নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 13 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মূর্খ চাষা
  • নরসুন্দর মানুষ
  • রাজিব আহমেদ
  • কাঠমোল্লা
  • পৃথু স্যন্যাল
  • আল আমিন হোসেন মৃধা
  • নিরব
  • সাগর স্পর্শ
  • দ্বিতীয়নাম
  • নুর নবী দুলাল

নতুন যাত্রী

  • মাসুদ রুমেল
  • জুবায়ের-আল-মাহমুদ
  • আনফরম লরেন্স
  • একটা মানুষ
  • সবুজ শেখ
  • রাজদীপ চক্রবর্তী
  • নাজমুল-শ্রাবণ
  • চিন্ময় ভট্টাচার্য
  • নেইমানুষ
  • পরাজিত শুভ

আপনি এখানে

ব্লগসমূহ

সালমান আবেদী কেন মানচেষ্টারে কনসার্টে হামলা করল ?


ইসলামে খুব পরিস্কারভাবে অমুসলিম ও মুনাফিকদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার ও তাদের ওপর কঠিন আঘাত হানার বিধান দেয়া আছে। ইসলামে নাচ ও গান কঠিনভাবেই হারাম। সুতরাং উক্ত কনসার্টে যারা গেছিল তাদের প্রায় সবাই ছিল অমুসলিম তথা কাফের। আর যদি কিছু মুসলমান ঢুকেও থাকে , তারা ইসলামের বিধান অমান্য করেই সেখানে গেছে। আর তাই তারা হলো আসলে মুনাফিক। সালমান আবেদী কনসার্ট লক্ষ্য করে এ আক্রমন চালায় এই উদ্দেশ্যে যে তার আঘাতে যেন কোন খাটি মুমিন নিহত না হয়। পরে যেন কেউ অভিযোগ করতে না পারে যে , তাদের আক্রমনে মুসলমানরাও নিহত হয় ও একারনে এই জিহাদ ইসলাম সম্মত নয়।

সেক্সি টপিকের অভাবে কলাম লিখতে পারছি না... হেল্প প্লিজ


মাঝে মাঝে এমন হয়, লেখবার মত টপিক পাওয়া যায় না। অনেক ঘটনাই আছে, আবার কোন ঘটনাই নেই। আমি মিন, সবগুলো ঘটনার মাঝে এমন কোন ঘটনাকে পিক করা যাচ্ছে না, যা সম্পর্কে সবাই আগ্রহী। পত্রিকার ভাষায় যাকে বলে, সেক্সি টপিক। বলুন, তেমন ঘটনা একটাও আছে? যেসব ঘটনা এখন প্রথম পাতায় আছে, সেসব ‘চলে’ টাইপ। নেহাত কাজ না থাকলে চোখ বোলানো যায়।

একজন ধর্ষিতা ন্যায় বিচার পাবে কার কাছে?


সমাজের ভয়ে ধর্ষিতার পরিবার অনেক সময়েই ধর্ষণের বিচার দাবি করেন না। সমাজপতিরা অনেকসময় ভয় দেখিয়ে কিংবা কিছু টাকা হাতে গুজে দিয়েই ধর্ষিতার পরিবারকে দমিয়ে রাখে। একজন নারী ধর্ষিতা হয়েছে, এটা জানা জানি হলে এই সমাজে খুব কম লোকই আছে যারা সেই নারীকে বিয়ে করার সাহস দেখায়। অথচ একজন ধর্ষকের জন্য বিয়েশাদি করতে কোন সমস্যাই হয় না। 'পুরুষ মানুষ বয়সকালে দুই চারটে অমন কাজ করেই' বলে ধর্ষণকে জায়েজ করার প্রবণতা সমাজে লক্ষ্যনীয়।

দ্রুত এগিয়ে চলছে পায়রা সেতুর নির্মাণ কাজ


বরিশাল থেকে সড়কপথে পর্যটনকেন্দ্র কুয়াকাটায় যেতে আগে ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা সময় লাগত। ১০৪ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়কপথের পাঁচটি পয়েন্টে ছিল ফেরি। এ কারণে ঘাটে ঘাটে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাতে হতো যাত্রীদের। গত কয়েক বছরে চারটি পয়েন্টে সেতু নির্মিত হওয়ায় যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেক সহজ হয়েছে। বেঁচে গেছে অর্ধেক সময়। এর পরও বাকি থাকা একমাত্র লেবুখালী ফেরিঘাট পয়েন্টে দুর্ভোগ নিত্যসঙ্গী পরিবহন চালক ও যাত্রীদের। ব্যস্ততম এই মহাসড়কে জনদুর্ভোগ কমাতে গত বছর লেবুখালী পয়েন্টের পায়রা নদীর ওপর সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়। যেখানে বরগুনার আমতলী-পুরাকাটা রুটের পায়রা নদীতে সেতু নির্মাণের বিষয়টি একসময়ে ছিল কল্পনারও অতীত, ছিল আকাশ

যে কোন বাংলা বই ডাউনলোড করুন পিডিএফ আকারে


আজকে আপনাদের সাথে প্রয়োজনীয় ও শিক্ষনীয় বিষয় নিয়ে টিউন করছি। আমরা সকলেই জানি বই আমাদের কত দরকারি বস্তু। বই যেমন আনন্দ দেয় তেমনি শিক্ষাও দেয়। জীবনের এমন কোন জায়গা নেই যেখানে বই নামক জিনিসটি দরকার হয় না। জীবনে একবারেও কোন বই পড়েন নি এমন লোক খুজে হাজারেও একটা পাবেন না। আমাদের জ্ঞানের পরিসীমা বাড়াতে পড়ার কোন বিকল্প নেই। পড়কে হলে বইয়ের কাছেই যেতে হবে।
আমাদের অবসর সময়কে কাজে লাগানোর জন্য বই পড়ার বিকল্প নেই। যখনই সময় পাব বই পড়ব। স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে বৃদ্ধ বয়স পর্যন্ত সবাইকে পুস্তক পড়তে হয়।

এক মূর্খের দর্শন চিন্তা


মানুষের সাথে পশুর একটা মৌলিক তফাত হচ্ছে যে, মানুষ স্বাধীনভাবে চিন্তা করতে পারে। বিজ্ঞান বা দর্শন তারই ফসল। তবু সত্যি কি আমরা স্বাধীনভাবে চিন্তা করতে পারি? আমাদের বেশিরভাগ চিন্তাই তো আমাদের আগের অর্জিত জ্ঞান বা অভিজ্ঞতা দ্বারা প্রভাবিত।হঠাৎ মাথায় এলো ইশ্বর বা স্রষ্টা নিয়ে একটু চিন্তা করে দেখি নিরপেক্ষভাবে ভাবতে পারি কি না? যদিও জানি আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা বিশ্বাস আমার চিন্তাকে প্রভাবিত করবে অনেকটাই।

রোকেয়ার ইসলামিকরণ:পর্ব:৩


রোকেয়ার জীবদ্দশায় মুসলিম সমাজ রোকেয়ার প্রতি প্রচন্ড বিরূপ ছিলো এবং প্রতি পদে তাঁর বিরুদ্ধাচরণ করতো । সেই সময় মুসলিম সমাজে শ্রেণী হিসেবে বুদ্ধিজীবীদের তখনো আত্মপ্রকাশ ঘটেনি । সমাজে একতরফা কর্তিত্ত্ব করতো মোল্লারা । পদে পদে তারা রোকেয়াকে বিব্রত করতো সে কথা রোকেয়া সখেদে স্পস্ট ভাষায় বলে গেছেন । এক জায়গায় তিনি লিখছেন – “ আমি কারসিয়ং ও মধুপুর বেড়াইতে গিয়া সুন্দর, সুদর্শন পাথর কুড়াইয়াছি ; উড়িষ্যা ও মাদ্রাজে সাগরতীরে বেড়াইতে গিয়া বিচিত্র বর্ণের, বিবিধ আকারের ঝিনুক কুড়াইয়া আনিয়াছি । আর জীবনের পঁচিশ বৎসর ধরিয়া সমাজ সেবা করিয়া কাঠমোল্লাদের অভিসম্পাত কুড়াইয়াছি ।”(দ্রঃ রোকেয়া জীবনী, শামসুন নাহার, পৃ-৭৯

ম্যানচেস্টার-হামলায় আবার পরাজিত হলো ধর্ম


ধর্মের শত্রু কখনও নাস্তিক নয়। আর নাস্তিকরা ধর্মের কোনো ক্ষতি করতে পারে না। ধর্মের একমাত্র আদি-আসল শত্রু হলো—এই লোকদেখানো ধার্মিকসম্প্রদায় তথা আস্তিক-ব্যবসায়ীগণ। এরাই পৃথিবীতে ধর্মের সবচেয়ে বড় শত্রু। আজকাল দেশে-দেশে তথা বিশ্বে ইসলামের নামে আত্মস্বীকৃত ধর্মবিরোধী-মানবতাবিরোধী জঙ্গিগোষ্ঠী গড়ে উঠেছে—এর মূলে ভণ্ডামি। এরা আত্মস্বীকৃত জঙ্গি ও মুসলমান। এরা পৃথিবীতে আজ শুধু একাই বসবাস করতে চায়। আর অন্য ধর্মের সকল মানুষকে হত্যা করতে চায়। এর নাম অধর্ম ও পশুত্ব। আর এরই নাম পাপ ও শয়তানী।

আমি ধার্মিকতা দেখেছি


আমি ধার্মিকতা দেখছি
হন্তারকের মাঝে
আমি ধার্মিকতা দেখেছি
উন্মত্ত ধর্মান্ধের মাঝে।
আমি ধার্মিকতা দেখেছি
নিষ্ঠুরদের নিষ্ঠুরতায়;
আমি ধার্মিকতা দেখেছি
চোর,লোভী ও নীচেদের মাঝে।
আমি ধার্মিকতা দেখেছি
ক্রোধ-চণ্ডাল বর্বরের মাঝে।
আমি ধার্মিকতা দেখেছি
অন্ধ অনুকারকের বিকৃত বাসনার ভিতরে।
আমি ধার্মিকতা দেখেছি
কপটের কাপট্যে।
আমি ধার্মিকতা দেখেছি
যতো হীন নীচ আর নিকৃষ্টদের মাঝেও।

বিশ্বাসের ভাইরাস:


'বিশ্বাসের ভাইরাস' অভিজিৎদার লেখা| অভিজিৎদার হত্যা মৃত্যু আমার মধ্যে অনেক অবিশ্বাসের ভাইরাসের জন্ম দিয়েছে| পাকিস্তানী বিশ্বাসের ভাইরাস থেকে একাত্তরে ত্রিশ লক্ষ প্রাণ আর প্রায় তিন লক্ষের উপর নারীর ইজ্জতের বিনিময়ে বাংলাদেশের জন্ম-মুক্তি|

অভিজিৎদার মৃত্যু নিয়ে আগেও লিখেছি ও একটা id প্রায় খোয়াতে বসেছি| কাল আমার বেশ নতুন ফেসবুক বন্ধুর পোস্টে একটি কমেন্ট করাতে আবার এই প্রসঙ্গ উঠে এলো| তাকে বললাম অভিজিৎদার মৃত্যু চক্রান্ত আমার ধারণা| আপনাকে ট্যাগ করে লিখবো? নিতে পারবেন? বন্ধু অনুমতি দিল লিখতে, আর তাই লিখছি|

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর