নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

There is currently 1 user online.

  • ড. লজিক্যাল বাঙালি

নতুন যাত্রী

  • আরিফ হাসান
  • সত্যন্মোচক
  • আহসান হাবীব তছলিম
  • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
  • অনিরুদ্ধ আলম
  • মন্জুরুল
  • ইমরানkhan
  • মোঃ মনিরুজ্জামান
  • আশরাফ আল মিনার
  • সাইয়েদ৯৫১

আপনি এখানে

জহিরুল হক বাপি এর ব্লগ

তোমরা ছাএ সংগঠন.......


ছাএলীগ, ছাএমৈত্রী, জাসদ ছাএলীগ তোমরা কোন ছাত্র সংগঠন নও। তোমরা ছাএ সংগঠন।
বনানীর নির্যাতিতরা ছাত্র,
আজ প্রধান শিক্ষক দ্বারা প্রথম শ্রেণীর ধর্ষিতা মেয়েটি ছাত্র,
আট বছর আয়েশা-যার দরিদ্র পালক বাপ তার যৌণ নির্যাতনের বিচার না পেয়ে তারে নিয়ে আত্নহত্যা করেছে সেও ছাত্র,
বাসাবো মূখে স্কচ টেপে বেধে মাদ্রাসার হুজুর দ্বারা ধর্ষণ হওয়া আট বছরের ছেলেটিও ছাত্র,
গ্রামের মসজিদে আরবী শিখতে এসে ঈমাম দ্বারা মসজিদের ভিতর ধর্ষিত মেয়েটিও ছাত্র।

গত কয়েক দিনের ধর্ষন নিয়ে কয়টা চিন্তা/খটকা......


**** ০
যারা বারবার বলার চেষ্টা করছে মেয়েগুলো অনুষ্ঠানে যাওয়াতে বনানীর ঘটনায় ধর্ষন হয় নাইই। তাদের সাথে কয় খান কথা।

কেউ কি আছো আমায় চাঁদের আলো ফিরিয়ে দেবে?......আমরা কু-শিক্ষায় শিক্ষিত – ৩


তোর এত সাহস তুই আমার ফোন ধরস না. . . তিন লাখ খাওয়াতে হবে. . . বিচ্ছেদের বাজারে গিয়া তোমার প্রেম বিকি দিয়া করবো না প্রেম আর যদি কেউ কয়- টুং টাং। দুই পথিকের মোবাইল কথোপকথন আর রিকশাওয়ালার গানের ঝংকার। গানের বিচ্ছেদের ব্যবচ্ছেদ করলে তিনজনই “বিচ্ছেদ ভুবনেই” আছে। রাস্তার পাশে তিনটা কুকুরের বাচ্চা আমার পায়ে পায়ে হাঁটে। আমি চাঁদের দিকে তাকিয়ে হাঁটি।

আধুনিক শহরে আসলে বলা উচিত অসভ্যতার শহরে চাঁদের আলো পরাস্ত। মানুষ মনে হয় প্রকৃতির এই একটা ব্যাপারকে অস্বীকার করতে পেরেছে সোডিয়াম, হ্যালোজেন, এলইডি বাত্তির নিরাপত্তায়।

কিন্তু তারা শত কেজি বিস্ফোরক উদ্ধার করতে পারছে না কেন?


কখনও কখনও গরম কেটে বাতাস বেরিয়ে আসে। শরীর শীতল হতে পারতো, কিন্তু হয়না মনের জ্বলুনিতে।

কি হচ্ছে আমাদের চারপাশে? কি হচ্ছে তাতো দেখতেই পাচ্ছি। এখনতো আর এমন হওয়ার কথা না। কিন্তু হচ্ছে!

মনে হচ্ছে মচ্ছব শুরু হয়েছে। মচ্ছব যেমন চলছে সিনসিয়ারিটির, তেমনি চলছে অসততারও।

দুই দিন আগে ঝিনাইদহে জঙ্গি পাওয়া গেল। কয়েক জন পুলিশ আহত হলেন। গত কয়েক মাসে আহত নিহত পুলিশের সংখ্যা কম না। বিশেষ করে স্পেশাল বাহিনীগুলো মনে হয় বুলেটের আগায় ঘুমায়। যখন তখন ডাক আসতে পারে।

মুখস্থ করিয়েছিলাম টাঙ্গাইল বাস স্ট্যান্ড/ মহাখালী বাস স্ট্যান্ড


রাত এগারোটা কম বেশি হবে তখন। সারাদিনের তুলনায় শাহবাগ বেশ নিরব। আমি শাহবাগ থেকে হাঁটতে হাঁটতে চারুকলার দেওয়ালে বসলাম। মাইকের শব্দ আসছিল। আরও স্পষ্ট শুনার জন্য ছবির হাট দিয়ে ঢুকলাম। ইচ্ছা ইঞ্জিনিয়ারিং ইনিসটিউটের গেটে গিয়ে আরও স্পষ্ট শুনবো। ছবির হাট একেবারেই নিরব। আমি ছাড়া আর কেউ নেই। হঠাৎ দূর থেকে দেখলাম শিখা চিরন্তনের সামনে তিনটা টুপি । হাতের কাঁচা বাশের লাঠিটা আরও শক্ত করে ধরলাম। সারাদিনই এটা আমার সাথে আছে। সকালে ৫/৬ ফিট লম্বা একটা সোজা দেবদারুর ডাল কেটে আনছিলাম। শাহবাগ আসতেই এক মুক্তিযোদ্ধা কাকা (বেশ বয়স্ক) আমার কাছ থেকে ডাল নিয়ে একটা পাতলা বাঁশ ধরিয়ে দিলেন। বাশ দিয়ে কারোরে বাড়ি দিলে নাকি

আপনারা আয়েশা হত্যার সত্যিকারের বিচার চান না?


আট বছরের আয়েশা যৌণ নির্যতনের বিচার পেল না। ১০০০ টাকা যা দিয়ে ৬.২৫ কেজি মুরগী কিনা যায় সুরাহা করতে বলেছিল সমাজপতি, পুলিশ, শিক্ষিতজন। পরে- আয়েশার বাপ মেয়েকে নিয়ে ট্রেনের নিচে আত্নঘাতী হলো।

কিছু দেখার আগেই, বোঝার আগেই পৃথিবী নিয়ে খারাপ ধারনা করে চলে গেল আয়েশা। কে জানে সেখানে হয়তো এখন সে পুতুল খেলছে বা মায়ের জন্য অপেক্ষা করছে।

সমীকরণ


গত ৩/৪ বছর আমরা তেমন কোন প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে পড়িনি। বরং নিয়ম করে মাঘের শেষে, ফাল্গুনে বৃষ্টি হইছে । ক্ষনার বচন অনুযায়ী এ সময় বৃষ্টি মানে অধিক ফলন । ধন্য রাজা। গত কয়েক বছরে ক্ষনার বচন সত্য প্রমাণিত হইছে। এবারও আবহাওয়া একই আচরন করেছে। কিন্তু তারপর :
* হাওড়ের ফসল তলিয়ে যাওয়া।
* মাছ হাঁস মরে যাওয়া
* আজ নতুন এলাকা প্লাবিত।
* কাল ডুবে গেছে লক্ষীপুরের রবি শস্য
* গত পরশু থেকে ডুবা শুরু করেছে নওগার ফসলের মাঠ
* সম্ভবত চলন বিলেও ঢল নামছে।
* আরও কিছু কিছু এলাকায় এমন সমস্যা দেখা দিছে।

রমেল চাকমা, সেনাবাহিনী ও কানার হাটবাজার


রমেল চাকমার মৃত্যু নিয়ে ক্ষুব্ধ সবাই। আমিও ক্ষুব্ধ। তার মৃত্যু নিয়ে পরস্পরবিরোধী খবর জানি। আমরা কথা যেই অপরাধ করুক তার বিচার হোক। সেটা যেই হোক। সবাই বিচার চান। কিন্তু অবাক বিষয় বিচার চাওয়ার চেয়ে দুইটা বিষয়ে মানুষ অনেক বেশি সোচ্চার। কিছু মানুষ জেনে বুঝেই এ বিষয়ে সোচ্চার তাদের ইস্যু নিয়ে। বাকীরা সম্ভবত রাজনৈতিক কূটচাল বুঝেন না বলেই স্বাভাবিক, মানবিক কারণে জানা বোঝা দলটি দ্বারা ব্যাপকভাবেই প্রভাবিত।

১) বিচারের চেয়ে বেশি সোচ্চার পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে সেনাবাহিনী সরানোর বিষয়ে।
২) পুরো সেনাবাহিনীকে বিতর্কিত করার বিষয়ে।

গান ( হাওড়া বন্ধু


মরতেছে মাছ পচতেছে ধান গাছ
বছর জুড়ে পালন করা ঘাম আর আশ।
দামী পানি স্বভাবগুনে ভাসায়ে দিল
মধ্য রাতে অবেহালর বাঁধ হলো সর্বনাশ।

কেউ কি আছো পাশে দাড়াবার
কেউ কি আছো স্বপ্ন দেখাবার ।

বানের ঢেউ এ ডুবে গেল ধান গাছের ঢেউ
গভীর টানে সবই গেল কিছু পেলনা কেউ
ধান গেল, ঈদ গেল, স্বপ্ন গেল গেল সুখের ডাক
যুগে যুগে হাওড়া জীবন এমনই, আসেনা অবাক।

কেউ কি আছো পাশে দাড়াবার
কেউ কি আছো স্বপ্ন দেখাবার

আমরা হয়তো কেউ না


১)
হওয়ার কথা ছিল শাপলা ফুল, হয়ে গেল শাপলার শাক
হওয়ার কথা ছিল একলা চরের লাঠিয়াল, হয়ে গেল রাজবাড়ি খোজা-
চার লনের সড়কে দুইটা বাস পাশাপাশি গল্প করতে করতে যাচ্ছিল. . . . .

২)
জানালার গ্রীলে দাড়িয়েছে মেঘের ঝিলিক
ঘরের ড্রেসিং টেবিলের আয়নায় ছিল কাল বৈশাখীর প্রতিবিম্ব।
গ্রীল আর আয়না গুড়িয়ে গেল দীর্ঘশ্বাসের ফুঁতে......

৩)
একদিন সূর্য জাগবে না-
সেই রাতে প্রথম কারো কারো ভোর হবে

৪)
ইদানীং আর রাত দেখতে ভালো লাগে না, রাত্রিই হতে ইচ্ছে করে
ইদানীং আর বৃষ্টি দেখতে ভালো লাগে না, মেঘ হতে ইচ্ছে করে

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

জহিরুল হক বাপি
জহিরুল হক বাপি এর ছবি
Offline
Last seen: 1 week 5 দিন ago
Joined: রবিবার, জুন 22, 2014 - 10:59অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর