নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • রক্স রাব্বি
  • সাহাবউদ্দিন মাহমুদ
  • আদনান বিন সাবিত

নতুন যাত্রী

  • ফারজানা কাজী
  • আমি ফ্রিল্যান্স...
  • সোহেল বাপ্পি
  • হাসিন মাহতাব
  • কৃষ্ণ মহাম্মদ
  • মু.আরিফুল ইসলাম
  • রাজাবাবু
  • রক্স রাব্বি
  • আলমগীর আলম
  • সৌহার্দ্য দেওয়ান

আপনি এখানে

ব্লগসমূহ

নেই কিন্তু আছে!


প্রতিদিন যাচ্ছি গণজাগরণ আন্দোলনে, ভাবছি গণজাগরণ নিয়ে; ভাল লাগছে দুটোই। যুদ্ধ অপরাধীদের ফাঁসির দাবীতে গণজাগরন এক অপার বিস্ময় কিন্তু এক দারুন বাস্তবতা। কাজের। অকাজের আন্দোলন-সমাবেশ এদেশে অনেক হয়েছে,হচ্ছে ও হবে। ঐতিহাসিক বলে বিশেষণ আরোপ করে তাতে রঙ চড়ানো হলেও সেসব কখনোই জন-স্মৃতিতে কালোত্তীর্ণ হয়নি। কেননা সেসব আন্দোলন-সমাবেশে তেমন উপাদানই খুঁজে পাওয়া যায়নি। দলের ধ্বব্জাধারী নেতা, তাদের চেলা, অন্ধ সমর্থক আর ভাড়া করা সমাবেশকারীদের নিয়েই হয়েছে নব্বই’য়ের গনআন্দোলন পরবর্তী সকল সমাবেশ।

pic-1

কাদের মোল্লার রায়, তা নিয়ে আন্দোলন এবং আমার প্রতিক্রিয়া


বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের অন্যতম নির্বাচনী ইশতেহার দিয়েছিলো চিহ্নিত যুধাপরাধীদের বিচার করা এবং এটির উপরে ভিত্তি করে চল্লিশ বছর ধরে অপেক্ষমান বাঙালি জাতি এবং এই প্রজন্মের তরুন সমাজ ভোটের মাধ্যমে তাদের রায় দেয়।

মহাজোট ক্ষমতায় এসে প্রথম সংসদ অধিবেশনে যুদ্ধাপরাধের বিচারের বিল প্রস্তাব করে এবং সেটি পাশ হয়।এরপর শুরু হয় ট্রাইব্যুনাল গঠন প্রক্রিয়া থেকে শুরু করে অন্যান্য কাজ।

প্রতিবাদী বাঙ্গালী, প্রতারক বাঙ্গালী... আবেগী বাঙালী


বাঙালী কেমন জাতি? আবেগী? বোকা? প্রতারক? স্বার্থপর? পরোপকারী? প্রতিবাদী? সাম্প্রদায়িক? স্বার্থপর? নাকি ভন্ড? প্রশ্নটিই আসলে ঠিক না। জাতির কোনো “বিশেষন” থাকতে পারেনা।“বিশেষন” থাকে মানুষের। যেহেতু একই বৈশিষ্ট্যপূর্ন কিছু মানুষ নিয়েই একটি জাতিসত্ত্বা গঠিত হয় তাই আমরা প্রতিটি জাতিকেই একটি বিশেষন দিয়ে দিই। যেমন চায়নারা “বুদ্ধিমান টেকিচোর” ; জাপানিরা কর্মঠ, জার্মানরা মেশিন, পাকিস্তনীরা লুইচ্চা(গুগল এর পর্নো সাইট ব্রাউজের র‍্যাংকিং এ প্রথম)। আমরা কি? আমরা কেমন?

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রতিকূল স্রোতের যাত্রী


আজ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের গেইটের সামনে কৃঞ্চচূড়া গাছের বেদীকে 'প্রজন্ম চত্বর' নাম দিয়ে শাহবাগের আন্দোলনের সাথে আনুষ্ঠানিক একাত্নাতা ঘোষণা করল ইবির সাধারণ ছাত্রছাত্রী।প্রায় চার ঘন্টা স্লোগান আর গণসংগীতে সোচ্চার ছাত্রছাত্রীরা রাজাকারদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতসহ,জামাত-শিবিরের রাজনীতি আইন করে বন্ধের দাবী জানায়।কোন দলীয় ব্যানার নেই,কোন সাংগঠনিক ব্যানার নেই। যে বিশ্ববিদ্যালয়ে হাজার খানেকের মত
শিবিরকর্মী যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধে ট্রাইব্যুনাল বাতিল করা দাবি জানিয়ে প্রতিদিন শোডাউন করে,সেখানে ২০জনের মত সাহসী ছাত্র হাত পায়ের রগ বাজী রেখে যুদ্ধাপরাধীর বিচারের দাবী তোলে।স্যালূট তাদের প্রতি।এই

আমরাও আছি।


আপনি প্রেমে পরার ব্যাপারে ডেল স্টেইন কিংবা ব্রেট লি এর গতিতে এগোবেন নাহ,রুবেলের ওভারের ন্যায় কমসেকম দুইটা স্লোয়ার দেন।পরিস্থিতি বুজে যাবেন।যদি দেখেন মেয়েটা ভালো কিন্তু এঙ্গেজড আপনি ম্যাথু হেইডেন এর ন্যায় তাকে স্লেজ করবেন নাহ,মাশরাফির ন্যায় ব্যক্তিত্ত্ববান হোন,প্রেমের মাঠেও।শোয়েব আক্তারের মত হুমকি ধামকিগুলো আপনি মুশফিক এর ছক্কার ন্যায় মাঠের বাইরে পাঠান।ভালবাসার ব্যাপারে শেন ওয়ার্নের ন্যায় এক বিয়ে এক প্রেমিকা নয় বরং সাকিব আল হাসানের ন্যায় এক প্রেম এক বিয়ে আপনার জীবনকে সুন্দর করবে বলে আমার বিশ্বাস।আপনি যদি প্রেমিকার কাছ থেকে ব্যাথা পান তাহলে নাসির হোসেনের ন্যায় ব্যাটিং করার সময়

মিডিয়া মাফ দিও.........


আমি আমার দেশের মিডিয়া গুলোকে গাইল দিতাম।তাদেরকে বলতাম চিটার।কারন তাদের পক্ষপাত মূলক সংবাদ পরিবেশনকে দায়ী করতাম।খাটো করে দেখতাম তাদের মানসিকতাকে।আরো ব্যাপার ঘাটতাম তাদের ফলোআপ বিষয় গূলোকে।সবচেয়ে বড় বিরক্তিকর আর গাঁজাখূরি লাগতো টক-শো।আর মানুষের ফোন দেওয়াকে ভাবতাম ট্যাকা-পয়সার আপচয়।আর তাদের বুদ্ধিহীন বেকারও ভাবতাম।আমার এক বন্ধু দেশের বাইরে থাকায় সে আমাকে বলত,দেশী ব্লগের ব্লগাররা ফাঊল।বিদেশী ব্লগারদের গুলা নাকি শিখার অনেক কিছু আসে।আমি তারে কইলাম,"বিদেশীরা তোরে এত কিছু কেমনে শিখায়???????ামি তো পুরা অবাক!!!!!!!!!!!!!

জাতীয় স্বার্থে ব্লগার অনলাইন এক্টিভিস্টের পক্ষ থেকে শাহবাগের ঘোষনা এবং সাত দফা দাবি উত্থাপন


যেহেতু ১৯৭১ এ মহান মুক্তিযুদ্ধ আমাদের জাতি ও রাষ্ট্রের মৌলিক ভিত্তি এবং যেহেতু মুক্তিযুদ্ধে ত্রিশ লক্ষ শহীদ এবং দুই লক্ষ নির্যাতিত নারীর জীবনের বিনিময়ে এই স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে এবং যেহেতু এই মুক্তিযুদ্ধে পাকিস্তানী বাহিনীর সক্রিয় সহযোগী হিসেবে গণহত্যা ও ধর্ষণ সহ সকল মানবতাবিরোধী অপরাধে জামাতে ইসলামী এবং তৎকালীন ইসলামী ছাত্র সংঘ (বর্তমানে ইসলামী ছাত্র শিবির) সক্রিয়ভাবে যুক্ত থেকেছে এবং যেহেতু স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিক বহুবছর এই মানবতা বিরোধী অপরাধের ন্যায় বিচার থেকে বঞ্চিত থেকেছে এবং যেহেতু বর্তমান মহাজোট সরকার এই মানবতা বিরোধী অপরাধের বিচার করবে এই মর্মে প্রতিশ্রুতি দিয়ে নিরংকুশ সংখ্যগরিষ্

**///প্রিয়-অপ্রিয় সত্য ,সাথে কিছু অর্থহীন দুর্বা ঘাস///**


ব্যস্ত রাজপথ । দুপুরের সূর্য মাথার উপর উত্তাপের অভিশাপ বর্ষন করছে ।

''শাহবাগ যাবেন চাচা???''

মাথার উভমূখী দুলুনিতে সম্মতির আভাস পেলাম । উঠে পড়লাম । কিছু সংখক ছিদ্র ওয়ালা একটা জামা পরনে চাচার। বয়স আনুমানিক পন্ঞ্চাশোর্ধ।
অতি স্বাভাবিক দৃশ্য । অবাক হওয়ার কিছু নাই । হঠাৎ ভারি ভাঙ্গা কন্ঠস্বরে চাচা বলে উঠল ''বাবা আফনে কি লিখাপড়া করেন?'' উত্তর দিলুম ''জী চাচা পড়াশুনা করতাছি'' ।
''তা বাবা শাহবাগ এ কি আন্দোলনে যাইতাছেন?"' প্রত্যুত্তরে শুধু 'হ্যা' বল্লাম ।
গন্তব্যস্থলে পৌছে ভাড়া মিটানোর জন্য মানিবাগ হাতড়ালাম । টাকা গুনে দিতে যেয়ে দেখি চাচা ইতোমধ্যে চলে গেছেন রিক্সা ঘুরিয়ে ।

শাহবাগের আগুন ছড়িয়ে পড়েছে সারা বিশ্বে


আমার প্রিয় শাহবাগ ছড়িয়ে পড়েছে টরন্টো, টোকিও, লন্ডন, নিউ ইয়র্কে, রোমে, ষ্টকহোমে, সিডনি, ব্রাসেলসে...। যেখানে বাঙালি, সেখানেই আজ ছড়িয়ে পড়েছে আন্দোলনের আগুন। ফেইস বুকে প্রবাসী বাঙালিরা ৩৪৫ খুনের কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী কসাই কাদের মোল্লার অপ্রত্যাশিত রায়ের তীব্র নিন্দা, ঘৃণা, ক্ষোভ, প্রতিবাদের ঝড় তুলেছে। তীব্র শীতের খারাপ আবহাওয়া উপেক্ষা করে নেমে এসেছে রাস্তায়!

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর