নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 8 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • ফারুক হায়দার চৌধুরী
  • নরসুন্দর মানুষ
  • শিকারী
  • ফারজানা সুমনা
  • নুর নবী দুলাল
  • আবদুর রহমান শ্রাবণ
  • মওদুদ তন্ময়
  • অজল দেওয়ান

নতুন যাত্রী

  • প্রলয় দস্তিদার
  • ফারিয়া রিশতা
  • চ্যাং
  • রাসেল আহমেদ
  • আবদুর রহমান শ্রাবণ
  • হিপোক্রেটস কিলার
  • পরিতোষ
  • শ্যামা
  • শিকারী
  • মারিও সুইটেন মুরমু

আপনি এখানে

ব্লগসমূহ

একটা হলিউডি ফিল্ম ও ইসলাম


হঠাৎ করে একটা হলিউডি ফিল্ম দেখলাম। বিষয়বস্তু হলো -কোন একটা কারনে একটা শহরে একটা ভাইরাসের সংক্রমন হয় , যাতে মানুষ রাক্ষসে পরিনত হচ্ছিল, তাদের কোন সাধারন কান্ডজ্ঞান ছিল না। তারা রাতের বেলা বের হয়ে সাধারন মানুষকে আক্রমন করত , যাকে আক্রমন করত , সেও রাক্ষসে পরিনত হত। কিন্তু দিনের আলো সহ্য করতে পারত না। দিনের আলোতে আসলেই তারা মারা পড়ত। তো এই ফিল্মের সাথে ইসলামের কি সম্পর্ক ?

বুঝি না- ১


জনগন যদি রাষ্ট্রের মালিক হয় তবে রাষ্ট্রের কর্মচারীদের কাছে কোন দরখাস্ত লিখতে স্যার/মহোদয় / বিনীত নিবেদক/ আপনার একান্ত বাধ্য ইত্যাদি সম্বোধন / লিখতে হয় কেন? এছাড়াও - আমার আবেদন "দয়া/অনুগ্রহ" করে মঞ্জুর করবেন ইত্যাদি । এসব ক্ষেত্রে শব্দগুলো কি সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক না?!
এছাড়াও এ ধরনের সম্বোধন যে কর্মচারীর মধ্যে রাজসিক অহংকার, ব্যাবহার তৈরি করে তাতো আমরা প্রতিটি ক্ষেত্রেই দেখছি। সরকারী কর্মচারী-কর্মকর্তার আত্নীয়ও রাজার বংশ।

কবিতাঃ হাট


হাট

মিঠুন রাজ

সকাল থেকে বউ বকছে
যেতেই হবে হাটে
থলি হাতে গুজে দিয়ে-
থালা বাটি সঙ্গে নিয়ে
চলল পুকুর ঘাটে।

নুন মরিচ ফুরিয়ে গেছে আগের শনিবার
তেলের বোতল নিতে হবে বলেছে বারবার।

বউকে ডাকি ও বিবিজান তেলের বোতল কই?
বাঁচলে টাকা আনবো কিনে রাজাপুরের দই।

বউ এসে ঝামটা মেরে কপাল চাপড়ে বলে
থলের ভেতর সব দিয়েছি দেখো নয়ন মেলে।
বোকার মতো তাকিয়ে আছি বউ দেখে তাই হাসে
বোকা বলে বউ আমাকে বেশিই ভালবাসে।

প্রিন্স মাহমুদের ধর্মানুভূতির উন্মত্ত গিটার!


প্রিন্স মাহমুদের সুরে, কথায় ও কম্পোজিশনে বাংলা ব্যান্ডে যেসব গান সৃষ্টি হয়েছে তা সময়ের পরিক্রমায় আজ ক্ল্যাসিকে রূপ নিয়েছে। মাইলস, এলআরবি, ফিলিংস/নগর বাউল, আর্ক ব্যান্ডের শাফিন-হামিন, আইয়ুব বাচ্চু, জেমস ও হাসানদের কন্ঠে নব্বই দশক থেকে যেসব কালজয়ী গান প্রিন্স তাঁর সুর কথায় ও কম্পোজিশনে উপহার দিয়েছেন তা বাংলা ব্যান্ড-সংগীতকে এক অন্য মাত্রায় নিয়ে গেছে। যেমন কথা তেমন সুর তেমন কম্পোজিশন। বাংলা ব্যান্ডের ভিতকে শক্ত করেছেন যে ক'জন সংগীত স্রষ্টা তার অগ্রভাগে প্রিন্স মাহমুদ আছেন, ভবিষ্যতেও থাকবেন।

প্রাচীন কাল থেকেই লিঙ্গবৈষম্য একটি সামাজিক ব্যাধি(!)



প্রাচীন কাল থেকেই লিঙ্গ বৈষম্য অনেক বড় একটা সামাজিক ব্যাধি। ব্যাপারটা অনেকটা এমন ছিলো, কন্যা সন্তান জন্ম নিলে পাড়ায় মুখ দেখানো যাবে না, শ্বশুর বাড়ির লোকজন দূর-ছাই করবে, আর কন্যা সন্তান দিয়া কি এমন হয়! বরংচ, কাড়ি কাড়ি টাকা পয়সা খরচ করতে হয়, তারওপর কালো-খাটো হইলে তো যৌতুকও দিতে হয়। আমার জন্মটাও ওরকম একটা সময়ে হয়েছিলো। বাবা-মায়ের দাম্পত্যজীবনের পাঁচ বছরের মাথায়, মায়ের কোল আলো এবং মুখ অন্ধকার করে আমি এসেছিলাম।

আইনস্টাইন; পাইলটের উড়ার ক্ষমতা


একজন পাইলট হবেন, বিমান চালাবেন। তো, লিখিত পরীক্ষা দিলেন। ইন্টারভিউতে যখন জিজ্ঞেস করলেন উনি উড়তে জানেন কিনা, তখন বাপারটা কেমন লাগে?

আজ ১৯ এপ্রিল বিশ্বের অন্যতম বিখ্যাত বিজ্ঞানী চার্লস ডারউইন এর ১৩৫ তম প্রয়াণ দিবস


"স্কুল ফাঁকি দিয়ে কেউ রবীন্দ্রনাথ হতে পারে না" ছোট বেলায় স্কুল শিক্ষকের মুখে এ মহান উক্তি কে না শুনেছি। স্কুল ফাঁকি দিয়ে যেমন রবীন্দ্রনাথ হওয়া যায় না তেমনি আইনস্টাইন ও চার্লস ডারউইন ও হওয়া যায় না। বাল্যকালে এ তিন জনেই ছিলেন ডানপিটে স্বভাবের এবং স্কুল পালানো ছিল এদের স্বাভাবিক ব্যাপার । একাডেমিক শিক্ষা দিয়ে নয় নিজেদের সৃষ্ট কর্ম দিয়ে যেমন যায়গা করে নিয়েছেন পৃথিবীর ইতিহাসে তেমনি যায়গা করে নিয়েছেন শিল্প-সাহিত্য-বিজ্ঞান সাধকদের অন্তরে।

ইয়োর এক্সিলেন্সি


ইয়োর এক্সিলেন্সি,
নূর হোসেনের লাশ থেকে গণতন্ত্র পচা গন্ধ বেড়চ্ছে,
লাশে ফর্মালিন দিন অথবা কিছু উন্নয়নের ব্লিচিং পাউডার ছেটান।

ইয়োর এক্সিলেন্সি,
আসাদের শার্ট দিয়ে শফীর মূত সাফ করছে কওমি মাস্টার্স পাশ গেলমান, তাকে ঠ্যাকান।
ও হ্যা! শফী মানে তেঁতুলবৃক্ষ, নারী মানে জাহানারা ইমাম, তারামন বিবি, রোকেয়া বা সুফিয়া ও তনু মানে হুজুরের গাল লকলক করছে।

ভুলেই গিয়েছিলাম তনু!
ইয়োর এক্সিলেন্সি,
৫৫০ কোটি ডলারের কেনা অস্ত্র থেকে তনুর মাকেও একটি দিন,
যাতে অস্ত্রের মুখামুখি দাঁড়িয়েও সে সন্তান হত্যার বিচার চাইতে পারে।

মুক্তমন ...।।


আমরা প্রায়শই মুক্তমনের কথা বলি কিন্তু অধিকাংশই জানিনা মুক্তমনের জন্য কি প্রয়োজন এবং মুক্তচিন্তা কি?

চিন্তা দুই প্রকার সৃষ্টিশীল ও ধ্বংসাত্মক । এই দুইয়ের পার্থক্য নিরূপণে ব্যর্থ মুক্তচিন্তা সমাজ সভ্যতাকে কিছু দিতে পারেনা। আমি মুক্তচিন্তাকে স্বাগত জানাই।

মাননীয় প্রধান বিচারপতি, রাষ্ট্রের স্বার্থে আপনার সর্বোচ্চ শক্তি, সাহস ও ক্ষমতা প্রয়োগ করুন


রাষ্ট্র এখন ধর্মান্ধ-অক্টোপাসের খপ্পরে পড়তে যাচ্ছে। ধর্মের নামে ‘হেফাজতে শয়তান’ নামক অরাজনৈতিক ও সন্ত্রাসী সংগঠন অপরাজনীতি শুরু করেছে। আর এদের একমাত্র লক্ষ্য-উদ্দেশ্য ও কর্মসূচি হলো: যেকোনোভাবে, যেকোনোউপায়ে আর যেকোনোমূল্যে রাষ্ট্রক্ষমতাদখল করা। এরা আফগানী-তালেবানী-পাকিস্তানী পাশবিক-শাসন কায়েম করতে চায়। আপনি অবগত রয়েছেন, এরা চিরকালীন রাষ্ট্রবিরোধীঅপশক্তি। ধর্ম এদের মুখোশ মাত্র। আর ‘আল্লাহ-রাসুল’ এদের ব্যবসার আকাশে সাইনবোর্ড মাত্র। আসলে, এরা সংগঠিত হয়েছে—বাংলাদেশরাষ্ট্রকে ধ্বংস করতে। কারণ, এই ‘হেফাজতে শয়তানে’র জন্ম হয়েছিলো ১৯৭১ সালে—পাকিস্তানীদের ঔরসে। আর ১৯৭১ সালে, এরা পাকিস্তানী-আর্মিদের সঙ্গে কাঁধে-কাঁধ-মিলিয়ে, আর বুকে-বুক-লাগিয়ে যারপরনাই অত্যাচার-নির্যাতন চালিয়েছিলো বাঙালির উপর। এরা সেই ‘হেফাজতে শয়তান’। আর সেই থেকে এরা আজও বাংলাদেশের সবকিছুকে ধ্বংস করার জন্য ক্রমশঃ মরীয়া হয়ে উঠেছে। আর এদের সর্বাত্মক সহায়তা করছে এদেশীয় চিহ্নিত-দালালশ্রেণী। এরা সবাই মিলেমিশে আজ বাংলাদেশরাষ্ট্রকে সম্পূর্ণ গিলে খাওয়ার ফন্দিফিকির করছে। আর দুঃখের বিষয় হলেও সত্য: বর্তমান সরকারও এদের খপ্পরে পড়ে গেছে। এখন জাতির ‘আশা-আকাঙ্ক্ষাপূরণে ও ভাগ্যরক্ষার ক্ষেত্রে’ আইনানুগ-অভিভাবক হিসাবে দায়িত্বপালন করতে হবে আপনাকে। হ্যাঁ, শুধু আপনিই এখন জাতির প্রত্যাশাপূরণ করতে পারেন। তাই, আজ জাতির প্রয়োজনে আপনার কাছে আমাদের সবিনয় নিবেদন:

পৃষ্ঠাসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর