নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • অবাক ছেলে
  • মাহফুজ উল্লাহ হিমু
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • দ্বিতীয়নাম
  • মিশু মিলন

নতুন যাত্রী

  • রবিউল আলম ডিলার
  • আল হাসিম
  • মাহের ইসলাম
  • এহসান মুরাদ
  • ফাহিম ফয়সাল
  • সানভী সালেহীন
  • সাঞ্জানা প্রমী
  • অতৃপ্ত আত্বা
  • মনিকা দাস
  • আব্দুল্লাহ আল ম...

আপনি এখানে

মতিউর রহমান এর ব্লগ

'বৈষম্য' নারীকে যেভাবে আটকে রাখতে চায়!


সমাজ যে জায়গায় দাঁড়িয়ে সেখান থেকে ‘বৈষম্য’ নামের যে শর্ট ফিল্ম বানানো হইছে তা সমাজের অন্ধকার দিক কে উপস্থাপন করে। প্রযুক্তি ব্যবহারের ক্ষেত্রে সমাজ অনেক অধুনিক হইছে ঠিকই কিন্তু চিন্তার ক্ষেত্রে? আমরা স্মার্টফোন ইন্টারনেট ফেসবুক টুইটার এসব ব্যবহারে দুনিয়ার কোন দেশ থেকে কোনভাবেই পিছিয়ে নেই, পিছিয়ে আছি কোন ক্ষেত্রে? সামগ্রিক চিন্তা জগতের বিকাশের ক্ষেত্রে। নারীর প্রতি দুনিয়ার অন্যান্য দেশের দৃষ্টিভঙ্গি বদলালেও আজকের বাংলাদেশের দৃশ্য কী? আজকের তরুণ পুরুষ ছেলেরা তার বোন আত্মীয়া বা প্রেমিকাকে কোন জায়গায় দেখতে চায়?

বিদ্যমান সামাজিক বৈষম্য সমাজে অপরাধী তৈরি করে....


আমাদের সমাজ পুঁজিবাদী সমাজ। যেখানে ব্যক্তি মালিকানা এবং ব্যক্তিগত মূনাফা এই সমাজের মূল অর্থনৈতিক ভিত্তি। কিন্তু আমাদের সংস্কৃতি ঠিক বুর্জোয়া সংস্কৃতি নয়। এখানে পুঁজিবাদ এসেছে তার রেনেসাসের অনেক পরে ফলে পুঁজিবাদী অর্থনীতির বিকাশ ঘটলেও অষ্টাদশ শতাব্দীর ইউরোপের রেডিক্যাল বাক স্বাধীনতা এবং বুর্জোয়া মানবতাবাদ এখানে বিকাশ লাভ করেনি। এখানে বুর্জোয়া ব্যবস্থার যাত্রা করেছে যখন পুঁজিবাদ প্রতিক্রিয়াশীল। তাই আমাদের সমাজে পুরাতন সামন্তীয় সংস্কৃতি ভাবগতভাবে পুরোমাত্রায় আমাদের ব্যক্তি মানসে বিরাজ করে। তাই যথই আমরা পোশাক পরিচ্ছেদ বা প্রযুক্তি ক্ষেত্রে আধুনিক হইনা কেন ভাবগত চিন্তা জগতে আমরা মধ্যযুগীয় গোরা ম

ডাকাতদের বিরুদ্ধে গণ প্রতিরোধ গড়ে তুলুন------


দারিদ্র ক্ষুধা আর অত্যাচারিত এক জণগোষ্ঠীর নাম বাংলাদেশ। শত প্রতিকূল অবস্থায় এদেশের মানুষ বাছার লড়াই করে,বাছতে চায়।এখানে এখন আর বিট্রিশ সাম্রাজবাদের শাসন নাই,অত্যাচার নাই; নাই পাকিস্তানি নরপিচাশদের অত্যাচার।কেন যেন এদেশের মানুষ তার আপন ঠিকানা খোজে পায় না,বারবার প্রতারিত হয়।কত রক্ত ঝড়ালাম,জীবন দিলাম! প্রতিদান কি পেলাম?

সংবাদপত্র কাদের কথা বলে!


আজকের দিনে দুনিয়ায় সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করে পুঁজিবাদী এবং সাম্রাজ্যবাদী শক্তি।তাদের ইচ্ছায় দুনিয়ার যাবতীয় নিয়মনীতি পরিচালিত হয়।সাম্রাজ্যবাদী আমেরিকা তার দানবী ক্ষুধা মিটাতে সারা দুনিয়াকে শোষন করে।তারা এমন এক অর্থনৈতিক চক্র চালু রেখেছে যদি সারা দুনিয়াকে সে না লুটে তার ধ্বংস অনিবার্য। তাই তার লুটপাট চালু রাখতে সে যে কোন অপকর্ম করতে পিছপা হয় না।তাদের কাজকে বৈধতা দিতে তার দেশের সংবাদপত্র এবং বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মিডিয়া তাদের পক্ষে সাফাই গায়।এজন্য বর্তমান সংবাদ মাধ্যম হল একটা শ্রেণীর পক্ষে কাজ করে।কাদের পক্ষে?লুটেরা বুর্জোদের।নামীদামি সব সংবাদ মাধ্যম তাদের পক্ষে ওকালতি করে।এমনকি মাঝে মাঝে মিথ্যা বা

মাতৃভাষার চর্চা এবং আমাদের উপনিবেশ মানষিকতা


ভাষা হল যোগাযোগের মাধ্যম।মানুষ ভাষার মাধ্যমে মনের ভাব প্রকাশ করে।আদিম মানুষ যখন ভাষা সৃষ্টি করতে পারেনি তখন ঈশারায় ভাব প্রকাশ করতো।ধীরে ধীরে তারা অর্থবোধক ধ্বনি বলতে শিখল যা তার পাশের মানুষ বুঝতে পারতো। এভাবেই ভাষার সৃষ্টি মনের ভাব প্রকাশ করার জন্য।এজন্য একেক অঞ্চলে একেক ধরনের ভাষা।আবার আদিম মানুষ কোনকিছু বুঝাতে বিভিন্ন ধরনের সাংকেতিক চিহ্ন ব্যবহার করতো। যার সাথে ধ্বনি যোগ করে হল ভাষার লিখিত রুপ।এভাবেই লিখিত ভাষার শুরু যা মানব সভ্যতার অন্যতম বড় আবিষ্কার। এভাবেই মানুষ নিজের সৃষ্টিকে পুস্তকে রুপ দিয়েছে যার মাধ্যমে জ্ঞানবিজ্ঞান সংরক্ষণ করে রেখেছে।

পুঁজির আন্তর্জাতিক চরিত্র ও বাংলাদেশ


আজকের দিনে পুঁজিবাদ বলতে আধুনিক শিল্প কারখানা এবং তার উৎপাদন এবং বন্টনকে বোঝায়।বাংলাদেশে পুঁজির যাত্রা শুরু হয় ১৯৭২ সালে পাকিস্তান আমলের কিছু শিল্পকে জাতীয় করনের মধ্য দিয়ে।শিল্প বলতে কিছু পাটজাত উৎপাদন, চিনি,সার এগুলো ছিল ।প্রাইভেট খাতকে সীমিত করে অনেকটা সোভিয়েত আদলে শিল্পের জাতীয়করন করে, তৎকালীন আওয়ামীলীগ সরকার।তাদের ভাষায় তারা নাকি সমাজতন্ত্রের যাত্রা করেছিল।

ভারতের গণতন্ত্র আরও কিছু কথা....


আফজাল গুরুর ফাসি নিয়ে ভারতের ছাত্র আন্দোলন তুঙ্গে।জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের বাম ছাত্র সংগঠনের শিক্ষার্তীরা আফজাল গুরুর ফাসির বিরুদ্ধে প্রতিবাদী আন্দোলন করায় ঐ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের সহসভাপতিকে দেশদ্রোহের অজুহাতে গ্রেফতার করা হয়েছে।এ নিয়ে ভারতের রাজনীতি এখন অন্যতম আলোচনার বিষয়।ভারতের বাম ছাত্র সংগঠন গুলোর কর্মীরা তাদের নেতাকে মুক্তির দাবিতে বিক্ষুদ্ধ।প্রখ্যাত লেখিকা এবং মানবাধিকার কর্মী অন্ধরুতী রায় বলেছেন,আফজাল গুরুর ফাসি ভারতের গণতন্ত্র ও বিচার ব্যবস্থার কলঙ্ক।আমি তো বলি ভারত কবে?গণতন্ত্র হল।৪৭ সালে ব্রিটিশ শাসন থেকে স্বাধীন হওয়ার পর।শুধুমাত্র বুর্জোয়া শাসকদের ক্ষমতা পরিবর্তন ছ

শিশু এবং আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি!


আমাদের বাঙ্গালী চিন্তাধারা সামন্তীয় এবং দাস সমাজের চিন্তাধারার উর্দ্ধে উঠে যে আধুনিক মনন গড়ে উঠার কথা ছিল।তা কখনো হয়ে উঠেনি।পুঁজিবাদের উত্তান হয়েছিল ইউরোপে এর সাথে ছিল মানুষের জাগরণ। ফরাসী বিপ্লব এবং পরবর্তীতে বিভিন্ন রেনেসাঁস বিপ্লবের ফলে ও বিভিন্ন সমাজ বিজ্ঞানির অস্ত্রাঘাতে ইউরোপের সমাজ বিকাশের যে সূত্রপাত হয়েছিল তার ভূমিকা বিশাল।অন্যদিকে সমাজতান্ত্রিক চিন্তাধারার বিকাশ ইউরোপের সমাজে এর ব্যাপক প্রভাব আছে।যদিও পুঁজিবাদী আগ্রাসন আর লোভের কারনে তার কালো রুপটি চোখে পরার মত।

পাহাড়ের কান্না কে দেখবে বল!


পার্বত্য চট্টগ্রাম বাংলাদেশের নয়নাভিরাম সৌন্দয্যের অন্যতম অংশ।ওখানে পাহাড় আছে,ঝড়না আছে,বৃক্ষরাজি আর বন্যপ্রাণীর কলকাকলি আছে আর আছে কিছু মানুষের কান্না!

প্রাচীনকাল থেকেই নৃতাত্ত্বিক জাতির মানুষেরা ঐ পাহাড়ে বসতি গড়ে তুলেছে।ওখানকার দুর্ভেদ্য জঙ্গলের মধ্যে ছোটছোট কুঁড়েঘর বানিয়ে বসতি গড়েছে। পাহাড়ের বুকে ঝুমচাষ করে,কাঠ সংগ্রহ করে এবং বন্য প্রাণী শিকার করে জীবীকা নির্বাহ করেছে।প্রকৃতির নির্মলতার সাথে আদিম এক জীবন দুই ই একাকার।

সামাজিক মূল্যবোধের বিকাশ ঘঠুক


মানব শিশু জন্মের পর থেকে আর দশটি প্রাণীর মতই থাকে।বয়স বাড়ার সাথে সাথে যেমন তার শারীরিক বৃদ্ধি ঘঠে, সাথে সাথে তার মস্তিষ্কের বৃদ্ধি ঘঠে। এই মস্তিষ্ক বৃদ্ধির কারনে তার চিন্তা জগতের নানা বিষয় দোল খেতে থাকে।যে সমাজে সে বড় হয় সেই সমাজের অন্যান্য মানুষ এবং প্রাণী এমনকি নানা ধরনের বস্তুপিণ্ড তার চিন্তা জগতকে নাড়া দেয়।সেখান থেকে সে শিখে। প্রথমে সে শব্দ করতে শিখে। তারপর মা বাবা ও পরিবার, সমাজের নানা মানুষের কাছ থেকে সে ভাষাজ্ঞান অর্জন করে।সমাজের কালচার, নিয়মকানুন সে রপ্ত করে।এক সময় তাকে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার আয়োজনে যেতে হয়।সেখান থেকে শিক্ষার বিভিন্ন বিষয় সে শিখে।

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

মতিউর রহমান
মতিউর রহমান এর ছবি
Offline
Last seen: 3 months 1 week ago
Joined: শনিবার, জুলাই 4, 2015 - 1:23অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর