নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • দ্বিতীয়নাম
  • মিশু মিলন
  • বেহুলার ভেলা
  • আমি অথবা অন্য কেউ

নতুন যাত্রী

  • সুশান্ত কুমার
  • আলমামুন শাওন
  • সমুদ্র শাঁচি
  • অরুপ কুমার দেবনাথ
  • তাপস ভৌমিক
  • ইউসুফ শেখ
  • আনোয়ার আলী
  • সৌগত চর্বাক
  • সৌগত চার্বাক
  • মোঃ আব্দুল বারিক

আপনি এখানে

ডাইনোসর এর ব্লগ

ইসলামী জঙ্গিপনা এবং নিজস্ব মতামত


অভিজিৎ রায় এবং পারভেজ আলম,এই দুইজনের প্রায় সব লেখাই পড়েছি এবং পড়ি,পারত পক্ষে কখনোই মিস করিনা।
অভিজিৎ দা যখন জঙ্গি উন্মাদনাকে 'বিশ্বাসের ভাইরাস' হিসেবে দেখে ধর্মকেই এর জন্য দোষি সাব্যস্ত করেন তখন মেনে নিতে পারি না। আবার পারভেজ আলম যখন জঙ্গিদের 'সালাফি ইসলাম' হিসেবে চিহ্নিত করতে চায় তখনও মেনে নিতে পারিনা। সেই ভিত্তিতে আমার নিজস্ব একটা মত আছে। আর প্রকাশ না করতে পারলে মতামতের দুর্বলতাও তো ধরা পড়বে না।

চিকিৎসা পেশাকে অন্য পেশার সাথে মিলানোর সুযোগ নাই্।


সব পেশাতে দুটি গুন থাকা আবশ্যক। এক উপার্জন করার ক্ষমতা আর দ্বিতীয়ত দায়িত্ব বোধের কর্তব্য।
সব পেশাই উপার্জন ক্ষম কৌশল গুনটি আছে কিন্তু কিছু পেশার ক্ষেত্রে তার উপর আরো একটি ব্যপার থাকে তা হলো দায়িত্ব ও কর্তব্য বোধ।

আইন,সাংবাদিকতা,শিক্ষকতা এবং ডাক্তার এই চারটি পেশাকেই যদি তুলনা করি তবে দেখতে পাবো প্রথম তিনটি পেশায় যে যতটা দায়িত্বের প্রশ্ন চতুর্থটির বেলায় তা অনেক গুন বেশি। এই কোন বিবেচনায়! কারন এখানে মানুষের জীবন মৃত্যু জড়িত। মানুষ যখন অসুস্থ হয়ে পড়ে তখন ডাক্তারের কাছে যেতে বাধ্য। তাই ডাক্তারি পেশাকে আমি কোন পেশার সাথে তুলনা করতে রাজি নই।

সামাজিক ব্যবসা এবং আমার কিছু প্রশ্ন:


"সামাজিক ব্যবসা হচ্ছে এমন ব্যবসা যা উদ্যোক্তা বা বিনিয়োগকারী একটি সামাজিক সমস্যা সমাধানের জন্য ব্যক্তিগত লাভের আশা ছাড়াই বিনিয়োগ করেন। সামাজিক ব্যবসা লোকসানহীন এমন প্রতিষ্ঠান যা লাভ বন্টন না করে একটি সামাজিক সমস্যা সমাধানের লক্ষে উৎসর্গীকৃত।"
-ড.মোহাম্মদ ইউনুস

আমি ব্যক্তিগত ভাবে যা বুঝেছি। এটা এমন একটা প্রতিষ্ঠান যা ব্যবসার সকল শর্তই পালন করবে কেবল লাভ করবে না। আর করলেও সীমিত আকারে। এবং ঐ লাভ ব্যবসা সম্প্রসারন করবে অথবা কোন দুস্থদের জন্য বরাদ্ধ করা হবে।

কতিপয় ডাবল স্টান্ডার্ড


১। আমি বসেছি বাম পাশের সারিতে ডানের সিটে, আর হুজুর বসেছে ডানপাশের বায়ের সিটে। বয়স কত আর হবে ২০ থেকে ২৭ এর মধ্যেই হবে। পাঞ্জাবি , পাজামা এবং মাথায় সবুজ রঙ্গের পাগড়ি। তাকে দেখে আমি বেশ কৌতুহল অনুভব করলাম। একটু পরেই দেখি পকেট থেকে একটা আইফোন বের করে ফেসবুক ব্যবহার করছে। মনে মনে বলছি বাহ স্মার্ট হুজুর। হঠাৎ ফোন আসল তার আর একটা মোবাইলে সে খুব আস্তে আস্তে পাঞ্জাবির পকেট থেকে মোবাইলটা বের করল। বাহ হুজুর দেখি দারুন একাধিক মোবাইল ব্যবহার করে। কিন্তু সবচেয়ে অবাক বিষয় ছিল হুজুরের মোবাইলের রিংটুন। আপনারা ভাবছেন কোন হিন্দি গান বাজছিল? কোরান তেলায়াত? ইসলামী সঙ্গিত?

আবোল তাবোল ধারাবাহিক


আবোল তাবোল :২০০০সালে আমি তখন সবে মাত্র কলেজে ঢুকেছি। চারদিকে কৌতূহল চোখ নিয়ে তাকাই। স্কুলের বন্ধন ছিন্ন করায় স্বাধীনতার কোন অংশই মিস করতে চাইনা।একদিন দুপুরে স্যারের বাসা থেকে একটা নোট নিয়ে ফটোকপি দোকানে হাজির। আমার কোন কাজ নেই বলে ফটোকপি করার পরেও বসে আছি। আমার সাথেই এক বয়স্ক মানুষ বসে আছে একই বেঞ্চিতে। অল্প অল্প কথা শুরু করেছি। একটু পরেই তিনি হাত নেড়ে বক্তৃতার ভঙ্গিতে আমার সাথে কথা বলা শুরু করেছে। অবাক বিষয় ফটোকপি দোকানে একজন মাত্র মানুষ আমি দোকানদার কোথায় জানি ঘুরতে গেছে। একজন মানুষের সাথে কথা শুনাইতে এত চিৎকার করে আঙ্গুল তুলে কথা বলার কারণটা কি?

আবোল তাবোল


"কবি যখন পথে বের হবে সাহিত্যিকরা তখন পথ ছেড়ে দাঁড়াবে।”-উইলিয়াম সামারসেট মম।

কবিদের নিয়ে যত স্তুতি গাওয়া হয়েছে এই লাইনটা তার মাঝে সর্বোচ্চ।আমি ভাবি মম সাহেব এখন বেঁচে থাকলে কি হতো? আর তিনি যদি বাঙলা পড়তে পারতেন। তাহলে ব্লগে আর ফেসবুকের কবিদের দেখে নিশ্চয় আত্মহত্যা করতেন।

দুর্বলতা এবং আত্মবিশ্লেষণ অথবা সমালোচনা।


দেইল্লা রাজাকারের ফাঁসির রায়কে কেন্দ্র করে বগুড়াতে যে পুলিশ ফাঁড়িতে আক্রমন করেছে। ৪/৫জেলাকে ঢাকা থেকে বিচ্ছিন্ন করার সব রকমের চেষ্টাই করেছে। এর কারন জামাত শিবির খুব শক্তিশালী তা কিন্তু না। খবরের যে ছবি দেখা গেছে তাতে স্পষ্ট হয় যে জামাত শিবির অনেক সাধারণ মানুষকে পথে নামিয়ে আনতে পেরেছে। এই পথে নামিয়ে আনার জন্য কেবল টাকাই দিয়েছে আমার এমন মনে হয় না।আমার ধারনা ঐ অঞ্চলের মানুষ নানা কারনে এমনিতেই সরকারের কর্মকাণ্ডের উপর ক্ষেপা ছিল। এই সুযোগে আগুনে ঘি ঢেলেছে জামাত শিবির। সাধারণ মানুষকে সম্পৃক্ত করার সব চেষ্টাই তারা করেছে এবং কিছু সফলও হয়েছে। এটা সহজেই বুঝা যায় ঐ অঞ্চল গুলাতে সরকার দলের কোন রকম সা

ইতিহাসে বিএনপি এবং নাস্তিকতা।



পৃথিবীর যে কোন দেশের একটা ইতিহাস থাকে। যে ইতিহাসে থাকে সেই দেশের বীরদের ত্যাগ,লড়াই,সংগ্রামের কাহিনী। একটা ছোট শিশু এই ইতিহাস পড়ে নিজেকে নিজেকে প্রস্তুত করতে থাকে সেই বীর হওয়ার জন্য। নিজেকে ক্রমেই তৈরী করতে চায় সেই ইতিহাসের অংশ হওয়ার জন্য। দেশকে ভালবাসার জন্য যে প্রেম দরকার, সেই প্রেম আসে সেই ইতিহাস থেকে।

রাজনীতি নয় পলিটিক্স(১/অসীম)


আমি দৈনিক মতি কণ্ঠের বহিষ্কৃত সাংঘাতিক মোহাম্মদ ডাইনুসর ইসলাম (মোডাই)। দেশের সব ধরনের টুক শোতে আমি নিয়মিতই থাকি।এখন প্রায় সব পত্রিকাতেই লেখা লেখি এবং টিভিতে টক শো করার জন্য ডাক পরে। কিন্তু আমি ফেসবুকে এত বেশি ব্যস্ত থাকি যে টিভি চ্যানেলে সময় দিতে পারিনা।ইস্টিশন টিভির অনুরোধে আজকে আজকে আপনাদের জন্য এই আয়োজন।আমি মূলত দেশের বিখ্যাত কুখ্যাত ব্যক্তিদের সাক্ষাতকার নিয়ে থাকি , এই সাক্ষাতকারের অংশ হিসেবে আজ আপনাদের সামনে আছেন মিষ্টার টাল্টু মিয়া(সংক্ষেপে টম)। তিনি নিয়মিত দিগন্ত টিভিতে দাপটের সাথে টক শো করে বেড়ান। এবং দৈনিক পশ্চাৎদেশে কলাম লিখেন।

জেগে থাক প্রজন্ম চত্ত্বর,জেগে থাক আমাদের স্বপ্ন।


শিখা অণির্বান থেকে প্রতিদিন চুলা জ্বালাবার আগুন নিতে আসে না।তাই বলে এই অনির্বাণের গুরুত্ব কমে যাচ্ছে না। প্রতিটা বিষয়ের প্রয়োজন স্বতন্ত্র। তাই আমরা আমাদের শিখা অণির্বান কে জাগিয়ে রাখি আমাদের অস্তিত্বের স্বারক হিসেবে।আমাদের প্রেরণার দাবানলের প্রতীক হিসেবে। প্রজন্ম চত্ত্বরও আমাদের এমনই এক শিখা অণির্বান। শাহবাগ জেগে আছে এটা ভেবে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকেও বুকটা ভরে উঠে। দেশের বাইরে যারা আছেন কাজ থেকে ফিরে গভীর রাতেও তারা অতি উৎসাহে খবর নেন আজ কি হলো প্রজন্ম চত্ত্বরে। প্রজন্ম চত্ত্বর কেবল দাবী দাওয়ার মতো প্রত্যক্ষ প্রভাবের অন্তরালে পরোক্ষ প্রভাবও আমাদের মাঝে ব্যপক।

পৃষ্ঠাসমূহ

বোর্ডিং কার্ড

ডাইনোসর
ডাইনোসর এর ছবি
Offline
Last seen: 2 years 7 months ago
Joined: শনিবার, ফেব্রুয়ারী 2, 2013 - 9:33পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর