নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 10 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • আমি অথবা অন্য কেউ
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • ড. লজিক্যাল বাঙালি
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • রুদ্র মাহমুদ
  • রাজিব আহমেদ
  • তায়্যিব
  • রুবেল হোসাইন
  • দিন মজুর

নতুন যাত্রী

  • নবীন পাঠক
  • রকিব রাজন
  • রুবেল হোসাইন
  • অলি জালেম
  • চিন্ময় ইবনে খালিদ
  • সুস্মিত আবদুল্লাহ
  • দীপ্ত অধিকারী
  • সৈকত সমুদ্র
  • বেলাল ভুট্টো
  • তানভীর আহমেদ মিরাজ

আপনি এখানে

ব্লগসমূহ

ব্রিটিশদের একটি ভুলের খেসারত, আজও দিতে হচ্ছে আরাকানের রোহিঙ্গা মুসলমানদের।


ব্রিটিশদের একটি ভুলের খেসারত, আজও দিতে হচ্ছে আরাকানের রোহিঙ্গা মুসলমানদের।

আরাকান, বর্তমান নাম রাখাইন। আরাকানবাসীর সঙ্গে এ দেশের ছিল নিবিড় সম্পর্ক। তা হাজার বছরের অনেক আগের কথা। ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দে উপমহাদেশ বিভাগের আগ পর্যন্ত আত্মীয়তা ব্যবসা-বাণিজ্য যোগাযোগের মাধ্যমে নানাবিধ সম্পর্ক এ সখ্য বিরাজমান ছিল।

একটি স্বেচ্ছামৃত্যু ও তার অযাচিত আলোচনা


একটি স্বেচ্ছা-মৃত্যু সবার মাঝে আলোড়ন সৃষ্টি করে। আর সেই মৃত্যুটা যদি হয় প্রেম ঘটিত কারণে, তবে হৈ হৈ রৈ রৈ শুরু হয়ে যায়। একদল ছুটে যায় মেয়েটির জাত উদ্বার করতে, আরেকদল ছুটে ছেলেটির জাত উদ্ধার করতে। জেনে না জেনে শুরু হয় এক মহাযুদ্ধ। দলে দলে যোগ দেয় ‘অ-চেতনাধারীরা’ সেই যুদ্ধে (‘অ-চেতনাধারী’ হলো তারা; যাদের চেতনা যেখানে প্রয়োজন সেখানে কাজ না করে, যেখানে প্রয়োজন নেই সেখানে কাজ করে) ।

অবিশ্বাসীর মনস্তত্ত্বঃ দ্বিতীয় পরিচ্ছেদ (১)


যে মুখে হীনমন্যতা দূর করার কথা বলে, উদারতা-মানবিকতার জয়গান গায়, সে কী করে ধারণ করে তীব্র ঘৃণা আর হীনমন্যতা আর উদ্ধত অহংকার?

আপনি কি তা-ই করেন, যা আপনি বলেন?

গোলাম আজম ভাষা সৈনিক ছিলেন না বরং বাংলা ভাষার বিরোধীতা করেছিলো


ভাষা আন্দোলনের চূড়ান্ত বিকাশ ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি হলেও মূলত এর সূত্রপাত হয় ১৯৪৭ সালের সেপ্টেম্বর মাসে সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ' তমুদ্দুন মজলিস ' এর মাধ্যমে এবং প্রথম প্রবল রাজনৈতিক আন্দোলন হয় ১৯৪৮ সালে।

মন


মন (English : Mind) দর্শনশাস্ত্রের একটি অন্যতম কেন্দ্রীয় ধারণা। মন বলতে সাধারণভাবে বোঝায় যে, বুদ্ধি এবং বিবেকবোধের এক সমষ্টিগত রূপ যা চিন্তা, অনুভূতি, আবেগ, ইচ্ছা এবং কল্পনার মাধ্যমে প্রকাশিত হয়। মন কি এবং কিভাবে কাজ করে সে সম্পর্কে অনেক রকম তত্ত্ব প্রচলিত আছে। এসব তত্ত্ব নিয়ে চিন্তা-ভাবনা শুরু হয়েছে মূলতঃ প্লেটো, অ্যারিস্টটল এবং অন্যান্য প্রাচীন গ্রীক দার্শনিকদের সময়কাল থেকে।

জড়বাদী দার্শনিকগণ মনে করেন যে, মানুষের মনের প্রবৃত্তির কোন কিছুই শরীর থেকে ভিন্ন নয়। বরং মানুষের মস্তিষ্ক থেকে উদ্ভূত শারীরবৃত্তিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে মন গড়ে উঠে।[১]

মানবতা যখন ধর্ষকের শিশ্নের ডগায়


একজন মানুষ আক্রন্ত হলে সে নিজেকে বাঁচাতে ওই মুহূর্তে কী করতে পারে তা আমি আপনি বলে দিতে পারি না। আমাকে কেউ ধর্ষণ করতে আসলে আমি অবশ্যই সর্বোচ্চ চেষ্টা করব তাকে প্রতিরোধ করার, এতে তার বিচি গেল না দণ্ড গেল সেটা নিয়ে ভাবতে যাব না। ধর্ষকের লিঙ্গ যেমন গুরুত্বপূর্ণ আমারটাও গুরুত্বপূর্ণ। কিন্তু সারওয়ার সাহেবেরা মনে করেন, আর যাই করো ধর্ষকের লিঙ্গ মেরামোত অযোগ্য করো না, এ বড় অমনাবিক।

কে সর্বাপেক্ষা উত্তম হবে?


★ সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হাদীছ শরীফ-এ ইরশাদ করেন,

“প্রত্যেক মুসলমান নর-নারীর জন্য (দ্বীনের অপরিহার্য শরীয়তী) ইলম অর্জন করা ফরয।

(বায়হাক্বী, মিশকাত, মিরকাত, লুময়াত, তা’লীকুছ্ ছবীহ্, শরহুত্ ত্বীবী, মোযাহেরে হক্ব, আশয়াতুল লুময়াত)

★ হাদীছ শরীফ-এ বর্ণিত রয়েছে, সাইয়্যিদুল মুরসালীন, ইমামুল মুরসালীন, খাতামুন্ নাবিয়্যীন হুযূর পাক ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, “ইলম দু’প্রকার-

(১) ক্বল্বী ইলমে অর্থাৎ ইলমে তাছাউফ। আর এটাই মূলতঃ উপকারী ইলম।

ধর্ম,রোহিঙ্গা এবং ইত্যাদি (২য় পর্ব)


দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধকালীন সময়ে হিটলার লক্ষ লক্ষ ইহুদি হত্যা করার পর কেউ ইহুদিদের সাহায্য করতে এগিয়ে আসেনাই।কেউ সেদিন বলেনাই যে,তাদের হত্যা করা উচিৎ নয়,কেউ বলেনাই যে,তারা মানুষ। অমানবিক ভাবে জাতিগত নিধন কার্যে যখন হিটলার বাহিনী ইহুদিদের হত্যায় নেমেছিল, তখন অনেক মুসলিম দেশ প্রকাশ্যে অথবা পর্দার আড়ালে হিটলারকে সমর্থন করেছিল। ইহুদিদের করুণ অবস্থায় মুসলিমরা আনন্দ -উল্লাস করেছিল।

পৃষ্ঠাসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর