নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • ফারজানা সুমনা
  • মিনহাজ

নতুন যাত্রী

  • অরুণাভ দে
  • পাহাড়ের উপমানুষ
  • পুরানো ঘড়ি
  • স্বর্ণ সুমন
  • হেজিং
  • মং চিং প্রু
  • প্রলয় দস্তিদার
  • ফারিয়া রিশতা
  • চ্যাং
  • রাসেল আহমেদ

আপনি এখানে

ব্লগসমূহ

বাংলা সিনেমা ‘অজ্ঞাতনামা-The Unnamed(2016)’।



কেফায়েত উদ্দিন প্রামাণিক এর সন্তান হারানো হতবিহবল আবহ আর গান (‘আমার সোনা জাদুর মুখ জগতের সবচেয়ে সুন্দর আমার সোনা জাদুর কথা জগতের সবচেয়ে মধুর’) আপনার মনে গেঁথে থাকা বহু দিনের পুরনো কোন প্রবাসী ও তার বাবার ঘটনাকে মনে করিয়ে দেবে।

আজ বিভীষিকাময় ভয়াল ২৪ এপ্রিল শ্রমিক হত্যার ৪ বছর


রানা প্লাজার ভবনকে ঝুকিপূর্ণ ভবন হিসেবে ঘোষণা করা হলেও ঘটনার দিন জোর পূর্বক শ্রমিকদের কাজে বাধ্য করা হয়েছিলো কাজ না করলে ভয় দেখানো হয়েছিলো চাকুরিচ্যুতের।

শিলালিপি


মাই লাইফ, মাই চয়েজ !


দীপিকা পাডুকোন এর মাই চয়েস ভিডিওটি নিয়ে বলার আসলে খুব বেশি কিছু নেই। ইতোমধ্যেই সবাই কয়েকবার করে দেখে ফেলেছে ভিডিওটি। এই ভিডিওটির উদ্যোক্তা ভোওগ ইন্ডিয়া নামের একটি ফাশন ও লাইফ স্টাইল ম্যাগাজিন।
মূল কথায় আসি। মাই চয়েস ভিডিওটির প্রতিপাদ্য হলঃ আমার শরীর, আমার মন, আমার ইচ্ছা। অথর্াৎ আমার জীবনের সিদ্ধান্ত শুধুই আমার।

চরিত্রহীন সরকার


আর এই অমিলটাই হচ্ছে শেখ হাসিনার চরিত্র; এটাকে কেউ রাজনৈতিক পটুতা হিসেবে ইতিবাচক হিসাব করলে ভুল হবে; এটা ভাউতাবাজি, ধাপ্পাবাজি,পল্টিবাজি হিসেবেই নিতে হবে। হেফাজতে ইসলামের একটা রাজনৈতিক চরিত্র আমরা ধরতে পারি; এরা মৌলবাদি... কিন্তু ধাপ্পাবাজ সংগঠন কিংবা ভাউতাবাজি , পল্টিবাজি করা সংগঠনের মৌলিক চরিত্র নেই, শাসনের গদিতে আরামে বসে থাকতে এরা চরিত্র বদলায়,
রাজনৈতিকভাবে এরা চরিত্রহীন।

বিদ্রোহী সাঁওতালের ললাটে পরাধীনতার রাজটিকা;আর কতকাল ?


বৃটিশ শাসনআমলের অগ্রভাগে ভারতীয় উপমহাদেশে আর্যগণিত কোন সুসভ্য জাতিই শক্তিশালী ঔপনিবেশিক শক্তির বিরুদ্ধে অস্ত্র উঠানোর সাহস পায়নি। সাঁওতাল বীর বাবা তিলকা মাঝি (মুরমু) ও তাঁর সৈন্যবাহিনী সে সাহস প্রথম দেখিয়েছিল ১৭৭১-১৭৮৪ খ্রিষ্টাব্দে নিজ ভাষা, মাতৃভূমি ও স্বাধীনতার জন্যে সংগ্রাম করে। বীর তিলকার বিদ্রোহের মাধ্যমে ব্রিটিশরা সাঁওতালদেরকে চিহ্নিত করে উপমহাদেশের একমাত্র সজাগ শত্রুু হিসেবে। সাঁওতালদের আন্দোলনকে চিরতরে স্তব্ধ করে দেবার জন্যে তারা অভিনব, আকর্ষণীয় ও লোভনীয় মরণ ফাঁদ তৈরি করেন। শুরুর দিকে সাঁওতালরা সেই ফাঁদে পা না দিলেও বৃটিশরা ছলে বলে কৌশলে সাঁওতালদের কে সে টোপ গিলাতে বাধ্য করে। স্বাধীণ ভারতে অপরাপর ভারতীয় জাতিরা তাই উন্নতির শিখরে পৌঁছালেও সাঁওতালরা আজও অণগ্রসর জীবন-যাপণ করছে। মরণ ফাঁদের মায়াচ্ছন্ন পরিবেশের নাগপাঁশ থেকে নিজেদের কে তারা মুক্ত করতে পারছে না। সাঁওতালদের নিজস্ব কৃষ্টি, গণতান্ত্রিক বিচার পদ্ধতি, ধর্মীয় শক্তি ও মনোবল সব আজ ধোঁয়াশার কুন্ডলীতে আবদ্ধ। সেই মরণ ফাঁদটি কি ছিল ? কেনইবা বৃটিশরা এই ফাঁদটি প্রস্তুত করতে বাধ্য হয়েছিলেন। এই প্রবন্ধে একজন সচেতন সাঁওতাল হিসেবে সে সত্যটুকু তুলে ধরার প্রায়াশ করছি মাত্র।

মুহম্মদের ঐতিহাসিকতা ও ঐতিহাসিক মুহম্মদ, পর্ব-১৪


এখন এই সবকিছুর অর্থ কি? নবী মুহম্মদ কি প্রকৃতই ছিলেন ছিল নাকি তিনি শুধুই পরবর্তীকালের কল্পনা? স্বীকার করতেই হবে আমরা নির্দিষ্টভাবে কিছুই জানি না। তবে যে ব্যাপারে নিস্চিত হওয়া যাচ্ছে তা হল ইসলামী বিবরণের অনির্ভরযোগ্যতা। নবী মুহম্মদের যদি অস্তিত্ব থেকেও থাকে তার ব্যাপারে আমরা প্রচলিত বিবরণ থেকে যা কিছু জানতে পারছি সবই প্রায় অতিকথন।

হে কুকুর, তোমরা ধর্ম ছেড়ে জঙ্গলে যাও


বাংলাদেশে এখন পশুদের সংখ্যা বাড়ছে নাকি আগে থেকেই যে-সব পশু ছিল তারা ক্রমশঃ ক্ষিপ্ত হচ্ছে? আমার মনে হয় দুটোই হতে পারে। কিন্তু এই দেশ তো পশুদের জন্য নির্মাণ করা হয়নি। ৩০লক্ষ তাজাপ্রাণের বিনিময়ে এই দেশটাকে স্বাধীন করা হয়েছে। হ্যাঁ, মনে রাখবেন: এখানে শুধু মানুষেরাই রক্ত দিয়েছে। আর পশুরা শুধু মানুষের রক্তই ঝরিয়েছে। কোনো পশু তো এই দেশের জন্য কোনোকিছু করেনি। তবে চারিদিকে আজ কেন পশুদের এই আস্ফালন?

ধর্ম ব্যবসা প্রাচিন কালের অভ্যাস


ধর্ম কে ব্যবসী হাতির হিসাবে ব্যবহার করা হচ্ছে প্রাচিন কাল থেকে যেমন রোমান-বাজায়েনটইনরা ইসলাম আসার আগে থেকে শুরু করেছে।যদি ইতিহাসের প্রতি চোখ রাখেন,দেখবেন সে সময় আরবের বেদুইনেরা ব্যবসা বানিজ্য করতেন রোমানদের সাথে বাজায়েইনটদের সাথে। আর রোমান-বাজায়েইনটরা নিজেদের সুবিধা অনুযায়ী খ্রিষ্টান ধর্মকে সাজিয়েছেন।তারা বাহির করেছেন নতুন নতুন বাইবেল সংস্করন। জিসু খ্রিষ্টের রকোমারি মূর্তিতে গড়ে তুলেছিলেন তাদের সব শহর গুলো।যদি আরেকটি পিছনে ফিরে যায় দেখা যাবে মিশরের ফেরাউনেরাও ধর্ম ব্যবসা করতেন তবে তার একটু ভিন্ন ধরন ছিল। তারা নিজেদের ঈশ্বর দাবি করতেন আর নিজেদের মধ্যে প্রতিযোগিতা করে গড়ে তুলতেন নিজে

পাহাড়ের ষড়যন্ত্র



কয়েকদিন যাবৎ মিডিয়ায় রোমেল চাকমার মৃত্যু নিয়ে ব্যাপক আলোচনা।সেই ইস্যুতে বাংলাদেশের একমাত্র গর্ব বাংলাদেশ সেনাবাহিনী নিয়ে ফেসবুক এবং ব্লগে ভিনদেশিদের দালালেরা এমন এমন কথা বলছে যার কারণে গায়ে সইলো না তাই এই লেখা লিখতে বসলাম।

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর