাসোআলতো। মা দোনা রোসা
বাসোআলতো এবং বাবা দোন হোসে
দেল কার্মেন রেইয়েস মোরালেসা।
জন্মের মাত্র এক মাস পরে মায়ের মৃত্যু

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

কাকন মজুমদার
কাকন মজুমদার এর ছবি
Offline
Last seen: 2 weeks 3 দিন ago
Joined: সোমবার, ফেব্রুয়ারী 1, 2016 - 1:36অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর