নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

There is currently 1 user online.

  • উদয় খান

নতুন যাত্রী

  • চয়ন অর্কিড
  • ফজলে রাব্বী খান
  • হূমায়ুন কবির
  • রকিব খান
  • সজল আল সানভী
  • শহীদ আহমেদ
  • মো ইকরামুজ্জামান
  • মিজান
  • সঞ্জয় চক্রবর্তী
  • ডাঃ নেইল আকাশ

আপনি এখানে

মিঠুন বিশ্বাস এর ব্লগ

আত্মবিশ্বাস বিধ্বংসী পাঁচটি কাজ যা আমাদের করা উচিত নয়


মানব চরিত্রের অন্যতম একটা মুকুট হল আত্মবিশ্বাস। আত্মবিশ্বাস আমাদেরকে নিজের প্রতি আস্থাশীল করে তোলে, যেকোন কাজ করতে উৎসাহিত করে, ব্যবসায় ঝুঁকি নিতে অনুপ্রাণিত করে, বন্ধু-বান্ধব, আত্মীয়-স্বাজন, পরিচিত মহলের কাছে আকর্ষনীয় করে তোলে। একজন আত্মবিশ্বাসী ব্যক্তি তার জীবন কে পুরোমাত্রায় উপভোগ করে। অপরদিকে আত্মবিশ্বাস হীনতা আমাদেরকে ভীরু করে তোলে। কাজ করতে নিরুৎসাহিত করে। নিজেদের কমফোর্ট জোনের বাইরে বেরোতে, কোন অপরিচিত পরিস্থিতির মুখোমুখি দাঁড়াতে বাধা দেয়, ব্যক্তিত্বকে নষ্ট করে এবং ফলে হতাশা ভর করে আমাদের জীবনে। আমরা প্রতিনিয়ত আমাদের দৈনন্দিন জীবনে এমন কিছু কাজ করি যা ধীরে ধীরে আমাদের আত্মবিশ্বাসকে দ

বডি ল্যাঙ্গুয়েজ বা শারীরিক ভাষা পরিবর্তনের মাধ্যমে নিজেকে আকর্ষণীয় করে তুলতে পারেন যেভাবে..


যদি আপনি নিজেকে কারো সামনে আকর্ষনীয় ভাবে উপস্থাপন করতে চান, চান তার মনোযোগ কাড়তে, চান তাকে আকৃষ্ট করতে, তবে আপনাকে অবশ্যই আপনার শারীরিক ভাষা বাডি ল্যাঙ্গুয়েজ সম্পর্কে জানতে হবে এবং সে অনুযায়ী সচেতন থেকে নিজেকে উপস্থাপন করতে হবে। বেশিরভাগ মানুষই ভাবেন শারীরিক ভাষা হচ্ছে এমন একটি বিষয় যা অধিকাংশ মানুষ নিজের অবচেতনে করে থাকেন। কিন্তু অধিকাংশ সময়ই আপনি সচেতন ভাবে নিজের শারীরিক ভাষা নিয়ণ্ত্রণ করে পূর্বের তুলনায় দক্ষভাবে সময় অন্যের সামনে নিজেকে উপস্থাপন করতে পারেন। আপনি যদি আপনার শ্রোতার সামনে নিজেকে ইতিবাচক হিসেবে, উৎসাহ ব্যাঞ্জক হিসেবে, কর্মঠ হিসেবে, যোগ্য হিসেবে বা গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে প্রতিষ্ঠ

একজন আকর্ষনীয় মানুষের যে বৈশিষ্ট্যগুলো থাকা উচিত..


আমরা সবাই আকর্ষনীয় হতে চাই। ব্যক্তিত্বশীল হতে চাই। চাই সবার মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দু হতে। চাই সবাইকে আকৃষ্ট করতে। নিজেকে অসাধারণ হিসেবে উপস্থাপনের জন্য অবশ্যই আমাদের জানা উচিত ঠিক কি কি বৈশিষ্ট্য একজন ব্যক্তিকে আকর্ষনীয় ও অসাধারণ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে পারে। আমি নিজে যে যে বৈশিষ্ট্যগুলো একজন অসাধারণ মানুষের মাঝে দেখতে চাই তার একটা তালিকা নিচে দিলাম।

বিষয়- জীবন্ত জীবাশ্ম



ছোটবেলায় “জীবন্ত জীবাশ্ম” শব্দটি আমাকে ভীষণ ঝামেলায় ফেলেছে। কারণ জীবাশ্ম বলতে না হয় মৃত জীব-জন্তুর হাড়-গোড় বুঝায় বুঝলাম, কিন্তু জীবন্ত জীবাশ্ম আবার কিরে বাবা? একটি নড়া-চড়া করা, হেটে-চলে বেড়ানো হাড়-গোড়? অনেক ভেবেও এবং অনেকের কাছে জিজ্ঞেস করেও কোনো সদুত্তর পাইনি। পেয়েছিলাম বহু পর সম্ভবত উচ্চমাধ্যমিকের জীববিজ্ঞান পড়তে গিয়ে। যারা আমার মত বিড়ম্বনায় পড়েছেন বা পড়েন নি তাদের জন্য আজ বলতে চাইছি জীবন্ত জীবাশ্ম কাকে বলে।

তোমরা যারা ভালো রেজাল্ট করনি..


গতকাল এস.এস.সি. পরীক্ষার রেজাল্ট দিয়েছে। অনেকেই আকাঙ্খিত রেজাল্ট করেছ আবার অনেকেই করনি। আমার লেখাটা তাদের জন্য যারা আকাঙ্খিত ফল লাভ করনি। কিছু অপ্রিয় বাস্তবতা তুলে ধরতেই আমার এ লেখা। যদিও সকলই লেখা পড়তে পারবে।

প্রসঙ্গ জ্বালানী বিহীন ইঞ্জিন


বলতে গেলে আমাদের বর্তমান মানব সভ্যতা একক ভাবে যে বিষয়টির উপর নির্ভরশীল তার নাম বিদ্যুৎ। বিদ্যুৎ ছাড়া আমাদের জীবন-সভ্যতা বলতে গেলে স্থবির। তাই বিদ্যুৎ উৎপাদন বর্তমান বিশ্বে সর্বধিক গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলোর মধ্যে একটি। সমগ্রবিশ্বে কিভাবে সহজ উপায়ে, পরিবেশ বান্ধব ভাবে, সল্প বিনিয়োগে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যায় তা নিয়ে বিপুল পরিমাণে গবেষণা হচ্ছে। তাই বিদ্যুৎ উৎপাদনের নতুন প্রযুক্তির খবর সব সময়ই সকলের মনোযোগ কাড়ে, মিডিয়া কাভারেজ বেশি পায়। তাই এই মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা মাঝে মাঝেই জ্বালানী বিহীন বিদ্যুৎ উৎপাদনের খবর জানতে পারি। কিছু দিন পর পরই আমারা প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের ম

পেঁয়াজ কেন কাঁদায়??


প্রিয় পাঠক আপনারা ছোটবেলা থেকেই নিশ্চই লক্ষ্য করেছেন পোঁজ কাটলে আমাদের চোখ থেকে কান্নার মত অনবরত পানি বেরোতে থাকে। আপনি যতই চেষ্টা করেন না কেন একে থামাতে পারবেন না। আপনাদের মনে নিশ্চই প্রশ্ন জেগেছে পেঁয়াজ কাটলে কেন আমাদের চোখে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি হয় বা আমাদের চোখথেকে কেনই বা অনবরত পানি ঝরতে থাকে। মা-খালাদের পোঁয়াজ কাটার সময় তাদের কান্নাদেখে আপনার নিশ্চই জানতে ইচ্ছে হয়েছে ইস এমন কি কোনো উপায়নেই যারদ্বারা পেঁয়াজ কাটলেও চোখ জ্বলবেনা। আজ আপনাদের সাথে এই বিষয়টিই শেয়ার করব।

বংশগতি প্রসঙ্গে


আমরা যখন সবাই ছোট থেকে বড় হলাম অনেক অনেক নতুন বিষয়ের সাথে আমরা নিশ্চই আশ্চর্য হয়ে লক্ষ্য করেছিযে প্রায় সকল সন্তানই তার পিতা বা মাতার মত দেখেতে হয়। পিতা বা মাতার মত দেখতে না হলেও কোনো নিকটাত্মীয়, বিশেষ করে দাদা-দাদী বা নানা-নানীর মত দেখতে হয়। আমরা এটাও খেয়াল করেছি যে কোনো পিতা-মাতা ফর্সা হলে সন্তানও ফর্সা হয়, অথবা পিতা-মাতা কালো হলে সন্তানও কালো হয়।অর্থাৎ পিতা-মাতার বৈশিষ্ট্য সচরাচর সন্তান-সন্ততির মধ্যে প্রকাশিত হয়। পিতা-মাতার বৈশিষ্ট্য কি করে সন্তান-সন্ততির মধ্যে প্রকাশিত হচ্ছে তা নিয়ে আমাদের অনেকের মনেই নানাবিধ প্রশ্ন রয়েছে। নিচের আলোচনার মাধ্যমে আমরা এই প্রশ্নেরই উত্তর জানার চেষ্টা করব।

ফেসবুকে এপস বিড়ম্বনা


ফেসবুকে অনেক রিকোয়েস্ট আসে বিভিন্ন বন্ধুর কাছ থেকে বিভিন্ন কিছু খেলতে বলে। নোটিফিকেশনে আসে Somebody(নাম) requested you to play something(ক্যাণ্ডি ক্রাশ, তোমার উপর কার গোপন অভিশাপ আছে, কে তোমাকে মিস করে ইত্যাদি নামে)। এই লিংক গুলোতে ক্লিক করলেই যেটা সবার আগে আসে তা হল- এই এপ্লিকেশন আপনার পাবলিক তথ্য, বন্ধুতালিকাতে প্রবেশ করতে পারবে। সচারচর আমি এই এপ্রিকেশন গুলি প্রায়ই এড়িয়ে চলি। আমি আমার নিজের একাউন্টের অথ্য অন্য কোন এপ্লিকেশন ব্যবহার করবে এটা চাইনি। তাই বরাবরই এই স্টেজে গেলে আমি ব্রাউজারের ট্যাব বন্ধ করে দিই।

চাকসু নির্বাচন


চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (চাকসু)। চা পান, নাস্তা ও দুপুরে খিচুড়ী খাওয়ার অন্তরালে ঢেকে আছে ছাত্র-ছাত্রীদের অধিকার আদায়ের কেন্দ্রস্থলটি। ১৯৬৬ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মান, নাগরিক জীবনে সত্যিকারের নেতৃত্ব প্রদান ও অধিকার সম্পর্কে মতামত প্রকাশের জন্য গণতাণ্ত্রিক পদ্ধতিতে গঠিত হয়েছিল চাকসু। সকলের সমান অধিকার সুনিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রত্যক্ষ ভোটাধিকারের মাধ্যমে একটি কার্যকরী কমিটি নির্বাচিত করে ছাত্রছাত্রীরা। এই কার্যকরী কমিটি শিক্ষার্থীদের মৌলিক অধিকার আদায়ে সরকার ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সাথে সিনেট বৈঠকে মিলিত হয়ে দাবিগুলো

বোর্ডিং কার্ড

মিঠুন বিশ্বাস
মিঠুন বিশ্বাস এর ছবি
Offline
Last seen: 13 ঘন্টা 48 min ago
Joined: বৃহস্পতিবার, মে 23, 2013 - 3:11পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর